ম্যাকবেথ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
এই নিবন্ধটি শেকসপিয়রের নাটক সম্পর্কিত। অন্যান্য ব্যবহারের জন্য দেখুন ম্যাকবেথ (দ্ব্যর্থতানিরসন)
১৮৮৪ সালে টমাস ডব্লিউ. কিন অভিনীত ম্যাকবেথ নাটকের একটি আমেরিকান প্রযোজনার পোস্টার। চিত্রসূচি (উপরের বাঁদিক থেকে ঘড়ির কাঁটার বিপরীতে): ম্যাকবেথ ও ব্যাঙ্কোর সঙ্গে ডাইনিদের সাক্ষাৎ, ডানকান হত্যাকাণ্ডের পর ম্যাকবেথ ও লেডি ম্যাকবেথ, ব্যাঙ্কোর প্রেত এবং ম্যাকবেথ ও ম্যাকডাফের অসিযুদ্ধ।

দ্য ট্র্যাজেডি অফ ম্যাকবেথ (প্রচলিত নামে ম্যাকবেথ) উইলিয়াম শেকসপিয়র রচিত একটি নাটক। এটিই শেকসপিয়রের সর্বাপেক্ষা ক্ষুদ্রাকার ট্র্যাজেডি। নাটকটির মূল উপজীব্য একটি রাজহত্যা ও তার ফলস্রুতিতে সংঘটিত ঘটনাবলি। সম্ভবত ১৬০৩ থেকে ১৬০৭ সালের মধ্যবর্তী কোনো এক সময়ে রচিত হয় ম্যাকবেথসিমোন ফরম্যানের বয়ান থেকে জানা যায় যে ১৬১১ সালের এপ্রিলে গ্লোব থিয়েটারে তিনি এইরূপ একটি নাটক মঞ্চায়িত হতে দেখেন, সম্ভবত সেই নাটকটি ছিল শেকসপিয়রেরই নাটক। ১৬২৩ সালে প্রকাশিত প্রথম ফোলিওতে সম্ভবত বিশেষ কোনো নাট্যাভিনয়ের জন্য প্রস্তুত প্রম্পট-পুস্তিকা থেকে সংকলিত হয় ম্যাকবেথ

শেকসপিয়রের এই নাটকের প্রধান উৎস ছিল হলিনশেড’স ক্রনিকল (১৫৮৭) নামক ইংল্যান্ড, স্কটল্যান্ড ও আয়ারল্যান্ডের ইতিহাস সংক্রান্ত একটি গ্রন্থে বর্ণিত ম্যাকবেথ, ম্যাকডাফ ও ডানকানের উপাখ্যান। উক্ত গ্রন্থটি শেকসপিয়র ও তাঁর সমসাময়িকদের নিকট সুপরিচিত ছিল।

নাট্যজগতের কেউ কেউ এই নাটকটিকে অভিশপ্ত মনে করতেন। তাঁরা এই নাটকের নাম উচ্চারণ না করে এটিকে দ্য স্কটিশ প্লে নামে অভিহিত করতেন।

শতাধিক বছর ধরে ম্যাকবেথ ও লেডি ম্যাকবেথের চরিত্রদুটি বিশিষ্ট অভিনেতা-অভিনেত্রীদের আকৃষ্ট করে এসেছে। এই নাটক অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে চলচ্চিত্র, টেলিভিশন ধারাবাহিক, অপেরা, উপন্যাস, কমিক বই এমনকি ভিডিও গেমও।

চরিত্রসমূহ[সম্পাদনা]

  • রস, লেনক্স, অ্যাঙ্গাস, মেনটেইথ, কেইথনেস – স্কটিশ লর্ডগণ
  • সিওয়ার্ড – নর্থামব্রিয়ার আর্ল, ইংরেজ বাহিনীর সেনাপতি
    • ইয়াং সিওয়ার্ড – সিওয়ার্ডের পুত্র
  • সেইটন – ম্যাকবেথের পরিচারক
  • হেকেট – প্রধান ডাইনি/ডাইনিবিদ্যার দেবী
  • তিন ডাইনি
  • তিন খুনি
  • দ্বাররক্ষক – ম্যাকবেথের দুর্গের দ্বাররক্ষক
  • স্কটিশ ডাক্তার – লেডি ম্যাকবেথের ডাক্তার
  • দ্য জেন্টলওম্যান : লেডি ম্যাকবেথের পরিচর্যাকারিণী

