আলিবাবা ক্লাউড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
আলিবাবা ক্লাউড
শিল্প ক্লাউড কম্পিউটিং, ওয়েব সেবাসমূহ
প্রতিষ্ঠাকাল ২০০৯
প্রধান ব্যক্তি
মূল প্রতিষ্ঠান আলিবাবা গ্রুপ
ওয়েবসাইট www.alibabacloud.com

আলিবাবা ক্লাউড (চীনা: 阿里云; ফিনিন: Ālǐ yún; সোজাসুজি: আলি ক্লাউড; সাবেক: আলিইউন), আলিবাবা গ্রুপ এর সহায়ক একটি ক্লাউড কম্পিউটিং কোম্পানি। আলিবাবা ক্লাউড অনলাইন ব্যবসা এবং আলিবাবা গ্রুপের নিজস্ব ই-বাণিজ্য পরিবেশ ব্যবস্থায় ক্লাউড কম্পিউটিং সেবা প্রদান করে। আলিবাবা ক্লাউডের আন্তর্জাতিক কার্যক্রম নিবন্ধন এবং সদর দফতর সিঙ্গাপুরে অবস্থিত, এবং কোম্পানীটির দুবাই, আয়ারল্যান্ড, হংকং, লন্ডন, নিউইয়র্ক, প্যারিস, সান মাতেও, সিওল, আফ্রিকা, সিডনি ও টোকিওতে আঞ্চলিক সদর দপ্তর রয়েছে।

আলিবাবা ক্লাউড ক্লাউড পরিষেবা প্রদান করে থাকে। সেবাসমূহ পে-এজ-ইউ-গো ভিত্তিতে উপলব্ধ এবং এগুলোতে রয়েছে ডাটা সংরক্ষণ, সসম্পর্কিত তথ্যভাণ্ডার, বড় তথ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ, এন্টি-ডডস সুরক্ষা এবং তথ্য প্রদান ব্যবস্থা (সিডিএন)।

চীনের বৃহত্তম ক্লাউড কম্পিউটিং কোম্পানির অবস্থা থেকে,[১] আলিবাবা গ্রুপ বিশ্বজুড়ে ১৮টি ডাটা সেন্টার অঞ্চল এবং ৪২ প্রাপ্যতা অঞ্চলে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে। জুন ২০১৭-এর হিসেবে, আলিবাবা ক্লাউড বিশ্বব্যাপী ক্লাউড পরিসেবায় ৪র্থ স্থান অর্জন করে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

