দক্ষিণ আমেরিকার ভাষা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

উপনিবেশবাদের কারণে স্পেনীয় ভাষা এবং পর্তুগিজ ভাষা বর্তমানে দক্ষিণ আমেরিকার দুইটি প্রধান ভাষা। তবে সারা মহাদেশ জুড়ে ১ কোটিরও বেশি লোক স্থানীয় আদিবাসী আমেরিকান ভাষাগুলিতে কথা বলেন। ভাষাগুলির বেশির ভাগই গহীন জঙ্গলে স্বল্প সংখ্যক সদস্যবিশিষ্ট বিভিন্ন গোত্রের মধ্যে প্রচলিত। এগুলির মধ্যে খুব কম সংখ্যক ভাষাই পূর্ণাঙ্গভাবে বর্ণিত হয়েছে। অনেকগুলি ভাষা বিলুপ্তির পথে।

কারিব, আরাওয়াকানটুপি দক্ষিণ আমেরিকার তিনটি প্রধান ভাষাপরিবার। কারিব ভাষাগুলি আমাজন নদীর উত্তরের অঞ্চলটির মূলত পূর্ব অংশে প্রচলিত। আরাওয়াকান ভাষাগুলি আমাজনের উত্তর-পশ্চিমে ও দক্ষিণে প্রচলিত; এগুলি এককালে ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জেও প্রচলিত ছিল। টুপি পরিবারের ভাষাগুলি আমাজন নদীর দক্ষিণে অবস্থিত ব্রাজিলীয় এলাকাগুলিতে এবং প্যারাগুয়েতে প্রচলিত। গুয়ারানি নামের একটি টুপি ভাষাকে প্যারাগুয়ের জাতীয় ভাষা হিসেবে গ্রহণ করা হয়েছে।

দক্ষিণ আমেরিকার সবচেয়ে বেশি সংখ্যক বক্তাবিশিষ্ট স্থানীয় ভাষাটি হল কেচুয়া ভাষা। এটির বংশগতি নির্ণয় করা যায়নি। পার্শ্ববর্তী আইমারা ভাষার সাথে এর বংশগতিক সম্পর্ক আছে বলে মনে করা হয়। কেচুয়া ভাষাটি পেরুর কুজকো-কেন্দ্রিক প্রাচীন ইনকা সভ্যতার ভাষা ছিল। ইনকা সভ্যতার প্রসারের সাথে সাথে এটি বাইরে ছড়িয়ে পড়ে। বর্তমানে এটি পেরু ও বলিভিয়ার বেশির ভাগ অংশে প্রচলিত।

টেমপ্লেট:মহাদেশ ও ভৌগোলিক অঞ্চল অনুযায়ী ভাষা