অর্ডার অব দ্য ফিনিক্স (কাল্পনিক সংগঠন)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্স
হ্যারি পটার সংগঠন
Orderphoenix.jpg
হ্যারি পটার অ্যান্ড দ্য অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্স চলচ্চিত্রে দেখানো কয়েকজন অর্ডার সদস্য, বাম থেকে ডানেঃ অ্যালাস্টর মুডি, নিমফাডোরা টোংক্স, সিরিয়াস ব্ল্যাক, রেমাস লিউপেন ও অ্যালবাস ডাম্বলডোর
প্রধান কার্যালয় ১২ গ্রিমল্ড প্লেস (, )
দ্য বারো ()
নেতা অ্যালবাস ডাম্বলডোর
উদ্দেশ্য লর্ড ভলডেমর্ট এর ক্ষমতা দখলের ষড়যন্ত্র প্রতিহত করা।
শত্রু লর্ড ভলডেমর্ট ও তার ডেথ ইটারবৃন্দ এবং জাদু মন্ত্রনালয়
প্রথম উপস্থিতি হ্যারি পটার অ্যান্ড দ্য অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্স
শেষ উপস্থিতি হ্যারি পটার অ্যান্ড দ্য ডেথলি হ্যালোস

অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্স (ইংরেজিতে Order of the Phoenix) হচ্ছে ব্রিটিশ লেখিকা জে কে রাউলিং রচিত হ্যারি পটার উপন্যাস সিরিজের একটি সংগঠনের নাম। লর্ড ভলডেমর্ট ও তার অনুসারী ডেথ ইটারদের বিরুদ্ধে লড়াই করা এবং তাদের জাদুবিশ্ব নিয়ন্ত্রণের অশুভ তৎপরতা প্রতিহত করার উদ্দেশ্যে অ্যালবাস ডাম্বলডোর এই গোপন সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা করেন। এর নামানুসারেই সিরিজের পঞ্চম বইয়ের নাম হ্যারি পটার অ্যান্ড দ্য অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্স রাখা হয়।

পরিচ্ছেদসমূহ

ইতিহাস[সম্পাদনা]

প্রাথমিক যুগ[সম্পাদনা]

যখন টম মারভোলো রিডল তার প্রকৃত নামের বদলে "লর্ড ভলডেমর্ট" নামটি ব্যবহার করতে শুরু করে এবং জাদুবিশ্বে যুদ্ধের সূচনা করে, তখন ডাম্বলডোর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য 'অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্স' সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা করেন। বেশ কিছুসংখ্যক জাদুকর ও জাদুকরি সংগঠনটিতে যোগ দেয়। তাদের উদ্দেশ্য ছিল, ভলডেমর্টকে জাদুবিশ্বের দখল নেয়া এবং অন্যায়-অনাচার ও ত্রাসের রাজত্ব কায়েম থেকে বিরত রাখা। এই সময়ে (সিরিজ শুরু হওয়ার পূর্ববর্তী সময়), অর্ডারকে মারাত্মক রকমের ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয়। অর্ডারের সদস্য প্রিওয়েট, বোন্স ও ম্যাককিনন্স পরিবারের অধিকাংশ সদস্য ডেথ ইটারদের হাতে নিহত হয়। এছাড়া বেল্লাট্রিক্স লেস্ট্র্যাঞ্জ ও অন্যান্য ডেথ ইটারদের নির্যাতনে লংবটমদের স্মৃতিশক্তি স্থায়ীভাবে বিনষ্ট হয়। সিরিজের শুরুর দিকে ভলডেমর্ট জেমসলিলি পটারকে হত্যা করে এবং তাদের ছেলে হ্যারি পটারকে হত্যা করার ব্যর্থ প্রচেষ্টা চালায় এবং এর মাধ্যমে শেষ হয় ভলডেমর্টের ত্রাসের প্রথম রাজত্ব। এভাবে ভলডেমর্ট উধাও হয়ে যাওয়ার ফলশ্রুতিতে সাময়িকভাবে বন্ধ হয়ে যায় অর্ডারের কার্যক্রম।

ভলডেমর্টের পুনরুত্থান পরবর্তী যুগ[সম্পাদনা]

অ্যালবাস ডাম্বলডোর, অর্ডারের প্রতিষ্ঠাতা

সিরিজের চতুর্থ বই হ্যারি পটার অ্যান্ড দ্য গবলেট অফ ফায়ারের শেষদিকে ভলডেমর্টের পুনরাগমনের প্রেক্ষিতে ডাম্বলডোর 'অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্স' সংগঠনটি পুনর্গঠন করেন। এসময় পুরনো সদস্যদের পাশাপাশি অনেক নতুন সদস্যও অর্ডারে যোগ দেয়। সিরিয়াস ব্ল্যাক[১] এর পারিবারিক বাড়ি 'বার নম্বর গ্রিমল্ড প্লেস' এ অর্ডারের সদর দপ্তর স্থাপন করা হয়। ডাম্বলডোর ছিলেন অর্ডারের সিক্রেট কিপার; অর্থাৎ কেবলমাত্র তিনিই অন্যদের কাছে অর্ডারের সদর দপ্তরের অবস্থান প্রকাশ করতে সক্ষম ছিলেন। ষষ্ঠ বই হ্যারি পটার অ্যান্ড দ্য হাফ-ব্লাড প্রিন্সে সেভেরাস স্নেইপের হাতে ডাম্বলডোর নিহত হওয়ার পর এই নিরাপত্তা ব্যবস্থা কার্যত ভেঙ্গে পড়ে। তাই 'দ্য বারো' তে অর্ডারের সদর দপ্তর সরিয়ে নেয়া হয়।{{en:HP7}}

ভলডেমর্টের পুনরুত্থানের পর সামগ্রিক পরিস্থিতি বেশ জটিল হয়ে পড়ে। জাদু মন্ত্রনালয় প্রথমে ভলডেমটের পুনরাগমনের বিষয়টি সম্পূর্ণভাবে উপেক্ষা করে এবং বিষয়টি মেনে নিতে অস্বীকৃতি জানায়। ফলে ভলডেমর্ট ও তার ডেথ ইটারদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের নেতৃত্ব চলে আসে অর্ডারের হাতে। পঞ্চম বইয়ে, কিছু সংখ্যক অর্ডার সদস্যকে সিবিল ট্রিলনির প্রফেসি বা ভবিষ্যতবাণী রক্ষার কাজে নিয়োজিত করা হয়। উল্লেখ্য যে এই প্রফেসিটিতেই হ্যারির হাতে ভলডেমর্টের চূড়ান্ত পতনের বিষয়টি ভবিষ্যতবাণী করা হয়েছিল। এছাড়া অর্ডারের অরিজিনাল সদস্য রুবিয়াস হ্যাগ্রিড অলিম্পে ম্যাক্সিমের সহায়তায় অর্ডারের পক্ষে দানবদের রিক্রুট করার চেষ্টা চালায়। পঞ্চম বইয়ের শেষদিকে কয়েকজন অর্ডার সদস্য ডিপার্টমেন্ট অফ মিস্ট্রিজ এর ব্যাটলে অংশগ্রহণ করে। হাফ-ব্লাড প্রিন্সে ডাম্বলডোরের মৃত্যুর রাত্রিতে অর্ডার সদস্যরা হগওয়ার্টস দুর্গে অবস্থান নেয় এবং ডেথ ইটারদের বিরুদ্ধে লড়াই করে।

সিরিজের সর্বশেষ বই, ডেথলি হ্যালোসে অর্ডার সদস্যরা ডেথ ইটারদের প্রধান টার্গেট হ্যারি পটারকে ডার্সলিদের বাড়ি থেকে নিরাপদে সরিয়ে নিতে আসে। পরবর্তীতে, কয়েকজন অর্ডার সদস্য "পটারওয়াচ" নামে একটি গোপনীয় রেডিও অনুষ্ঠান সম্প্রচার করতে থাকে। এই অনুষ্ঠানে এমন সব সংবাদ ও আলোচনা প্রচার করা হত যা ভলডেমর্টের হাতের পুতুল জাদু মন্ত্রনালয় জনসাধারণকে জানতে দিত না। বইয়ের শেষদিকে অধিকাংশ অর্ডার সদস্য, ডাম্বলডোর'স আর্মি, হগওয়ার্টস এর শিক্ষক ও কর্মচারীবৃন্দ এবং ছাত্রছাত্রীরা একযোগে হগওয়ার্টসের যুদ্ধে অংশ নেয় এবং ডেথ ইটারদের বিরুদ্ধে লড়াই করে। যুদ্ধে বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ অর্ডার সদস্য ও তাদের সহযোগীরা নিহত হয়।[২][৩]

যেহেতু অর্ডারের মূল লক্ষ্য ছিল ভলডেমর্ট ও তার ডেথ ইটারদের বিরুদ্ধে লড়াই করা, তাই এটা জানা অসম্ভব যে, ভলডেমর্টের মৃত্যুর পর অর্ডার তার কার্যক্রম অব্যাহত রাখে নাকি সংগঠনটি বিলুপ্ত ঘোষিত হয়।

অর্ডারের সদস্যবৃন্দ[সম্পাদনা]

অর্ডারের সদস্যদের সাধারণত দুইভাগে ভাগ করা যায়। যারা অর্ডারের প্রাথমিক যুগে অর্থাৎ অরিজিনাল অর্ডারের সদস্য ছিল। এবং যারা পরে অর্ডার পুনর্গঠিত হওয়ার পর সেই পুনর্গঠিত অর্ডারের সদস্য। অর্ডারের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যেও অনেকে পুনর্গঠিত অর্ডারের সদস্য ছিল।

অরিজিনাল অর্ডারের সদস্যবৃন্দ[সম্পাদনা]

নিম্নোল্লিখিত চরিত্রসমূহ অরিজিনাল অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের সদস্য ছিল। পরবর্তীতে অর্ডার যখন পুনর্গঠিত হয় এদের মধ্যে অনেকেই পুনর্গঠিত অর্ডারে যোগ দেয়।

সিরিয়াস ব্ল্যাক[সম্পাদনা]

সিরিয়াস ব্ল্যাক (ইংরেজিতে Sirius Black), ছদ্মনাম প্যাডফুট (Padfoot), ছিলেন রক্তের বিশুদ্ধতার জন্য বিখ্যাত ব্ল্যাক পরিবারের সর্বশেষ উত্তরাধিকারী। তবে তিনি তাঁর পরিবারের বিশুদ্ধ-রক্ত (pure-blood) নীতি ও কালো জাদুর (Dark Arts) সাথে সম্পর্ক পরিত্যাগ করেছিলন। তিনি ছিলেন তাঁর পরিবারের একমাত্র সদস্য যিনি হগওয়ার্টসে গ্রিফিন্ডর হাউজের সদস্য ছিলেন, বাকি সবাই ছিলেন স্লিদেরিন হাউজের। তিনি একজন অ্যানিমেজাসও ছিলেন, এবং তার অ্যানিমেজি রূপ ছিল কুকুর। অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের প্রকৃত/গঠনকারী সদস্যদের মধ্যে তিনিও ছিলেন একজন।

