কালে

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কালে
Calés  (ভাষা?)
উপ-প্রশাসনিক জেলাকম্যুন
কালে বন্দর
কালে বন্দর
কালের পতাকা
পতাকা
কালের প্রতীক
প্রতীক
কালে ফ্রান্স-এ অবস্থিত
কালে
কালে
স্থানাঙ্ক: ৫০°৫৬′৫৩″ উত্তর ০১°৫১′২৩″ পূর্ব / ৫০.৯৪৮০৬° উত্তর ১.৮৫৬৩৯° পূর্ব / 50.94806; 1.85639স্থানাঙ্ক: ৫০°৫৬′৫৩″ উত্তর ০১°৫১′২৩″ পূর্ব / ৫০.৯৪৮০৬° উত্তর ১.৮৫৬৩৯° পূর্ব / 50.94806; 1.85639
দেশ ফ্রান্স
নগরের পৌরসভাকালে
ক্যান্টনকালে-১,
আন্তঃগোষ্ঠীসিএ গ্রঁ কালে তের অ মের
সরকার
 • মেয়র (২০১৪-২০২০) নাতাশা বুশার (এলআর)
আয়তন৩৩.৫ বর্গকিমি (১২.৯ বর্গমাইল)
বিশেষণকালেজিঅঁ
সময় অঞ্চলসিইটি (ইউটিসি+০১:০০)
 • গ্রীষ্মকালীন (দিসস)সিইএসটি (ইউটিসি+০২:০০)
আইএনএসইই/ডাক কোড৬২১৯৩ /৬২১০০
উচ্চতা০–১৮ মি (০–৫৯ ফু)
ওয়েবসাইটTown; Port
ফ্রান্সের ভূমি রেজিস্টার তথ্য, যার ভেতর হ্রদ, পুকুর, হিমবাহ > ১ বর্গকি.মি.(০.৩৮৬ বর্গ মাইল বা ২৪৭ একর) এবং নদীর মোহনা অন্তর্ভূক্ত নয়।

কালে (ফরাসি : [kalɛ] (এই শব্দ সম্পর্কেশুনুন); টেমপ্লেট:Lang-pcd; টেমপ্লেট:Lang-vls) উত্তর ফ্রান্সের একটি শহর ও প্রধানতম ফেরি বন্দর এবং পা-দ্য-কালে দেপার্তমঁর উপ-প্রশাসনিক জেলা। ২০১৭ সালের জনশুমারি অনুযায়ী প্রধান শহরের জনসংখ্যা ৭৩,৯১১ এবং সমগ্র নগর এলাকার জনসংখ্যা ১২৮,৯৩১।[১] কালে ইংলিশ চ্যানেলের সরু স্থান ডোভার প্রণালীর নিকটবর্তী, যা এখানে মাত্র ৩৪ কিমি (২১ মাইল) প্রশস্ত এবং ইংল্যান্ডের সবচেয়ে নিকটবর্তী ফরাসি শহর। পরিষ্কার দিনে কালে থেকে ডোভারের উঁচু খাড়া পাহাড় স্পষ্ট দেখা যায়। কালে ফ্রান্স ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার অন্যতম বন্দর এবং ১৯৯৪ সাল থেকে চ্যানেল টানেল নিকটবর্তী ককেল থেকে ফোকস্টন পর্যন্ত রেলপথে সংযুক্ত রয়েছে।

কালে শহরটি এর অবস্থানের জন্য মধ্যযুগ থেকে ইংল্যান্ডের সাথে যাতায়াত ও বাণিজ্যের জন্য অন্যতম বন্দর ও খুবই গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র। ১৩৪৭ সালে ইংল্যান্ডের তৃতীয় এডওয়ার্ড কালে দখলের পর শহরটি ইংরেজদের অধীনে আসে এবং ১৩৬০ সালে একটি চুক্তির মধ্য দিয়ে কালে শহরটি আনুষ্ঠানিকভাবে ইংরেজ শাসনের অধীনে চলে যায়। কালে পশম উৎপাদনের সমৃদ্ধি লাভ করে এবং টিন, সীসা, ফিতা ও পশম বাণিজ্যের প্রবেশদ্বার হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনের জন্য "ইংরেজ সিংহাসনের উজ্জ্বলতম রত্ন" হিসেবে আখ্যায়িত হয়। ১৫৫৮ সালে ফ্রান্স শহরটি দখল করার পূর্ব পর্যন্ত এটি ইংরেজ শাসনের অধীনেই ছিল।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

প্রারম্ভিক ইতিহাস[সম্পাদনা]

শুরুতে এই এলাকায় জনসংখ্যা খুবই সীমিত ছিল। রোমানরা এই জনবসতিকে কালেতুম নামে ডাকত। জুলিয়াস সিজার এর কৌশলগত অবস্থানের জন্য ব্রিটানিয়া আক্রমণের লক্ষ্যে এখানে ৮০০ থেকে ১,০০০ পাল তোলা নৌকা, পাঁচটি সৈন্যদল এবং ২,০০০ ঘোড়ার সমাবেশ গঠান।[২] দ্বীপটি জলাভূমি বেষ্টিত হওয়ায় এই ভূখণ্ডে আক্রমণ করা প্রায় অসম্ভব ছিল। ১০ম শতাব্দীর পূর্বে কিছু সময় এটি ওলন্দাজ-ভাষী মাছ ধরার গ্রাম ছিল।[৩] এটি প্রারম্ভিক মধ্যযুগীয় আ নদীর মোহনার পশ্চিম প্রান্তের প্রাকৃতিক পোতাশ্রয় ছিল।[৪] ৯৯৭ সালে ফ্ল্যান্ডার্সের কাউন্ট কালে শহরটির উন্নয়ন করেন এবং ১২২৪ সালে বুলোনিয়ের কাউন্ট একে দুর্গবেষ্টিত করেন।[২][৪]

