খোইসান ভাষাসমূহ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
খোইসান
খোয়েসান
(অপ্রচলিত)
ভৌগলিক বিস্তার: কালাহারি মরুভূমি, কেন্দ্রীয় তানজানিয়া
ভাষাগত শ্রেণীবিভাগ: (সুবিধার মেয়াদ)
উপবিভাজনসমূহ:
আইএসও ৬৩৯-২ / : khi
গ্লোটোলগ: অজানা
{{{mapalt}}}
আফ্রিকার মানচিত্রে খোইসান ভাষাসমূহের বিস্তৃতি (হলুদ)

খোইসান ভাষাগুলি (ইংরেজি: Khoisan languages; /ˈkɔɪsɑːn/) আফ্রিকা মহাদেশের সবচেয়ে ছোট ভাষা পরিবার গঠন করেছে। এই পরিবারের সদস্য ভাষার সংখ্যা ৪০-এর কম, এবং এগুলিতে প্রায় ৩ লক্ষ আফ্রিকান লোক কথা বলেন। কিন্তু এই ভাষা পরিবারের ভাষাগুলি তাদের শীৎকার ব্যঞ্জনধ্বনির ব্যবহারের জন্য বহুল পরিচিত। এই ভাষাগুলি মূলত আফ্রিকার দক্ষিণাঞ্চলে কালাহারি মরুভূমির আশেপাশে অ্যাঙ্গোলা থেকে দক্ষিণ আফ্রিকা পর্যন্ত বিস্তৃত এলাকায় প্রচলিত। তবে সান্দাওয়ে ও হাতসা নামের দুইটি খোইসান ভাষা উত্তরে তানজানিয়াতে প্রচলিত।

"খোই-খোইন" নামের হটেনটট গোত্র এবং নামিবিয়ার নামা অঞ্চলের বুশম্যান "সান" গোত্রের নাম থেকে ভাষাগুলির "খোইসান" নামকরণ করা হয়েছে। খোইসান ভাষাগুলিতে দুই-তৃতীয়াংশের মত ভাষার ভাষাভাষীর সংখ্যা হাজারেরও কম। নামা ভাষায় প্রায় দেড় লক্ষ লোক কথা বলেন। তানজানিয়ায় প্রচলিত সান্দাওয়ে ভাষায় প্রায় ৭০,০০০ লোক কথা বলেন। অনেক খোইসান ভাষাই আজ বিলুপ্তির পথে। খ্রিস্টান মিশনারি ও অন্যান্যরা প্রায় অর্ধেক সংখ্যক খোইসান ভাষার লিখিত রূপ দিয়েছেন।

বর্তমানে তারা কালাহারি মরুভূমিতে সীমাবদ্ধ, প্রাথমিকভাবে নামিবিয়া এবং বতসোয়ানা এবং কেন্দ্রীয় তানজানিয়া রিফট উপত্যকায়।[১]


টুকিটাকি[সম্পাদনা]

  • জনপ্রিয় ইংরেজি চলচ্চিত্র 'The Gods Must Be Crazy ও এর সিকুয়েলগুলিতে মূল কৃষ্ণাঙ্গ আফ্রিকান চরিত্রটি একটি খোইসান ভাষায় কথা বলে।

রচনা ও গ্রন্থপঞ্জি[সম্পাদনা]

  • Barnard, A. (1988) 'Kinship, language and production: a conjectural history of Khoisan social structure', Africa: Journal of the International African Institute 58 (1), 29-50.
  • Güldemann, Tom and Rainer Vossen. 2000. Khoisan. In Heine, Bernd and Derek Nurse, eds., African languages: an introduction, 99-122. Cambridge: Cambridge University Press.
  • Köhler, O. (1971) 'Die Khoe-sprachigen Buschmänner der Kalahari', Forschungen zur allgemeinen und regionalen Geschichte. (Festschrift Kurt Kayser). Wiesbaden: F. Steiner, 373–411.
  • Starostin G. (2003) A lexicostatistical approach towards reconstructing Proto-Khoisan. Mother Tongue, vol. VIII.
  • Treis, Yvonne (1998) 'Names of Khoisan languages and their variants', in Schladt, Matthias (ed.) Language, Identity, and Conceptualization among the Khoisan. Köln: Rüdiger Köppe, 463–503.
  • Vossen, Rainer (1997) Die Khoe-Sprachen. Ein Beitrag zur Erforschung der Sprachgeschichte Afrikas. Köln: Rüdiger Köppe.

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Barnard, A. (1988) 'Kinship, language and production: a conjectural history of Khoisan social structure', Africa: Journal of the International African Institute 58 (1), 29–50.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]