স্কুলে তিনি জেমস "প্রংস" পটার, রেমাস "মুনি" লুপিনপিটার "ওয়ার্মটেইল" পেট্টিগ্রুর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্ব গড়ে তোলেন। ১৬ বছর বয়সে সিরিয়াস তাঁর বাড়ি থেকে পালিয়ে যান এবং জেমসের সাথে পটারদের বাড়িতে থাকতে শুরু করে। স্কুল ত্যাগ করার পরও জেমস ও তাঁর বন্ধুত্ব অটুট থাকে এবং জেমস ও লিলির বিয়েতে তিনি বেস্টম্যান হিসেবে থাকে। হ্যারির জন্মের পর জেমস ও লিলি সিরিয়াসকে হ্যারির গডফাদার বানান। পটাররা যখন ভলডেমর্টের হাত থেকে বাঁচার জন্য আত্মগোপন করেন, তখন সিরিয়াস পেট্টিগ্রুকে তাদের সিক্রেট-কিপার বানানোর পরামর্শ দেযন। কিন্তু পেট্টিগ্রু তাঁদের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেন এবং জেমস ও লিলি ভলডেমর্টের হাতে নিহত হন। এই ঘটনার পর সিরিয়াস পেট্টিগ্রুকে কোনঠাসা করে ফেলেন, কিন্তু এসময় পেট্টিগ্রু নিজেই নিজের মৃত্যুর ঘটনা সাজান এবং ১২ জন মাগলকে (Muggle) হত্যা করেন। আর পেট্টিগ্রুর এসব অপরাধের দায়ভার এসে পড়ে সিরিয়াসের উপর। ফলে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং আজকাবানে পাঠানো হয়। আজকাবানে থেকেও তিনি তাঁর মানসিক ভারসাম্য বজায় রাখতে সক্ষম হন কেননা তিনি নির্দোষ ছিলেন।

বারো বছর পর সিরিয়াস আজকাবান থেকে পালিয়ে আসতে সক্ষম হয়। কারণ তিনি ডেইলি প্রফেটে ওয়েসলে পরিবারের একটি ছবি দেখতে পান যেখানে রনের কাঁধের উপর স্ক্যাবার্স নামে একটি ইঁদুর ছিল, যা প্রকৃতপক্ষে পেট্টিগ্রুর অ্যানিমেজাস রূপ ছিল। সিরিয়াস আজকাবান থেকে হগওয়ার্টসে চলে আসেন, এবং বেশ কয়েকবার পেট্টিগ্রুকে খুন করার ব্যর্থ চেষ্টা করে। প্রিজনার অফ আজকাবানের শেষ দিকে হ্যারি, রন ও হার্মিওনি সিরিয়াসের মুখোমুখি হয় এবং প্রকৃত সত্য জানতে পারে যে, সিরিয়াস নয় বরং পেট্টিগ্রুই হ্যারির বাবা-মার হত্যার সাথে যুক্ত ছিলেন। এরপর লুপিন ও সিরিয়াস স্ক্যাবার্সকে পেট্টিগ্রুতে পরিণত করেন। কিন্তু তাঁকে নিয়ে হগওয়ার্টের দিকে যাওয়ার সময় পেট্টিগ্রু আবার ইঁদুরের রূপ ধারণ করেন এবং পালিয়ে যান। ডিমেন্টররা সিরিয়াসকে ধরে ফেলে। তবে হ্যারি ও হার্মিওনি টাইম-টার্নারের সহায়তায় সিরিয়াসকে মুক্ত করতে এবং বাকবিক নামক হিপোগ্রিফের সহায়তায় পালিয়ে যেতে সাহায্য করে।

গবলেট অফ ফায়ারে, সিরিয়াস হ্যারিকে ট্রাইউইজার্ড টুর্নামেন্টের পরীক্ষাগুলো সফলভাবে উতরানোর জন্য অনেক পরামর্শ দেন। অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে ডাম্বলডোর অর্ডার পুনর্গঠিত করলে সিরিয়াস পুনর্গঠিত অর্ডারে যোগ দেন। সিরিয়াসের পৈতৃক বাড়ি ১২ নাম্বার গ্রিমল্ড প্লেসে স্থাপন করা হয় অর্ডারের সদর দপ্তর। সিরিয়াস হ্যারিকে আমব্রিজের বিরুদ্ধে গোপন ছাত্র সংগঠন ডাম্বলডোর'স আর্মি গঠন করার জন্য উৎসাহ প্রদান করেন। বইয়ের শেষদিকে হ্যারি ভলডেমর্টের রচিত ফাঁদে পা দেয় এবং ভেবে বসে যে ভলডেমর্ট সিরিয়াসকে বন্দি করে নির্যাতন করছে[১]। তাই সে ও তার পাঁচ বন্ধু রন, হার্মিওনি, জিনি, নেভিললুনা সিরিয়াসকে উদ্ধার করার জন্য জাদু মন্ত্রণালয়ে যায়। এসময় লুসিয়াস ম্যালফয়ের নেতৃত্বাধীন ডেথ ইটাররা তাদেরকে আক্রমণ করে। এদিকে স্নেইপ অর্ডারকে এই তথ্য জানিয়ে দেয়। ফলে সিরিয়াস-সহ বেশ কয়েকজন অর্ডার সদস্য হ্যারি ও তার বন্ধুদের বাঁচানোর জন্য মন্ত্রণালয়ে আসেন এবং ডেথ ইটারদের সাথে লড়াই শুরু করে। লড়াইয়ের সময় সিরিয়াস ডেথ ইটার অ্যান্টোনিন দলোহভকে পরাজিত করেন। এরপর তিনি এক পর্যায়ে নিজ চাচাতো বোন ডেথ ইটার বেলাট্রিক্স লেস্ট্র্যাঞ্জের সঙ্গে দ্বন্দ্বে লিপ্ত হন। বেলাট্রিক্স তাঁকে আঘাত করতে ব্যর্থ হলে সিরিয়াস তাঁকে বিদ্রুপ করেন এবং সিরিয়াসের এই অসতর্কতার সুযোগে বেলাট্রিক্সের নিক্ষিপ্ত অভিশাপে (curse) সিরিয়াস নিহত হন। সিরিয়াসের মৃত্যুর পর হ্যারি মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে। সিরিয়াসের উইল থেকে জানা যায় যে, তিনি তাঁর স্থাবর-অস্থাবর সকল সম্পত্তি হ্যারিকে দিয়ে গেছেন।

ডেথলি হ্যালোসের শেষ দিকে সিরিয়াস শেষবারের মত উপস্থিত হন যখন হ্যারি পুনর্জন্মী পাথরটির মাধ্যমে তার মৃত মা-বাবা, সিরিয়াস ও লুপিনকে শেষবারের মত হাজির করে।

হ্যারি পটার চলচ্চিত্রসমূহে গ্যারি ওল্ডম্যান সিরিয়াসের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন এবং অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে জেমস ওয়াল্টার্স কিশোর সিরিয়াসের ভূমিকায় আবির্ভূত হয়েছেন। এছাড়া ডেথলি হ্যালোসে রোহান গোটোবেড ১১ বছর বয়সী সিরিয়াসের ভূমিকায় আবির্ভূত হন[৪]

এডগার বোন্স[সম্পাদনা]

এডগার বোন্স (ইংরেজিতে Edgar Bones) অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম। জাদুবিশ্বের প্রথম যুদ্ধে সে তার স্ত্রী ও সন্তান সহ ডেথ ইটারদের হাতে নিহত হয়। জাদু মন্ত্রনালয় এর ডিপার্টমেন্ট অফ ম্যাজিকাল ল এনফোর্সমেন্ট বিভাগের সাবেক প্রধান অ্যামেলিয়া বোন্স তার বোন এবং হ্যারি পটারের সহপাঠী হাফলপাফ হাউজের ছাত্রী সুজ্যান বোন্স তার ভাতিজি।

ক্যারাডক ডিয়ারবর্ন[সম্পাদনা]

ক্যারাডক ডিয়ারবর্ন (ইংরেজিতে Caradoc Dearborn) অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম। প্রথম উইজার্ডিং যুদ্ধে সে নিখোঁজ হয়। সম্ভবত ডেথ ইটাররা তাকে হত্যা করে।

ডিডেলাস ডিগল[সম্পাদনা]

ডিডেলাস ডিগল (ইংরেজিতে Dedalus Diggle) অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম। সিরিজের কাহিনী শুরু হওয়ার পূর্বে হ্যারি পটারের সাথে বেশ কয়েকবার দেখা করে। এরপর অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে অর্ডার পুনর্গঠিত হলে সে পুনরায় অর্ডারে যোগ দেয়। সে অ্যাডভান্স গার্ডের সদস্য ছিল যারা ডার্সলিদের কাছ থেকে হ্যারিকে সরিয়ে নিয়েছিল। এছাড়া ডেথলি হ্যালোসে সে হেসটিয়া জোন্সের সাথে ডার্সলিদের সুরক্ষিত স্থানে রেখে আসার দায়িত্ব পায় এবং তা সুষ্ঠভাবে পালন করে। পরবর্তীতে ডেথ ইটাররা তার বাড়ি পুড়িয়ে দেয়, তবে সে অক্ষত থাকে।

ফিলোসফার্স স্টোন চলচ্চিত্রে ডেভিড ব্রেট ডিগলের চরিত্রে অভিনয় করে।

এলফিয়াস ডোগে[সম্পাদনা]

এলফিয়াস ডোগে (ইংরেজিতে Elphias Doge) অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম। স্কুলজীবনে ডোগে ডাম্বলডোরের সহপাঠী ছিলেন। এছাড়া তার প্রাথমিক জীবন সম্পর্কে তেমন কিছু জানা যায় নি। অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে অর্ডার পুনর্গঠিত হলে তিনি পুনরায় অর্ডারে যোগ দেন। অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে তিনি অ্যাডভান্স গার্ডের সদস্য ছিলেন। ডাম্বলডোরের মৃত্যুর পর ডেথলি হ্যালোসে ডাম্বলডোরের প্রতি উৎসর্গীকৃত তার লেখা একটি শোক কলাম ডেইলি প্রফেটে ছাপা হয়। সেখানে তিনি খোলাখুলিভাবে ডাম্বলডোরকে সমর্থন করেন এবং নিজেকে তার একজন একনিষ্ঠ শুভানুকাঙ্খী হিসেবে প্রকাশ করেন।

অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্স চলচ্চিত্রে পিটার কার্টরাইট ডোগের চরিত্রে অভিনয় করে। কিন্তু ডেথলি হ্যালোসে ডেভিড রয়াল ডোগের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়।

অ্যাবেরফোর্থ ডাম্বলডোর[সম্পাদনা]

অ্যাবেরফোর্থ ডাম্বলডোর (ইংরেজিতে Aberforth Dumbledore) অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম। তিনি অ্যালবাস ডাম্বলডোর এর আপন ভাই এবং হগসমিডে অবস্থিত "হগ'স হেড" বারের মালিক। অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে অর্ডার পুনর্গঠিত হলে তিনি তাতে যোগ দেন। ডেথলি হ্যালোসে হ্যারি, রন ও হারমায়োনি যখন হগসমিডে উপস্থিত হয় তখন তিনি তাদেরকে ডেথ ইটারদের হাত থেকে রক্ষা করেন এবং হগওয়ার্টস এ প্রবেশ করতে সহায়তা করেন। এছাড়া হ্যারি ও তার বন্ধুরা যখন ম্যালফয় ম্যানরে বন্দী ছিল, তখন তাদেরকে উদ্ধার করার জন্য তিনি ডব্বি দ্য হাউজ এলফকে পাঠান। এছাড়াও বইয়ের শেষদিকে তিনি ব্যাটল অফ হগওয়ার্টসে অংশ গ্রহণ করেন এবং ডেথ ইটার অগাস্টাস রুকউডকে পরাজিত করেন। যুদ্ধ শেষ হওয়ার পর যারা জীবিত ছিল, তিনি তাদের মধ্যে অন্যতম।

