চারুশীলা দেবী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
চারুশীলা দেবী
জন্ম১৮৮৩
জাতীয়তাভারতীয়
নাগরিকত্বব্রিটিশ ভারত (১৯৪৭ সাল পর্যন্ত)
ভারত
পেশারাজনীতিবিদ
কর্মজীবন১৯২১ সাল নারী-সমিতি গঠন
১৯৩০ সাল আইন অমান্য আন্দোলন
১৯৩২ সালে আইন অমান্য আন্দোলন
পরিচিতির কারণব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের অগ্নিকন্যা
আন্দোলনব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলন
দাম্পত্য সঙ্গীবিরেন্দ্রকুমার গোস্বামী
পিতা-মাতা
  • রাখালচন্দ্র অধিকারী (পিতা)
  • কুমুদিনী দেবী (মাতা)

চারুশীলা দেবী (১৮৮৩ - ?) ছিলেন ভারতীয় উপমহাদেশের ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের একজন ব্যক্তিত্ব ও অগ্নিকন্যা।

জন্ম ও পরিবার[সম্পাদনা]

চারুশীলা দেবী ১৮৮৩ সালে মেদিনীপুরে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম রাখালচন্দ্র অধিকারী ও মাতার নাম কুমুদিনী দেবী। বারো বছর বয়সে তার বিয়ে হয়েছিল মেদিনীপুরে বিরেন্দ্রকুমার গোস্বামীর সঙ্গে।[১]

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

১৯২১ সালে তিনি নারী-সমিতি গঠন করেন। ১৯৩০ সালে আইন অমান্য আন্দোলনে যোগ দেন। সে বছর ছয় মাসের জন্য জেলে যান। বিপ্লবীদের সাহায্য করার জন্য তার বাড়ি তিন মাসের জন্য বাজেয়াপ্ত হয়। ১৯৩১ সালে রাজবন্দী হিসাবে জেলে যান। ১৯৩২ সালে আইন অমান্য আন্দোলনে যোগ দেন। এর ফলে দেড় বছরের জেল হয়। [১] তিনি হিজলি বন্দি নিবাসে কিছুদিন বন্দী ছিলেন।[২] ১৯৩৩ সালে মেদিনীপুরের ম্যাজিস্ট্রেট বার্জ নিহত হলে তিনি আট বছরের জন্য মেদিনীপুর থেকে বহিষ্কৃত হন। তিনি পুরী চলে যান। ১৯৩৮ সালে তিনি কলকাতায় এসে কর্পোরেশন বিদ্যালয়ে শিক্ষিকার হিসেবে কাজ শুরু করেন।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. কমলা দাশগুপ্ত (জানুয়ারি ২০১৫)। স্বাধীনতা সংগ্রামে বাংলার নারী, অগ্নিযুগ গ্রন্থমালা ৯কলকাতা: র‍্যাডিক্যাল ইম্প্রেশন। পৃষ্ঠা ৮১-৮৪। আইএসবিএন 978-81-85459-82-0 
  2. পতি, ভাস্করব্রত (২২ ডিসেম্বর ২০১৬)। "দেশের প্রথম মহিলা জেল এখন আই আই টি'র গুদামঘর!"গণশক্তি ডট কম। কলকাতা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১২-২২ 
  3. "কলকাতা পুরশ্রী" (PDF)। কলকাতা পৌরসংস্থা। ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৫। পৃষ্ঠা ২১।