আদর্শ হিন্দু হোটেল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আদর্শ হিন্দু হোটেল
আদর্শ হিন্দু হোটেল বইয়ের প্রচ্ছদ.jpeg
আদর্শ হিন্দু হোটেল বইয়ের প্রচ্ছদ
লেখকবিভূতিভূষণ বন্দোপাধ্যায়
দেশভারত
ভাষাবাংলা
ধরনউপন্যাস
পটভূমিবঙ্গ
প্রকাশিত১৯৪০

আদর্শ হিন্দু হোটেল বিখ্যাত কথাসাহিত্যিক বিভূতিভূষণ বন্দোপাধ্যায় রচিত একটি সামাজিক উপন্যাস। এর প্রকাশকাল ১৯৪০।[১][২][৩] ইংরেজ সময়ের পটভূমিতে এ উপন্যাসে লেখক তৎকালীন ব্রাহ্মণ সমাজের একজন 'রাঁধুনী বামুণ', হাজারী দেবশর্মার জীবনকথা সুনিপুণ ভাবে তুলে ধরেছেন।[৪]

কাহিনী[সম্পাদনা]

হাজারী ঠাকুর, এক মধ্যবয়সী বাঙালি ব্রাহ্মণ, উপন্যাসটির প্রধান চরিত্র। সে রানাঘাট স্টেশনের রেল বাজারের এক ক্ষুদ্র খাবার হোটেলের রাধুনী, যে হোটেলের মালিক বেচু চক্রবর্তী। মাসে সে সাত টাকা বেতন পায়। হোটেলের ক্রেতারা প্রায়শই প্রতারণা করত এবং পদ্মা হোটেলের খাবার চুরি করত। হাজারি এইগুলির বিপক্ষে, তবে সে কেবল রন্ধনি হওয়ায় তার কিছু বলার অধিকার নেই। এখানে পদ্ম নামের হোটেলের এক কাজের মেয়ে তাঁকে প্রায় উপহাস ও অপমান করত। হাজারি তার নিজের হোটেল চালু করার স্বপ্ন দেখে, তবে সে জন্য তার জন্য ২০০ টাকা দরকার। কুসুম হল এক অল্প বয়সী বিধবা, যাকে হাজারি তার মেয়ে হিসাবে বিবেচনা করে। একদিন হোটেলের বাসন চুরি হয়ে যায় এবং পুলিশ হাজারিকে গ্রেপ্তার করে। এই ঘটনার পর সে হোটেলের চাকরি হারায়।

নিজের গ্রামের কুসুম ও আতশীর কাছ থেকে ঋণ নিয়ে হাজারি নিজের হোটেল চালু করে। এখানে সে নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে কঠোর পরিশ্রম করে। মাত্র এক বছরের মধ্যে তার হোটেলটি এলাকার সর্বাধিক জনপ্রিয় হোটেলে পরিণত হয়। এই অঞ্চলের আরও দুটি হোটেল: একটি বেচু চক্রবর্তীর এবং অন্যটি যদু বন্দ্যোপাধ্যায়ের, প্রায় বন্ধ হয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়। রেলওয়ে প্ল্যাটফর্মে সরকার পরিচালিত একটি হোটেল পরিচালনা করতে হাজারি রেলওয়ের টেন্ডারও পায়। উপন্যাসের শেষে হাজারি একটি বড় হোটেল পরিচালনা করার জন্য একটি চুক্তিতে স্বাক্ষর করে এবং বোম্বাই যায়। যাওয়ার আগে, সে বেচু চক্রবর্তীকে (যার নিজস্ব হোটেলটি বন্ধ হয়ে যায়) মার্কেট এলাকার হোটেলটির পরিচালক হিসাবে নিয়োগ দেয়। সে পদ্মকেও একটি চাকরিও দেয়, যে তাকে আগের মত এখনো অপমান করত।

অভিযোজন[সম্পাদনা]

১৯৫৭ সালে এই উপন্যাস অবলম্বনে একই নামে একটি বাংলা চলচ্চিত্র নির্মিত হয়। ছবিটি পরিচালনা করেছিলেন অর্ধেন্দু সেন।[৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. চট্টোপাধ্যায়, সুনিলকুমার (১ জানুয়ারি ১৯৯৪)। Bibhutibhushan Bandopadhyaya। সাহিত্য আকাদেমি। পৃষ্ঠা ৫৩–। আইএসবিএন 978-81-7201-578-7 
  2. জর্জ, কে. এম. (১৯৯২)। Modern Indian Literature, an Anthology: Fiction। সাহিত্য আকাদেমি। পৃষ্ঠা ১১২। আইএসবিএন 978-81-7201-506-0 
  3. "হাজারি ঠাকুরেরই….."আদর্শ হিন্দু হোটেল""www.shobdoneer.com। শব্দনীড়। ৩০ নভেম্বর ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০১৬ 
  4. "আদর্শ হিন্দু হোটেল by Bibhutibhushan Bandyopadhyay"goodreads.com। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০২০ 
  5. "Adarsha Hindu Hotel (1957)"gomolo.com। গোমোলো। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]