অভিজিৎ সেন (অর্থনীতিবিদ)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
অভিজিৎ সেন
Prof. Abhijit Sen, in New Delhi on July 27, 2009.jpg
জন্ম(১৯৫০-১১-১৮)১৮ নভেম্বর ১৯৫০
মৃত্যু২৯ আগস্ট ২০২২(2022-08-29) (বয়স ৭১)
পেশা
  • অধ্যাপক
  • অর্থনীতিবিদ
দাম্পত্য সঙ্গীজয়তী সেন (ঘোষ)
সন্তানজাহ্নবী সেন (কন্যা)
পিতা-মাতাসমর সেন (পিতা)
অনিতা সেন (মাতা)
পুরস্কারপদ্মভূষণ (২০১০)
উচ্চশিক্ষায়তনিক পটভূমি
মাতৃ-শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান
অভিসন্দর্ভঅর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য কৃষির সীমাবদ্ধতা: ভারতের ক্ষেত্রে
ডক্টরাল উপদেষ্টাসুজি পেইন

ড.অভিজিৎ সেন (২৬ নভেম্বর ১৯৫০ - ২৯ আগস্ট ২০২২) ছিলেন একজন ভারতীয় অর্থনীতিবিদ ও গ্রামীণ অর্থনীতির বিশেষজ্ঞ। [১] তিনি পূর্বতন ভারতের পরিকল্পনা কমিশনের (২০১৪ খ্রিস্টাব্দে অবলুপ্ত) সদস্য ছিলেন। [২] [৩]

জীবনের প্রথমার্ধ[সম্পাদনা]

সেন ১৯৫০ সালের ১৮ নভেম্বর বর্তমান ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্যের জামশেদপুরে একটি বাঙালি বৈদ্য পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা সমর সেন ছিলেন বিশ্বব্যাংকের অর্থনীতিবিদ এবং মাতা অনিতা সেন। অভিজিতের অনুজ প্রণব সেনও অর্থনীতিবিদ। তাদের পরিবার নতুন দিল্লিতে স্থানান্তরিত হলে অভিজিৎ সর্দার প্যাটেল বিদ্যালয়ে ভর্তি হন। পরে সেন্ট স্টিফেন কলেজ থেকে পদার্থবিদ্যায় সাম্মানিকসহ স্নাতক হন। [৪] [৫]পদার্থবিদ্যা নিয়ে পডাশোনা করলেও তিনি সুজি পেইনের অধীনে ভারতের অর্থনৈতিক উন্নয়নে কৃষির সীমাবদ্ধতা নিয়ে গবেষণা করে ১৯৮১ খ্রিস্টাব্দে কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় হতে অর্থনীতিতে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। গবেষণা পত্রটির শিরোনাম ছিল - “The agrarian constraint to economic development: the case of India” তিনি ট্রিনিটি হলের সদস্য ছিলেন। [৫]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

অভিজিৎ সেনের কর্মজীবন শুরু হয় অধ্যাপনা দিয়েই। তবে দীর্ঘ চার দশকের কর্মজীবনে তিনি অক্সফোর্ড, কেমব্রিজ, সাসেক্স, জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতিতে অধ্যাপনা ছাড়াও বিভিন্ন সময়ে ভারত সরকারের কমিশন অব এগ্রিকালচারাল কস্ট অ্যান্ড প্রাইসেসের (সিএসিপি) শীর্ষপদ (১৯৯৭-২০০০), কৃষি অর্থনীতি এবং গ্রামীণ উন্নয়নের দশম পরিকল্পনা উপগোষ্ঠী সহ বেশ কয়েকটি অফিসিয়াল কমিশনের নানা গুরুত্বপূর্ণ পদে ছিলেন। [২]

তিনি পশ্চিমবঙ্গ ও ত্রিপুরার রাজ্য পরিকল্পনা বোর্ড, কৃষি অর্থনীতি ও গ্রামীণ উন্নয়নের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর টাস্কফোর্স এবং গ্রামীণ ঋণ সংক্রান্ত বিশেষজ্ঞ কমিটির সদস্য ছিলেন। [২]

প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহের আমলে ২০০৪ খ্রিস্টাব্দ হতে ২০১৪ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত তিনি ভারতের পরিকল্পনা কমিশনের (২০১৪ খ্রিস্টাব্দের ১৩ আগস্ট অবলুপ্ত হয়) সদস্য ছিলেন। তিনি দেশে সকলের জন্য গণবন্টন ব্যবস্থার এবং কৃষকের নূন্যতম সহায়ক মূল্যের কট্টর সমর্থক ছিলেন। সরকারের বিভিন্ন মহল থেকে ভর্তুকির "বিপুল" খরচ সম্পর্কে আশঙ্কার কথা উত্থাপিত হলে তার বক্তব্য ছিল-রাজকোষের উপর ভর্তুকির বোঝা বিষয়টি বহুলাংশে অতিরঞ্জিত। সরকারের সার্বিক গণবন্টন ব্যবস্থা চালানো ও কৃষকদের সহায়ক মূল্য নিশ্চিত করার মত সামর্থ্য ভারত সরকারের আছে। [১]

অধ্যাপক সেন ২০১০ খ্রিস্টাব্দে জনসেবায় ভারতের তৃতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার পদ্মভূষণ লাভ করেন। [৬] তিনি পশ্চিমবঙ্গের বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাম্মানিক ডক্টরেট ডিগ্রি লাভ করেন।[৭]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

অধ্যাপক অভিজিৎ সেন অর্থনীতিবিদ জয়তী ঘোষকে বিবাহ করেন করেছিলেন। তাদের একমাত্র কন্যা জাহ্নবী সেন "দ্য ওয়্যার"-এর সাংবাদিক। [৬] [৮]

জীবনাবসান[সম্পাদনা]

অধ্যাপক অভিজিৎ সেন ২০২২ খ্রিস্টাব্দের ২৯ আগস্ট সোমবার রাতে দিল্লির বাড়িতে হৃদরোগে আক্রান্ত হন, কিন্তু হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই মৃত্যুবরণ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৭১ বৎসর।[৬][১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "প্রয়াত গণবন্টন ব্যবস্থার কণ্ঠস্বর অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ সেন"। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৮-৩১ 
  2. "Planning Commission, Government of India"। ২০ জানুয়ারি ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০১৩ 
  3. "Abhijit sen" 
  4. Bhattacharya, A. K. (১৯ জুলাই ২০১১)। "Dinner with BS: Abhijit Sen"Business Standard India 
  5. "Saluting Abhijit Sen, one of India's greatest experts on rural economy"The New Indian Express। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৮-৩১ 
  6. "Economist Abhijit Sen, advocate of public distribution system, is no more"mint (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২২-০৮-৩০। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৮-৩১ 
  7. "Abhijit sen" 
  8. "Abhijit Sen, one of India's leading agriculture economists and distinguished academics, passes away"The Indian Express (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২২-০৮-৩০। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৮-৩১