দামেস্ক বিশ্ববিদ্যালয়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
দামেস্ক বিশ্ববিদ্যালয়
جامعة دمشق
Damascus university internal view.jpg
দামেস্ক বিশ্ববিদ্যালয় ক্যম্পাস
প্রাক্তন নামসমূহ
সিরিয়া বিশ্ববিদ্যালয় (১৯২৩-১৯৫৮)
নীতিবাক্য"وَقُل رَّبِّ زِدْنِي عِلْمًا"
বাংলায় নীতিবাক্য
হে আমার পালনকর্তা, আমাকে জ্ঞান দান করুন(আল কুরআন , ২০:১১৪).
ধরনসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়
স্থাপিত১৯২৩ (মেডিকেল স্কুল ১৯০৩)
সভাপতিমোহাম্মদ হাসান আল কুর্দি [১]
শিক্ষার্থী২১০,৯২৯ জন [২]
স্নাতক১৯৭,৪৯৩ জন
স্নাতকোত্তর১৩,৪৩৬ জন
১,২১১ জন
অবস্থান,
শিক্ষাঙ্গনশহুরে
রঙসমূহ     রাসপবেরী [৩]
ওয়েবসাইটdamascusuniversity.edu.sy

দামেস্ক বিশ্ববিদ্যালয় (আরবি: جامعة دمشق‎‎, Jāmi‘atu Dimashq) সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কর একটি বৃহত্তম এবং প্রাচীনতম সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। এছারাও সিরিয়ার অন্যান্য শহরে দামেস্ক বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ক্যাম্পাস। ১৯২৩ সালে বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। তবে বিশ্ববিদ্যালয়টি ১৯০৩ সালে স্কুল অফ মেডিসিন এবং ১৯১৩ সালে আইন ইনস্টিটিউট হিসাবে কার্যক্রম পরিচালনা করত। ১৯৫৮ সাল পর্যন্ত এই বিশ্ববিদ্যালয়টির সিরিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় নামে ছিলো পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয়টি দামেস্ক বিশ্ববিদ্যালয় নামে নামকরণ করা হয়। সিরিয়ায় রয়েছে নয়টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এবং দশটিরও বেশী বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। এদের ভেতর দামেস্ক বিশ্ববিদ্যালয় সবচেয়ে নামকরা এবং প্রাচীন বিশ্ববিদ্যালয়।

দামেস্ক বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদ উচ্চ শিক্ষা ইনস্টিটিউট, অন্তর্বর্তী ইনস্টিটিউট এবং একটি স্কুল অব নার্সিং নিয়ে গঠিত। বিশ্ববিদ্যালয়টিতে আরবি ভাষা বিদেশীদের প্রশিক্ষণ করা হয়, যা বৃহত্তম আরব বিশ্বের আরবী ভাষা প্রতিষ্ঠান হয়।[৪]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

সিরিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরনো ক্যম্পাস

কোনও দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ইতিহাস ঐ দেশের ইতিহাসের অবিচ্ছেদ্য অংশ কারণ অতীতের ঘটনা এবং পরবর্তীকালে ইতিহাস একটি বড় ভূমিকা পালন করে দেশের শিক্ষা ক্ষেত্রে। সুতরাং আধুনিক সিরিয়ার ইতিহাস দামাস্কাস বিশ্ববিদ্যালয়ের অবিচ্ছেদ্য অংশ।

১৯০১ সালে দামাস্কাসের স্কুল অফ মেডিসিন প্রতিষ্ঠার অনুমোদন দেওয়া হয় এবং ১৯০৩ সালে এই স্কুলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামো চালু করা হয় । পরবর্তীতে স্কুলের ঔষধ ও ফার্মেসী একটি শাখায় অন্তর্ভুক্ত করা হয় এবং তুর্কি ভাষায় শিক্ষা প্রদান করা হয়।

১৯১৩ সালে বৈরুতে একটি আইন স্কুল চালু হয়, যার বেশিরভাগ শিক্ষক আরব দেশী ছিল এবং শিক্ষার ভাষা আরবি ছিল। ১৯১৪ সালে স্কুল অফ মেডিসিন বৈরুতে চলে যাওয়ার সাথে সাথে এই স্কুলটি ১৯১৪ সালেই দামাস্কাসে স্থানান্তর করা হয়। তারপর প্রথম বিশ্বযুদ্ধের শেষের বছরে আইন স্কুল বেইরুতে ফিরে আসে।

