আশুতোষ ভরদ্বাজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

আশুতোষ ভরদ্বাজ (১৯১৪ - ১৬ এপ্রিল, ১৯৯৩) একজন বাঙালী ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা সংগ্রামী, সাম্যবাদী কর্মী ও মুক্তিযোদ্ধা।

তার পিতার নাম ছিল উমাচরণ ভরদ্বাজ, মাতা অন্নদাসুন্দরী দেবী, আশুতোষ ভরদ্বাজের জন্ম হয় অধুনা বাংলাদেশেফরিদপুর জেলার কোটালিপাড়ায়।

বিপ্লবী কর্মকান্ড[সম্পাদনা]

কোটালিপাড়া ইউনিয়ন ইনস্টিটিউশনে পড়ার সময়েই বিপ্লবীদের সাহচর্যে আসেন। ১৯৩৫ খ্রিষ্টাব্দে কোটালিপাড়ার একটি রাজনৈতিক হত্যা মামলায় যুক্ত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়ে যাবজ্জীবন কারাদন্ডে দন্ডিত হন ও আন্দামানে পাঠানো হয় তাকে। সেলুলার জেলে থাকাকালীন মার্ক্সবাদের প্রতি আকৃষ্ট হন এবং সেখানে গঠিত কমিউনিস্ট কনসলিডেশনে যোগ দেন।[১]

সাম্যবাদী আন্দোলন[সম্পাদনা]

তিনি ১৯৪৬ খ্রিষ্টাব্দে মুক্তি পাওয়ার পর ভারতের কমিউনিস্ট পার্টির সদস্য হন এবং পার্টির নির্দেশে ফরিদপুরে যান সংগঠনের কাজে। এই সংগঠনের কাজ আমৃত্যু করে গেছেন, দেশভাগের পরে তিনি ভারতে আসেননি। বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির একজন সক্রিয় সদস্য হিসেবে বহুবার কারারুদ্ধ হয়েছেন, তার জীবনের ৩১ বছর জেলে কেটেছে। তেভাগা আন্দোলনে অংশ নিয়ে রাজশাহী সেন্ট্রাল জেলের কুখ্যাত খাপড়া ওয়ার্ডে বন্দী ছিলেন। ১৯৫০ সালের ২৪ এপ্রিল নিরস্ত্র রাজবন্দীদের ওপর গুলিচালনার ঘটনায় মারাত্মকভাবে আহত হয়েছিলেন তিনি। এইদিনই কারারক্ষীর গুলিতে শহীদ হন বিজন সেন, আনোয়ার হোসেন (ছাত্র নেতা), কম্পরাম সিং, হানিফ সেখ সহ সাতজন কমিউনিস্ট বিপ্লবী।[২]

মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীন বাংলাদেশ[সম্পাদনা]

প্রবীন বয়েসেও বিপ্লবী আশুতোষ ভরদ্বাজ বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশ নেন। ১৯৭১ সালে ন্যাপ-কমিউনিস্ট পার্টি-ছাত্র ইউনিয়ন সমন্বয়ে গঠিত বনগাঁ ক্যাম্প ইনচার্জের দায়িত্ব পালন করেছেন সাহসের সাথে। স্বাধীন বাংলাদেশ গঠনের পর তিনি ফরিদপুর জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছিলেন। সর্বজনশ্রদ্ধেয় ও প্রজ্ঞাবান সাম্যবাদী নেতা হিসেবে তার সুখ্যাতি ছিল। বাংলাদেশ পূনর্গঠনের কাজে তার অবদান রয়েছে।

মৃত্যু[সম্পাদনা]

বিপ্লবী আশুতোষ ভরদ্বাজ অকৃতদার ছিলেন। ১৬ এপ্রিল, ১৯৯৩ সালে তিনি মারা যান।[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ২য় খন্ডের সংযোজন, অঞ্জলি বসু সম্পাদিত (২০০৭)। সংসদ বাঙালি চরিতাভিধান। কলকাতা: সাহিত্য সংসদ। পৃষ্ঠা ৮। 
  2. রক্তস্নাত খাপড়া ওয়ার্ড মুক্তির লড়াইয়ে আজও পথ দেখায়, অনিরুদ্ধ দাশ অঞ্জন। "মতামত"। বিডি নিউজ ২৪। সংগ্রহের তারিখ ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৭  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)