কাহিনি-সারাংশ[সম্পাদনা]

ম্যাকবেথ নাটকে মন্ত্র পড়ে ডাইনিদের ভূত নামানোর দৃশ্য; চতুর্থ অঙ্ক, প্রথম দৃশ্য; উইলিয়াম রিমার অঙ্কিত তৈলচিত্র।

নাটকের প্রথম দৃশ্যে তিন ডাইনি এক ঊষর প্রান্তরে মিলিত হন। স্থির করেন যে তাঁরা দেখা দেবেন ম্যাকবেথকে। পরবর্তী দৃশ্যে স্কটল্যান্ডের রাজা ডানকানের সঙ্গে সাক্ষাৎ হয় এক আহত ক্যাপ্টেনের। সেই ক্যাপ্টেন তাঁকে জানান যে তাঁর দুই সেনানায়ক ম্যাকবেথ ও ব্যাঙ্কো এইমাত্র বিদ্রোহী ম্যাকডোনাল্ডের নেতৃত্বাধীন নরওয়েআয়ারল্যান্ডের যৌথবাহিনীকে পরাস্ত করেছিলেন। ক্যাপ্টেন রাজার আত্মীয় তথা গ্লেমিসের থেন ম্যাকবেথের শৌর্য ও বীর্যের বিশেষ প্রশংসাও করেন।

দৃশ্য বদল হয়। আবহাওয়া ও নিজেদের বিজয় সম্পর্কে আলোচনা করতে করতে প্রবেশ করেন ম্যাকবেথ ও ব্যাঙ্কো ("So foul and fair a day I have not seen")। এক ঊষর প্রান্তরের পথে তাঁদের সঙ্গে দেখা হয় তিন ডাইনির। ম্যাকবেথ ও ব্যাঙ্কোকে অভিবাদন জানিয়ে তাঁরা তিনটি ভবিষ্যৎবাণী উচ্চারণ করেন। ব্যাঙ্কো তাঁদের প্রতি সন্দেহ প্রকাশ করলে তাঁরা ম্যাকবেথকে অভিবাদন জানান। পরপর তিনটি অভিবাদনে ডাইনিরা প্রথমে ম্যাকবেথকে "থেন অফ গ্লেমিস", তারপর "থেন অফ কডর" ও শেষে "বি কিং হিয়ারআফটার" বলে উল্লেখ করেন। স্তম্ভিত ম্যাকবেথ চুপ করে যান। তবে ব্যাঙ্কো আবার তাঁদের প্রতি সন্দেহ প্রকাশ করেন। তখন ডাইনিরা তাঁকে জানান যে ব্যাঙ্কো নিজে রাজা না হলেও রাজবংশের জনক হবেন। এই ভবিষ্যৎবাণীগুলি শুনিয়ে দুজনকে অবাক করে দিয়ে অদৃশ্য হয়ে যান ডাইনিরা। রস নামে অপর এক থেন রাজার দূত হয়ে প্রবেশ করেন। তিনি জানান যে ম্যাকবেথকে "থেন অফ কডর" উপাধিতে ভূষিত করা হয়েছে। এইভাবে প্রথম ভবিষ্যৎবাণীটি ফলে যায় এবং ম্যাকবেথের মনে রাজা হওয়ার ইচ্ছা বলবতী হয়ে ওঠে।

ম্যাকবেথ একটি চিঠিতে তাঁর স্ত্রীকে ডাইনিদের ভবিষ্যৎবাণীগুলি সম্পর্কে জানান। এরপর ডানকান ম্যাকবেথের ইনভার্নেসের দুর্গে রাত্রিবাসের সিদ্ধান্ত নিলে লেডি ম্যাকবেথ তাঁর স্বামীকে সিংহাসনে বসানোর লক্ষ্যে রাজহত্যার পরিকল্পনা করেন। ম্যাকবেথ প্রথমে রাজহত্যায় রাজি ছিলেন না। কিন্তু লেডি ম্যাকবেথ নানা কৌশলে তাঁকে বুঝিয়ে রাজি করান। নিজের পরিকল্পনা সফল করতে তিনি স্বামীর পৌরুষ নিয়ে প্রশ্নও উত্থাপন করেন।

