জহুরুল ইসলাম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জহুরুল ইসলাম
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামমোহাম্মদ জহুরুল ইসলাম
জন্ম (1986-12-12) ১২ ডিসেম্বর ১৯৮৬ (বয়স ৩২)
রাজশাহী, বাংলাদেশ
ডাকনামঅমি
উচ্চতা৬ ফুট ০ ইঞ্চি (১.৮৩ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি অফ ব্রেক
ভূমিকামাঝেমাঝে উইকেট রক্ষক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৫৮)
২০ মার্চ ২০১০ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টেস্ট১৬ মার্চ ২০১৩ বনাম শ্রীলঙ্কা
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ৯৭)
২১ জুলাই ২০১০ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ ওডিআই২৮ মার্চ ২০১৩ বনাম শ্রীলঙ্কা
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০০২-বর্তমানরাজশাহী বিভাগ
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি এলএ টি২০
ম্যাচ সংখ্যা ৯০ ৯০
রানের সংখ্যা ৩৪৭ ৫,৪৫২ ১,৯৩০ ৩১
ব্যাটিং গড় ৩৮.৪৭ ৩৬.৩৪ ২২.১৮ ১০.৩৩
১০০/৫০ ০/০ ১০/৩১ ০/১৩ ০/০
সর্বোচ্চ রান ৪৮ ১৬৭ ৮৯ ১৮
বল করেছে ১৮
উইকেট
বোলিং গড় ১০.০০
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ১/০ ০/১
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৭/– ৯৬/৫ ৩৯/২; ৩/–
উৎস: Cricinfo, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৩

মোহাম্মদ জহুরুল ইসলাম (জন্ম: ১২ ডিসেম্বর, ১৯৮৬) রাজশাহীতে জন্মগ্রহণকারী বাংলাদেশ দলের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার[১] তবে, ক্রিকেট মাঠে তিনি জহুরুল ইসলাম নামেই সর্বাধিক পরিচিত খেলোয়াড়। আবার কখনোবা স্কোরশীটে তাকে তার ডাক নাম অমি-তে চিহ্নিত করা হয়। মূলতঃ ডানহাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে জাতীয় দলে অন্তর্ভুক্তি ঘটলেও মাঝে মাঝে ডানহাতে অফ ব্রেক বোলিং এবং উইকেট-রক্ষকেরও দায়িত্ব পালন করে থাকেন তিনি। ২০১০ সালের ২০ মার্চ তারিখে নিজ দেশে অনুষ্ঠিত ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটের মাধ্যমে অভিষেক ঘটে তার। ২১ জুলাই, ২০১০ সালে অস্ট্রেলিয়া দলের বিরুদ্ধে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বপ্রথম অংশগ্রহণ করেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

২০০২/০৩ মৌসুমে রাজশাহী বিভাগীয় দলের মাধ্যমে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটান। ঐ দলে তিনি ২০০৬/০৭ মৌসুম পর্যন্ত সময় কাটান। একই মৌসুমে বাংলাদেশ এ দলের পক্ষ হয়ে ইংল্যান্ড এ দলের বিপক্ষে ৮৭ রান করেন। নিজ বিভাগীয় দলের হয়ে দু’টি প্রথম-শ্রেণীর সেঞ্চুরি করেন। তার একটি ছিল বরিশাল বিভাগীয় ক্রিকেট দলের বিপক্ষে। একদিনের খেলায় ঢাকা বিভাগীয় দলের বিরুদ্ধে তার করা ৭১ রান সবিশেষ উল্লেখযোগ্য।

১০ মার্চ, ২০১০ তারিখে রকিবুল হাসানের আকস্মিকভাবে অবসর গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেয়ার ফলে বাংলাদেশ দলে অন্তর্ভুক্ত হবার সুযোগ ঘটে জহুরুলের।[২] মিরপুরে অনুষ্ঠিত অভিষেক টেস্টে শূন্য রানে আউট হলেও পরের ইনিংসে ৪৩ রান করেছিলেন। জাতীয় ক্রিকেট লীগের প্রথম-শ্রেণীভূক্ত খেলায় রাজশাহী বিভাগের পক্ষ হয়ে সবচেয়ে বেশী ৯৬৫ রান করে ৬৮.৯২ গড়ে। এছাড়াও ২০০৯/১০ মৌসুমে দলের শিরোপা জয়ী দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Player profile: Jahurul Islam"। CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ২২ জানুয়ারি ২০১৩ 
  2. espncricinfo.com, short profile of Jahurul Islam, Retrieved: 19 April, 2013

আরও দেখুন[সম্পাদনা]