চেক প্রজাতন্ত্র–চীন সম্পর্ক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
চেক প্রজাতন্ত্র—গণপ্রজাতন্ত্রী চীন সম্পর্ক
মানচিত্র Czech এবং People's Republic of China অবস্থান নির্দেশ করছে
Czech
চীন

চেক প্রজাতন্ত্র—চীন সম্পর্ক বা চীনা—চেক সম্পর্ক হল চেক প্রজাতন্ত্র এবং গণপ্রজাতন্ত্রী চীনের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক। আনুষ্ঠানিকভাবে ১৯৪৯ সালের ৬ই অক্টোবর চেকোস্লোভাকিয়া এবং চীনের মধ্যে এ সম্পর্ক প্রতিষ্ঠিত হয়।[১][২] ১৯৯৩ সালে চেক প্রজাতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হলে তারা চেকোস্লোভাকিয়ার চুক্তিসমূহও বহন করে। চীন এবং চেক প্রজাতন্ত্রের মধ্যকার সম্পর্ক, বাণিজ্য এবং পর্যটন ১৯৯০-এর দিক থেকে দ্রুত উষ্ণ থেকে উষ্ণতর হতে লাগল এবং ২০১০-এর দিকে অর্থনৈতিক উন্নয়নের ভিত্তিতে চুক্তিও স্বাক্ষরিত হয়।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৪৯ সালের ৬ই অক্টোবর গণপ্রজাতন্ত্রী চীন—চেক প্রজাতন্ত্র সম্পর্ক স্থাপিত হয়; যখন চেক প্রজাতন্ত্র, চেকোস্লোভাকিয়ার সাথে যুক্ত ছিল।[১] চেক প্রজাতন্ত্র ১৯৯৩ সালের ১লা জানুয়ারি একটি স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে সুপ্রতিষ্ঠিত হয়, এর পরপরই চীনা সরকার কূটনৈতিক সম্পর্ক আরো জোরালো করা হয়।[১] ১৯৯৩ সালে চেকোস্লোভাকিয়ার ভাঙনের পর উভয় পক্ষের সরকারই বেশকিছু চুক্তি স্বাক্ষর করেন এবং পূর্বের চেকোস্লোভাকিয়া যুক্তরাজ্যের সাথে সম্পর্কের কথা স্মরণ করে অধিকতর চুক্তি ও সম্মতির ব্যাপারে একমত হন।[১]

১৯৯৫ সালে দুই দেশের মধ্যকার এ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে অবনতি ঘটে, যখন চেক প্রজাতন্ত্র লিয়েন চান এবং তাইওয়ানের অন্যান্য সরকারি কর্মকর্তাকে তাদের দেশে রাষ্ট্রীয় সফরে যেতে দিতে সম্মত হয়। চেক প্রজাতন্ত্র টু-চায়নাস নীতিকে সমর্থন দেয় এবং জাতিসংঘে তাইওয়ানের পুনঃপ্রবেশকে অনুমোদন দেয়।[১] ১৯৯৬ সালে অবশ্য গণপ্রজাতন্ত্রী চীনের সাথে চেক প্রজাতন্ত্রের সম্পর্ক আবারও ভালো হয়ে ওঠে, এর কারণ চেক তাদের ওয়ান চায়না পলিসিতে ফিরে আসতে সমর্থ হয়।[১]

২০ মে, ২০০৯ সালে চীন এবং চেক প্রজাতন্ত্র তাদের কূটনৈতিক সম্পর্কের ষাট বছর উদযাপন করে।[৩][৪] চীনের প্রিমিয়ার ওয়েন জিয়াবো, চেক রাষ্ট্রপতি ভ্যাক্লভ ক্লস এবং চেক প্রধানমন্ত্রী জান ফিশারের সাথে সাক্ষাৎ করে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য, পরিবেশ সুরক্ষা এবং পারস্পরিক বিশ্বাস প্রভৃতি বিষয় নিয়ে কথা বলেন।[৩][৪]