আতিথ্যগ্রহণের রাত্রিতেই ম্যাকবেথ হত্যা করেন ডানকানকে। হত্যার ঘটনাটি মঞ্চে দৃশ্যায়িত করা হয়নি। হত্যার পর ম্যাকবেথ মানসিকভাবে ভেঙে পড়লে লেডি ম্যাকবেথকে আসরে নেমে অবস্থা সামাল দিতে হয়। ষড়যন্ত্রমাফিক, একটি রক্তমাখা ছোরা ডানকানের ঘুমন্ত পরিচারকদের কাছে রেখে তাদের উপর হত্যার দায় চাপিয়ে দেওয়া হয়। পরদিন সকালে স্কটিশ রাজপুরুষ লেনক্স ও ফিফের অনুগত থেন ম্যাকডাফ এসে উপস্থিত হন।[১] দ্বাররক্ষক দরজা খুলে দেয়। ম্যাকবেথ তাঁদের রাজার কক্ষে নিয়ে যায়। সেখানে ম্যাকডাফ রাজার মৃতদেহ আবিষ্কার করেন। ছদ্মক্রোধে ম্যাকবেথ তৎক্ষণাৎ রাজপরিচারকদের হত্যা করেন। তাঁদের আত্মপক্ষ-সমর্থনের সুযোগটুকুও দেন না। ম্যাকডাফ সেই মুহুর্তেই ম্যাকবেথকে খুনি বলে সন্দেহ করেন। কিন্তু মুখে কিছুই বলেন না। প্রাণভয়ে ডানকানের দুই পুত্র পলায়ন করেন। জ্যেষ্ঠ পুত্র ম্যালকম ইংল্যান্ডে ও কনিষ্ঠ পুত্র ডোনালবেইন আয়ারল্যান্ডে চলে যান। ডানকানের বৈধ উত্তরাধিকারগণের এহেন পলায়নে স্বভাবতই সন্দেহের আঙুল তাদের দিকেই উঠতে থাকে। এই সুযোগে রাজার নিকটাত্মীয় হিসেবে ম্যাকবেথ নিজেকে স্কটল্যান্ডের নতুন রাজা ঘোষণা করেন।

ম্যাকবেথের সম্মুখে ব্যাঙ্কোর প্রেত; থিওডোর চেসারিয়া অঙ্কিত চিত্র।

এই সাফল্য সত্ত্বেও স্বস্তি পান না ম্যাকবেথ। ব্যাঙ্কো-সংক্রান্ত ভবিষ্যৎবাণীটি তাড়া করে ফেরে তাঁকে। এক রাজকীয় ভোজসভায় আমন্ত্রণ জানাতে গিয়ে তিনি জানতে পারেন যে সেই রাতেই ব্যাঙ্কো ও তাঁর পুত্র ফ্লিয়ান্স বাইরে যাচ্ছেন। এঁদের খুন করার জন্য দুজন গুপ্তঘাতক নিয়োগ করেন ম্যাকবেথ। হত্যার ঠিক পূর্বে অপর এক খুনি রহস্যজনকভাবে আবির্ভুত হয় ঘটনাস্থলে। ব্যাঙ্কো খুন হন। কিন্তু ফ্লিয়ান্স পালিয়ে যান। ভোজসভায় উপস্থিত হয় ব্যাঙ্কোর প্রেত। সে ম্যাকবেথের কাছে গিয়ে বসে। কেবল ম্যাকবেথই তাঁকে দেখতে পান। একটি খালি চেয়ার দেখে উত্তেজিত হয়ে উঠছেন ম্যাকবেথ। মরিয়া হয়ে লেডি ম্যাকবেথ অভ্যাগতদের চলে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করেন।

বিধ্বস্ত ম্যাকবেথ আবার যান ডাইনিদের কাছে। তাঁরা ভূত নামিয়ে আরও কিছু ভবিষ্যৎবাণী ও বিপদসংকেত উচ্চারণ করেন। ম্যাকবেথকে তাঁরা ম্যাকডাফের থেকে সাবধান হতে বলেন। কিন্তু সঙ্গে সঙ্গে এও জানান যে নারীর যোনিসম্ভূত কেউ ম্যাকবেথকে হত্যা করতে পারবে না এবং যতদিন না বিশাল বার্নামের বন উচ্চ ডানসিনান পর্বতে তাঁর বিরুদ্ধে উপস্থিত হবে ততদিন তিনি অপরাজেয় থাকবেন। ম্যাকডাফ সেই সময় ইংল্যান্ডে ছিলেন। ম্যাকবেথ তাঁর প্রাসাদে গুপ্তঘাতক পাঠিয়ে তাঁর স্ত্রী ও শিশুপুত্রকে হত্যা করেন।