ডেথলি হ্যালোস চলচ্চিত্রে সিয়ারান হিন্দস অ্যাবেরফোর্থের চরিত্রে অভিনয় করেছে।

অ্যালবাস ডাম্বলডোর[সম্পাদনা]

মূল নিবন্ধঃ অ্যালবাস ডাম্বলডোর

অ্যালবাস ডাম্বলডোর (ইংরেজিতে Albus Dumbledore) হলেন অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের প্রতিষ্ঠাতা। তার নেতৃত্বেই অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্স ভলডেমর্ট ও ডেথ ইটারদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অংশগ্রহণ করে। ভলডেমর্টের পুনরুত্থানের পর তিনি সংগঠনটিকে পুনর্গঠন করেন। হাফ-ব্লাড প্রিন্স স্নেইপ তাকে হত্যা করে যা এই দুজনের মাঝে পরিকল্পিত ছিল।

প্রথম দুইটি চলচ্চিত্রে রিচার্ড হ্যারিস এবং পরবর্তী বাকী চলচ্চিত্রসমূহে মাইকেল গ্যাম্বন ডাম্বলডোরের চরিত্রে অভিনয় করেন।

বেঞ্জি ফেনউইক[সম্পাদনা]

বেঞ্জি ফেনউইক (ইংরেজিতে Benjy Fenwick) অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম। ডেথ ইটাররা তাকে হত্যা করে এবং তার শরীর ধ্বংস করে দেয়। তার দেহের শুধুমাত্র কয়েকটি অংশ পরে পাওয়া গিয়েছিল।

আরাবেলা ফিগ[সম্পাদনা]

আরাবেলা ডোরিন ফিগ (ইংরেজিতে Arabella Doreen Figg) সকলের কাছে মিসেস ফিগ (Mrs Figg) নামে সমধিক পরিচিত। তিনি অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম। তিনি একজন বয়স্ক মহিলা এবং একজন স্কুইব। তিনি প্রিভেট ড্রাইভে ডার্সলিদের প্রতিবেশী ছিলেন। হ্যারি যখন ছোট ছিল তখন তার উপর নজর রাখার জন্য ডাম্বলডোর তাকে নিয়োজিত করেন। ডার্সলিরা যখন কোথাও বেড়াতে যেত, হ্যারিকে তারা মিসেস ফিগের কাছে রেখে যেত। সে সময়ে তিনি হ্যারিকে অবহেলার সাথে রাখতেন। পরে তিনি হ্যারির কাছে স্বীকার করেন যে, ডার্সলিরা যাতে কোনরকম সন্দেহ না করে সেজন্য তিনি এরকম করতেন। তিনি পুনর্গঠিত অর্ডারেরও সদস্য। মিসেস ফিগের মাধ্যমে ডাম্বলডোর মাগল বিশ্বের সাথে যোগাযোগ রাখতেন।

অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্স চলচ্চিত্রে ক্যাথরিন হান্টার মিসেস ফিগের ভূমিকায় অভিনয় করেন।

মানডাঙ্গাস ফ্লেচার[সম্পাদনা]

মানডাঙ্গাস ফ্লেচার (ইংরেজিতে Mundungus Fletcher) অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম। সে একজন ছিচকে চোর এবং ছোটোখাটো অপরাধী। কোন এক কঠিন সময়ে ডাম্বলডোর তাকে সাহায্য করেছিলেন এবং এর বিনিময়ে সে অপরাধ জগতের খবরাখবর ডাম্বলডোরকে দেওয়া শুরু করে। অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে সিরিয়াস ব্ল্যাক মারা যাওয়ার পর সে ব্ল্যাক পরিবারের অনেক মূল্যবান সম্পদ চুরি করে এর মধ্যে রেগুলাস ব্ল্যাকের লকেটটিও ছিল। ডেথলি হ্যালোসে অর্ডারের অন্য সদস্যদের সাথে সে হ্যারিকে উদ্ধার করতে যায়। এসময় ডেথ ইটাররা তাদেরকে আক্রমণ করলে সে আতঙ্কিত হয় এবং ভলডেমর্ট যখন সরাসরি তার দিকে অগ্রসর হয়, তখন সে ডিসঅ্যাপারেট করে এবং তাকে থামাতে গিয়ে অ্যালাস্টর মুডি ভলডেমর্টের হাতে নিহত হয়। পরবর্তীতে ক্রেচার তাকে কোনঠাসা করে হ্যারি, রন ও হারমায়োনির কাছে নিয়ে আসে এবং সে তাদেরকে লকেট হরক্রাক্স সম্পর্কে অনেক তথ্য দেয় এবং জানায় যে এটি ডলোরেস আমব্রিজের কাছে আছে।

ডেথলি হ্যালোস চলচ্চিত্রে অ্যান্ডি লিন্ডেন মানডাঙ্গাসের ভূমিকায় অভিনয় করে।

রুবিয়াস হ্যাগ্রিড[সম্পাদনা]

রুবিয়াস হ্যাগ্রিড

মূল নিবন্ধঃ রুবিয়াস হ্যাগ্রিড

রুবিয়াস হ্যাগ্রিড (ইংরেজিতে Rubeus Hagrid) অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম। সে হগওয়ার্টসের ভূমি ও চাবির রক্ষক এবং কেয়ার অফ ম্যাজিকাল ক্রিয়েচার্স বিষয়ের শিক্ষক। ভলডেমর্ট পটারদের হত্যা করার পর হ্যাগ্রিড হ্যারিকে গড্রিক্স হলো থেকে উদ্ধার করে এবং সিরিয়াসের উড়ন্ত মোটরসাইকেল দিয়ে তাকে ডার্সলিদের বাড়িতে রেখে আসে। সে পরবর্তীতে পুনর্গঠিত অর্ডারের সদস্য হয়। ডেথলি হ্যালোসে হ্যাগ্রিড সেই মোটরসাইকেলটি দিয়েই হ্যারিকে ডার্সলিদের বাড়ি থেকে চিরদিনের জন্য নিয়ে আসে। এসময় মোটরসাইকেলটি ধ্বংস হয়ে যায়। পরবর্তীতে সে হগওয়ার্টসের যুদ্ধে অংশগ্রহণ করে।

চলচ্চিত্রসমূহে রোবি কলট্রেন হ্যাগ্রিডের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন।

ফ্র্যাঙ্ক ও অ্যালিস লংবটম[সম্পাদনা]

ফ্র্যাঙ্কঅ্যালিস লংবটম (ইংরেজিতে Frank and Alice Longbottom) অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম। তারা হ্যারির বন্ধু নেভিল লংবটমের বাবা মা। তারা দুইজনেই অরর ছিলেন। ভলডেমর্টের পতনের পর বেল্লাট্রিক্স লেস্ট্র্যাঞ্জের নেতৃত্বে একদল ডেথ ইটার তাদেরকে আক্রমণ করে এবং তাদের উপর মারাত্মকভাবে ক্রুসিয়াটাস কার্স প্রয়োগ করে তাদের স্মৃতিশক্তি স্থায়ীভাবে বিনষ্ট করে এবং এর ফলে তারা মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে। তারপর থেকে তারা সেন্ট মাঙ্গোস হাসপাতালে রয়েছে। ছুটির সময় তাদের ছেলে নেভিল তাদেরকে দেখতে যায়; কিন্তু তারা নেভিলকে চিনতে পারেন না।

অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্স চলচ্চিত্রে জেমস পেটন ফ্র্যাঙ্ক লংবটমের ভূমিকায় অবতীর্ণ হন।

রেমাস লুপিন[সম্পাদনা]

রেমাস জন লুপিন (ইংরেজিতে Remus John Lupin) ছদ্মনাম মুনি (Moony), অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম এবং পরবর্তীতে পুনর্গঠিত অর্ডারের সদস্য। লুপিন একজন ওয়েরউলফ। স্কুলজীবনে সে হ্যারির বাবা জেমস পটার, সিরিয়াস ব্ল্যাক ও পিটার পেট্টিগ্রুর বন্ধু ছিল। প্রিজনার অফ আজকাবানে লুপিন হগওয়ার্টসের ডিফেন্স অ্যাগেইনস্ট দ্য ডার্ক আর্টস বিষয়ের শিক্ষক নিযুক্ত হয়। এসময়ে সে হ্যারিকে ডিমেন্টর প্রতিরোধক পেট্রোনাস চার্ম শেখায়।

অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে লুপিন পুনর্গঠিত অর্ডারের সদস্য হয়। বইয়ের শুরুর দিকে অ্যাডভান্স গার্ডের সদস্য হিসেবে সে হ্যারিকে ডার্সলিদের কাছ থেকে অর্ডারের সদর দপ্তরে নিয়ে আসে। বইয়ের শেষদিকে ডিপার্টমেন্ট অফ মিস্ট্রিসের ব্যাটলে লুপিন অংশ নেয় এবং লুসিয়াস ম্যালফয়কে পরাজিত করে। হাফ-ব্লাড প্রিন্সে জানা যায় যে, ওয়েরউলফ ফেনরির গ্রেব্যাকের আক্রমণেই লুপিন ওয়েরউলফ হয়েছিল। বইয়ের শেষ দিকে, ডাম্বলডোরের মৃত্যুর পর ডেথ ইটাররা হগওয়ার্টস আক্রমণ করলে লুপিন তাদের বিরুদ্ধে লড়াই করে। এসময় জানা যায় যে ফেলো অর্ডার সদস্য নিমফাডোরা টোংক্স লুপিনের প্রেমে পড়েছে। কিন্তু লুপিন তাকে গ্রহণ করতে অস্বীকৃতি জানায় কেননা একজন ওয়েরউলফের সাথ সম্পর্ক করা মোটেই নিরাপদ ছিল না।

কিন্তু ডেথলি হ্যালোসের শুরুর দিকে লুপিন টোংক্সকে বিয়ে করে। তবে এর জন্য লুপিনের মধ্যে অপরাধবোধ জাগ্রত হয় এবং এজন্য সে রিগ্রেট করতে থাকে। বইয়ের প্রায় শেষদিকে লুপিন একটি ছেলের বাবা হয় এবং তার নাম রাখে টেডি লুপিন। এছাড়া সারা বছর ধরে লুপিন অর্ডারের হয়ে কাজ করে এবং গোপন রেডিও চ্যানেল "পটারওয়াচ" এ রোমিওলাস ছদ্মনামে উপস্থাপনা করতে থাকে। বইয়ের শেষদিকে, হগওয়ার্টসের যুদ্ধে লুপিন ও কিংসলে শ্যাকলবোল্ট অর্ডারের পক্ষে নেতৃত্ব দেয়।[৫] যুদ্ধে লুপিন ও টোংক্স উভয়েই মারা যায়। ডেথ ইটার অ্যান্টোনিন ডলোহভ লুপিনকে হত্যা করে।[৫] রাওলিং অবশ্য বলেছেন, তিনি প্রথমে লুপিন ও টোংক্স উভয়কেই বাঁচিয়ে রাখার চিন্তা করেছিলেন,[৬] কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাদেরকে নিহত করার সিদ্ধান্ত নেন।[২][৩] বইয়ের শেষ মুহূর্তে হ্যারি রিসারেকশন স্টোন অর্থাৎ পুনর্জন্মী পাথরটি ব্যবহার করে লুপিন, সিরিয়াস, জেমস ও লিলিকে শেষবারের মত হাজির করে।

