আলাপ:রফিকুল ইসলাম (বীর উত্তম)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

মুক্তিযুদ্ধে অবদান[সম্পাদনা]

এই অনুচ্ছেদে মুক্তিযুদ্ধে সর্বজন শ্রদ্ধেয় রফিকুল ইসলাম (বীর উত্তম) এর আবদানের যে বর্ণনা দেয়া হয়েছে তার কোন কোন অংশ প্রশ্নযোগ্য, কেননা তা প্রচলিত বয়ানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক;— ভাষাগত কোন কারণেও তা হতে পরে। কাজেই নিরপেক্ষ কোনো সূত্র থেকে যাচাই করে নেয়ার আবশ্যকতা আছে। নিম্নোক্ত দুটি অংশের বয়ান প্রশ্নযোগ্য: (ক) "পরবর্তীতে লেফটেন্যান্ট কর্নেল চৌধুরী ও মেজর জিয়াউর রহমান সময়োচিত সিদ্ধান্ত নিতে না পারায় ২০ বালুচ রেজিমেন্ট-এর সৈন্যরা চট্টগ্রামে অবস্থিত ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টাল সেন্টার-এর সহস্রাধিক বাঙালি সৈনিক ও অফিসারকে সপরিবারে নৃশংসভাবে হত্যা করে;";দ্বিতীয়ত; এবং (খ) "মেজর জিয়াউর রহমানের অধীনে ৮ম ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট-এর বাঙালি অফিসার ও সৈনিকরা ক্যান্টনমেন্ট ত্যাগ করে কালুরঘাট ব্রিজের দিকে অবস্থান নেয়। কিন্তু রহস্যজনক কারণে চট্টগ্রামের অন্যান্য সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে আগত ক্যাপ্টেন রফিকের অধীনস্থ ইপিআর সৈনিকদের মেজর জিয়াউর রহমান চট্টগ্রামে ক্যাপ্টেন রফিকের বাহিনীর সাথে যোগদানে বাধা দেন এবং ৮ম ইস্ট বেঙ্গলের সৈনিকদের সাথে কালুরঘাট ব্রিজ এলাকায় অবস্থান নিতে বাধ্য করেন।" — আশা করি তৃতীয় কোন সূত্রে নিরপেক্ষতর বয়ান পাওয়া সম্ভব হবে। -Faizul Latif Chowdhury (আলাপ) ১৬:৪৩, ৪ ডিসেম্বর ২০১২ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]