এদিকে লেডি ম্যাকবেথ তাঁর ও তাঁর স্বামীর কৃত অপরাধের জন্য অপরাধবোধে ভুগতে থাকেন। একটি বিখ্যাত দৃশ্যে দেখা যায় যে তিনি ঘুমের মধ্যে হাঁটছেন আর তাঁর জানা ভয়ংকর সব কথা বলতে বলতে নিজের হাতের কাল্পনিক রক্তের দাগ মুছে ফেলার চেষ্টা করছেন।

লেডি ম্যাকবেথ স্লিপওয়াকিং; হেনর ফুসেলি অঙ্কিত চিত্র।

ইংল্যান্ডে রস ম্যালকম এবং ম্যাকডাফকে লেডি ম্যাকডাফ ও তাঁর পুত্রের হত্যাকাণ্ডের সংবাদ দেন। অন্যদিকে ম্যাকবেথকে ষড়যন্ত্রকারী মনে করে তাঁর একাধিক থেন তাঁকে পরিত্যাগ করে চলে যান। ইংল্যান্ডের নর্দামব্রিয়ার আর্ল সিওয়ার্ড (দ্য এল্ডার)-কে সঙ্গে নিয়ে ম্যালকম ডানসিনান দুর্গে ম্যাকবেথের বিরুদ্ধে সেনা অভিযান শুরু করেন।

বার্নামের বনে শিবির করার সময় সৈন্যদের নির্দেশ দেওয়া হয়, নিজেদের সংখ্যা গোপন রাখতে তাঁরা যেন গাছের ডাল কেটে নিয়ে তার আড়ালে অগ্রসর হতে শুরু করে। এইভাবে ডাইনিদের আর একটি ভবিষ্যৎবাণী ফলে যায়। এদিকে লেডি ম্যাকবেথের মৃত্যুসংবাদ আসে। ম্যাকবেথ এই সময় একটি বিখ্যাত স্বগতোক্তি ("টুমরো, অ্যান্ড টুমরো, অ্যান্ড টুমরো") উচ্চারণ করলেন। লেডি ম্যাকবেথের মৃত্যুর কারণটি নাটকে পরিষ্কারভাবে উল্লেখ করা হয়নি। কোনো কোনো মতে, তিনি আত্মহত্যা করেছিলেন। সবশেষে ম্যালকম তাঁর সম্পর্কে বলেন, "'tis thought, by self and violent hands / took off her life"।

যুদ্ধে ইয়াং সিওয়ার্ড নিহত হন। ম্যাকডাফ ম্যাকবেথের মুখোমুখি হন। ম্যাকবেথ ঔদ্ধত্য প্রকাশ করে বলেন যে নারীর যোনিসম্ভূত কেউ তাঁকে হত্যা করতে পারবে না। তখনই ম্যাকডাফ তাঁকে জানান যে তাঁকে "মায়ের জরায়ু থেকে অসময়ে তুলে আনা হয়েছিল" (অর্থাৎ, অস্ত্রোপচারের ফলে তাঁর জন্ম। এই কারণে তিনি অযোনিসম্ভূত)। ম্যাকবেথ বুঝতে পারেন যে ডাইনিরা তাকে ভুল পথে চালনা করেছে। কিন্তু ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে গেছে। ম্যাকডাফ ম্যাকবেথের শিরোচ্ছেদ করেন (এই দৃশ্যটি মঞ্চে অভিনীত হয়নি)। এইভাবে সর্বশেষ ভবিষ্যৎবাণীটি ফলে যায়।

এরপর ম্যালকম সিংহাসনে বসেন। ফ্লিয়ান্স রাজা হননি। কিন্তু ডাইনিরা ব্যাঙ্কোকে "রাজবংশের জনক হবেন" বলে যে ভবিষ্যৎবাণী করেছিলেন, শেকসপিয়রের সময়কালে তাও ফলে যায়। কারণ ইংল্যান্ডের প্রথম জেমসকে (অপর নামে স্কটল্যান্ডের ষষ্ঠ জেমস) ব্যাঙ্কোর বংশধর বলে মনে করা হয়।