হ্যারি পটার চলচ্চিত্রসমূহে ডেভিড থেউলিস লুপিনের ভূমিকায় অভিনয় করেন। অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে জেমস উটেচিন ১৫ বছর বয়সী লুপিনের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়।

মিনার্ভা ম্যাকগোনাগল[সম্পাদনা]

মিনার্ভা ম্যাকগোনাগল (ইংরেজিতে Minerva McGonagall) বা প্রফেসর ম্যাকগোনাগল (Professor McGonagall) অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম এবং পরবর্তীতে পুনর্গঠিত অর্ডারের সদস্য। তিনি হগওয়ার্টসের ডেপুটি হেডমিস্ট্রেস, ট্রান্সফিগারেশন বিষয়ের শিক্ষিকা এবং গ্রিফিন্ডর হাউজের প্রধান। পরবর্তীতে তিনি হেডমাস্টার হন। তিনি ডাম্বলডোরের একজন একনিষ্ঠ সমর্থক ও শুভানুধ্যায়ী ছিলেন। ম্যাকগোনাগল একজন অ্যানিম্যাজাস, অর্থাৎ তিনি যেকোন সময় বিড়ালে রূপান্তরিত হতে পারেন। তার পেট্রোনাসও একটি বিড়াল।

ফিলোসফার্স স্টোনে সর্বপ্রথম তাকে দেখা যায়, যখন ডাম্বলডোর হ্যারিকে প্রিভেট ড্রাইভে রেখে আসে। এরপর হগওয়ার্টসে হ্যারি ফিরে আসার পর, তিনি হ্যারিকে গ্রিফিন্ডর কুইডিচ টিমে সিকার হিসেবে খেলার জন্য মনোনীত করেন। যদিও তিনি খুব কড়া মহিলা এবং নিয়মনীতির প্রতি আপোসহীন, মাঝেমাঝে তিনি নিয়ম কানুন ভেঙ্গেই হ্যারিকে সাহায্য সহযোগীতা করেছেন। অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে জানা যায় যে, তিনি অর্ডারের সদস্য। শুরু থেকেই ম্যাকগোনাগল এবং ডলোরেস আমব্রিজ একে অপরকে অপছন্দ করতেন। যখন আমব্রিজ ও তার সহযোগীরা হ্যাগ্রিডকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করতে আসে, তখন ম্যাকগোনাগল তাদেরকে বাধা দিতে গেলে তারা তাকেই আক্রমণ করে। ফলে তাকে সেন্ট মাঙ্গোস হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়। হাফ-ব্লাড প্রিন্সে ডাম্বলডোর মারা যাওয়ার পর তিনি হগওয়ার্টসের ভারপ্রাপ্ত হেডমিস্ট্রেস হন। এছাড়া ম্যাকগোনাগল একজন অসাধারণ ডুয়েলিস্ট। হাফ-ব্লাড প্রিন্সডেথলি হ্যালোসে তিনি তার ডুয়েলিং দক্ষতা প্রকাশ করেন।

ডেথলি হ্যালোসে তিনি পুনরায় ডেপুটি হেডমিস্ট্রেস হিসেবে নিযুক্ত হন, যেহেতু ডেথ ইটারদের দখলকৃত মন্ত্রণালয় সেভেরাস স্নেইপকে হেডমাস্টার নিয়োগ দেয়। বইয়ের শেষদিকে হ্যারি যখন হরক্রাক্স খোঁজার জন্য হগওয়ার্টসে আসে, তখন তিনি অন্যান্য শিক্ষকদের সহায়তায় স্কুলকে সুরক্ষিত করেন, যাতে হ্যারি নিরাপদে তার কাজ করতে পারে। অবশ্য এরই মধ্য ভলডেমর্ট ও ডেথ ইটাররা হগওয়ার্টস আক্রমণ করে। ফলে শুরু হয় 'ব্যাটল অফ হগওয়ার্টস' অর্থাৎ 'হগওয়ার্টসের যুদ্ধ'। যুদ্ধে ম্যাকগোনাগল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। ট্রান্সফিগারেশনে তার অসামান্য দক্ষতার মাধ্যমে তিনি স্কুলের সকল মূর্তি এবং সুইট অফ আর্মরকে জীবন্ত করে তোলেন এবং সেগুলো হগওয়ার্টসের ডিফেন্সে অংশ নেয়। এছাড়াও তার নেতৃত্বে হগওয়ার্টসের ছাত্রছাত্রীরা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করে। যুদ্ধের শেষদিকে ম্যাকগোনাগল, কিংগস্লে শ্যাকলবোল্ট ও হোরেস স্লাগহর্নের একত্রে ভলডেমর্টের সাথে লড়াই করেন। ভলডেমর্টের পরাজয়ের মধ্য দিয়ে যুদ্ধ শেষ হওয়ার পর ম্যাকগোনাগল পুনরায় হগওয়ার্টসের হেডমিস্ট্রেস হিসেবে নিযুক্ত হন।

হ্যারি পটার চলচ্চিত্রসমূহে ডেম ম্যাগি স্মিথ ম্যাকগোনাগলের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন।

মার্লিন ম্যাককিনন[সম্পাদনা]

মার্লিন ম্যাককিনন (ইংরেজিতে Merlin McKinnon) অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম। জাদুকর বিশ্বের প্রথম যুদ্ধের সময় ম্যাককিনন তার পুরো পরিবারসহ ডেথ ইটারদের হাতে নিহত হয়। যেসব ডেথ ইটাররা তাদেরকে হত্যা করেছিল, তাদের মধ্যে ট্রেভার্স ছিল।

ডরকাস মিডোজ[সম্পাদনা]

ডরকাস মিডোজ (ইংরেজিতে Dorcas Medowse) অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম। জাদুকর বিশ্বের প্রথম যুদ্ধের সময় লর্ড ভলডেমর্ট তাকে নিজের হাতে হত্যা করে। জেমস ও লিলি পটার ব্যতীত ডরকাস মিডোজই একমাত্র অর্ডার সদস্য যাকে ভলডেমর্ট নিজের হাতে হত্যা করেছিল।

অ্যালাস্টর মুডি[সম্পাদনা]

অ্যালাস্টর "ম্যাড-আই" মুডি (ইংরেজিতে Alastor "Mad-Eye" Moody) অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম এবং পরবর্তীতে পুনর্গঠিত অর্ডারের সদস্য। তিনি একজন অবসরপ্রাপ্ত অরর এবং ডাম্বলডোরের বন্ধু ছিলেন। তার মুখে অসংখ্য কাটাদাগ বিদ্যমান যা তার মুখকে বিকৃত করে ফেলেছে। তার একটি ম্যাজিকাল চোখ রয়েছে যা ৩৬০ ডিগ্রী কোণে ঘুরতে পারে। এছাড়া তার একটি পা কাঠের এবং হাঁটার জন্য তিনি একটি লাঠি ব্যবহার করেন।

গবলেট অফ ফায়ারে মুডি হগওয়ার্টসের ডিফেন্স অ্যাগেইনস্ট দ্য ডার্ক আর্টস বিষয়ের শিক্ষক নিযুক্ত হন। তবে হগওয়ার্টসে আসার পূর্বেই ডেথ ইটার বার্টি ক্রাউচ জুনিয়র মুডিকে আক্রমণ করে ইমপেরিয়াস কার্স প্রয়োগ করে এবং পলিজুস পোশান ব্যবহারের মাধ্যমে ক্রাউচ মুডির রূপ ধারণ করে। এরপর নকল মুডি আসল মুডিকে তার নিজের ট্রাঙ্কে বন্দী করে এবং হগওয়ার্টসে আসে। এরপর নকল মুডি বিভিন্ন ষড়যন্ত্র ও কূটকৌশল প্রয়োগ করে হ্যারিকে ভলডেমর্টের কাছে পাঠাতে সমর্থ হয়। তবে এরপর সে ডাম্বলডোরের কাছে ধরা পড়ে যায় এবং আসল মুডি বন্দীদশা থেকে মুক্তি লাভ করেন।

অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে আসল মুডি অর্ডারে যোগ দেন এবং অ্যাডভান্স গার্ডের সদস্য হিসেবে হ্যারিকে প্রিভেট ড্রাইভ থেকে অর্ডারের সদর দপ্তর গ্রিমল্ড প্লেসে নিয়ে আসেন। বইয়ের শেষদিকে মুডি অন্যান্য অর্ডার সদস্যদের সাথে ডিপার্টমেন্ট অফ মিস্ট্রিসের ব্যাটলে অংশগ্রহণ করেন এবং ডেথ ইটারদের সাথে লড়াই করেন। ডেথলি হ্যালোসে মুডি যখন হ্যারিকে প্রিভেট ড্রাইভ থেকে উদ্ধার করে আনছিল তখন ভলডেমর্ট মুডিকে হত্যা করে। তার দেহাবশেষ আর খুঁজে পাওয়া যায়নি, কিন্তু তার ম্যাজিকাল চোখটি হ্যারি মন্ত্রণালয়ে আমব্রিজের অফিস থেকে উদ্ধার করে। এরপর মুডির স্মৃতির সম্মানে এটিকে একটি গাছের নিচে সমাধিস্থ করে।

হ্যারি পটার চলচ্চিত্র সিরিজে ব্রেন্ডন গ্লিসন মুডির ভূমিকায় অভিনয় করেছেন।

পিটার পেট্টিগ্রু[সম্পাদনা]

পিটার পেট্টিগ্রু (ইংরেজিতে Peter Pettigrew) ছদ্মনাম ওয়ার্মটেইল (Wormtail) অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম। সে স্কুলজীবনে জেমস পটার, সিরিয়াস ব্ল্যাক ও রেমাস লুপিনের ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিল। তার বন্ধুদের মত সেও একজন অ্যানিম্যাজাস ছিল। তার অ্যানিম্যাজি ফর্ম ছিল ইঁদুর।

যখন থেকে লিলি ও জেমস পটার জানতে পারে যে, ভলডেমর্ট তাদেরকে হত্যা করার জন্য খুঁজছে তখন তারা পেট্টিগ্রুকে তাদের সিক্রেট কিপার বানায়। কিন্তু পেট্টিগ্রু ভলডেমর্টের হুমকির ফলে ডেথ ইটারদের সাথে যোগ দেয় এবং লিলি ও জেমস পটারের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করে। ফলে ভলডেমর্ট লিলি ও জেমসকে হত্যা করতে সক্ষম হয়। এরপর ভলডেমর্ট উধাও হয়ে গেলে, পেট্টিগ্রু তার অপরাধের বোঝা সিরিয়াস ব্ল্যাকের ঘাড়ে চাপিয়ে দিয়ে নিজে নিজের ভুয়া মৃত্যু ঘটায় এবং ইঁদুরের রূপ ধরে বেঁচে থাকে।

