কাসিম বন্দর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
পোর্ট মুহাম্মদ বিন কাসিম
Logo Port Qasim Authority Pakistan.png
পোর্ট কাসিম কর্তৃপক্ষের সরকারী লোগো (পিকিউএ)
অবস্থান
দেশ পাকিস্তান
অবস্থানকরাচি, সিন্ধু প্রদেশ
স্থানাঙ্ক২৪°৪৬′ উত্তর ৬৭°২০′ পূর্ব / ২৪.৭৬৭° উত্তর ৬৭.৩৩৩° পূর্ব / 24.767; 67.333স্থানাঙ্ক: ২৪°৪৬′ উত্তর ৬৭°২০′ পূর্ব / ২৪.৭৬৭° উত্তর ৬৭.৩৩৩° পূর্ব / 24.767; 67.333
বিস্তারিত
চালুসেপ্টেম্বর ১৯৮০[১]
মালিকবন্দর ও নৌ মন্ত্রণালয় এবং পাকিস্তান সরকার
পোতাশ্রয়ের প্রকারকৃত্রিম
জমির আয়তন১২,২০০ একর
উপলব্ধ নোঙরের স্থান১২
কর্মচারী১,৮৫৫ (১,৫৭৬ কর্মী এবং ২৭৯ জন কর্মকর্তা)
চেয়ারম্যানআগা জান আখতার
পরিসংখ্যান
জলযানের আগমন১,২৩৮ (২০০৮-০৯)[২]
বার্ষিক কার্গো টন১৬.৬ মিলিয়ন মেট্রিক রাজস্ব টনপণ্যের মধ্যে শুষ্ক মালামাল ৫.৪২৯ মিলিয়ন এমটি এবং তরল পণ্যসম্ভার ১১.১৮৫ মিলিয়ন এমটি (অর্থ বর্ষ: ২০০৮-০৯)
বার্ষিক কন্টেইনারের আয়তন৬,৮১,০০ [টিইউ] (৮.৪১ মিলিয়ন এমটি (২০০৮-০৯)
টাইডাল প্রকরণ০.৫ থেকে ৩.৫ মিটার (বন্দরের প্রবেশ পথের মুখে ও বন্দরে।)[৩]
ডেডওয়েট টন৭৫,০০০ ডিডব্লিউটি[৪]
ক্রম১২১ তম ব্যস্ততম কন্টেইনার বন্দর (২০০৭) [৫]
ওয়েবসাইট
www.pqa.gov.pk
পাকিস্তানের মানচিত্রের, পোর্ট কাসিম এবং তার ভগ্নী বন্দর করাচি এবং গদর বন্দরকে দেখানো হয়েছে।

মুহম্মদ বিন কাসিম বন্দরটি (উর্দু: بندر گاہ محمد بن قاسم‎‎ Bandar-gāh Muhammad bin Qāsim) পোর্ট কাশিম নামেও পরিচিত, এটি পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশের কর্শি উপকূলে আরব সাগরের তীরে অবস্থিত একটি গভীর-জলের সমুদ্র বন্দর। এটি পাকিস্তানের দ্বিতীয় ব্যস্ততম বন্দর, যা দেশের প্রায় ৩৫% পণ্যসম্ভার পরিচালনা করে (প্রতি বছর ১৭ মিলিয়ন টন)। পোর্ট কাসিম এবং দেশের সবচেয়ে ব্যস্ততম বন্দর, করাচি বন্দর একসাথে পাকিস্তানের সকল বহিরাগত বাণিজ্যের ৯০%-এর অধিক পরিচালনা করে।

