জর্জ ক্যারিও

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(জর্জ কারিও থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জর্জ ক্যারিও
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামজর্জ ম্যাকডোনাল্ড ক্যারিও
জন্ম৪ জুন, ১৯১০
হলস রোড, বেলমন্ট, সেন্ট মাইকেল, বার্বাডোস
মৃত্যু৯ ডিসেম্বর, ১৯৭৪
হোলটাউন, সেন্ট জেমস, বার্বাডোস
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনস্লো লেফট-আর্ম অর্থোডক্স
ভূমিকাব্যাটসম্যান
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৩৭)
৮ জানুয়ারি ১৯৩৫ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টেস্ট৩১ ডিসেম্বর ১৯৪৮ বনাম ভারত
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৩৯
রানের সংখ্যা ১৭০ ২১৩১
ব্যাটিং গড় ২৮.৩৩ ৩৪.৩৭
১০০/৫০ ১/- ৩/১২
সর্বোচ্চ রান ১০৭ ১০৭
বল করেছে ১৮ ১২১০
উইকেট - ১৩
বোলিং গড় - ৪৬.১৫
ইনিংসে ৫ উইকেট - -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং - ২/৬
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/- ১৭/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২৪ জানুয়ারি ২০২০

জর্জ ম্যাকডোনাল্ড ক্যারিও (ইংরেজি: George Carew; জন্ম: ৪ জুন, ১৯১০ - মৃত্যু: ৯ ডিসেম্বর, ১৯৭৪) সেন্ট মাইকেলের বেলমন্ট এলাকার হলস রোডে জন্মগ্রহণকারী আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৩৫ থেকে ১৯৪৮ সময়কালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটে বার্বাডোস দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, স্লো লেফট-আর্ম অর্থোডক্স বোলিংয়ে পারদর্শী ছিলেন জর্জ ক্যারিও

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯৩৪-৩৫ মৌসুম থেকে ১৯৪৮-৪৯ মৌসুম পর্যন্ত জর্জ ক্যারিও’র প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তেমন সফলতা না পেলেও ঘরোয়া ক্রিকেটে বার্বাডোসের পক্ষে দূর্দান্ত খেলেছিলেন। বার্বাডোসে জন্মগ্রহণকারী জর্জ ক্যারিও ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। সেখানে তিনি ট্যাক্সি ব্যবসা পরিচালনা করতেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে চারটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন জর্জ ক্যারিও। ৮ জানুয়ারি, ১৯৩৫ তারিখে ব্রিজটাউনে সফরকারী ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। ৩১ ডিসেম্বর, ১৯৪৮ তারিখে কলকাতায় স্বাগতিক ভারত দলের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি।

১৯৪৭-৪৮ মৌসুমে ইংল্যান্ড দল ওয়েস্ট ইন্ডিজ গমন করে। সফরকারী দলের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে সর্বাপেক্ষা স্মরণীয় খেলা উপহার দেন তিনি। পোর্ট অব স্পেনের কুইন্স পার্ক ওভালে প্রথম উইকেট জুটিতে অ্যান্ডি গ্যানটিউমের সাথে ১৭৩ রানের জুটি গড়েন। নিজে করেন ১০৭ রান।[১][২] উইজডেনের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয় যে, চকোলেট রঙের টুপি পরিধান করে সর্বক্ষণ চুইংগামে চিবানো অবস্থায় ক্যারিও আনঅর্থোডক্স ক্রীড়াশৈলী প্রদর্শন করেন। স্বাধীনভাবে হুক ও পুলের মারে দর্শনীয় ক্রীড়ানৈপুণ্য দেখিয়েছেন।[৩]

পরবর্তীতে বাদ-বাকী দুই টেস্টে খুব কমই নিজেকে উপস্থাপন করতে পেরেছিলেন তিনি। ১৯৪৮-৪৯ মৌসুমে ভারত, পাকিস্তান ও সিলন গমনার্থে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের সদস্যরূপে মনোনীত হন। ঐ বছরের শেষদিকে ভারত গমনে তিনি আর একটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণের সুযোগ লাভ করেছিলেন।

৯ ডিসেম্বর, ১৯৭৪ তারিখে ৬৪ বছর বয়সে সেন্ট জেমসের হোলটাউন এলাকায় জর্জ ক্যারিও’র দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. http://www.cricinfo.com/wisdenalmanack/content/story/236400.html
  2. "West Indies v England, Port of Spain 1947-48"CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ৪ আগস্ট ২০১৬ 
  3. Wisden 1949, p. 751.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]