ইতালির শহর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

তুরিন ইতালির উত্তরাংশের আল্পস পর্বতময় পিয়েদমন্ত অঞ্চলের শহর। এখানে প্রায় ১০ লক্ষ লোকের বাস। ১৯শ শতকে ইতালিকে বিদেশী শক্তির নিয়ন্ত্রণ থেকে মুক্ত করে এক জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে যে রাজনৈতিক দলটি কাজ করছিল, তাদের কেন্দ্র ছিল এই তুরিন শহর২য় বিশ্বযুদ্ধের পর ইতালির অর্থনীতির পুনরুজ্জীবনে তুরিন বিরাট ভূমিকা রাখে। এখানে ফিয়েট গাড়ি কোম্পানির সদর দপ্তর অবস্থিত।

জেনোয়া লিগুয়ারিয়া অঞ্চলের রাজধানী। এটি ইতালির সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বন্দর এবং একটি প্রধান বাণিজ্যিক ও ব্যাংকিং কেন্দ্র।

ভেনিস ভেনেতো অঞ্চলে আড্রিয়াটিক সাগরের উপর অবস্থিত একটি প্রধান বন্দর এবং একটি জনপ্রিয় পর্যটক আকর্ষণস্থল। শহরটি ১০০টিরও বেশি দ্বীপ নিয়ে গঠিত। রাস্তার বদলে এখানে আছে খাল। ভেনিসবাসীরা এগুলি দিয়ে চলাচলের জন্য এক-বৈঠাওয়ালা গন্ডোলা ব্যবহার করে।

ভেনেতো অঞ্চলের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ শহরের মধ্যে আছে ভেরোনা, পাদুয়া এবং ত্রিয়েস্তে

মিলান লোমবার্ডি অঞ্চলের প্রধান শহর। এটি রোমের পরে ইতালির দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর। মিলান ইতালির শিল্প, বাণিজ্য, ডিজাইন ও ফ্যাশনের প্রধানতম শহর। লিওনার্দো দা ভিঞ্চির দেয়ালচিত্র দ্য লাস্ট সাপার এবং ইতালির বিখ্যাত অপেরা ভবন লা স্কালা এখানেই অবস্থিত।

বোলোনিয়া এমিল্লা-রোমানিয়া অঞ্চলের প্রধান শহর। এখানে ইউরোপের প্রাচীনতম বিশ্ববিদ্যালয় অবস্থিত।

পশ্চিমের তুস্কানি অঞ্চলের প্রধান শিল্পকলা কেন্দ্র হল ফ্লোরেন্স। ফ্লোরেন্স ছাড়াও এখানে পিসা, সিয়েনা, আরেৎসো, এবং আরও অনেক শিল্পসমৃদ্ধ শহর আছে। এগুলিতে মধ্যযুগ ও রেনেসাঁসের অনেক কীর্তি আজও সংরক্ষণ করা হয়েছে।

ইতালীয় উপদ্বীপের মধ্যস্থলে উমব্রিয়া অঞ্চলের প্রধান শহরগুলি হল আসসিসি এবং পেরুজা

লাতিউম অঞ্চলের প্রধানতম শহর ও ইতালির রাজধানী হল রোম শহর। এটি প্রাচীন রোমান সাম্রাজ্যেরও রাজধানী ছিল। রোমের সীমানার ভেতরে ভ্যাটিকান সিটি অবস্থিত।

নাপোলি দক্ষিণ ইতালির প্রধানতম শহর। ভিসুভিয়াস পর্বতের পাদদেশে প্রাচীন পম্পেই নগরির ধ্বংসাবশেষের কাছেই এই শহরটি অবস্থিত।

ইতালির অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ শহরের মধ্যে আছে বারি, কাইলিয়ারি (সার্দিনিয়া দ্বীপে), ও পালের্মো (সিসিলি দ্বীপে)।