কাজাখস্তানের পর্যটন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

কাজাখস্তান হচ্ছে আয়তনে পৃথিবীর নবম বৃহত্তম এবং সবচেয়ে বড় স্থলাবদ্ধ দেশ। ২০১৪ সালের মতে, কাজাখস্তানের জিডিপির ০.৩% এসেছে পর্যটন থেকে, তবে কাজাখস্তান সরকার ২০২০ সাল নাগাদ এই সংখ্যা ৩% এ উন্নীত করতে চায়।[১][২] ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের ২০১৭ সালের ভ্রমণ এবং পর্যটন প্রতিযোগিতামূলক রিপোর্ট অনুযায়ী, কাজাখস্তানের জিডিপির $৩.০৮ বিলিওয়ন ডলার বা সম্পূর্ণ জিডিপির ১.৬ শতাংশ আসে ভ্রমণ ও পর্যটন শিল্প থেকে। ২০১৭ সালের ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের রিপোর্ট অনুযায়ী কাজাখস্তান ৮১তম স্থান অধিকার করেছে, যা পূর্বের বছরগুলোর তুলনায় চার ধাপ এগিয়ে।[৩]

শিল্প[সম্পাদনা]

২০১২ সালে, পর্যটক আসার দিক থেকে কাজাখস্তান বিশ্বের মধ্যে ৫১তম অবস্থানে ছিল। ২০০০ সালে কাজাখস্তানে মোট ১.৪৭ মিলয়ন আন্তর্জাতিক দর্শনার্থী পর্যটনের জন্য এসেছে, যা ২০১২ সালে বৃদ্ধি পেয়ে ৪.৮১ মিলিয়নে উন্নীত হয়।[৪] কাজাখস্তানের চমকপ্রদ পাহাড় পর্বত, হৃদ এবং মরুভূমির ভূপ্রাকৃতিক দৃশ্যের পর্যটক আকর্ষণ থাকা সত্ত্বেও, দ্য গার্ডিয়ান ম্যাগাজিন কাজাখস্তানকে "অতিকায় অনুন্নত" হিসেবে বর্ণনা করেছে।[৫] যেসব বিষয় দর্শনার্থীদের ভ্রমণে বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে বলে উল্লেখ কর হয়, এগুলোর মধ্যে রয়েছে- অতিরিক্ত মূল্য, "জীর্ণশীর্ণ অবকাঠামো," "মন্দ পরিসেবা" এবং ভূগোলিকভাবে প্রাচুর্যপূর্ণ, অনুন্নত দেশে ভ্রমণের ক্ষেত্রে যৌক্তিক সমস্যাবলী।[৫] এমনকি দেশের স্থানীয় পর্যটকদের জন্যেও, কাজাখস্তানে ছুটি কাটানো দেশের বাইরে ছুটি কাটানোর থেকেও দ্বিগুণ ব্যয় বহুল।[৫] ব্রিটেনের প্রিন্স হ্যারীর মত উচ্চ শ্রেণীর পর্যটকরা কাজাখস্তানে এসে স্কিইং করেছেন।[৬]

সরকারি পদক্ষেপ[সম্পাদনা]

মানবাধিকার লঙ্ঘন এবং বিরোধী দলীয় রাজনৈতিকদের দমন পীড়নের দীর্ঘসূত্রী ইতিহাসের, কাজাখ সরকার,[৭] "পর্যটন শিল্প উন্নয়ন পরিকল্পনা ২০২০" নামে একটি পদক্ষেপ হাতে নিয়েছে। এই পদক্ষেপের মধ্যে রয়েছে কাজাখস্তানের পাঁচটি পর্যটন অঞ্চল: আস্তানা শহর, আলমাটি শহর, পূর্ব কাজাখস্তান, দক্ষিণ কাজাখস্তান, এবং পশ্চিম কাজাখস্তান এলাকা। দেশটি এই খাতে ২০২০ সাল নাগাদ $৪ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের আশা করেছে এবং ৩,০০,০০০ নতুন কর্মসংস্থান তৈরি করতে চাচ্ছে।[৫][৮]

ভিসা নীতি[সম্পাদনা]

কাজাখস্তান সর্বোচ্চ ৯০ দিন পর্যন্ত আর্মেনিয়া, বেলারুশ, জর্জিয়া, মলদোভা, কির্গিজস্তান, মঙ্গোলিয়া, রাশিয়া এবং ইউক্রেনের নাগরিকদের জন্য এবং সর্বোচ্চ ৩০ দিন পর্যন্ত আর্জেন্টিনা, আজারবাইজান, সার্বিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, তাজিকিস্তান, তুরস্ক এবং উজবেকিস্তান নাগরিকদের জন্য স্থায়ী ভিসা-মুক্ত ব্যবস্থার সুযোগ করে দিয়েছে।[৯]

কাজাখস্তান ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং ওইসিডি সদস্য রাষ্ট্র, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, সংযুক্ত আরব আমিরাত, দক্ষিণ কোরিয়া, অস্ট্রেলিয়া, এবং নিউজিল্যান্ড সহ ৪৫টি দেশের নাগরিকদের জন্য স্থায়ী ভিসা-মুক্ত ব্যবস্থার প্রচলন করেছে।[১০]

দেশ অনুযায়ী আগমন[সম্পাদনা]

কাজাখস্তানে আগত বেশির ভাগ দর্শনার্থী নিচের দেশ সমূহ থেকে এসেছে:[১১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Joanna Lillis for EurasiaNet, part of the New East। "Summer holiday in Kazakhstan? Astana eases visa restrictions to attract tourists | World news"The Guardian। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-১১-১৮ 
  2. "Kazakhstan: Astana Announces Visa-Free Travel for 10 High-Investing States"। EurasiaNet.org। ১৬ জুন ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-১১-১৮ 
  3. "Country profiles"Travel and Tourism Competitiveness Report 2017 (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৪-০৭ 
  4. "International tourism, number of arrivals – Kazakhstan"। Mecometer.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-১১-১৮ 
  5. Lillis, Joanna (১৭ জুলাই ২০১৪)। "Summer holiday in Kazakhstan? Astana eases visa restrictions to attract tourists"The Guardian। সংগ্রহের তারিখ ১১ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  6. "Prince Harry in Kazakhstan: ski resorts and other attractions"। The Daily Telegraph। সংগ্রহের তারিখ ১১ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  7. Zarakhovich, Yuri (২৭ সেপ্টেম্বর ২০০৬)। "Kazakhstan Comes on Strong"Time। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  8. "Kazakhstan to develop its tourism industry. Environment. Tengrinews.kz"। En.tengrinews.kz। ১৮ জুন ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-১১-১৮ 
  9. "Visa Information"TimaticIATA। ১৪ মার্চ ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ এপ্রিল ২০১৬ 
  10. "Kazakhstan abolishes visa requirements for travellers from 45 countries"। The Lonely Planet। 
  11. Туризм Казахстана. 2.4 Количество посетителей по въездному туризму

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]