প্রিজনার অফ আজকাবানে হ্যারি জানতে পারে যে, রনের ইঁদুর স্ক্যাবার্সই পেট্টিগ্রু এবং তার বাবা মায়ের হত্যার জন্য সিরিয়াস নয়, বরং পেট্টিগ্রুই দায়ী। সিরিয়াস ও লুপিন তাকে হত্যা করতে চাইলে হ্যারি তাকে রক্ষা করে এবং পেট্টিগ্রু পালিয়ে যায়। গবলেট অফ ফায়ারে পেট্টিগ্রুই ভলডেমর্টের পুনরুত্থানে সহায়তা করে। ডেথলি হ্যালোসে হ্যারির প্রতি কৃতজ্ঞতাস্বরূপ ম্যালফয় ম্যানর থেকে হ্যারি ও তার বন্ধুদের বাঁচানোর জন্য পেট্টিগ্রু নিজের জীবন উৎসর্গ করে।

হ্যারি পটার চলচ্চিত্রসমূহে টিমথি স্পল পেট্টিগ্রুর ভূমিকায় অভিনয় করেছে।

স্টারগিস পডমোর[সম্পাদনা]

স্টারগিস পডমোর (ইংরেজিতে Sturgis Podmore) অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম এবং পরবর্তীতে পুনর্গঠিত অর্ডারের সদস্য। এছাড়া পডমোর জাদু মন্ত্রণালয়েরও একজন কর্মচারী। অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে সে হ্যারি ও ভলডেমর্টের প্রফেসিটির গার্ড হিসেবে দায়িত্ব পায়। কিন্তু লুসিয়াস ম্যালফয় তার উপর ইমপেরিয়াস কার্স প্রয়োগ করলে সে ডিপার্টমেন্ট অফ মিস্ট্রিস ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করার চেষ্টা করে। এ সময় সে ধরা পড়ে এবং তাকে ছয় মাসের জন্য আজকাবানে পাঠানো হয়।

জেমস পটার[সম্পাদনা]

জেমস পটার (ইংরেজিতে James Potter), ছদ্মনাম প্রংগস (Prongs), ছিল হ্যারি পটারের বাবা। জেমস তার বাবা মায়ের একমাত্র সন্তান ছিল।[৭][৮] এছাড়া সে ছিল একজন পিউরব্লাড অর্থাৎ বিশুদ্ধ রক্তের। হগওয়ার্টসে আসার পর জেমসের সাথে সিরিয়াস ব্ল্যাক, রেমাস লুপিন ও পিটার পেট্টিগ্রুর বন্ধুত্ব গড়ে উঠে। তারা সকলেই গ্রিফিন্ড হাউজের ছাত্র ছিল। যখন তারা জানতে পারে যে, লুপিন একজন ওয়েরউলফ তখন তারা নিজেরাও বেআইনীভাবে অ্যানিম্যাজাস হয়ে যায়। এসময় তারা হগওয়ার্টসের প্রায় সকল সিক্রেট প্যাসেজ আবিষ্কার করে ফেলে এবং মরেডার্স ম্যাপটি তৈরি করে। স্কুলে জেমস একজন ব্রিলিয়ান্ট ছাত্র ছিল। সে প্রিফেক্ট হওয়া ছাড়াই হেডবয় নিযুক্ত হয়। এছাড়া সে একজন প্রতিভাবান কুইডিচ খেলোয়াড়ও ছিল। সে গ্রিফিন্ডর কুইডিচ টিমে চেজার হয়ে খেলত।[৯]

রাউলিং এর মতে, শারীরিকভাবে হ্যারি ও জেমসের মধ্যে সাদৃশ্য রয়েছেঃ একই রকম পাতলা মুখ, একই রকম হাত এবং একই রকম কালো অপরিপাটী চুল। তাদের দুজনের উচ্চতাও সমান। তবে জেমসের চোখের রঙ বাদামী। হ্যারির মতই জেমস একজন ভাল মানুষ ও বন্ধুদের প্রতি অণুগত ছিল।[৮][১০][১১] স্কুলজীবনে জেমস ও স্নেইপের মধ্যে শত্রুতা বিদ্যমান ছিল। তবে একবার জেমস তার নিজের জীবনের ঝুকি নিয়ে স্নেইপের জীবন রক্ষা করেছিল।

হগওয়ার্টস ত্যাগ করার পর, জেমস ও লিলি বিয়ে করে। এসময় তারা ও তাদের বন্ধুরা 'ফুল টাইম ফাইটার' হিসেবে অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে যোগ দেয়।[১২] রাউলিং বলেছেন, ভলডেমর্ট জেমস ও লিলিকে ডেথ ইটার হওয়ার আমন্ত্রণ জানিয়েছিল, কিন্তু তারা তা হতে আস্বীকৃতি জানায়।[১৩] যখন তাদের ছেলে হ্যারি ভলডেমর্টের টার্গেটে পরিণত হয়, তখন পটাররা আত্মগোপন করে এবং পেট্টিগ্রুকে তাদের সিক্রেট কিপার বানায়। কিন্তু ১৯৮১ সালের ৩১ অক্টোবর, পেট্টিগ্রু তাদের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করে এবং ভলডেমর্টকে তাদের অবস্থান সম্পর্কে জানিয়ে দেয়। জেমস ভলডেমর্টকে আটকিয়ে রাখার চেষ্টা করেছিল, যাতে লিলি হ্যারিকে নিয়ে পালিয়ে যেতে পারে। তবে তার হাতে কোন জাদুদন্ড ছিল না এবং ভলডেমর্ট তাকে হত্যা করে।

হ্যারি পটার চলচ্চিত্র সিরিজে অ্যাড্রিয়ান রলিন্স জেমস পটারের ভূমিকায় অভিনয় করে। আর অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্স চলচ্চিত্রে রোবি জার্ভিস টিনএজার জেমসের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়।

লিলি পটার[সম্পাদনা]

লিলি পটার (ইংরেজিতে Lily Potter) নি ইভান্স (Evans), ছিল হ্যারি পটারের মা। তাকে অত্যন্ত সুশ্রী হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে।[১৪] তার হ্যারির মত উজ্জ্বল সবুজ চোখ এবং ঘন লাল রঙের চুল ছিল। স্কুলে লিলি তার সময়ের অন্যতম সেরা ছাত্রী ছিল এবং পোশন বিষয়ে তার দক্ষতা ছিল অতুলনীয়।[১৫][১৬]

লিলি হোরেস স্লাগহর্নের অন্যতম প্রিয় ছাত্রী ছিল। স্লাগহর্ন লিলিকে "খুব সাহসী", "খুবই ফানি", "সজীব" ও "সিদা উৎফুল্ল" হিসেবে বর্ণনা করেছেন।[১৬][১৭] সে একজন মাগলবর্ন অর্থাৎ মাগল বংশজাত হওয়া সত্ত্বেও জাদুবিদ্যায় তার পারদর্শিতা ছিল অনন্য। সে একজন অসামান্য ভাল ছাত্রী ছিল। হগওয়ার্টসে তার পঞ্চম বর্ষে সে প্রিফেক্ট ও সপ্তম বর্ষে হেডগার্ল নিযুক্ত হয়েছিল। তার বোন পেতুনিয়া ডার্সলি তাকে 'ফ্রিক' হিসেবে বর্ণনা করলেও পরে জানা যায় যে, পেতুনিয়া আসলে লিলির প্রতি জেলাস ছিল।[১৮] লিলির পেট্রোনাস ছিল হরিণী।[১৯][২০] প্রথম প্রথম লিলি জেমসকে অপছন্দ করলেও তাদের স্কুলের সপ্তম বর্ষ থেকে লিলি ও জেমস একসাথে চলাফেরা করতে শুরু করে এবং স্কুল ত্যাগ করার পরপরই তারা পরস্পর বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়। বিয়ের অনুষ্ঠানে সিরিয়াস বেস্টম্যান ছিল।

ডেথলি হ্যালোসে জানা যায় যে, লিলি ও স্নেইপের মধ্যে ছোটবেলা থেকেই বন্ধুত্ব ছিল। এমনকি স্নেইপ লিলিকে ভালবাসতও। যদিও লিলি স্নেইপকে শুধুই বন্ধু মনে করত।[২১] হগওয়ার্টসে তাদের পঞ্চম বর্ষে স্নেইপ অসচেতনভাবে লিলিকে মাডব্লাড বলার পর থেকে লিলি ও স্নেইপের এই সম্পর্ক ভেঙ্গে যায়। হগওয়ার্টস ত্যাগ করার পর স্নেইপ একজন ডেথ ইটার হয় এবং ভলডেমর্টকে পূর্বোল্লিখিত প্রফেসিটির কথা জানায়। প্রফেসিটি শোনার পর ভলডেমর্ট লিলি ও তার ছেলে হ্যারিকে টার্গট করে। লিলির জীবন রক্ষার জন্য স্নেইপ অর্ডারে যোগ দেয় এবং ডাম্বলডোরের পক্ষ হয়ে গুপ্তচরের কাজ করতে থাকে, যাতে বিনিময়ে ডাম্বলডোর লিলির জীবন রক্ষা করেন। এদিকে ভলডেমর্ট জেমসকে হত্যা করার পর হ্যারিকে হত্যা করতে যায় এবং লিলিকে সরে পড়তে বলে। কারণ স্নেইপ ভলডেমর্টকে অণুরোধ করেছিল যেন সে লিলিকে হত্যা না করে। কিন্তু লিলি সরে পড়তে অস্বীকৃতি জানায় এবং ভলডেমর্ট লিলিকে হত্যা করে। লিলির এই নিঃস্বার্থ ভালবাসাপূর্ণ আত্মত্যাগ দুইভাবে ক্রিয়া করেঃ প্রথমত, ভলডেমর্টের হাত থেকে তার ছেলে হ্যারির জীবন রক্ষা করে এবং দ্বিতীয়ত, তার এই আত্মত্যাগের ফলে হ্যারি সতের বছর না হওয়া পর্যন্ত যেকোন প্রকার অনিষ্ট থেকে সুরক্ষিত থাকবে যদি সে পেতুনিয়ার কাছে থাকে; যেহেতু পেতুনিয়া ও লিলি আপন বোন এবং তারা রক্তের বন্ধনে আবদ্ধ। এভাবে লিলি তার নিজের জীবন দিয়ে হ্যারির জীবন রক্ষা করে, যা এই সিরিজের সবচেয়ে মর্মস্পর্শী ঘটনা। হ্যারি ১৭ বছরে পা দেওয়ার পর এই সুরক্ষা শেষ হয়ে যায়।

হ্যারি পটার চলচ্চিত্র সিরিজে জেরাল্ডাইন সামারভিল লিলি পটারের ভূমিকায় অভিনয় করে। আর অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্স চলচ্চিত্রে সুশি সিনার টিনএজার লিলির ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়।

ফাবিয়ান ও গিডিয়ন প্রিওয়েট[সম্পাদনা]

ফাবিয়ানগিডিয়ন প্রিওয়েট (ইংরেজিতে Fabian and Gideon Prewett) ছিল মলি উইজলির ভাই। এরা দুইজন অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম ছিল। জাদুকর বিশ্বের প্রথম যুদ্ধের সময় ফাবিয়ান ও গিডিয়ন ডেথ ইটারদের হাতে নিহত হয়। অ্যান্টোনিন ডলোহভের নেতৃত্বে পাঁচজন ডেথ ইটার তাদেরকে আক্রমণ করে ও হত্যা করে। হ্যারির সতেরতম জন্মদিনে ফাবিয়ানের ঘড়িটি মলি হ্যারিকে উপহার দেয়।