২১শ শতাব্দী[সম্পাদনা]

১৯৯৯ সাল বা তার পূর্ব থেকে কালে শহরে অসংখ্য অবৈধ অভিবাসী ও আশ্রয়প্রার্থী আসতে শুরু করে। তারা পালাক্রমে বদল করা ক্যাম্প পুতে কালে জঙ্গলে বসবাস শুরু করে। এই লোকজন কালে বন্দর বা ইউরোটানেল কালে টার্মিনাল দিয়ে লরি, ফেরি, গাড়ি বা রেল যোগে বিনা ভাড়ায় আত্মগোপন করে যুক্তরাজ্যে প্রবেশের চেষ্টারত অবস্থায় এখানে বসবাস করছে।[৫] এসব লোকজন দারফুর, আফগানিস্তান, সিরিয়া, ইরাক, ইরিত্রিয়া এবং আফ্রিকা ও এশিয়ার অন্যান্য অনুন্নত দেশ থেকে আগত আশ্রয়প্রার্থী ও অভিবাসী।

২০১৬ সালের ২৬শে অক্টোবর ফরাসি কর্তৃপক্ষ ক্যাম্প খালি করার ঘোষণা দেয়।[৬]

ভূগোল[সম্পাদনা]

কালে শহরটি ইংলিশ চ্যানেলউত্তর সাগরের সীমান্তবর্তী পা-দ্য-কালে দেপার্তমেঁ এবং ডোভার থেকে ৪০ কিমি (২৫ মাইল) দূরবর্তী চ্যানেল টানেলের বিপরীত দিকে অবস্থিত।[৭] আবহাওয়া পরিষ্কার থাকলে এই চ্যানেল বরাবর ডোভারের সাদা উঁচু খাড়া পাহাড় দেখা যায়।[৮] ফ্রান্স ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার গুরুত্বপূর্ণ বন্দর ছাড়াও এটি প্রধান প্রধান কয়েকটি রেলওয়ে ও হাইওয়ের কেন্দ্র এবং আরাস, লঁস, বেথুনসাঁতোমেরের সাথে সড়কপথে সংযুক্ত। ডানকার্ক এই শহর থেকে ৩৭ কিমি (২৩ মাইল) পূর্বে অবস্থিত।[৯] কালে ফ্রান্সের রাজধানী পারি থেকে ২৩৬ কিমি (১৪৭ মাইল) উত্তরে অবস্থিত এবং সড়কপথে রাজধানীর দূরত্ব ২৯৫ কিমি. (১৮৩ মাইল)।[১০] কালে কম্যুনের উত্তরে ইংলিশ চ্যানেল, পশ্চিমে জানগাত ও ককেল, দক্ষিণে কুলোনিয়ে এবং পূর্বে মার্ক অবস্থিত।

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

মাছ ধরার বন্দর হিসেবে কালে শহরে লে দেলিসে দ্য লা মের ও হুইত্রিয়ের কালেসেন-সহ একাধিক মাছের বাজার রয়েছে। বুলেভার লা ফেয়েতের হুইত্রিয়ের কালেসেন বাজারটি ব্রতাইন থেকে আগত ঝিনুক, গলদা চিংড়িকাঁকড়ার জন্য বিখ্যাত। রে মুরোঁতে অবস্থিত এমিল ফুর্নিয়ে অ ফিল বাজারে মূলত স্যালমন, ট্রাউট, হেরিং, ও হ্যালিবাট মাছ বিক্রি হয়।[১১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Comparateur de territoire − Commune de Calais (62193) | Insee"ইন্সি। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 
  2. "History"। Calais.ws। ৭ ফেব্রুয়ারি ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 
  3. Delattre, Ch., Mériaux, E. and Waterlot, M. (1973) Région du nord : Flandre, Artois, Boulonnais, Picardie, Guides géologiques régionaux, Paris : Masson, আইএসবিএন ২-২২৫-৩৬৭৯৫-৭, Fig. 18
  4. Thomas Cook Ltd (১৮৭৭)। Cook's tourist's handbook for Holland, Belgium, and the Rhine। টমাস কুক অ্যান্ড সন। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 
  5. "'Hundreds' of migrants now target Eurotunnel every night"বিবিসি নিউজ (ইংরেজি ভাষায়)। ২৫ জুলাই ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 
  6. "French Authorities Confirm 'the Jungle' Refugee Camp Is Empty"ইউকে নিউজ (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 
  7. গুগল (২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০)। "Google maps" (মানচিত্র)। গুগল মানচিত্র। গুগল। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 
  8. অ্যান্ডারসন, ডেভিড (২০০৮)। Modern law of the sea: selected essays। মার্টিনাস নিজহফ পাবলিশার্স। পৃষ্ঠা ১৬৯। আইএসবিএন 978-90-04-15891-7 
  9. "Distance entre Dunkerque et Calais en voiture"frdistance.com (ফরাসি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 
  10. "Distance entre Paris et Calais en voiture"frdistance.com (ফরাসি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 
  11. রুলার (২০১১), পৃষ্ঠা ৬৬।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]