  • সেপ্টেম্বর ২০০৯ – আলিবাবা ক্লাউড প্রতিষ্ঠিত হয় এবং আরএন্ডডি কেন্দ্র এবং অপারেশন কেন্দ্রগুলি পরবর্তীতে হংজু, বেইজিং এবং সিলিকন ভ্যালিতে খোলা হয়।
  • নভেম্বর ২০১০ – Supported the first Single's Day (11.11) Taobao shopping festival, with 2.4 billion PV in 24 hours.
  • নভেম্বর ২০১২ – চীনের প্রথম ক্লাউড পরিসেবা প্রদানকারী হয় যারা ISO27001:2005 (তথ্য নিরাপত্তা ব্যবস্থাপনা সিস্টেম) অর্জন করে।
  • জানুয়ারি ২০১৩ - www.net.cn ব্যবসার জন্য হাইচায়নার সঙ্গে একত্রিত হয়।
  • আগস্ট ২০১৩ – একটি একক ক্লাস্টারে আপসারাডিবি স্থাপত্য সমর্থিত হয়।
  • ডিসেম্বর ২০১৪– ১৪ ঘন্টার একটি দীর্ঘ ডডস আক্রমন প্রতিরোধ করে, যা ৪৫৩.৮জিবাইট/সে. এ পৌঁছে।[২]
  • মে ২০১৪ - হংকং ডাটা সেন্টার অনলাইনে যায়।
  • অক্টোবর ২০১৫ – যুক্তরাষ্ট্রে দুইটি ডাটা সেন্টার অনলাইনে যায়।
  • জুলাই ২০১৫ - আলিবাবা গ্রুপ আলিবাবা ক্লাউডে ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করে।[৩]
  • আগস্ট ২০১৫ – আলিবাবা ক্লাউডের প্রথম সিঙ্গাপুর ডেটা সেন্টার খোলা হয়। সিঙ্গাপুরকে আলিবাবা ক্লাউডের বৈদেশিক সদর দফতর হিসাবে ঘোষণা করা হয়।
  • অক্টোবর ২০১৫ – MaxCompute took the lead of the Sort Benchmark, sorting 100TB data in 377s compared with Apache Spark's previous record of 1406s.[৪]
  • অক্টোবর ২০১৫ – আলীবাবা ক্লাউড কম্পিউটিং কনফারেন্স হংজুতে অনুষ্ঠিত হয় এবং ২০,০০০ এর বেশি ডেভেলপারদের আকর্ষণ করে।
  • নভেম্বর ২০১৫ – ১১.১১ শপিং উৎসবে ২৪ ঘন্টায় $১৪.২ বিলিয়ন ডলারের লেনদেনের রেকর্ড গড়ে।
  • এপ্রিল ২০১৬ – আলিবাবা ক্লাউড কোরিয়ান এবং চীনা কোম্পানিগুলির ক্লাউড পরিষেবা প্রদানের জন্য এসকে হোল্ডিংস সিএন্ডসি এর সাথে অংশীদারিত্ব করে।
  • মে ২০১৬ – আলিবাবা গ্রুপ এবং সফটব্যাংক জাপানের ক্লাউড সার্ভিসের উদ্বোধন করার যৌথ উদ্যোগের আওতায় এনেছে যেগুলো আলিবাবা ক্লাউড থেকে প্রযুক্তি ও সমাধান ব্যবহার করে।
  • জুন ২০১৬ – আলিবাবা ক্লাউড সিঙ্গাপুরের ডাটা সার্ভার অপারেশনকে দ্বিতীয় সুযোগ অঞ্চল প্রতিষ্ঠার সাথে বিস্তৃত করে। আলিবাবা ক্লাউড বিদেশে দুটি নতুন সার্টিফিকেট অর্জন করেছে: সিঙ্গাপুর মাল্টি-টায়ার ক্লাউড সিকিউরিটি (এমটিসিএস) স্ট্যান্ডার্ড লেভেল ৩, এবং পেমেন্ট কার্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডাটা সিকিউরিটি স্ট্যান্ডার্ড (পিসিআই-ডিএসএস)।
  • নভেম্বর ২০৬ - আলিবাবা ক্লাউড ডেটা সেন্টার অপারেশনের জন্য জার্মান ও ইউরোপীয় কোম্পানীর ক্লাউড পরিষেবা সরবরাহের জন্য ভোডাফোন জার্মানির সঙ্গে অংশীদারিত্ব গ্রহন করে। [৫][৬]
  • জানুয়ারি ২০১৭ – অলিম্পিকের জন্য আলিবাবা অফিসিয়াল ক্লাউড সার্ভিস প্রদানকারী হয়ে ওঠে।[৭]
  • জুন ২০১৭ – আলিবাবা ক্লাউড বিশ্বব্যাপী ক্লাউড পরিসেবায় ৪র্থ স্থান অর্জন করে।[৮]
  • জুলাই ২০১৭ – আলিবাবা ক্লাউডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট intl.aliyun.com থেকে www.alibabacloud.com এ পরিবর্তিত হয়।[৯]
  • সেপ্টেম্বর ২০১৭ – দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার ক্লাউড সমাধান প্রদানের জন্য আলীবাবা ক্লাউড মালয়েশিয়ার ফিউজেক্সেরর সঙ্গে অংশীদারিত্ব গ্রহন করে।[১০]
  • অক্টোবর ২০১৭ – আলিবাবা ক্লাউড এলাস্টিকের সাথে অংশীদারিত্ব করে এবং আলিবাবা ক্লাউড ইলাস্টিকসার্চ নামে একটি নতুন সেবা চালু করে।[১১]
  • অক্টোবর ২০১৭ - আলিবাবা ক্লাউড মালয়েশিয়া ডেটা সেন্টার অপারেশন শুরু করে।[১২]
  • ডিসেম্বর ২০১৭ - আলিবাবা ক্লাউড ইন্ডিয়া ডেটা সেন্টার অপারেশন শুরু করে।[১৩]
  • ফেব্রুয়ারি ২০১৮ - আলিবাবা ক্লাউড ইন্দোনেশিয়া ডেটা সেন্টার অপারেশন শুরু করে।[১৪]