বন্দরটি মোট ১২,০০০ একর (৪৯ বর্গ কিলোমিটার) এলাকা জুড়ে গড়ে উঠেছে এবং বন্দর এলাকাতে অনেক শিল্প অঞ্চল গড়ে উঠেছে। পাকিস্তান স্টিল মিলস (পিএসএম) ও কেইএসসি বিন কাসিম পাওয়ার প্লান্ট ছাড়াও পাকিস্তানের প্রায় ৮০% স্বয়ংচালিত শিল্প কাসিম বন্দর এলাকাতে অবস্থিত। এছাড়াও বন্দরটির কাছাকাছি দুটি প্রধান শিল্প এলাকা, রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল (লান্ধি) এবং করাঙ্গী শিল্প এলাকার জন্য সরাসরি ওয়াটারফ্রন্ট অ্যাক্সেস প্রদান করে। দেশের রপ্তানি ও আমদানির প্রায় ৬০% এই এলাকা থেকে উদ্ভূত হয়। পোর্ট কাসিম কর্তৃপক্ষ দ্বারা এই বন্দরটি পরিচালিত হয় এবং এটি একটি আধা-স্বায়ত্তশাসিত সরকারি সংস্থা।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৭০-এর দশকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী জুলফিকার আলী ভুট্টোর অর্থনৈতিক সংস্কার ও ভারী শিল্প প্রতিষ্ঠার একটি অংশ হিসাবে, দেশের প্রথম ইস্পাত মিল (পাকিস্তান স্টিল মিলস) দেশের দক্ষিণ অংশে করাচীর কাছাকাছি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। পাকিস্তানি স্টিল মিল দ্বারা ইস্পাত উৎপাদনের জন্য কাঁচামালের ব্যাপক আমদানির উদ্দেশ্য বিশেষ বন্দর সুবিধা প্রতিষ্ঠা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।[৬] ভবিষ্যৎ অর্থনৈতিক চাহিদার পাশাপাশি কৌশলগত চাহিদা ছাড়াও, এই বন্দরটি নির্মাণের পিছনে উদ্দেশ্যে ছিল দেশের একমাত্র করাচি বন্দরের উপর নির্ভরতা ত্যাগ করা। ৭১২ খ্রিস্টাব্দের দিকে মুসলিম জেনারেল মুহাম্মাদ বিন কাসিম দাইবুল ও সিন্ধু উপকূলীয় অঞ্চল বিজয়ের করার পর এই বন্দরটি পোর্ট মুহম্মদ বিন কাশিম (পোর্ট কাশিম নামেও পরিচিত) নামে নামকরণ করেছিলেন।[১][৭]

অবস্থান[সম্পাদনা]

পোর্ট কাসিম বা কাসিম বন্দর, সিন্ধু প্রদেশের করাচি বিভাগের মালির জেলার দক্ষিণাংশে বিন কাসিম শহরের পাশে অবস্থিত। এটি করাচী শহরের কেন্দ্র থেকে প্রায় ৩৫ কিলোমিটার পূর্বে সিন্ধু নদীর পুরানো চ্যানেলে অবস্থিত।

বন্দর এবং শিল্প অঞ্চলের জন্য জমি বরাদ্দ[সম্পাদনা]

বন্দরের মোট এলাকা ৩,৫২০ একরের (১৪.২ বর্গ কিমি) সাথে অতিরিক্ত ৮,৭০০ একর (৩৫ কিলোমিটার) শিল্প এলাকাও রয়েছে। কাসিম বন্দরকে নিম্নলিখিত তিনটি প্রধান অঞ্চলে বিভক্ত করা হয়েছে:[৮]

অঞ্চল মোট এলাকা (একর) "বন্দর পরিষেবা" (একর)

এলাকার জন্য সংরক্ষিত

"শিল্প ব্যবহার" (একর)

এলাকার জন্য সংরক্ষিত

উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় শিল্প অঞ্চল (এনডব্লিউআইজেড) ২,৯২০ ৯০৪ ২,০১৬
দক্ষিণ পশ্চিম শিল্প অঞ্চল (এসডব্লিউআইজেড) ১,০০০ ১২৫.৫ ৮৭৪.৫
পূর্ব শিল্প জোন (ইআইজেড) ৮,৩০০ ২,৪৯০ ৫,৮১০
মোট ১২,২২০ ৩,৫১৯.৫ ৮,৭০০
করাচির দক্ষিণ-পূর্ব উপকূলীয় অংশের মানচিত্র, যা পোর্ট কাসিম এবং ম্যানগ্রোভ বনকে দেখাচ্ছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Port Qasim - its potential as free trade & industrial zone, by Jamil A. Siddiqui in June 1991 issue of Economic Review.
  2. Port Qasim - Operational Statistics (FY 2004-05 to 2008-09)
  3. "Port Qasim - Introduction"। ১১ ডিসেম্বর ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  4. "Presentation on 'Ports of Pakistan' by Economic Affairs Division, Government of Pakistan" [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  5. World Port Rankings - 2007 ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৭ এপ্রিল ২০১০ তারিখে - Port Industry Statistics - American Association of Port Authorities (AAPA) - Updated 1 May 2007
  6. Forty Years of Pakistan Peoples Party, The official site of Pakistan Peoples Party.
  7. Port Qāsim(Pakistan, Section Manufacturing), Encyclopædia Britannica Online 2009.
  8. "Industrial Zones at Port Qasim"। ১৫ আগস্ট ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]