উৎস[সম্পাদনা]

ম্যাকবেথ নাটকটি শেকসপিয়রেরই অ্যান্টনি অ্যান্ড ক্লিওপেট্রা নাটকটির সঙ্গে তুলনীয়। চরিত্র হিসেবে অ্যান্টনি এবং ম্যাকবেথ উভয়েই রত ছিলেন এক নতুন জগতের সন্ধানে। আর এই সন্ধানের অভিযানে তাঁরা দুজনেই মূল্যস্বরূপ তাঁদের পুরনো জগতটিকে বিসর্জন দিতেও প্রস্তুত ছিলেন। দুজনেই সংগ্রাম চালিয়েছিলেন সিংহাসনের অধিকার অর্জনের লক্ষ্যে; এবং এই অধিকার অর্জনের সংগ্রামে দুজনকেই সম্মুখীন হতে হয়েছিল তাদের চরম 'নিয়তি'র। অ্যান্টনির নিয়তি ছিলেন অক্টেভিয়াস; অন্যদিকে ম্যাকবেথের নিয়তি হন ব্যাঙ্কো। নিজেকে অ্যান্টনির সঙ্গে তুলনা করে ম্যাকবেথ একবার বলেন, "under Banquo / My Genius is rebuk'd, as it is said / Mark Antony's was by Caesar." সর্বোপরি, উভয় নাটকেই দুই সর্বকর্তৃত্বময়ী নারীচরিত্রের দেখা মেলে: ক্লিওপেট্রা ও লেডি ম্যাকবেথ।[২]

তিন ডাইনির সকাশে ম্যাকবেথ ও ব্যাঙ্কো - থিওডোর চেসারিয়া অঙ্কিত তৈলচিত্র

এই নাটকের সিংহভাগ নাট্যোপাখ্যান শেকসপিয়র আহরণ করেন হলিনশেড’স ক্রনিকলস থেকে। এই বইটি ছিল ব্রিটিশ দ্বীপপুঞ্জের এক জনপ্রিয় ইতিহাসগ্রন্থ। শেকসপিয়র ও তাঁর সমসাময়িকগণ এই গ্রন্থটি সম্পর্কে ওয়াকিবহাল ছিলেন। ক্রনিকলস থেকে জানা যায়, রাজা ডাফ ডাইনিদের সঙ্গে সম্পর্ক রাখার অপরাধে জনৈক ডনওয়াল্ডের এক আত্মীয়কে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত করেন। এরপর স্ত্রীর চাপে পড়ে ডনওয়াল্ড চারজন চাকরকে সঙ্গে নিয়ে নিজগৃহেই রাজা ডাফকে হত্যা করেছিলেন। ক্রনিকলস অনুসারে, রাজা ডানকানের অপদার্থতার অভিশাপ থেকে স্কটল্যান্ডকে মুক্তি দিতে কৃতসঙ্কল্প হয়ে রাজহত্যা ঘটিয়েছিলেন ম্যাকবেথ। ডাইনিদের সঙ্গে তাঁর ও ব্যাঙ্কোর সাক্ষাৎলাভ ও ডাইনিদের ভবিষ্যৎবাণীর বর্ণনা ক্রনিকলস ও শেকসপিয়রের নাটকে মোটামুটি একইভাবে বর্ণিত হয়েছে। তবে ক্রনিকলস থেকে জানা যায় যে লেডি ম্যাকবেথের মন্ত্রণায় ম্যাকবেথ ও ব্যাঙ্কো একযোগে ডানকানকে হত্যার পরিকল্পনা করেছিলেন। ম্যাকডাফ ও ম্যালকমের হাতে পরাভূত হওয়ার আগে দশ বছর কাল রাজত্বও করেছিলেন ম্যাকবেথ। ক্রনিকলস ও শেকসপিয়রের নাটক – দুই পাঠের সমান্তরাল দিকগুলি সুস্পষ্ট। তবে কোনো কোনো গবেষক মনে করেন, জর্জ বুকানন রচিত রেরাম স্কটিকেরাম হিস্টোরিয়া গ্রন্থের পাঠের সঙ্গে শেকসপিয়রের পাঠের মিলই বেশি। শেকসপিয়রের সমসাময়িক কালে লাতিন ভাষায় রচিত বুকাননের বইটি দুষ্প্রাপ্য ছিল না।[৩]

