কাস্টম হাউস, চট্টগ্রাম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কাস্টম হাউস, চট্টগ্রাম
Chittagong Customs House 03.JPG
গঠিত১৪৪০
সদরদপ্তরচট্টগ্রাম, বাংলাদেশ
যে অঞ্চলে কাজ করে
চট্টগ্রাম, বাংলাদেশ
দাপ্তরিক ভাষা
বাংলা, ইংরেজি
ওয়েবসাইটwww.chc.gov.bd

কাস্টম হাউস, চট্টগ্রাম বা চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস হলো বাংলাদেশের চট্টগ্রাম নগর ও বন্দরের শুল্ক ও আমদানি কর আদায়ের কাজে নিয়োজিত সরকারের অর্থ মন্ত্রণালয়ের অধীন একটি নিয়ন্ত্রক সংস্থা।[১] এম ফখরুল আলম চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের বর্তমান কমিশনার।[২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৪৪০ সালে পর্তুগিজরা বাংলার সুলতান নাসিরুদ্দিন মাহমুদ শাহের সাথে চুক্তি করে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস প্রতিষ্ঠা করে।[৩] ১৭৭৬ থেকে ১৭৮০ সাল পর্যন্ত উল্লেখিত নথিতে চট্টগ্রাম বন্দরের আদায়কৃত শুল্ক খুবই নগণ্য বলে উল্লেখ করা হয়।[৪] ১৮০১ সালে চট্টগ্রাম বন্দর শাসনের জন্য নীতি জারি করা হয়।[৫] ১৮৫৩ সাল পর্যন্ত চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস বাংলা অঞ্চলে ব্রিটিশদের নিয়ন্ত্রিত দুইটি কাস্টম হাইসের অন্যতম ছিল।[৬] চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসে তখন কলকাতা কাস্টম হাউসের অধীনে একজন ডেপুটি কালেক্টর নিয়োজিত হন। ১৯৪৮ সালে ভারত বিভাগের পর চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসে প্রথম কালেক্টর নিযুক্ত করা হয়। ১৯৭৫ সালে পদটিকে কাস্টম কমিশনারের পদে রুপান্তরিত করা হয়।[৭] কাস্টম হাউসের বর্তমান ভবনটি ১৯২০ সালে স্থাপিত হয়।[৮] ২০০৮ সালে কাস্টম হাউসের কাজ স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থা যুক্ত করা হয়।[৯]

সমালোচনা[সম্পাদনা]

চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস সুইজারল্যান্ডীয় প্রতিষ্ঠান এসজিএস এসএ-র সাথে বন্দরের পণ্য স্ক্যান ও কর্মীদের প্রশিক্ষণের জন্য নিযুক্ত করে৷ কিন্তু ২০১৫ সালে চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার পর কাস্টম কর্মকর্তাদের জায়গা বদল করা হলে উদ্দেশ্য ব্যর্থ হয়। পরবর্তীতে স্থানীয় প্রতিষ্ঠান ফাইভ আর অ্যাসোসিয়েটসের সাথে কাস্টম হাউসের ২৮৮.৬ মিলিয়ন টাকার দুই বছরের চুক্তি হয়। এই চুক্তির কারণে কাস্টম হাউস ব্যাপক সমালোচিত হয়, কেননা কাস্টম হাউসের অভ্যন্তরীণ প্রতিবেদনে মাত্র ৪০ মিলিয়ন টাকাতেই স্ক্যানিং করার সক্ষমতা কাস্টম হাউসের রয়েছে বলে জানা যায়।[১০][১১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Report from the Select Committee of the House of Lords Appointed to Inquire Into the Present State of the Affairs of the East India Company, and Into the Trade Between Great Britain, the East Indies and China ; with the Minutes of Evidence Taken Before the Committee, 1830 (ইংরেজি ভাষায়)। ১৮৩০। পৃষ্ঠা 23। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৯ 
  2. "Customs House Chittagong"chc.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৯ 
  3. Chowdhury, Mohammed Ali (২০০৪)। Bengal-Arakan relations, 1430-1666 A.D. (ইংরেজি ভাষায়)। Firma K.L.M.। পৃষ্ঠা 74–76। আইএসবিএন 9788171021185। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৯ 
  4. Islam, Sirajul (১৯৭৮)। Bangladesh District Records: Chittagong, 1760-1787 (ইংরেজি ভাষায়)। University of Dacca। পৃষ্ঠা 388–401। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৯ 
  5. The Regulations and Laws Enacted by the Governor General in Council for the Civil Government of the Whole of the Territories Under the Presidency of Fort William in Bengal. [1793-1819.] Baptist Mission Press Edition (ইংরেজি ভাষায়)। W. Thacker&Company। ১৮২৮। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৯ 
  6. Returns and Papers Presented to the House of Lords ... in Session 1852, Relative to the Affairs of the East India Company (ইংরেজি ভাষায়)। ১৮৫৩। পৃষ্ঠা 115। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৯ 
  7. "Customs House Chittagong"chc.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৯ 
  8. Commissioner, Pakistan Office of the Census। Population Census of Pakistan, 1961: Dacca. 2.Chittagong. 3.Sylhet. 4.Rajshahi. 5.Khulna. 6.Rangpur. 7.Mymensingh. 8.Comilla. 9.Bakerganj. 10.Noakhali. 11.Bogra. 12.Dinajpur. 13.Jessore. 14.Pabna. 15.Kushtia. 16.Faridpur. 17.Chittagong Hill tracts (ইংরেজি ভাষায়)। পৃষ্ঠা 8, 30। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৯ 
  9. "Automated Chittagong Custom House kicks off tomorrow"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৭ আগস্ট ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৯ 
  10. "Scanning at Ctg Port: Govt settles for costlier option"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৩ মে ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৯ 
  11. "Rejoinders, our replies"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ১৯ মে ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৯