ডেটা সেন্টার অঞ্চল[সম্পাদনা]

আলিবাবা ক্লাউডের ১৮ টি আঞ্চলিক তথ্য কেন্দ্র রয়েছে যেগুলো হচ্ছে চীনের উত্তর, চীন দক্ষিণ, চীন পূর্ব, মার্কিন পশ্চিম, মার্কিন পূর্ব, ইউরোপ, মধ্যপ্রাচ্য, জাপান, হংকং, সিঙ্গাপুর, অস্ট্রেলিয়া, মালয়েশিয়া, ভারত এবং ইন্দোনেশিয়া ।

ইউরোপের ডেটা সেন্টার ভোডাফোন জার্মানি দ্বারা পরিচালিত এবং ফ্রাঙ্কফুর্টে অবস্থিত।[৫][৬]

সেবা[সম্পাদনা]

আলিবাবা ক্লাউড প্রদান করে ক্লাউড কম্পিউটিং IaaS, PaaS, এবং SaaS, সেবা সমূহের মধ্যে রয়েছে ই-কমার্স, বিগ ডাটা, IoT, এবং ডাটা কাস্টমাইজেশন।

একাডেমিক সহযোগী[সম্পাদনা]

২০১৭-এ, আলিবাবা ক্লাউড এবং সিঙ্গাপুর ইউনিভার্সিটি অব সোশ্যাল সায়েন্সেস যৌথভাবে একটি তৃতীয় পক্ষের ছাত্রদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়-স্বীকৃত উদ্যোক্তা প্রোগ্রাম চালু করে।[১৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Eileen Yu (২০১৭-০৮-১৮)। "Alibaba's fiscal 2017 revenue climbs 56 percent on cloud, mobile commerce growth | ZDNet"ZDNet (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৬-২০ 
  2. "PCCW Global and Alibaba Cloud expand strategic cooperation to collaboratively protect businesses against cyber attacks"। ২০১৬-০৮-২৫। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৮-১৮ 
  3. Barb Darrow। "Alibaba backs Aliyun cloud with another billion dollars"Fortune। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৮-১৮ 
  4. Hang Zhi Cheng (২০১৫-১০-৩০)। "AliCloud Technology Sets World Sorting Records Company's FuxiSort solution sorts 100TB of data in 377 seconds"। The Tech Revolutionist। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৮-১৮ 
  5. "Markteintritt in Europa: Alibaba Cloud setzt auf Rechenzentrum von Vodafone Deutschland - Vodafone Medien"Vodafone Medien (জার্মান ভাষায়)। ২০১৬-১১-২১। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৭-০১ 
  6. "Vodafone Partnership"www.alibabacloud.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৭-১০ 
  7. Fitz Tepper (২০১৭-০১-১৯)। "Alibaba is now the official cloud services provider of the Olympics"TechCrunch। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৮-১৮ 
  8. Jordan Novet (২০১৭-০৬-১৫)। "Alibaba just got a huge vote of confidence in the cloud war against Amazon and Microsoft"CNBC। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৮-১৮ 
  9. "Alibaba Cloud International Website Official Domain Name Change"www.alibabacloud.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৭-০৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৮-১৮ 
  10. "Alibaba Cloud partners with Malaysia's Fusionex to provide cloud solutions in Southeast Asia" 
  11. "Alibaba Cloud to Offer Elasticsearch, Kibana, and X-Pack in China" 
  12. "Alibaba Cloud Malaysia Data Center Commences Operations" 
  13. "Alibaba Cloud Opens New Data Center in India | Alizila.com"Alizila.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-১২-১৯। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-২০ 
  14. Yu, Eileen। "Alibaba opens data centre in Indonesia | ZDNet"ZDNet (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-২০ 
  15. Alibaba Cloud (২০১৭-০৯-০৬)। "SUSS and Alibaba Cloud to Spur Entrepreneurship With New Accredited Program" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৫-২৬