নাসরীন জাহান রত্না

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মাননীয় সংসদ সদস্য
নাসরীন জাহান রত্না
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মবরিশাল
নাগরিকত্ববাংলাদেশ
জাতীয়তাবাংলাদেশী
রাজনৈতিক দলজাতীয় পার্টি
পেশারাজনীতি

নাসরীন জাহান রত্না বাংলাদেশের রাজনৈতিক দল জাতীয় পার্টির একজন রাজনীতিক এবং বাংলাদেশের দশম জাতীয় সংসদের একজন সংসদ সদস্য।[১]

জীবনী[সম্পাদনা]

নাসরীন জাহান রত্না আনুষ্ঠানিক শিক্ষায় শিক্ষিত হন নি বরং গৃহশিক্ষায় শিক্ষিত। তার জন্ম বরিশালে[২] তিনি ২০০৪ খ্রিষ্টাব্দে বাকেরগঞ্জ পৌরসভার চেয়ারপার্সন নির্বাচিত হন।[৩] ২০০৬ সালে অনুষ্ঠেয় বরিশাল-৬ আসন থেকে তার মনোনয়নপত্র বাতিল করে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন। তিনি নির্বাচন কমিশনের ২০ ডিসেম্বর ২০০৬ এর সিদ্ধান্তের উপর আপীল করেন। [৪] হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ তাকে জাতীয় পার্টির সভাপতি নির্বাচন করেন এবং তাকে সাধারণ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে নির্বাচনে প্রার্থীতার জন্য সুযোগ দেন।[৫] তিনি জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে সংসদে ৪৫ সংরক্ষিত আসনের একটিতে জয়লাভ করেন ১৯ মার্চ ২০০৯ এ। [৬] তিনি বর্তমানে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য। [৭]

বিতর্ক[সম্পাদনা]

নাসরীন জাহান রত্না ২৫ আগস্ট ২০০৯ খ্রিষ্টাব্দে বদরগঞ্জ মিউনিসিপালিটিতে একটি বাজারের নামকরণ সাদেক আলী হাওলাদারের নামে বাজারের নামকরণ করার পর বিতর্কের মধ্য দিয়ে গিয়েছেন। সাদেক আলী হাওলাদার ছিলেন পাকিস্তানীদের রাজাকার মিলিশিয়া এবং বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ সংগ্রামকালীন যুদ্ধপরাধে অভিযুক্ত। তিনি হিন্দু সম্প্রদায়ের বিপক্ষেও অপরাধে অভিযুক্ত। আবার যে বাজারটি নির্মাণ করা হয়েছিল সেটি হিন্দু জনগণের জমি দখল করে তার উপর নির্মিত হয়েছিল।[৮]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

নাসরীন জাহান রত্না ব্যক্তিগত জীবনে রুহুল আমিন হাওলাদারের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ। তার স্বামীও জাতীয় পার্টি থেকে নির্বাচিত একজন সংসদীয় সদস্য এবং একই সাথে জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক।[৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "List of 10th Parliament Members English"parliament.gov.bd (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৪ নভেম্বর ২০১৭ 
  2. "Nasrin Jahan Ratna"election.dhakatribune.com। ১৪ নভেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ নভেম্বর ২০১৭ 
  3. "AL bags more seats than ruling alliance"archive.thedailystar.net। The Daily Star। সংগ্রহের তারিখ ১৪ নভেম্বর ২০১৭ 
  4. "Ershad appeals to confront rejection"archive.thedailystar.net। The Daily Star। সংগ্রহের তারিখ ১৪ নভেম্বর ২০১৭ 
  5. "JP names its women"bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ১৪ নভেম্বর ২০১৭ 
  6. "45 woman MPs elected"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০ মার্চ ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ১৪ নভেম্বর ২০১৭ 
  7. "JS body wants rural working women's dorms"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ১৫ জানুয়ারি ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১৪ নভেম্বর ২০১৭ 
  8. Islam, Rafiqul (২৬ আগস্ট ২০০৯)। "Lawmaker opens bazaar after Razakar's name"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৪ নভেম্বর ২০১৭ 
  9. "All but 35 MPs did it"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১৪ নভেম্বর ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]