ডানকান হত্যার প্রচেষ্টায় লেডি ম্যাকবেথ - জর্জ ক্যাটারমোল অঙ্কিত তৈলচিত্র

তবে কাহিনির কোনো পাঠেই একথা বলা হয়নি যে ম্যাকবেথ নিজের দুর্গপ্রাসাদে ডানকানকে হত্যা করেন। বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, ম্যাকবেথের অপরাধকে জঘন্য থেকে জগন্যতর রূপে ফুটিয়ে তোলার জন্যই শেকসপিয়র উপাখ্যানভাগে এই পরিবর্তনটুকু ঘটান। কারণ এই অপরাধ ছিল আতিথেয়তা শিষ্টাচারের জঘন্যতম উল্লঙ্ঘন। আখ্যানের অন্য পাঠান্তর থেকে জানা যায়, ডানকান ইনভার্নেসে একটি হামলায় নিহত হন; দুর্গে তাঁর মৃত্যু ঘটেনি। তাই ডনওয়াল্ড ও রাজা ডাফের গল্পটির আধারে শেকসপিয়র তাঁর নাটকের আখ্যানভাগে এই গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তনটি ঘটান বলে মনে করা হয়।[৪]

আখ্যানভাগে আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন ঘটান শেকসপিয়র। ক্রনিকলস-এর বর্ণনা অনুসারে, ব্যাঙ্কো ছিলেন ডানকান হত্যাকাণ্ডে ম্যাকবেথের সঙ্গী। শুধু তাই নয়, ডানকান হত্যার পর সেনা-অভ্যুত্থানে যাতে কোনো মতেই ম্যালকমের বদলে ম্যাকবেথকে সিংহাসনে বসানোর ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেন ব্যাঙ্কো।[৫] শেকসপিয়রের সময়কালে ব্যাঙ্কোকে স্টুয়ার্ট রাজা প্রথম জেমসের প্রত্যক্ষ পূর্বপুরুষ মনে করা হত।[৬][৭] সঙ্গত কারণেই শেকসপিয়র অঙ্কিত ব্যাঙ্কোর চরিত্রটি ঐতিহাসিক ব্যাঙ্কোর তুলনায় অনেকাংশে পৃথক। সমালোচকদের মতে, এর পিছনে একাধিক সম্ভাব্য কারণ বিদ্যমান। প্রথমত, রাজার পূর্বপুরুষকে খুনি হিসেবে চিত্রিত করা বিপজ্জনক। দ্বিতীয়ত, হত্যাকাণ্ডের ক্ষেত্রে ব্যাঙ্কো চরিত্রটির কোনো নাটকীয় প্রয়োজন ছিল না। বরং নাটকে ম্যাকবেথের বিরুদ্ধাচারী একটি সজ্জন চরিত্রের প্রয়োজন ছিল। অনেকের মতে, এই চরিত্রের অভাবই পূর্ণ করেন ব্যাঙ্কো।[৫] উল্লেখ্য, সমসাময়িক অন্যান্য যে সকল লেখক ব্যাঙ্কোর চরিত্রাঙ্কণ করেছিলেন, তাঁরাও ব্যাঙ্কোকে হত্যাকারীর বদলে এক সম্মানীয় ব্যক্তি প্রতিপন্ন করার চেষ্টা করেছিলেন। এই সব রচনার মধ্যে উল্লেখনীয়, জ্যঁ দে সেল্যান্ডার রচিত স্টুয়ার্টাইড[৮]

রচনাকাল ও মূলপাঠ[সম্পাদনা]