২০১৪ সালের অক্টোবরে চেক রাষ্ট্রপতি মিলোস জেমান চীনের রাষ্ট্রপতি শি চিনফিংয়ের সাথে সাক্ষাৎ করেন। শি দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের এক নতুন সূচনা করার ব্যাপারে তার আগ্রহের কথা জানান। জেমান দুই দেশের মধ্যকার ব্যবসা এবং পর্যটন খাতের উন্নয়নের ব্যাপারে তার আগ্রহের কথা প্রকাশ করেন।[৫][৬] জেমান প্রাগ এবং সাংহাইয়ের মধ্যকার সরাসরি ফ্লাইট চালু করার প্রস্তাবও দেন। সেইসাথে চেংড়ু, সিচুয়ানে চেক কনস্যুলেট চালু করার পক্ষে তার ইচ্ছার কথা প্রকাশ করেন। পরবর্তীতে জেমান ব্যাঙ্ক অব চায়নার প্রতিনিধিদল এবং প্রধানমন্ত্রী লি খছিয়াংয়ের সাথে সাক্ষাৎ করেন।[৬]

রাষ্ট্রপতি শি চিনফিং ২০১৬ সালের ২৮ থেকে ৩০শে মার্চ রাষ্ট্রপতি জেমানের আমন্ত্রণে চেক প্রজাতন্ত্র সফর করেন। এই প্রথম গণপ্রজাতন্ত্রী চীনের কোনো রাষ্ট্রপতি চেক প্রজাতন্ত্র সফর করেন। তারা দুই দেশের পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নয়ের ব্যাপারে আলোচনা করেন।[৭] রাষ্ট্রপতিরা দুই দেশের মধ্যকার কৌশলগত অংশীদারত্বমূলক একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেন।[৮]

বাণিজ্য[সম্পাদনা]

১৯৯৩ সালে চেক প্রজাতন্ত্র একটি স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হবার পর এ দুই দেশের মধ্যকার অর্থনৈতিক বাণিজ্যের পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ৩৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার[১] বছর বছর এ দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ক্রমশ বৃদ্ধি পেয়েছে। ২০০১ সালে বাণিজ্যের মোট পরিমাণ গিয়ে দাঁড়ায় ৬১৫ মিলিয়ন ইউএস ডলারে।[১]

২০০৭ সালে চীন এবং চেক প্রজাতন্ত্রের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের পরিমাণ হয় ৯.৩ বিলিয়ন ইউএস ডলার।[৯] বছরের হিসাবে তা ৬১.৯ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।[৯] একই বছর চীন চেক প্রজাতন্ত্রে ৯.২ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রপ্তানি করে। ২০০৬ সালে চীন চেক প্রজাতন্ত্রে থেকে ৭০০ মিলিয়ন ডলারের পণ্য আমদানি করে।[৯]

কূটনৈতিক মিশন[সম্পাদনা]

চীনে অবস্থিত চেক প্রজাতন্ত্রের দূতাবাস
চেক প্রজাতন্ত্রে অবস্থিত চীনের দূতাবাস

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "গণপ্রজাতন্ত্রী চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়" 
  2. "Mutual relations between the Czech Republic and the People´s Republic of China – present and history" 
  3. "Chinese premier's European tour boosts mutal political trust, pragmatic co-op with EU" 
  4. "China's development boosts world peace: Czech official"পিপলস ডেইলি। ২৫ সেপ্টেম্বর ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০১৬ 
  5. "Zeman says Taiwan is part of China"দ্য প্রাগ পোস্ট। ২৭ অক্টোবর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০১৬ 
  6. Competitiveness: President Miloš Zeman visits China ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৪ ডিসেম্বর ২০১৪ তারিখে. The Council on Czech Competetiveness. 26 October 2014
  7. "Czech Republic has so much more than Prague's Old Town Square"নিউ চায়না। ২৭ মার্চ ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০১৬ 
  8. "Chinese, Czech presidents forge strategic partnership on Prague visit"রয়টার্স। ২৯ মার্চ ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০১৬ 
  9. "China-Czech bilateral trade surges 61.9% in 2007" 

আরো পড়ুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:চেক প্রজাতন্ত্রের বৈদেশিক সম্পর্ক টেমপ্লেট:চীনের বৈদেশিক সম্পর্ক