দাজাইফু তেনমঙ্গু

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
দাজাইফু তেনমঙ্গু
太宰府天満宮
20100719 Dazaifu Tenmangu Shrine 3328.jpg
হন্ডেন বা প্রধান মন্দির
ধর্ম
অন্তর্ভুক্তিশিন্তৌ
শ্বরতেনজিন
অবস্থান
অবস্থান৪-৭-১, সাইফু, দাজাইফু
ফুকুওকা ৮১৮-০১৯৫
দাজাইফু তেনমঙ্গু জাপান-এ অবস্থিত
দাজাইফু তেনমঙ্গু
জাপানের মধ্যে প্রদর্শিত
ভৌগোলিক স্থানাঙ্ক৩৩°৩১′১৭″ উত্তর ১৩০°৩২′০৬″ পূর্ব / ৩৩.৫২১৩৯° উত্তর ১৩০.৫৩৫০০° পূর্ব / 33.52139; 130.53500স্থানাঙ্ক: ৩৩°৩১′১৭″ উত্তর ১৩০°৩২′০৬″ পূর্ব / ৩৩.৫২১৩৯° উত্তর ১৩০.৫৩৫০০° পূর্ব / 33.52139; 130.53500
স্থাপত্য
প্রতিষ্ঠার তারিখ905
ওয়েবসাইট
www.dazaifutenmangu.or.jp/other/index.htm

দাজাইফু তেনমঙ্গু' (太宰府天満宮) একটি হল শিন্তো মন্দির। এটি জাপানের ফুকোওকা প্রশাসনিক অঞ্চল এর দাজাইফুতে অবস্থিত। এটা মিশিগানে সুগাওয়ারা(৮৪৫-৯০৩) এর সমাধির উপর নির্মিত।এটি তেনজিন (মিশিগান এর দেবরূপ)কে নিবেদিত প্রধান মন্দিরগুলোর মধ্যে একটি।

কিংবদন্তি[সম্পাদনা]

কিংবদন্তি অনুসারে, মিশিগানে একজন মেধাবী ছাত্র ছিলেন ।যিনি তাঁর প্রিয় বরই গাছগুলিকে উত্সর্গীকৃত করে অনেকগুলি কবিতা রচনা করেছিলেন। [১] তিনি দেবতাদের অনুগ্রহ প্রাপ্ত এ কথা বলে মিশিগানে ফুজিওয়ারা বংশের ক্রোধের শিকার হয়েছিলেন ।তারা তাকে কিউশুতে নির্বাসিত করেছিল। [২] মিশিগানে তার নির্বাসিত জীবন পড়াশোনায় ব্যয় করেছিলেন ।তিনি ৫৭ বছর বয়সে পরলোক গমন করেন।

মিশিগানে মারা যাওয়ার পরে তাঁর দেহটি একটি গরু বহন নিয়ে গিয়েছিল এক বৌদ্ধ বিহারের কাছে । [২] দেহটি আর নিয়ে যেতে না পেরে মিশিগানেকে তাঁর অনুগামী উমাসা নো ইয়াসুয়ুকি তাঁকে সেখানে সমাধিস্থ করেন। সেখানে পরে সমাধি মন্দির নির্মিত হয়েছিল। সেই ঘটনার স্মরণে কাছে একটি গরুর মূর্তি তৈরি করা হয়েছে । [১] বলা হয় যে সমাধির অভ্যন্তরের বরই গাছটি মিশিগানের পরলোক গমনের পরে তার সাথে পুনরায় মিলিত হওয়ার জন্য কিয়োটো থেকে উড়ে এসেছিল। জাপানে এটি সর্বদা প্রথম ফোটা ফুলের গাছ ।

মিশিগানের পরলোক গমনের পরপরই মিশিগানের রাজ পরিবার ফুজিওয়ারা বংশের পাঁচ সদস্য মারা গিয়েছিল। দুর্গে বজ্রপাতের ফলে একজন মারা যান। [১][২] মিশিগানে এই প্রতিহিংসাপূর্ণ মনোভাবের জন্য তেনজিন হিসাবে পরিচিত। যখন কিয়োটোতে বিপর্যয় দেখা দেয় তখন একই রাজপরিবার মিশিগানেকে শান্ত করার লক্ষ্যে তার অবস্থান এবং পদমর্যাদা ফিরিয়ে দেয়। এর মধ্য দিয়ে তেনজিনের খ্যাতি সাহিত্য এবং শিক্ষার সাথে যুক্ত হয়।

মন্দিরের মাঠ[সম্পাদনা]

তবিউমে, একটি বরই গাছ
কান'ইন, হিয়ান আমল এবং একটি জাতীয় ট্রেজারের সাথে সম্পর্কিত নৃকুলবিদ্যা

মন্দিরের পূর্ব অংশটি ৩,০০০ একর (১২ কিমি) ও ৩,০০০ একর (১২ কিমি) জুড়ে রয়েছে এবং বেশ কয়েকটি কাঠামো এর অন্তর্ভুক্ত। হোনডেন বা প্রধান মন্দিরটি মিশিগানের মৃত্যুর দু'বছর পর ৯০৫ সালে ইয়াসুয়ুকি উমসা প্রথম নির্মাণ করেছিলেন।৯১৯ সালে ফুজিওয়ারা বংশ দ্বারা একটি বৃহত্তর মন্দির তৈরি করা হয়েছিল। তবে গৃহযুদ্ধের সময় আগুনে তা ধ্বংস হয়ে যায়। মোমোয়ামা- শৈলীর মন্দিরটি যা এখন দেখতে পাওয়া যায় তা ১৫৯১ [২] সালে তৈরি । এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ সাংস্কৃতিক সম্পত্তি । [৩]