১৬২৩ সালে প্রকাশিত প্রথম ফোলিও থেকে ম্যাকবেথ নাটকের প্রথম পৃষ্ঠার ফ্যাক্সিমিলি

রচনার পরেও মূলপাঠে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ সংশোধনী আনা হয় বলে ম্যাকবেথ নাটকটির সঠিক রচনাকাল নির্ণয় করা অসম্ভব হয়ে পড়ে। অনেক গবেষক মনে করেন, ১৬০৩ থেকে ১৬০৬ সালের মধ্যবর্তী কোনো সময়ে নাটকটি রচিত হয়েছিল।[৯][১০] সম্ভবত স্টুয়ার্ট রাজবংশের সিংহাসনারোহণ উপলক্ষ্যে রাজা জেমসের পূর্বপুরুষদের গুণকীর্তনের উদ্দেশ্যেই রচিত হয় ম্যাকবেথ। উল্লেখ্য, রাজা জেমস নিজেকে ব্যাঙ্কোর উত্তরসূরি মনে করতেন।[১১] এই কারণেই গবেষকরা মনে করেন যে নাটকটি ১৬০৩ সালের পূর্বে রচিত হতে পারে না। তাঁদের বক্তব্য: চতুর্থ অঙ্কে ডাইনিরা ম্যাকবেথকে যে আট রাজার কুচকাওয়াজের মায়াদৃশ্য দেখিয়েছিলেন, তা আসলে রাজা জেমসের প্রতি নাট্যকারের অভিবাদন। অন্যান্য সম্পাদকেরা নাটকে গানপাউডার প্লট ও তৎপরবর্তী বিচারের উল্লেখের ভিত্তিতে নাটকের রচনাকাল নির্দিষ্ট করেছেন ১৬০৫-০৬ সাল। বিশেষভাবে উল্লেখ্য, দ্বাররক্ষকের সংলাপে (দ্বিতীয় দৃশ্য, দ্বিতীয় অঙ্ক, পংক্তি ১-২১) ১৬০৬ সালের বসন্তে ঘটা জেসুইট হেনরি গার্নেটের বিচারের উল্লেখ করেছে। এখানে "equivocator" (পংক্তি ৮) কথাটি গার্নেটের আত্মপক্ষ সমর্থনে ব্যবহৃত "equivocation" [দেখুন: ডকট্রেইন অফ মেন্টাল রিজার্ভেশন] এবং "farmer" (পঙ্গক্তি ৬) কথাটি গার্নেটের ছদ্মনাম হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে।[১২] যদিও "farmer" একটি সাধারণ শব্দ এবং "equivocation"-এর ধারণাটি রানি প্রথম এলিজাবেথের মুখ্য কাউন্সিলর লর্ড বার্গলের ১৫৮৩ সালের একটি ট্র্যাক্টের বিষয়। এছাড়াও উল্লেখ্য ১৫৮৪ সালে স্প্যানিশ প্রিলেট মার্টিন অ্যাজপিলকুয়েটা একটি ডকট্রেইন অফ ইকুইভোকেশন জারি করেন, যা ১৫৯০-এর দশকে ইংল্যান্ড সহ ইউরোপের অন্যান্য অংশে ছড়িয়ে পড়েছিল।[১৩]

গবেষকরা আরো দেখিয়েছেন যে ১৬০৫ সালের গ্রীষ্মে অক্সফোর্ডে রাজা জেমস একটি প্রমোদানুষ্ঠান দেখেছিলেন। এই অনুষ্ঠানের অন্যতম আকর্ষণ ছিল ডাইনি বোনেদের মতো তিন "সিবিল"। কারমোড অনুমান করেন যে শেকসপিয়র এই ঘটনার কথা শুনে ডাইনি বোনেদের দৃশ্যায়িত করার কথা ভাবেন। [১৪] যদিও নিউ কেমব্রিজ সংস্করণে এ. আর. ব্রনমুলার এই অভিমত প্রকাশ করেছেন যে ১৬০৫-০৬ সালে ম্যাকবেথ নাট্যরচনার তত্ত্বটি প্রশ্নাতীত নয়। তাঁর মতে, এই নাটক রচনার সম্ভাব্য প্রথম তারিখটি হল ১৬০৩।[১৫] তবে নাটকটি কোনো মতেই ১৬০৭ সালের পরে রচিত হয়নি। কারণ, কারমোড লিখেছেন, “১৬০৭ সালে এই নাটকের অস্তিত্বের স্পষ্ট উল্লেখ পাওয়া যায়।” [১৪] নাট্যাভিনয়ের প্রথম বর্ণনাটি ১৬১১ সালের এপ্রিল মাসের। সিমোন ফরম্যান এই সময় গ্লোব থিয়েটারে এই নাটকের অভিনয় দেখার কথা লিখেছেন।[১৬]

১৬২৩ সালের প্রথম ফোলিওতে ম্যাকবেথ নাটকটি প্রথম মুদ্রিত হয়। এই ফোলিওই নাটকের একমাত্র উৎস। তবে নিশ্চিতভাবেই শেকসপিয়র ভিন্ন অপর ব্যক্তির হাতেও নাটকটির পরিবর্তন সাধিত হয়েছিল। এই পরিবর্তনগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য, টমাস মিডলটনের নাটক দ্য উইচ থেকে দুটি গানের সংযোজনা। এছাড়াও মিডলটন সম্ভবত ডাইনি ও হেকেটের চরিত্র সম্বলিত একটি অতিরিক্ত এই নাটকে সংযোজিত করেছিলেন। দর্শকদের মধ্যে দৃশ্যগুলি বেশ জনপ্রিয়তাও লাভ করেছিল। ১৮৬৯ সালের ক্ল্যারেনডন সংস্করণ থেকে তৃতীয় অঙ্ক পঞ্চম দৃশ্যের সমগ্র অংশে এবং চতুর্থ অঙ্ক প্রথম দৃশ্যের অংশবিশেষে এই সংশোধনগুলি সংযোজিত হতে থাকে। আধুনিক পাঠ্যে এই দৃশ্যগুলি প্রায়ই চিহ্নিত হয়ে থাকে।[১৭] এই ভিত্তিতে অনেক গবেষক দেবী হেকেটের চরিত্র সম্বলিত এই তিনটি মধ্যবর্তী পর্বকে অপ্রামাণিক বলে প্রত্যাখ্যান করেছেন। হেকেটের দৃশ্যটি নিয়েও নাটকটি উল্লেখযোগ্যভাবে ছোটো। এই কারণে মনে করা হয় কোনো প্রম্পট বই থেকে ফোলিওর পাঠটি গ্রহণ করা হয়েছিল। পাঠটি অভিনয়ের সুবিধার জন্য ক্ষুদ্রায়িত করা হয় অথবা কোনো ব্যবস্থাপক নিজেই মূল পাঠটি ছেঁটে ছোটো করে নিয়েছিলেন।

পাদটীকা[সম্পাদনা]

  1. দেখুন অন দ্য নকিং অ্যাট দ্য গেট ইন ম্যাকবেথ
  2. Coursen (1997, 11-13)
  3. Coursen (1997, 15-21)
  4. Coursen (1997, 17)
  5. ৫.০ ৫.১ Nagarajan, S. "A Note on Banquo." Shakespeare Quarterly. (Oct 1956) 7.4 pgs. 371–376
  6. Palmer, J. Foster. "The Celt in Power: Tudor and Cromwell" Transactions of the Royal Historical Society. 1886 Vol. 3 pgs. 343–370
  7. Banquo's Stuart descent was disproven in the 19th century, when it was discovered that the Fitzalans actually descended from a Breton family.
  8. Maskell, D. W. "The Transformation of History into Epic: The 'Stuartide' (1611) of Jean de Schelandre." The Modern Language Review. (Jan 1971) 66.1 pgs. 53–65.
  9. Charles Boyce, Encyclopaedia of Shakespeare, New York, Roundtable Press, 1990, p. 350.
  10. A.R. Braunmuller, ed. Macbeth (CUP, 1997), 5-8.
  11. Braunmuller, Macbeth, pp. 2-3.
  12. Frank Kermode, "Macbeth," The Riverside Shakespeare (Boston: Houghton Mifflin, 1974), p. 1308; for details on Garnet, see Perez Zagorin, "The Historical Significance of Lying and Dissimulation—Truth-Telling, Lying, and self-Deception," Social Research, Fall 1996.
  13. Mark Anderson, Shakespeare By Another Name, 2005, pp. 402-403
  14. ১৪.০ ১৪.১ Kermode, Riverside Shakespeare, p. 1308.
  15. Braunmuller, Macbeth, Cambridge, Cambridge University Press, 1997; pp. 5-8.
  16. If, that is, the Forman document is genuine; see the entry on Simon Forman for the question of the authenticity of the Book of Plays.
  17. Brooke, Nicholas, ed. The Tragedy of Macbeth Oxford: Oxford University Press, 1998:57

অন্যান্য সূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

Wikibooks
উইকিবই প্রকল্পে নিম্নের বিষয়ের উপরে সহায়িকা, বই, বা তথ্য রয়েছে:

অভিনয়[সম্পাদনা]

অডিও রেকর্ডিং[সম্পাদনা]

নাটকের পাঠ[সম্পাদনা]

ভাষ্য[সম্পাদনা]