১৯১২ সালের জানুয়ারির প্রথম দিকে ইনস্টিটিউট অব মেডিসিন এবং পরবর্তীতে একই বছরের সেপ্টেম্বরে মাসে ল অফ দ্য দামাস্কাে খোলা হয়।

১৯২৩ সালে আইন ইনস্টিটিউটের নাম ঘোষণা করা হয় এবং এই ইনস্টিটিউটটি সিসিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে প্রতিষ্ঠানের মেডিসিন ইনস্টিটিউট, আরব সোসাইটি এবং আরবি হেরিটেজ কেন্দ্রের সাথে যুক্ত ছিল। তারপর আরব সোসাইটি এবং আরবি হেরিটেজ কেন্দ্র ১৯২৬ সালে প্রতিষ্ঠান থেকে পৃথক করে দেয়।

১৯২৮ সালে উচ্চতর সাহিত্য অধ্যয়ন স্কুল প্রতিষ্ঠিত হয় এবং এটি অবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে যুক্ত হয়। ১৯২৯ সালে এটি স্কুল অফ লেটারস গঠন করা হয় যা ১৯৩৫/১৯৩৬ সালে বন্ধ ছিল।

তারপর ১৯৪৬ সাল পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় এর মেডিসিন ও আইন ইনস্টিটিউটে সীমাবদ্ধ ছিল না বরং অন্যান্য অনুষদ ও উচ্চতর প্রতিষ্ঠান তৈরি করা হয়েছিল।

১৯৫৮ সালে সংযুক্ত আরব প্রজাতন্ত্রের উত্তর ও দক্ষিণ অঞ্চলে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ন্ত্রণের জন্য একটি নতুন আইন তৈরি করা হয়। এর ফলে "সিরিয়ান ইউনিভার্সিটির" নাম পরিবর্তন করতে "দামেস্ক বিশ্ববিদ্যালয়" এবং "অ্যালেপ্পো বিশ্ববিদ্যালয়" নামক দ্বিতীয় উত্তরাঞ্চলীয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার সৃষ্টি হয়।[৫]

১৯৫৯ সালে দ্য ফাইন আর্টস কলেজ দমাস্কাসে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ১৯৭২ সালে দামাস্কাস বিশ্ববিদ্যালয়ের অংশ হয়ে ওঠে। [৬][৭]

অনুষদ সমূহ[সম্পাদনা]

দামেস্ক বিশ্ববিদ্যালয় মানচিত্র

গ্রন্থাগার[সম্পাদনা]

দামেস্ক বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৯০৩ সাল থেকেই চিকিৎসা ব্যুরো লাইব্রেরি প্রতিষ্ঠিত হয়ে ছিলো। [৮] ২০১১ সালের হিসাব অনুযায়ী দামেস্কো বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রন্থাগারে ১৬৯,০০০ টি বই এবং ৩,৮৩০ টি বর্তমান সাময়িকী রয়েছে। [৯]

উল্লেখযোগ্য প্রাক্তন ছাত্র[সম্পাদনা]

চিত্রশালা[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "President of Damascus University"। Damasuniv.edu.sy। ২০১৫-০৮-২৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৮-২৫ 
  2. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১৪ জুলাই ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ নভেম্বর ২০১৮ 
  3. "Ř´Řšř§Řą اŮ"Řźř§Ů…Řšřš"। Damascusuniversity.edu.sy। ২০১৫-০৯-২৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৮-২৫ 
  4. Spender, Tom। "A new 'Mecca of Arabic studies'?"The Christian Science Monitor। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০০৭ 
  5. "Historical Background"। Damasuniv.edu.sy। ২০১৫-০৮-২৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৮-২৫ 
  6. Lloyd, Fran (১৯৯৯)। Contemporary Arab Women's Art: Dialogues of the Present। London: Women's Art Library। পৃষ্ঠা 82। আইএসবিএন 1 902770 005 
  7. Bloom, Jonathan; Blair, Sheila, সম্পাদকগণ (২০০৯)। The Grove Encyclopedia of Islamic Art and Architecture। New York: Oxford University Press। পৃষ্ঠা 261। আইএসবিএন 978-0-19-530991-1 
  8. Basima Bezirgan (১৯৯৪), "Near East since 1920", Encyclopedia of Library History, New York: Garland Pub., আইএসবিএন 0824057872, 0824057872 
  9. World Guide to Libraries (25th সংস্করণ), De Gruyter Saur, ২০১১ 
  10. telegraph

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]