বিষয়বস্তুতে চলুন

২০২৩ নাইজারীয় সামরিক অভ্যুত্থান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
২০২৩ নাইজারীয় সামরিক অভ্যুত্থান
তারিখ২৬–২৮ জুলাই ২০২৩ (২০২৩-০৭-২৬ – ২০২৩-০৭-২৮)
অবস্থান
নিয়ামে, নাইজার
ফলাফল

অভ্যুত্থান সফল হয়েছে[১][২]

বিবাদমান পক্ষ

নাইজার নাইজার সরকার

সেনাধিপতি ও নেতৃত্ব প্রদানকারী
জড়িত ইউনিট
নাইজার সশস্ত্র বাহিনী
শক্তি
২,৪৫,০০০[৪] ৫৭,০০০[৫]
রাজনৈতিক সমর্থক
চিত্র:O ecowas.gif ইকোয়াস
 ফ্রান্স
 ইউরোপীয় ইউনিয়ন
 মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র[৬]
 আফ্রিকান ইউনিয়ন
 জাতিসংঘ[৭][৮][৯]
 বুর্কিনা ফাসো
 মালি[১০]
 গিনি
ওয়াগনার গ্রুপ
তথাকথিত সমর্থক
 সংযুক্ত আরব আমিরাত (আলজেরিয়া মারফত)[১১]
হতাহত ও ক্ষয়ক্ষতি
কমপক্ষে ১জন বেসামরিক সমর্থক আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন বেসামরিক সমর্থক আহত হয়েছেন

২৬ জুলাই ২০২৩ তারিখে, নাইজারের রাষ্ট্রপতি মুহাম্মাদ বাজুমকে দেশটির রাষ্ট্রপতির রক্ষিবাহিনী আটক করার পর রাষ্ট্রপতির রক্ষী বাহিনীর কমান্ডার জেনারেল আব্দুররাহমান চিয়ানি নিজেকে নতুন সামরিক জান্তা প্রধান হিসেবে ঘোষণা করার মাধ্যমে নাইজারে একটি অভ্যুত্থান সংঘটিত হয়।[১২][১৩][১৪] রাষ্ট্রপতির রক্ষিবাহিনী দেশটির সংবিধান বাতিল করে এবং সীমান্ত বন্ধ রেখে কারফিউ জারি করে।

১৯৬০ সালে ফ্রান্স থেকে স্বাধীনতা লাভের পর এটি দেশটির পঞ্চম সামরিক অভ্যুত্থান, প্রথম অভ্যুত্থান হয়েছিল ২০১০ সালে।[১৫] আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এবং পশ্চিম আফ্রিকার আঞ্চলিক সম্প্রদায় ইকোয়াস এই অভ্যুত্থানটির চরম নিন্দা করার পাশাপাশি দেশটির বর্তমান সামরিক হস্তক্ষেপের ফলস্বরূপ আসন্ন ২০২৩ সালের নাইজারীয় সংকট নিয়ে উদ্বিগ্নতা প্রকাশ করেছে।[১৬]

৬ আগস্টের হিসাব মতে, অভ্যুত্থানকারী সৈনিকের সংখ্যা ৫৬,৭০০ এবং ইকোয়াসের পক্ষে সৈনিকের সংখ্যা ২৪৫,০০০ আর ফ্রান্স এখনো হস্তক্ষেপ করেনি।[১৭]

তথ্যসূত্র

[সম্পাদনা]
  1. "Niger general Tchiani named head of transitional government after coup"আল জাজিরা (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০২৩ 
  2. "U.S. sees 'narrow opportunity' to reverse coup in Niger as ousted president meets Chad's leader"এনবিসি নিউজ (ইংরেজি ভাষায়)। ১ আগস্ট ২০২৩। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০২৩ 
  3. "Who is Omar Tchiani, leader of Niger's new military government?"আল জাজিরা (ইংরেজি ভাষায়)। ২৭ জুলাই ২০২৩। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০২৩ 
  4. "Coup d'État au Niger : 57 000 soldats chez les putschistes, la France refuse d'intervenir… quelles sont les forces en présence ?"midilibre.fr (ফরাসি ভাষায়)। ৬ আগস্ট ২০২৩। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০২৩ 
  5. "Coup d'État au Niger : 57 000 soldats chez les putschistes, la France refuse d'intervenir… quelles sont les forces en présence ?"midilibre.fr (ফরাসি ভাষায়)। ৬ আগস্ট ২০২৩। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০২৩ 
  6. "EU, US Join ECOWAS Call for Niger Military Junta to Halt Coup"VOA (ইংরেজি ভাষায়)। ৩১ জুলাই ২০২৩। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০২৩ 
  7. "Niger: UN chief demands president's immediate and unconditional release | UN News"news.un.org (ইংরেজি ভাষায়)। ২৭ জুলাই ২০২৩। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০২৩ 
  8. "Niger: Security Council strongly condemns 'efforts to unconstitutionally change' Government | UN News"news.un.org (ইংরেজি ভাষায়)। ২৯ জুলাই ২০২৩। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০২৩ 
  9. "UN envoy to continue efforts towards restoring constitutional order in Niger | UN News"news.un.org (ইংরেজি ভাষায়)। ৩১ জুলাই ২০২৩। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০২৩ 
  10. "Burkina Faso, Mali warn against military intervention in Niger"আল জাজিরা। সংগ্রহের তারিখ ২ আগস্ট ২০২৩ 
  11. "Algeria newspaper indicates UAE role in Niger coup"মিডলইস্টমনিটর। ২৯ জুলাই ২০২৩। সংগ্রহের তারিখ ৫ আগস্ট ২০২৩ 
  12. "Niger : ce que l'on sait de la tentative de coup d'Etat en cours contre le président Mohamed Bazoum"ফ্রান্সইনফো (ফরাসি ভাষায়)। ২৬ জুলাই ২০২৩। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০২৩ 
  13. "Niger soldiers declare coup on national TV"বিবিসি নিউজ (ইংরেজি ভাষায়)। ২৬ জুলাই ২০২৩। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০২৩ 
  14. "Niger's president 'held by guards' in apparent coup attempt"আল জাজিরা (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০২৩ 
  15. "Timeline: A history of coups in Niger"আল জাজিরা (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০২৩ 
  16. "ANALYSIS | Is ECOWAS set to take on Niger militarily?"দ্য ইরফোর্মান্ট২৪৭ (ইংরেজি ভাষায়)। ৪ আগস্ট ২০২৩। ৫ আগস্ট ২০২৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০২৩ 
  17. "Coup d'État au Niger : 57 000 soldats chez les putschistes, la France refuse d'intervenir… quelles sont les forces en présence ?"midilibre.fr (ফরাসি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০২৩