জামিল আল-মিদফাই

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
জামিল আল-মিদফাই
Jamil Al-Madfai.jpg
১৪তম, ১৬তম, ১৯তম, ২৪তম ও ৩৯তম ইরাকের প্রধানমন্ত্রী
অফিসে
নভেম্বর ৯, ১৯৩৩ – আগস্ট ২৭, ১৯৩৪
মার্চ ৪, ১৯৩৫ – মার্চ ১৭, ১৯৩৫
আগস্ট ১৭, ১৯৩৭ – ডিসেম্বর ২৫, ১৯৩৮
জুন ৪, ১৯৪১ – অক্টোবর ১০, ১৯৪১
জানুয়ারি ২৯, ১৯৫৩ – সেপ্টেম্বর ১৭, ১৯৫৩
রাষ্ট্রশাসক গাজি
দ্বিতীয় ফয়সাল
পূর্বসূরী রশিদ আলি আল-কাইলানি (দুইবার)
আলি জাউদাত আল-আইয়ুবি
হিকমত সুলাইমান
নুরেদ্দিন মাহমুদ
উত্তরসূরী আলি জাউদাত আল-আইয়ুবি
ইয়াসিন আল-হাশিমি
নুরি আস-সাইদ (দুইবার)
মুহাম্মদ ফাদেল আল-জামালি
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম ১৮৯০
মসুল, ইরাক
মৃত্যু ১৯৫৯

জামিল আল-মিদফাই (জন্ম:১৮৯০ – মৃত্যু:১৯৫৮) (আরবি: جميل المدفعي‎‎) একজন ইরাকি রাজনীতিবিদ ছিলেন। পাঁচটি ভিন্ন মেয়াদে তিনি ইরাকের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন :

  1. নভেম্বর ৯, ১৯৩৩ – আগস্ট ২৫, ১৯৩৪
  2. মার্চ ১, ১৯৩৫ – মার্চ ১৬, ১৯৩৫
  3. আগস্ট ১৭, ১৯৩৭ – ডিসেম্বর ২৬, ১৯৩৮
  4. জুন ২, ১৯৪১ – অক্টোবর ১০, ১৯৪১
  5. জানুয়ারি ২৯, ১৯৫৩ – সেপ্টেম্বর ১, ১৯৫৩

জামিল আল-মিদফাই মসুল শহরে জন্মগ্রহণ করেন। প্রথম বিশ্বযুদ্ধে তিনি উসমানীয় সেনাবাহিনীতে দায়িত্ব পালন করলেও ১৯১৬ সালে তিনি আরব বিদ্রোহে অংশ নেয়ার জন্য পক্ষ ত্যাগ করেন। যুদ্ধের পর আমির ফয়সালের সংক্ষিপ্ত সিরিয়া শাসনের সময় তার সাহায্যার্থে কাজ করেন। ১৯২০ সালে তিনি ইরাকে ফিরে আসেন। ব্রিটিশ বিরোধী জাতীয়তাবাদী কর্মকাণ্ডের জন্য তাকে জর্ডানে নির্বাসিত হতে হয়। ১৯২৩ সালে তিনি ফিরে আসেন এবং বিভিন্ন উচ্চপদে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৩০ সালে তিনি মন্ত্রীসভায় যোগদা করেন।

জেনারেল বকর সিদ্দিকির হত্যাকান্ডের পর ১৯৩৭ সালের আগস্টে তাকে সরকার গঠন করতে বলা হয়। বকর সিদ্দিকি প্রায় একবছরের মত সামরিক একনায়ক হিসেবে দেশ শাসন করেন। ১৯৪১ সালে রশিদ আলি আল-কাইলানির অভ্যুথানের পর তিনি পুনরায় ট্রান্সজর্ডানে নির্বাসিত হন। দেশে ফেরার পর সিনেটের প্রেসিডেন্ট ও সংক্ষিপ্তকালের প্রধানমন্ত্রীসহ বেশ কিছু উচ্চপদে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ১৯৫৯ সালে ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন।

রাজনৈতিক দপ্তর
পূর্বসূরী
রশিদ আলি আল-কাইলানি
ইরাকের প্রধানমন্ত্রী
নভেম্বর ৯, ১৯৩৩ — আগস্ট ২৫, ১৯৩৪
উত্তরসূরী
আলি জাউদাত আল-আইয়ুবি
পূর্বসূরী
আলি জাউদাত আল-আইয়ুবি
ইরাকের প্রধানমন্ত্রী
মার্চ ১, ১৯৩৫ — মার্চ ১৬, ১৯৩৫
উত্তরসূরী
ইয়াসিন আল-হাশিমি
পূর্বসূরী
হিকমত সুলাইমান
ইরাকের প্রধানমন্ত্রী
আগস্ট ১৭, ১৯৩৭ — ডিসেম্বর ২৬, ১৯৩৮
উত্তরসূরী
নুরি আস-সাইদ
পূর্বসূরী
রশিদ আলি আল-কাইলানি
ইরাকের প্রধানমন্ত্রী
জুন ২, ১৯৪১ — অক্টোবর ১০, ১৯৪১
উত্তরসূরী
নুরি আস-সাইদ
পূর্বসূরী
নুরেদ্দিন মাহমুদ
ইরাকের প্রধানমন্ত্রী
জানুয়ারি ২৯, ১৯৫৩ — সেপ্টেম্বর ১, ১৯৫৩
উত্তরসূরী
মুহাম্মদ ফাদেল আল-জামালি