সেভেরাস স্নেইপ[সম্পাদনা]

সেভেরাস স্নেইপ

মূল নিবন্ধঃ সেভেরাস স্নেইপ

সেভেরাস স্নেইপ (ইংরেজিতে Severus Snape) অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম। লিলি পটারের মৃত্যুর পর, সে ডাম্বলডোরের পক্ষে এবং ডেথ ইটারদের বিপক্ষে সিক্রেট এজেন্ট হিসেবে কাজ শুরু করে। পরবর্তীতে জাদুবিশ্বের দ্বিতীয় যুদ্ধের সময় স্নেইপ একজন ট্রিপল এজেন্ট হিসেবে কাজ করে। তবে তার প্রকৃত আনুগত্য ছিল ডাম্বলডোর ও হগওয়ার্টস এর প্রতি। হাফ-ব্লাড প্রিন্সে স্নেইপ ডাম্বলডোরকে হত্যা করে, যা দুজনের মধ্যে পরিকল্পিত ছিল। এরপর ডেথলি হ্যালোসে স্নেইপ হগওয়ার্টসের হেডমাস্টার হিসেবে নিযুক্ত হয়। এইভাবে সে ডেথ ইটারদের হাত থেকে ছাত্রছাত্রীদের রক্ষা করে। স্নেইপ তার পেট্রোনাস ব্যবহারের মাধ্যমে ফরেস্ট অফ ডিনে হ্যারিকে গড্রিক গ্রিফিন্ডরের তলোয়ারটি প্রদান করে। ব্যাটল অফ হগওয়ার্টসে ভলডেমর্টের হাতে স্নেইপ নিহত হয়। ভলডেমর্ট ভেবেছিল স্নেইপকে হত্যা করলে সে এল্ডার ওয়ান্ডের মালিক হবে, যা একটি ভুল ধারণা ছিল।

হ্যারি পটার চলচ্চিত্র সিরিজে অ্যালান রিকম্যান সেভেরাস স্নেইপের ভূমিকায় অভিনয় করেন।

এমেলিন ভান্স[সম্পাদনা]

এমেলিন ভান্স (ইংরেজিতে Emmeline Vance) অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের অরিজিনাল সদস্যদের মধ্যে অন্যতম এবং পুনর্গঠিত অর্ডারের সদস্য ছিলেন। এছাড়া তিনি অ্যাডভান্স গার্ডেরও সদস্য ছিলেন যারা অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে হ্যারিকে ডার্সলিদের কাছ থেকে গ্রিমল্ড প্লেসে নিয়ে আসে। হাফ-ব্লাড প্রিন্সে জানা যায় যে, ডেথ ইটাররা ভান্সকে হত্যা করেছে। স্নেইপ দাবী করে যে, তার প্রদত্ত তথ্যেই ভান্সকে হত্যা করা সম্ভব হয়েছিল। যদিও এটি সত্য নয়।

অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে ব্রিজিত মিলার ভান্সের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন।

পুনর্গঠিত অর্ডারের সদস্যবৃন্দ[সম্পাদনা]

হ্যারি পটার অ্যান্ড দ্য গবলেট অফ ফায়ারে ভলডেমর্টের পুনরাগমনের ফলে ডাম্বলডোর অর্ডার পুনর্গঠন করেন। সেসময় নিম্নোলিখিত চরিত্ররা অর্ডারে যোগ দেয়।

ফ্লেউর ডেলাকৌর[সম্পাদনা]

ফ্লেউর ইসাবেল ডেলাকৌর (ইংরেজি Fleur Isabelle Delacour) ফ্রান্সের জাদুশিক্ষা বিদ্যালয় 'বক্সবেটন একাডেমি অফ ম্যাজিক' এর ছাত্রী। তার দাদী একজন ভিলা ছিল, সেই সূত্রে সে নিজেও একজন পার্ট-ভিলা এবং তার সাদা-সোনালি চুল, রূপালি চোখ এবং মানুষকে আকর্ষণ করার ক্ষমতা সে উত্তরাধিকার সূত্রে তার দাদীর কাছ থেকে লাভ করেছে। গবলেট অফ ফায়ারে হগওয়ার্টসে অনুষ্ঠিত ট্রাইউইজার্ড টুর্নামেন্টে সে বক্সবেটনের চ্যাম্পিয়ন হিসেবে নির্বাচিত হয়। ফ্লেউর প্রথমে বদমেজাজী ও অবন্ধুসুলভ হলেও দ্বিতীয় টাস্কে হ্যারি তার বোন গ্যাব্রিয়েলে ডেলাকৌর এর জীবন রক্ষা করার পর থেকে, ফ্লেউর হ্যারি ও হগওয়ার্টস উভয়ের প্রতিই আন্তরিক হয়ে যায়। ট্রাইউইজার্ড টুর্নামেন্টে ফ্লেউর তৃতীয় স্থান লাভ করে। টুর্নামেন্টের শেষদিকে তার সাথে রনের বড় ভাই বিল উইজলির পরিচয় হয় এবং পরবর্তী বছরে তাদের মধ্যে প্রণয় গড়ে উঠে। হাফ-ব্লাড প্রিন্সে তারা এনগেইজড হয় এবং পরবর্তী গ্রীষ্মে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেয়। বইয়ের শেষদিকে ওয়েরউলফ ফেনরির গ্রেব্যাক বিলকে আক্রমণ করে। কিন্তু ফ্লেউর তাদের বিয়ের অনুষ্ঠানের সময় অপরিবর্তিত রাখে।

ডেথলি হ্যালোসে ফ্লেউর অর্ডারে যোগ দেয় এবং বিল ও অন্যান্য অর্ডার সদস্যদের সাথে হ্যারিকে প্রিভেট ড্রাইভ থেকে দ্য বারোতে নিরাপদে সরিয়ে আনার কাজে অংশগ্রহণ করে এবং তাদের চোখের সামনেই ভলডেমর্ট নিজের হাতে ম্যাড-আই মুডিকে হত্যা করে। এদিকে, যথাসময়েই বারোতে তাদের বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। যদিও ডেথ ইটারদের আক্রমণে তাদের বিয়ের অনুষ্ঠানটি পন্ড হয়ে যায়। পরবর্তীতে, ম্যালফয় ম্যানর থেকে পালিয়ে এসে হ্যারি ও তার বন্ধুরা বিল ও ফ্লেউরের নতুন বাড়ি শেল কটেজে আশ্রয় নেয়। বিল ও ফ্লেউর উভয়েই ব্যাটল অফ হগওয়ার্টসে অংশ নেয় এবং ডেথ ইটারদের সাথে লড়াই করে। যুদ্ধ শেষ হওয়ার পরে ফ্লেউর ভিক্টয়ের, ডমিনিকলুইস উইজলি নামে তিন ছেলে মেয়ের মা হয়।[২২]

ক্লেঁমেন্স পয়েঁসি গবলেট অফ ফায়ারডেথলি হ্যালোসে ফ্লেউরের চরিত্রে অভিনয় করেছে।

হেশিয়া জোন্স[সম্পাদনা]

হেশিয়া জোন্স (ইংরেজি Hestia Jones) পুনর্গঠিত অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের সদস্য। অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে সে অ্যাডভান্স গার্ডের অন্যান্য সদস্যদের সাথে হ্যারিকে ডার্সলিদের কাছ থেকে উদ্ধার করতে যায়। ডেথলি হ্যালোসে হেশিয়া সহকর্মী ডিডেলাস ডিগলের সাথে প্রিভেট ড্রাইভে যায় এবং ডার্সলি পরিবারের সদস্যদের সুরক্ষিত নিরাপদ স্থানে লুকিয়ে রাখার দায়িত্ব পালন করে। প্রথমে সে বেশ অবাক হয় যে ডার্সলিরা তাদের ভাগ্নি হ্যারি সম্পর্কে কিছুই জানে না এবং তাদের পরিবারে হ্যারির কোন গুরুত্ব নেই বললেই চলে। এতে সে ক্ষুব্ধ হয় এবং ডার্সলিদের এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করে।

কিংসলে শ্যাকলবোল্ট[সম্পাদনা]

কিংসলে শ্যাকলবোল্ট (ইংরেজি Kingsley Shacklebolt) পুনর্গঠিত অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের সদস্য। কিংসলে একজন সিনিয়র অরর। অর্ডারের জন্য মন্ত্রণালয়ের খবরাখবর সংগ্রহের দায়িত্ব তার থাকে। অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে সে অ্যাডভান্স গার্ডের একজন সদস্য হিসেবে অন্যান্য অর্ডার সদস্যদের সাথে হ্যারিকে ডার্সলিদের কাছ থেকে গ্রিমল্ড প্লেসে আনার দায়িত্ব পালন করে। সিরিয়াসকে ধরার দায়িত্বও তার উপরে ছিল। যখন হ্যারির নেতৃত্বে গঠিত গোপন ছাত্রসংগঠন ডাম্বলডোর'স আর্মি ডলোরেস আমব্রিজের কাছে ধরা পড়ে যায়, তখন সবার অলক্ষ্যে কিংসলে মেরিয়েটা এজকোম্বের স্মৃতি মুছে দেয় যাতে সে আমব্রিজের কাছে সাক্ষ্য দিতে না পারে।

বইয়ের শেষদিকে কিংসলে ডিপার্টমেন্ট অফ মিস্ট্রিজের ব্যাটলে অংশ নেয় এবং বেশ কয়েকজন ডেথ ইটারকে পরাজিত করে। হাফ-ব্লাড প্রিন্সে জাদু মন্ত্রণালয় এর নতুন মন্ত্রী রুফাস স্ক্রিমগৌর কিংসলেকে মাগল প্রধানমন্ত্রীর অফিসে নিয়োজিত করে, যাতে সে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারে। ডেথলি হ্যালোসে কিংসলে পুনরায় হ্যারিকে প্রিভেট ড্রাইভ থেকে বারোতে নিয়ে আসার দায়িত্ব পালন করে। এরপর বিল উইজলি ও ফ্লেউর ডেলাকৌরের বিয়ের অনুষ্ঠানের সময় কিংসলে একটি পেট্রোনাস পাঠিয়ে সকলকে সতর্ক করে দেয়, যে ভলডেমর্ট মন্ত্রণালয় দখল করেছে। পরবর্তীতে, "পটারওয়াচ" রেডিও চ্যানেলে কিংসলে রয়াল ছদ্মনামে অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করতে থাকে। বইয়ের শেষদিকে কিংসলে হগওয়ার্টসের যুদ্ধে অংশ নেয় এবং মিনার্ভা ম্যাকগোনাগল ও হোরেস স্লাগহর্নের সাথে একত্রে ভলডেমর্টের বিরুদ্ধে লড়াই করে। যুদ্ধ শেষ হওয়ার পর পিয়াস থিকনেসের পরিবর্তে কিংসলেকে জাদু মন্ত্রণালয়ের নতুন মন্ত্রী নিযুক্ত করা হয়।[৫]

জর্জ হ্যারিস অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সডেথলি হ্যালোসে কিংসলের চরিত্রে অভিনয় করেছে।

নিমফাডোরা টঙ্কস[সম্পাদনা]

