কারেংঘর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

স্থানাঙ্ক: ২৬°৫৫′২৫″ উত্তর ৭৫°৪৯′৩৬″ পূর্ব / ২৬.৯২৩৬১১° উত্তর ৭৫.৮২৬৬৬৭° পূর্ব / 26.923611; 75.826667

কারেংঘর
Karengghar of the Ahom Kings (N-AS-34).jpg
শিবসাগর জেলার কারেং ঘরের সন্মূখের অংশ
সাধারণ তথ্য
স্থাপত্য রীতিআহোম সাম্রাজ্যকালীন স্থাপত্য
অবস্থানশিবসাগর
অসম
ভারত
নির্মাণ শুরু হয়েছে১৭৫১
গ্রাহকস্বর্গদেউ চুক্লেংমুং, রাজেশ্বর সিংহ
কারিগরী বিবরণ
কাঠামোগত পদ্ধতিBricks and Indigenous type of cement

কারেংঘর (অসমীয়া: কারেংঘর) আহোম স্বর্গদেউদের দ্বারা নির্মিত একটি পিরামিড আকৃতির রাজমহল। অসমর শিবসাগর শহরের থেকে ১৫ কিলোমিটার পূর্বের গড়গাঁওয়ে অবস্থিত।[১] ১৫৪০ সালে স্বর্গদেউ চুক্লেংমুঙ এই ঘরটির নির্মাণ আরম্ভ করেছিলেন।[২] তার পরে প্রমত্ত সিংহই একে ইটে নির্মাণ করেন। ১৭৫২ সালে কারেংঘরটির বিপুলভাবে ক্ষতি হয়। তখন আহোম স্বর্গদেউ রাজেশ্বর সিংহ একে পুনরায় নির্মাণ করান।[১][৩]

নামকরণ[সম্পাদনা]

অসমীয়াতে কারেং শব্দটি যেকোনো রাজপ্রসাদকে বোঝায়। অন্যদিকে, গড়গাঁওয়ে থাকা এই রাজকারেংটির নাম কারেং ঘর। এতে ঘর শব্দটি অপ্রয়োজনীয় যদিও এইক্ষেত্রে 'ঘর' শব্দটি একটি বিশেষ রাজকারেং-এর নাম হিসাবে ব্যবহার করা হয়েছে।[৪]

স্থাপত্যবিদ[সম্পাদনা]

কারেং ঘরটিতে প্রবেশ করবার জন্য চারটি দরজা আছে। দরজাগুলিকে সিংহ দরজা বলা হয়।[৫] ঘরটির তলায় দুমহলা এবং ওপরে পাঁচ মহলা আছে। তলার মহলা থেকে রংপুরের (বর্তমানের শিবসাগর) তলাতল ঘর পর্যন্ত আসতে প্রায় ১৬ কিলোমিটার দীর্ঘ একটি সুরংগ ছিল। এই সুরংগ বর্তমানে বন্ধ হয়ে আছে। কারেং ঘরটির চৌদিকে একটি বহল আলি এবং তার কাছে কাছে তাঁতীর গড় আছে। গড়ের কিছু দূরত্বে কাছে কাছে মাহুত-হাতি তলায় যাওয়া একটি দ খাবৈ আছে। আগে এই গড়খাবৈটিতে বারমাস জল থাকত। কারেং ঘরটি দৈর্ঘ্যে ১২০ হাত এবং প্রস্থে ৩০ হাত।[৪] মিরজুমলা অসম আক্রমণ করতে আসায় তাঁর সাথে আসা বাকনবিশ (বরকাকতী) লিখেছিলেন, "গড়গাঁওয়ের রাজকারেং-এর নিচে কটকটীয়া, ধুনীয়া এবং নানান কারুকার্যে সূশোভিত ঘর গোটা পৃথিবীতে বিরল"। ১২,০০০ অসমীয়া বাঢ়ৈ সম্পূর্ণ একবছরে এই কারেং ঘরটি তৈরি করেছিল। শুরুতে এতে কাঠ-বাঁশের প্রকাণ্ড চাংঘর ছিল। একে হোলোং বলে ডাকা হত। মিরজুমলার সাথে অসমে আসা সিিহাবুদ্দিন তালিসের মতে কারেং ঘরের বর্ণনা হ'ল, "রাজার সোলং (হোলং) ঘরটি দৈর্ঘ্যে ১২০ হাত, প্রস্থে ৩০ হাত; এই ঘরে ৬৬ টা স্তম্ভ। প্রত্যেকটি বিতোপন স্তমে্ভর বেড় বা পরিধি ৪ হাত করে। ঘরটির চালগুলি আচরিত কৌশল খাটিয়ে কাঠের কারুকার্যে সুশোভিত করা। সেই অবস্থা থেকে স্বর্গদেউ রাজেশ্বর সিংহের হাতে আটকধুনীয়া রাজপ্রাসাদে পরিণত হ'ল গড়গাঁওয়ের কারেং ঘর।"[১]


গ্যালারি[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Kareng Ghar - onlinesivasagar.com"Abhijit Borah। onlinesivasagar.com। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৩ 
  2. "Assam Monuments and Museums - Gargaon Palace"। mapsofindia.com। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৩ 
  3. "Kareng Ghar, Gargaon"। Assam Online Portal। ২০১৩। ১৯ জুলাই ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৩ 
  4. শান্তনু কৌশিক বরুয়া। বিশ্ব ঐতিহ্য 
  5. "About Kareng Ghar, Gargaon in Assam Portal"। Assam Portal। ২৫ অক্টোবর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ November 05, 2012  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

  • Kareng Ghar, Gargaon সম্পর্কে assamportal.com তে বিস্তারিত তথ্য দেখুন
  • Kareng Ghar সম্পর্কে indiamapped.com তে তথ্য এবং ভিডিও
  • কারেং ঘর সম্পর্কে meghalayatimes.org তে তথ্য এবং চিত্র আছে।
  • Kareng Ghar & Talatal Ghar সম্পর্কে mapsofindia.com ওয়েবসাইটে