মাঠে দুটি পুকুর, একটি সেতু এবং একটি ট্রেজার হাউস রয়েছে। [৪] একটি পুকুর হ'ল চিরাচরিত বাগানের শৈলী শিনজি আইকের অংশ। যার নামকরণ "হৃদয়" এর কানজি চরিত্রের সাথে সাদৃশ্য রেখে করা হয়েছে। [২]

তেনজিনকে উৎসর্গীকৃত প্রধান মন্দিরের পাশাপাশি এখানে রয়েছে আরও অনেক সহায়ক ও শাখা মন্দির ।যেগুলো অন্য কামিদের জন্য। [৫] সহায়ক মন্দির হন্ডেন একটি গুরুত্বপূর্ণ সাংস্কৃতিক সম্পত্তি। [৬]

মন্দিরটি ১৬৭ জাতের ৬,০০০ এশিয়ান বরই গাছের জন্যও পরিচিত। একটি বরই গাছ তবিউমে নামে পরিচিত।এটি হন্ডেনের ডানদিকে । কিংবদন্তি অনুসারে মিশিগানে কিওটো থেকে নির্বাসিত হওয়ার পর এ গাছের জন্য এত আকুল হন যে এই গাছটি কিয়োটো থেকে সমূলে উড়ে এসেছিল । [২][৭]

রন্ধনপ্রণালী[সম্পাদনা]

উমেগে মোচি (এক ধরণের রাইস কেক) এবং দাজাইফু তেনমঙ্গু মন্দিরের বালি।

মন্দিরের পথের পাশে দোকানে উমেগে মোচি (梅ヶ枝餅) বিক্রি করা হয়। এটি হল অজুকি শিমের কেক যা বরই গাছের ফুলের গুঁড়ো যুক্ত। [৮] এই খাবার মিশিগানের কিংবদন্তির সাথে জড়িয়ে আছে। কথিত আছে যে একজন প্রবীণ তত্ত্বাবধায়ক জ্যোমোনি মিশিগানের জন্য এটি প্রস্তুত করেছিলেন এবং মারা যাওয়ার সময় এটিকে উপহার হিসাবে দিয়েছিলেন। [২]

ধন-ভান্ডার[সম্পাদনা]

হ্যামোসুডেনে নিচের আইটেমগুলি রয়েছে:[৯]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

  • র‌্যাংকড শিন্তো মন্দিরের আধুনিক ব্যবস্থা
  • জাপানের জাতীয় কোষাগারের তালিকা (লেখাগুলি)
  • কিতানো টেনম্যান-গ
  • কমিয়োযেন-জি
  • কাঞ্জিওন-জি
  • জাপানের জাতীয় কোষাগারের তালিকা (রচনা: জাপানি বই)
  • জাপানের জাতীয় কোষাগারের তালিকা (লেখাগুলি: চীনা বই)
  • তিনটি দুর্দান্ত তেনজিন মন্দির
  • কিউশু জাতীয় জাদুঘর

মন্তব্য[সম্পাদনা]

  1. Powell, Steve John; Cabello, Angeles Marin (১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৪)। "Dazaifu dalliance reveals curious case of a plum-struck deity"The Japan Times Online (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জানুয়ারি ২০১৬ 
  2. Cali, Joseph; Dougill, Johin (২০১৩)। Shinto shrines a guide to the sacred sites of Japan's ancient religion। University of Hawai'i Press। পৃষ্ঠা 265–301। আইএসবিএন 9780824837754। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জানুয়ারি ২০১৬Project MUSE-এর মাধ্যমে। 
  3. "Database of Registered National Cultural Properties"Agency for Cultural Affairs। ৫ জানুয়ারি ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১১ 
  4. "Precinct"Dazaifu Tenmangu। ২০০৮-০৫-১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০৫-৩০ 
  5. "Other shrines"। Dazaifu Tenman-gū। ১৬ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১১ 
  6. "Database of Registered National Cultural Assets"Agency for Cultural Affairs। ৫ জানুয়ারি ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১১ 
  7. "Plum"Dazaifu Tenmangu। ২০০৮-০২-২৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০৫-৩০ 
  8. "Umegae Mochi | Event Information | Fukuoka Prefecture Sightseeing Information Crossroad Fukuoka"www.crossroadfukuoka.jp। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০১-১৪ 
  9. "宝物殿"太宰府天満宮। ২০০৮-০৫-২৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০৫-৩০ 
  10. "Database of Registered National Cultural Properties"Agency for Cultural Affairs। ৬ জানুয়ারি ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১১ 
  11. "National Treasures - Tenjin"Kyushu National Museum। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১১ 
  12. "Database of Registered National Cultural Properties"Agency for Cultural Affairs। ৫ জানুয়ারি ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১১ 
  13. "Database of Registered National Cultural Properties"Agency for Cultural Affairs। ৫ জানুয়ারি ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১১ 
  14. "Database of Registered National Cultural Properties"Agency for Cultural Affairs। ৫ জানুয়ারি ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১১ 
  15. "Database of Registered National Cultural Properties"Agency for Cultural Affairs। ৫ জানুয়ারি ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১১ 

বাহ্যিক লিঙ্কগুলি[সম্পাদনা]