নাকতা হাঁস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

নাকতা হাঁস
Sarkidiornis melanotos
Amerikanische Höckerglanzgans Sarcidiornis sylvicolor 05 (1).jpg
পুরুষ S. m. sylvicola
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Animalia
পর্ব: কর্ডাটা
শ্রেণী: পক্ষী
বর্গ: Anseriformes
পরিবার: Anatidae
উপপরিবার: Tadorninae or Anatinae
গণ: Sarkidiornis
Eyton, 1838
প্রজাতি: S. melanotos
দ্বিপদী নাম
Sarkidiornis melanotos
(Pennant, 1769)
Sarkidiornis melanotos distribution.png
Global range
প্রতিশব্দ

Anser melanotos Pennant, 1769

নাকতা হাঁস (বৈজ্ঞানিক নাম: Sarkidiornis melanotos), বোঁচা হাঁস বা শুধুই নাকতা Anatidae (অ্যানাটিডি) গোত্র বা পরিবারের অন্তর্গত Sarkidiornis (সার্কিডিওর্নিস) গণের অন্তর্ভুক্ত এক প্রজাতির বড় আকারের হাঁস।[২][৩] পাখিটি বাংলাদেশ, ভারত ছাড়াও দক্ষিণ আমেরিকা, আফ্রিকা এবং দক্ষিণদক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বিভিন্ন দেশে দেখা যায়। নাকতা হাঁস বৈজ্ঞানিক নামের অর্থ নাকওয়ালা কালোপিঠ (গ্রিক: sarx = মাংসল উপাঙ্গ, ornis = পাখি, melas = কালো, notos = পিঠের)।[৩] সারা পৃথিবীতে এক বিশাল এলাকা জুড়ে এরা বিস্তৃত, প্রায় ২ কোটি ৮২ লক্ষ বর্গ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে এদের আবাস।[৪] বিগত কয়েক দশক ধরে এদের সংখ্যা ক্রমেই কমছে, তবে এখনও আশঙ্কাজনক পর্যায়ে যেয়ে পৌঁছেনি। সেকারণে আই. ইউ. সি. এন. এই প্রজাতিটিকে ন্যূনতম বিপদগ্রস্ত বলে ঘোষণা করেছে।[১] বাংলাদেশের বন্যপ্রাণী আইনে এ প্রজাতিটি সংরক্ষিত।[৩]

নাকতা হাঁস একপ্রজাতিক, অর্থাৎ এটি সার্কিডিওর্নিস গণের একমাত্র প্রজাতি। অবশ্য কোন কোন পক্ষীবিদ বিলুপ্ত মরিশীয় চখাকে (Alopochen mauritianus) ভুল করে মরিশীয়া বোঁচা হাঁস বলে অভিহিত করেন। এই ভুলটি ১৮৯৭ সালেই চিহ্নিত করা হয়েছিল,[৫] কিন্তু সাম্প্রতিক উৎসগুলোতে এ ভুলটির পরিমাণ এখনও যথেষ্ট প্রকট।

স্ত্রী নাকতা হাঁস

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Sarkidiornis melanotos"The IUCN Red List of Threatened Species। সংগ্রহের তারিখ ১৮ অক্টোবর ২০১৩ 
  2. রেজা খান (২০০৮)। বাংলাদেশের পাখি। ঢাকা: বাংলা একাডেমী। পৃষ্ঠা ১২০। আইএসবিএন 9840746901 
  3. জিয়া উদ্দিন আহমেদ (সম্পা.) (২০০৯)। বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ: পাখি, খণ্ড: ২৬। ঢাকা: বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি। পৃষ্ঠা ১৯–২০। 
  4. "Sarkidiornis melanotos"BirdLife International। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৯-১৮ 
  5. Andrews, C.W. (১৮৯৭)। "On some fossil remains of Carinate birds from central Madagascar"। Ibis7 (3): 343–359। doi:10.1111/j.1474-919X.1897.tb03281.x 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]