ইরান আন্তর্জাতিক পবিত্র কুরআন প্রতিযোগিতা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ইরান আন্তর্জাতিক পবিত্র কুরআন প্রতিযোগিতা
প্রদানের কারণকুরআন মুখস্থকরন ও তেলওয়াত করা
পৃষ্ঠপোষকইরান সরকার
আওকাফ ও দাতব্য বিষয়ক সংস্থা
তারিখ১৯৮২; ৪১ বছর আগে (1982)
অবস্থানহোসেনিয়েহ এরশাদ, তেহরান
দেশইরান

ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরানের আন্তর্জাতিক পবিত্র কোরআন প্রতিযোগিতা হল আন্তর্জাতিক ইসলামি কুরআন পাঠের প্রতিযোগিতা যা ইরানে ১৯৮২ সাল থেকে প্রতি বছর অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।[১] এই আয়োজনটি সারা বিশ্বের কুরআন প্রতিযোগিতার মধ্যে উল্লেখযোগ্য একটি আয়োজন।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৮২ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি প্রোগ্রামটি শুরু হয় এবং ১২টি দেশ মালয়েশিয়া, বাংলাদেশ, ভারত, ইরাক, সিরিয়া, গিনি, আলজেরিয়া এবং লিবিয়া এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। এটি তেহরানের হোসেইনিয়েহ এরশাদে অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগিতাটি প্রতি বছর রজব মাসের চান্দ্র মাসে অনুষ্ঠিত হয় এবং এটি দেশটির আওকাফ এবং দাতব্য বিষয়ক সংস্থা দ্বারা স্পনসর করা হয়।[২]

বহু বছর ধরে এই প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে হোসেইনিয়েহ এরশাদ নামক শহরে। ২য় প্রতিযোগিতা ১ থেকে ৬ এপ্রিল ১৯৮৩ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয় এবং মহিলারা প্রথমবারের মতো প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে।[৩]

বিভিন্ন মুসলিম ও অমুসলিম দেশ থেকে কুরআন তেলাওয়াতকারী এবং মুখস্থকারীরা সপ্তাহব্যাপী আন্তর্জাতিক কুরআন তেলওয়াতের এই আয়োজনে অংশগ্রহণ করে।[৪]

বিষয়বস্তু[সম্পাদনা]

মূলত, প্রতিযোগিতায় দুটি বিষয় ছিল, সম্পূর্ণ কুরআন মুখস্থ করা এবং কুরআনের তাহকিক তেলাওয়াত। এখন এটি তিনটি পরিবর্তনশীল বিষয় নিয়ে গঠিত।[৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "International Competition of Holy Quran"Mashreghnews (Persian ভাষায়)। 
  2. "Saudi Qari hails Iran's Quran competition as venue for promoting unity"ABNA। ২০১৬-০৩-০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  3. "Islamic Republic of Iran's International Holy Quran Competition"Mehrnews (Persian ভাষায়)। 
  4. "Iran's 32nd int'l Quran contest slated for May 15"IRNA। ২০১৬-০৩-০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  5. "Iran's 32nd Int'l Quran Contest Slated for May 15"। ২০১৫-১১-২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা।