পাকস্থলী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পাকস্থলী / Stomach
পাকস্থলীর অবস্থান.svg
দেহে পাকস্থলির অবস্থান
Illu stomach.jpg
চিত্রঃ cancer.gov:
* 1. পাকস্থলির দেহ
* 2. ফান্ডাস
* 3. সম্মুখ প্রাচীর
* 4. বৃহত্তর বক্রতা
* 5. ক্ষুদ্রতর বক্রতা
* 6. কার্ডিয়া
* 9. পাইলরিক স্ফিংক্টার
* 10. পাইলরিক অ্যান্ট্রাম
* 11. পাইলরিক গহ্বর
* 12. অ্যাঙ্গুলার খাঁজ
* 13. গ্যাস্ট্রিক গহ্বর
* 14. রুগাল খাঁজ

Work of the United States Government
ল্যাটিন Ventriculus
গ্রে বিষয় #247 1161
স্নায়ু celiac ganglia, vagus<
লসিকা celiac preaortic lymph nodes
চিকিৎসীয় শিরোনাম Stomach

পাকস্থলী (ইংরেজি: Stomach) মানব দেহে পরিপাকতন্ত্রের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ যা অন্ননালীক্ষুদ্রান্ত্রের মধ্যে অবস্থিত। এটি উদর গহবরের বাম পাশে উপর দিকে থাকে। খাদ্য পরিপাক প্রক্রিয়া প্রধানত পাকস্থলীতে শুরু হয়। বিশেষ করে আমিষ জাতীয় খাদ্যের পরিপাকে পাকস্থলীর ভূমিকা প্রধান। সাধারণত: শর্করা এবং স্নেহ জাতীয় খাদ্য পাকস্থলীতে পরিপাক হয় না।

পাকস্থলীর গঠন[সম্পাদনা]

পাকস্থলির প্রস্থচ্ছেদ

অন্ননালীডুওডেনাম এর মাঝখানে পাকস্থলী একটি থলির মতো অঙ্গ। এর দৈর্ঘ্য প্রায় ২৫ সে.মি.।এটি উদরীয় গহ্বরের উপরের বাম দিকে থাকে। এর উপর প্রান্ত ডায়াফ্রামের বিপরীতে থাকে।পাকস্থলির পিছনে অগ্ন্যাশয় আছে।বৃহত্তর বক্রতা(greater curvature) থেকে বৃহত্তর ওমেন্টাম নামে। প্রাচীর পুরু ও পেশিবহুল।

পাকস্থলিতে দুটি স্ফিংক্টার থেকে-অন্ননালী এবং পাইলরিক।

পাকস্থলি প্যারাসিমপ্যাথেটিক ও অর্থোসিমপ্যাথেটিক প্লেক্সাস দিয়ে আবদ্ধ থাকে।

প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের ক্ষেত্রে বিশ্রামরত ,প্রায় খালি অবস্থায় পাকস্থলির আয়তন ৪৫ থেকে ৭৫ মিলিলিটার।[১] যেহেতু এটি বর্ধনশীল অঙ্গ,এটি প্রায় এক লিটার খাদ্য ধারণ করতে পারে।[২]সদ্যজাত শিশুর পাকস্থলি মাত্র ৩০ মিলিলিটার খাদ্য ধারণ করতে পারে।

বিভিন্ন অঞ্চল[সম্পাদনা]

অ্যানাটমিতে পাকস্থলিকে চার ভাগে ভাগ করা হয়।পাকস্থলির প্রথম অংশ কার্ডিয়া[৩] প্রতিটা ভাগের বিভিন্ন কোষ এবং কাজ আছে।

  • অন্ননালী পাকস্থলির যেখানে উন্মুক্ত হয়,তাকে কার্ডিয়া বলে।এই অঞ্চলেই এপিথেলিয়াম কোষের প্রকৃতি পরিবর্তিত হয়।এর কাছেই নিম্নস্থ অন্ননালীয় স্ফিংক্টার। [৪]
  • পাকস্থলির উপরের বক্রতাকে ফান্ডাস বলে।
  • পাকস্থলির দেহ প্রধান অংশ।
  • পাকস্থলির নিচের অংশকে পাইলরাস বলে,যেখান থেকে পাকস্থলির খাদ্য ক্ষুদ্রান্তে উন্মোচিত হয়।

রক্ত সরবরাহ[সম্পাদনা]

পাকস্থলির রক্ত সরবরাহ[৫]

কলাতত্ত্ব[সম্পাদনা]

মাইক্রোগ্রাফে প্রদর্শিত পাকস্থলির প্রস্থচ্ছেদ

গ্রন্থি[সম্পাদনা]

পাকস্থলীর স্তর নাম ক্ষরণ পাকস্থলীর অঞ্চল স্টেইনিং
গ্রন্থির ইস্থমাস মিউকাস নেক কোষ মিউকাস ফান্ডাস,কার্ডিয়া,পাইলোরাস পরিস্কার
গ্রন্থির দেহ প্যারাইটাল বা অক্সিনটিক কোষ গ্যাস্ট্রিক অ্যাাসিড ও ইন্ট্রিন্সিক ফ্যাক্টর [ ফান্ডাস অম্লীয়
গ্রন্থির মূল চীফ বা জাইমোজেন কোষ পেপসিনোজেন,গ্যাস্ট্রিক লাইপেজ ফান্ডাস ক্ষারীয়
গ্রন্থির মূল আন্ত্রিক অন্তঃক্ষরা কোষ গ্যাস্ট্রিন,হিস্টামিন,সেরোটোনিন,কোলিসিস্টোকাইনিন ফান্ডাস,কার্ডিয়া,পাইলোরাস

পাকস্থলীতে পরিপাক[সম্পাদনা]

পাকস্থলীর প্রাচীরে অসংখ্য গ্যাস্ট্রিকগ্রন্থি থাকে। গ্যাস্ট্রিক গ্রন্থি থেকে নিঃসৃত রস খাদ্য পরিপাকে সহায়তা করে। পেরিসস্ট্যালসিস অর্থাৎ পাকস্থলীর পেশি সংকোচন ও প্রসারণের মাধ্যমে খাদ্যবস্তুকে পিষে মন্ডে পরিণত করে।

পাকস্থলীতে খাদ্য আসার পর অন্তঃপ্রাচীরের গ্যাস্ট্রিক গ্রন্থি থেকে গ্যাস্ট্রিক রস নিঃসৃত হয়। এই রসে প্রধান যে উপাদানগুলো থাকে তা হলো:

  • হাইড্রোক্লোরিক এসিড(Hydrochloric acid): হাইড্রোক্লোরিক এসিড খাদ্যের মধ্যে কোনো অনিষ্টকারী ব্যাকটেরিয়া থাকলে তা মেরে ফেলে। নিষ্ক্রিয় পেপসিনোজেনকে সক্রিয় পেপসিনে পরিণত করে এবং পাকস্থলীতে পেপসিনের সুষ্ঠু কাজের জন্য অম্লীয় পরিবেশ সৃষ্টি করে।
  • পেপসিন(Pepsin): পেপসিন এক ধরণের এনজাইম যা আমিষকে ভেঙ্গে দুই বা ততোধিক অ্যামাইনো এসিড দ্বারা তৈরি যৌগ গঠন করে যা পেপটাইড নামে পরিচিত।

পাকস্থলীতে খাদ্যদ্রব্য পৌঁছানো মাত্র উপরোক্ত রসগুলো নিঃসৃত হয়। পাকস্থলীর অনবরত সংকোচন ও প্রসারণ এবং এনজাইমের ক্রিয়ার ফলে খাদ্যমিশ্র মন্ডে পরিণত হয়। একে পাকমণ্ড(Chyme) বলে। এই মন্ড অনেকটা স্যুপের মতো এবং কপাটিকা ভেদ করে ক্ষুদ্রান্ত্রে প্রবেশ করে।

শর্করা এবং স্নেহ জাতীয় খাদ্য সাধারণত পাকস্থলীতে পরিপাক হয় না। কারণ, এদের পরিপাকের জন্য গ্যাস্ট্রিক রসে নির্দিষ্ট কোনো এনজাইম থাকে না।

ক্লিনিক্যাল গুরুত্ব[সম্পাদনা]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

  1. BBC news article
  2. Sherwood, Lauralee (1997)। Human physiology: from cells to systems। Belmont, CA: Wadsworth Pub. Co। আইএসবিএন 0-314-09245-5ওসিএলসি 35270048 
  3. সানি ল্যাব 37:06-0103 - "Abdominal Cavity: The Stomach"
  4. Schwartz's principles of surgery (9th ed. সংস্করণ)। New York: McGraw-Hill, Medical Pub. Division। 2010। আইএসবিএন 0071547703 
  5. Anne M. R. Agur; Moore, Keith L. (2007)। Essential Clinical Anatomy (Point (Lippincott Williams & Wilkins))। Hagerstown, MD: Lippincott Williams & Wilkins। আইএসবিএন 0-7817-6274-Xওসিএলসি 172964542 ; p. 150