নিমফাডোরা "ডোরা" টঙ্কস (ইংরেজি Nymphadora "Dora" Tonks), একজন মেটামরফমেজাস, অরর ও অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের সদস্য। সে তার শারীরিক আকৃতি ও চুলের রঙ তার নিজে ইচ্ছামত পরিবর্তন করতে পারে। সে টেডঅ্যান্ড্রোমিডা টঙ্কসের একমাত্র মেয়ে। বেলাট্রিক্স লেস্ট্র্যাঞ্জ ও নার্সিসা ম্যালফয় তার আপন খালা, সে হিসেবে ড্রেকো ম্যালফয় তার খালাত ভাই। হগওয়ার্টসে টঙ্কস হাফলপাফ হাউজের ছাত্রী ছিল।

অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে সে অ্যাডভান্স গার্ডের একজন সদস্য হিসেবে অন্যান্য অর্ডার সদস্যদের সাথে হ্যারিকে ডার্সলিদের কাছ থেকে গ্রিমল্ড প্লেসে আনার দায়িত্ব পালন করে। কিংসলের মত সেও মন্ত্রণালয়ে অর্ডারের জন্য খবরাখবর সংগ্রহ করে। বইয়ের শেষদিকে সে ডিপার্টমেন্ট অফ মিস্ট্রিজের ব্যাটলে অংশ নেয় এবং ডেথ ইটারদের সাথে লড়াই করে। হাফ-ব্লাড প্রিন্সে, মন্ত্রণালয় টঙ্কসকে হগওয়ার্টসের নিরাপত্তা রক্ষার জন্য নিয়োজিত করে। ডাম্বলডরের মৃত্যুর পর জানা যায় যে, টঙ্কস লুপিনের প্রেমে পড়েছে। ফলে তার পেট্রোনাসও পরিবর্তন হয়ে গেছে। কিন্তু লুপিন তাকে গ্রহণ করতে অস্বীকৃতি জানায় কেননা একজন ওয়েরউলফের সাথে সম্পর্ক করা মোটেই নিরাপদ ছিল না।

কিন্তু ডেথলি হ্যালোসের শুরুর দিকে টঙ্কস ও লুপিন বিয়ে করে। এরপর সে পুনরায় অন্যান্য অর্ডার সদস্যদের সাথে হ্যারিকে প্রিভেট ড্রাইভ থেকে বারোতে নিয়ে আসার দায়িত্ব পালন করে। বইয়ের শেষদিকে, টঙ্কসের একটি ছেলে হয় এবং তার বাবা ও স্বামীর নামানুসারে তার নাম রাখা হয়, টেডি রেমাস লুপিন। এরপর, ব্যাটল অফ হগওয়ার্টস শুরু হলে, টঙ্কস ও লুপিন যুদ্ধে অংশগ্রহণ করে এবং উভয়েই ডেথ ইটারদের হাতে নিহত হয়। টঙ্কসকে হত্যা করে তার খালা বেল্লাট্রিক্স। তাদের মৃত্যুর ফলে সদ্য জন্ম নেওয়া টেডি এতিম হয়ে পড়ে এবং তার নানী অ্যান্ড্রোমিডা তাকে লালন পালন করে।[৫] রাওলিং অবশ্য বলেছেন, তিনি প্রথমে লুপিন ও টোংক্স উভয়কেই বাঁচিয়ে রাখার চিন্তা করেছিলেন,[৬] কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাদেরকে নিহত করার সিদ্ধান্ত নেন, যেহেতু তিনি অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সের শেষ মুহূর্তে আর্থার উইজলিকে বাঁচানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।[২][৩]

নাটালিয়া টেনা অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্স, হাফ-ব্লাড প্রিন্সডেথলি হ্যালোসে টঙ্কসের চরিত্রে অভিনয় করেছে।

আর্থার উইজলি[সম্পাদনা]

আর্থার ও মলি উইজলি

আর্থার উইজলি (ইংরেজি Arthur Weasley) বা মিস্টার উইজলি (Mr Weasley), হচ্ছেন উইজলি পরিবারের কর্তা। উইজলি পরিবারটি পিউরব্লাড তথা বিশুদ্ধ রক্তের হলেও ডেথ ইটাররা এটিকে ব্লাড ট্রেইটর অর্থাৎ রক্তের সাথে বিশ্বাসঘাতক পরিবার হিসেবে চিহ্নিত করে যেহেতু উইজলি পরিবার মাগল ও মাগল বংশজাতদের প্রতি বন্ধুত্বসুলভ। আর্থার মলি উইজলির স্বামী এবং সাত ছেলেমেয়ের বাবা। হ্যারির ঘনিষ্ঠ বন্ধু রন আর্থার ও মলির ছোট ছেলে। হগওয়ার্টসে আর্থার গ্রিফিন্ডর হাউজের ছাত্র ছিল। আর্থারকে লম্বা, সুদর্শন ও পাতলা লাল চুলের অধিকারী হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে। তিনি জাদু মন্ত্রণালয়ের 'মিসইউজ অফ মাগল আর্টিফ্যাক্টস' দপ্তরের প্রধান। তিনি মাগলদের বিভিন্ন জিনিসপত্রের প্রতি প্রচণ্ড আগ্রহী।

চেম্বার অফ সিক্রেটসে হ্যারি যখন উইজলি পরিবারের বাড়ি দ্য বারোতে সর্বপ্রথম আসে, মিস্টার উইজলি তখন প্রথম উপস্থিত হন। ডায়াগণ অ্যালিতে লুসিয়াস ম্যালফয়ের সাথে তার প্রচণ্ড বাকবিতন্ডা হয় এবং মাগল গাড়িকে বেআইনীভাবে জাদু করার অপরাধে তাকে জরিমানা করা হয়। প্রিজনার অফ আজকাবানে, আর্থার ডেইলি প্রফেটের লটারিতে বিশাল অঙ্কের অর্থলাভ করেন এবং পুরো পরিবারসহ মিশরে তার ছেলে বিলের কাছে ছুটি কাটাতে যান। গবলেট অফ ফায়ারে তিনি হ্যারিকে ডার্সলিদের বাড়ি থেকে তার নিজের বাড়িতে নিয়ে যান এবং সকলকে নিয়ে বিশ্বকাপ কুইডিচ দেখতে যান। অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে তিনি অর্ডারে যোগ দেন এবং অপ্রাপ্তবয়স্ক জাদুকরদের জাদুসংক্রান্ত শুনানিতে অংশগ্রহণের জন্য হ্যারিকে নিয়ে মন্ত্রণালয়ে যান। পরবর্তীতে মন্ত্রণালয়ে সিবিল ট্রিলনির প্রফেসিটি পাহারা দেওয়ার সময় ভলডেমর্টের সাপ নাগিনী তাকে আক্রমণ করে। ফলে তাকে সেন্ট মাঙ্গোস হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়।[২৩] হাফ-ব্লাড প্রিন্সে আর্থার প্রমোশন পেয়ে 'ডিটেকশন অ্যান্ড কনফিসেশন অফ কাউন্টারফিট ডিফেন্সিভ স্পেলস অ্যান্ড প্রটেকটিভ অবজেক্টস' দপ্তরের প্রধান নিযুক্ত হন।

ডেথলি হ্যালোসে, আর্থার তার ছেলে রন, ফ্রেড, জর্জ ও বিলের সাথে হ্যারিকে প্রিভেট ড্রাইভ থেকে শেষবারের মত উদ্ধার করতে যায়। মন্ত্রণালয়ের পতনের পরও আর্থার সেখানে কর্মরত থাকে। তবে যখন এটা প্রকাশ হয়ে পড়ে যে, তার ছেলে রন হ্যারি পটারের সাথে আছে, তখন মিস্টার উইজলি তার পরিবারসহ লুকিয়ে পড়তে বাধ্য হন। বইয়ের শেষদিকে, তিনি হগওয়ার্টসের যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। যুদ্ধে তার ছেলে ফ্রেড নিহত হয় এবং তার আরেক ছেলে পার্সির সহায়তায় তিনি ডেথ ইটার পিয়াস থিকনেসকে পরাজিত করেন। রাউলিং বলেছেন, অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সেই তিনি আর্থারকে মেরে ফেলার কথা ভেবেছিলেন, কিন্তু পরে তার মন পরিবর্তন করেন এবং আর্থারের পরিবর্তে ডেথলি হ্যালোসে তিনি লুপিন ও টঙ্কসকে হত্যা করেন।[২৪][২৫]

ব্রিটিশ অভিনেতা মার্ক উইলিয়ামস চলচ্চিত্রসমূহে আর্থারের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন।

মলি উইজলি[সম্পাদনা]

মলি উইজলি (ইংরেজি Molly Weasley) বা মিসেস উইজলি (Mrs Weasley), নি প্রিওয়েট (Prewett),[২৬] হচ্ছেন আর্থার উইজলির স্ত্রী,[২৭] এবং সাত ছেলেমেয়ের মা। মলি একজন পিউরব্লাড, তিনি প্রিওয়েট পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন এবং ফাবিয়ান ও গিডিয়ন প্রিওয়েট তার আপন ভাই ছিল। ফিলোসফার্স স্টোনে সর্বপ্রথম তিনি উপস্থিত হন, যেখানে তিনি হ্যারিকে কিভাবে পৌনে দশ নাম্বার প্লাটফর্মে ঢুকতে হয় তা বলে দেন। চেম্বার অফ সিক্রেটসে তার ছেলে রন তাদের ফোর্ড অ্যাংলিয়া গাড়িটিকে উড়িয়ে হগওয়ার্টস এ নিয়ে আসায়, তিনি রনকে একটি হাউলার পাঠান। প্রিজনার অফ আজকাবানে তার স্বামী ডেইলি প্রফেটের লটারিতে বিশাল অঙ্কের অর্থলাভ করেন এবং তারা পুরো পরিবারসহ মিশরে তার ছেলে বিলের কাছে ছুটি কাটাতে যান। ছেলেমেয়েরা স্কুলে ফিরে গেলে হ্যারির নিরাপত্তায় উদ্বিগ্ন হয়ে তিনি তার ছেলে পার্সি উইজলিকে হ্যারির উপর নজর রাখার নির্দেশ দেন।

গবলেট অফ ফায়ারে তিনি তার ছেলে ফ্রেড ও জর্জকে লেখাপড়া না করে জোকশপের চিন্তা নিয়ে পড়ে থাকার জন্য বকাঝকা করেন। বইয়ের শেষদিকে, তিনি ও তার বড় ছেলে বিল উইজলি ট্রাইউইজার্ড টুর্নামেন্টের তৃতীয় টাস্কে হ্যারির পরিবারের সদস্য হিসেবে হগওয়ার্টসে আসেন। ভলডেমর্টের পুনরাগমন হওয়ার পর, ডাম্বলডোর মিসেস উইজলি ও বিলকে অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে যোগ দেওয়ার আমন্ত্রণ জানান এবং তারা সাথে সাথেই অর্ডারে যোগ দেন। মিসেস উইজলির মাতৃতুল্য স্নেহ ও মমতায় হ্যারি প্রথমবারের মত অনুভব করে যে, তারও মায়ের মত কেউ একজন আছে।

অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে হ্যারিকে অর্ডারের কার্যক্রম জানানোর বিষয়ে সিরিয়াসের সাথে তার ঝগড়া হয়। মিসেস উইজলি সর্বদাই তার পরিবারের সদস্যদের ও হ্যারিকে হারানোর ভয়ে থাকতেন। হাফ-ব্লাড প্রিন্সে প্রথম প্রথম তিনি তার ছেলে বিলের বাগদত্তা ফ্লেউরকে অপছন্দ করলেও পরবর্তীতে, বিলের প্রতি ফ্লেউরের ভালবাসার গভীরতা অনুভব করে তিনি ফ্লেউরকে তার পুত্রবধু হিসেবে গ্রহণ করতে সম্মত হন। ডেথলি হ্যালোসে মলি ও আর্থারের অণুরোধে অর্ডারের সদর দপ্তর গ্রিমল্ড প্লেস থেকে সরিয়ে বারোতে আনা হয়। মিসেস উইজলি হ্যারি, রন ও হারমায়োনির স্কুল ছেড়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত মোটেও সমর্থন করেন নি। বইয়ের শেষদিকে, মিসেস উইজলি তার পুরো পরিবারসহ ব্যাটল অফ হগওয়ার্টস অর্থাৎ হগওয়ার্টসের যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। যুদ্ধে তার ছেলে ফ্রেডকে হারিয়ে তিনি দারুণভাবে মুষড়ে পরেন। এরপর বেলাট্রিক্স লেস্ট্র্যাঞ্জ যখন তার মেয়ে জিনিকে হত্যার চেষ্টা করে, তখন তিনি অসম্ভব ক্ষিপ্রতার সাথে বেলাট্রিক্সের বিরুদ্ধে লড়াই শুরু করেন এবং বেলাট্রিক্স তার হাতে নিহত হয়।[২৮]

জুলিয়া ওয়াল্টার্স গবলেট অফ ফায়ার ব্যতীত সিরিজের বাকি সকল চলচ্চিত্রে মিসেস উইজলির ভূমিকায় অভিনয় করেছেন।

বিল উইজলি[সম্পাদনা]

উইলিয়াম আর্থার "বিল" উইজলি (ইংরেজি William Arthur "Bill" Weasley), আর্থার ও মলি উইজলির বড় ছেলে। তাকে কঠোর পরিশ্রমী ও মাটির মানুষ হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে।[২৯] হগওয়ার্টসে থাকাকালীন সময়ে, সে প্রিফেক্ট ও হেডবয় হয়েছিল এবং আউলস পরীক্ষায় সে ১২টি আউল পেয়েছিল। পরবর্তীতে সে গ্রিনগটস ব্যাঙ্কের জন্য কার্সব্রেকার হিসেবে মিশরে কর্মরত ছিল।

গবলেট অফ ফায়ারে তার প্রথম পূর্ণ উপস্থিতি ঘটে। এতে তাকে লম্বা লাল চুলের সুদর্শন তরুণ হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে। বইয়ের শেষদিকে হগওয়ার্টসে তার সাথে ফ্লেউর ডেলাকৌরের পরিচয় ঘটে। অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে সে মিশর থেকে ব্রিটেনে ফিরে আসে এবং অর্ডারে যোগ দেয়। এসময় ফ্লেউরের সাথে তার প্রণয় চলতে থাকে। এভাবে একবছর তাদের সম্পর্ক চলার পর তারা এনগেইজড হয় এবং ফ্লেউরকে তাদের বাড়ি বারোতে নিয়ে আসে, যাতে পরিবারের অন্য সদস্যদের সাথে ফ্লেউর পরিচিত হতে পারে।

হাফ-ব্লাড প্রিন্সে সে হগওয়ার্টসে ডেথ ইটারদের বিরুদ্ধে লড়াই করে। এসময় ওয়েরউলফ ফেনরির গ্রেব্যাক বিলকে আক্রমণ করে। কিন্তু এ আক্রমণের ফলে বিল পুরোপুরি ওয়েওউলফ হয়ে যায়না, কেননা আক্রমণের সময় গ্রেব্যাক মানুষের রূপে ছিল। তবে লাইকেনথ্রপির কয়েকটি বৈশিষ্ট্য বিলের মাঝে পরিলক্ষিত হয়। ডেথলি হ্যালোসে বিল ফ্লেউর ও অন্যান্য অর্ডার সদস্যদের সাথে হ্যারিকে প্রিভেট ড্রাইভ থেকে দ্য বারোতে নিরাপদে সরিয়ে আনার কাজে অংশগ্রহণ করে এবং তাদের চোখের সামনেই ভলডেমর্ট নিজের হাতে ম্যাড-আই মুডিকে হত্যা করে। এদিকে, যথাসময়েই বারোতে বিল ও ফ্লেউরের বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। যদিও ডেথ ইটারদের আক্রমণে তাদের বিয়ের অনুষ্ঠানটি পন্ড হয়ে যায়। পরবর্তীতে, ম্যালফয় ম্যানর থেকে পালিয়ে এসে হ্যারি ও তার বন্ধুরা বিল ও ফ্লেউরের নতুন বাড়ি শেল কটেজে আশ্রয় নেয়। বিল ও ফ্লেউর উভয়েই ব্যাটল অফ হগওয়ার্টসে অংশ নেয় এবং ডেথ ইটারদের সাথে লড়াই করে। যুদ্ধের পরে বিল ভিক্টয়ের, ডমিনিকলুইস উইজলি নামে তিন ছেলে মেয়ের বাবা হয়।[২২]

রিচার্ড ফিশ প্রিজনার অফ আজকাবানে এবং ডমনাল গ্লিসন ডেথলি হ্যালোসে বিলের ভূমিকায় অভিনয় করেছে।

চার্লি উইজলি[সম্পাদনা]

চার্লস "চার্লি" উইজলি (ইংরেজি Charles "Charlie" Weasley), আর্থার ও মলি উইজলির দ্বিতীয় ছেলে। তার চেহারার সাথে ফ্রেড ও জর্জের মিল আছে এবং লম্বায় চার্লি রন ও পার্সির চেয়ে খাট। তার হাত পেশীবহুল এবং তার মুখ প্রশস্ত ও চওড়া। অন্যান্য ভাইবোনদের মত তারও লাল চুল রয়েছে। হগওয়ার্টসে চার্লি প্রিফেক্ট,[৩০] কুইডিচ ক্যাপ্টেন এবং গ্রিফিন্ডর কুইডিচ টিমের প্রবাদতুল্য সিকার ছিল, যার সময়ে গ্রিফিন্ডর হাউজ একটি কুইডিচ ম্যাচও হারেনি। স্কুলের পরে, চার্লি রোমানিয়াতে ড্রাগণ কিপার হিসেবে ড্রাগনদের সাথে কাজ শুরু করে। ফিলোসফার্স স্টোনে হ্যারি, রন ও হারমায়োনির অণুরোধে চার্লি হ্যাগ্রিডের কাছে থাকা অবৈধ ড্রাগণের বাচ্চা নরবার্টকে তার কাছে নিয়ে যায়। গবলেট অফ ফায়ারে ট্রাইউইজার্ড টু্র্নামেন্টের ফার্স্ট টাস্কের জন্য চার্লির নেতৃত্বে একদল ড্রাগণ কিপার হগওয়ার্টসে চারটি ড্রাগণ আনে। অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে চার্লি অর্ডারে যোগ দেয় এবং বিদেশী জাদুকরদের রিক্রুট করতে থাকে। ডেথলি হ্যালোসে সে তার বড়ভাই বিলের বিয়েতে অংশ নেয়ার জন্য বারোতে আসে। বইয়ের শেষদিকে, সে হগওয়ার্টসের যুদ্ধে অংশ নেয় এবং ডেথ ইটারদের বিরুদ্ধে লড়াই করে। যুদ্ধের পর চার্লি অবিবাহিত থেকে যায়।[২২]

অ্যালেক্স ক্রকফোর্ড প্রিজনার অফ আজকাবানে চার্লির ভূমিকায় অভিনয় করে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. The Leaky Cauldron and MuggleNet interview Joanne Kathleen Rowling: Part Two
  2. Meredith Vieira (২৯ জুলাই ২০০৭)। "Harry Potter: The final chapter"। MSNBC। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুলাই ২০০৭ 
  3. Rowling: I wanted to kill parents - Wild about Harry - MSNBC.com
  4. [১]
  5. "J.K. Rowling Web Chat Transcript"। The Leaky Cauldron। ৩০ জুলাই ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুলাই ২০০৭ 
  6. "Spoiler alert! Rowling discusses Harry's fate here"। usatoday। ২৫ জুলাই ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০০৭ 
  7. Anelli, Mellisa; Spartz, Emerson (১৬ জুলাই ২০০৫)। "The Leaky Cauldron and Mugglenet interview Joanne Kathleen Rowling: Part Three"The Leaky Cauldron। Accio-Quote। সংগ্রহের তারিখ ৭ ফেব্রুয়ারি ২০০৮ 
  8. "James Potter"J.K. Rowling and the Final Chapter। MSNBC। সংগ্রহের তারিখ ৭ জুন ২০০৮ 
  9. ""About the Books: transcript of J.K. Rowling's live interview on Scholastic.com," Scholastic.com, 16 October 2000"। সংগ্রহের তারিখ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০০৭ 
  10. টেমপ্লেট:HP7ref, chapter 5
  11. JK Rowling's World Book Day Chat, 4 March 2004
  12. "J. K. Rowling at Carnegie Hall Reveals Dumbledore is Gay; Neville Marries Hannah Abbott, and Much More"। The Leaky Cauldron। ১৯ অক্টোবর ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ৭ ফেব্রুয়ারি ২০০৮ 
  13. Anelli, Melissa; Noe, John; Upton, Sue (১৭ ডিসেম্বর ২০০৭)। "PotterCast Interviews J.K. Rowling, part one"PotterCast #130। Accio-Quote। সংগ্রহের তারিখ ৭ ফেব্রুয়ারি ২০০৮ 
  14. টেমপ্লেট:HP6ref, chapter 34
  15. টেমপ্লেট:HP1ref, chapter 4
  16. টেমপ্লেট:HP6ref, chapter 4
  17. টেমপ্লেট:HP6ref, chapter 22
  18. J.K.Rowling Official Site
  19. "J.K. Rowling Web Chat Transcript"। The Leaky Cauldron। ৩০ জুলাই ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুলাই ২০০৭ 
  20. The question ("James's patronus is a stag, and Lily's is a doe, is that a coincidence?") mistakenly refers to James's Animagus as a stag as his Patronus, but Rowling did not correct the mistake. She responded 'no' and merely elaborated that Patronuses can mutate to reflect "the love of one's life...because they so often become the 'happy thought' that generates a Patronus."
  21. "J.K. Rowling and the Live Chat, Bloomsbury.com"। Accio-Quote। ৩০ জুলাই ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ৭ ফেব্রুয়ারি ২০০৮ 
  22. J.K.Rowling - A Year In The Life; James Runcie; Independent Television (ITV); 2007
  23. Jen Brown (২৫ জুলাই ২০০৭)। "Stop your sobbing! More Potter to come"। MSNBC। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুলাই ২০০৭ 
  24. Deathly Hallows Draft
  25. Rowling: I wanted to kill parents - Wild about Harry - MSNBC.com
  26. Section: Extra Stuff Some Random Facts About The Weasley Family from Jkrowling.com.
  27. Harry Potter and the Deathly Hallows, JK Rowling, 736-737
  28. "New Interview with J.K. Rowling for Release of Dutch Edition of 'Deathly Hallows'." (18 November 2007). The Leaky Cauldron. Retrieved 19 November 2007.
  29. টেমপ্লেট:HP6ref, chapter 5
  30. টেমপ্লেট:HP5ref, chapter 9

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]