২০০৪ ভারত মহাসাগরে ভূমিকম্প ও সুনামি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
২০০৪ ভারত মহাসাগরে ভূমিকম্প
US Navy 050102-N-9593M-040 A village near the coast of Sumatra lays in ruin after the Tsunami that struck South East Asia.jpg
ইন্দোনেশিয়ার আচেহ, সুনামি দ্বারা আঘাতপ্রাপ্ত সবচেয়ে ভয়াবহ অঞ্চল।
তারিখ২৬ ডিসেম্বর ২০০৪ (2004-12-26)[১]
মূল সময়00:58:53 UTC
07:58:53 WIB
মাত্রা9.1–9.3 Mw[২]
গভীরতা৩০ কিমি (১৯ মা)[১]
ভূকম্পন বিন্দু৩°১৮′৫৮″ উত্তর ৯৫°৫১′১৪″ পূর্ব / ৩.৩১৬° উত্তর ৯৫.৮৫৪° পূর্ব / 3.316; 95.854স্থানাঙ্ক: ৩°১৮′৫৮″ উত্তর ৯৫°৫১′১৪″ পূর্ব / ৩.৩১৬° উত্তর ৯৫.৮৫৪° পূর্ব / 3.316; 95.854[১]
ধরনMegathrust
ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাইন্দোনেশিয়া
শ্রীলঙ্কা
ভারত
|থাইল্যান্ড
মালদ্বীপ
মালয়েশিয়া
মাদাগাস্কার
সোমালিয়া
কেনিয়া
তানজানিয়া
দক্ষিণ আফ্রিকা
সর্বোচ্চ তীব্রতাIX (Violent)[১]
সুনামি১৫ থেকে ৩০ মিটার (৫০ থেকে ১০০ ফু)[৩][৪] with maximum runup of 51 m (167.3 ft) at Lhoknga.[৫]
হতাহত২৩০,০০০-২৮০,০০০ মারা যায় ও আরো নিখোঁজ[৬][৭][৮]

২০০৪ ভারত মহাসাগরে ভূমিকম্প ইন্দোনেশিয়ার সুমাত্রা উপকূলে ৫৮:৫৩ ইউটিসি, ২৬ ডিসেম্বর ঘটে। ভূমিকম্পটি উপকেন্দের সাথে ঘটে।এর প্রভাব পরিমাপ করা হয় ৯.১ থেকে ৯.৩ এর মাত্রায় যা IX এর সর্বোচ্চ মার্কেলি তীব্রতা ছিল।ভারতীয় প্লেট বার্মা প্লেট দ্বারা যখন বিভাজিত হয় তখন ভারতীয় মহাসাগরের সীমান্ত বর্তি বহির্দেশের সমভূমির মধ্য দিয়ে বিধ্বস্ত সুনামির একটি ধারাবাহিকতা সৃষ্টি করে যার ফলে সমুদ্রতলে মেগাথ্রাস্ট ভূমিকম্প ঘটে। এর ফলে ১৪টি দেশের ২,৩০,০০০ থেকে ২,৮০,০০০ জন মানুষ মারা যায় এবং উপকূলিয় অঞ্চল ৩০ মিটার (১০০ ফু) ঢেউয়ে প্লাবীত হয়। এটি লিপিবদ্ধ করা ইতিহাসে সবচেয়ে মারাত্মক প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের মধ্যে একটি। ইন্দোনেশিয়াকে কঠিনভাবে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হিসেবে চিহ্নত করা হয়,এর পর শ্রীলংকা, ভারত ও থাইল্যান্ড কে পর্যায় ক্রমে ধরা হয়।

এটি সিজমোগ্রাফে ধারণকৃত তৃতীয় বৃহত্তম ভূমিকম্প। ভূমিকম্পটি ৮.৩ থেকে ১০ মিনিট স্থায়ি ছিল যা সবচেয়ে দীর্ঘতম সময়ের ভূমিকম্প।[৯]এটি সমগ্র গ্রহটি কে ১ সেন্টিমিটার (০.৪ ইঞ্চি) পর্যন্ত স্পন্দিত করে এবং আলাস্কার পাশাপাশি অন্যান্য ভূমিকম্পের স্থান সক্রিয় করে তুলে।[১০][১১]এর উপকেন্দ্রটি সিমেওলুই এবং মূল ভূখণ্ড ইন্দোনেশিয়ার মধ্যবর্তিতে ছিল।[১২]

ভূমিকম্প বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Magnitude 9.1 – OFF THE WEST COAST OF SUMATRA"। U.S. Geological Survey। ১৭ আগস্ট ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১২ 
  2. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; Satake নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  3. "Astonishing Wave Heights Among the Findings of an International Tsunami Survey Team on Sumatra"। U.S. Geological Survey। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুন ২০১৬ 
  4. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; Paris নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  5. Paris, Raphaël; Cachão, Mário; Fournier, Jérôme; Voldoire, Olivier (১ এপ্রিল ২০১০)। "Nannoliths abundance and distribution in tsunami deposits: example from the December 26, 2004 tsunami in Lhok Nga (northwest Sumatra, Indonesia)"Géomorphologie : relief, processus, environnement16 (1): 109–118। doi:10.4000/geomorphologie.7865 
  6. "Earthquakes with 50,000 or More Deaths"। U.S. Geological Survey। ৫ জুন ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  7. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; BBC280 নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  8. "Indian Ocean tsunami anniversary: Memorial events held"BBC News। ২৬ ডিসেম্বর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ডিসেম্বর ২০১৬ 
  9. "Analysis of the Sumatra-Andaman Earthquake Reveals Longest Fault Rupture Ever"। National Science Foundation। ১৯ মে ২০০৫। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ডিসেম্বর ২০১৬ 
  10. Walton, Marsha (২০ মে ২০০৫)। "Scientists: Sumatra quake longest ever recorded"CNN। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ডিসেম্বর ২০১৬ 
  11. West, Michael; Sanches, John J.; McNutt, Stephen R. (২০ মে ২০০৫)। "Periodically Triggered Seismicity at Mount Wrangell, Alaska, After the Sumatra Earthquake"Science308 (5725): 1144–1146। doi:10.1126/science.1112462 
  12. Nalbant, Suleyman S.; Steacy, Sandy; Sieh, Kerry; Natawidjaja, Danny; McCloskey, John (৯ জুন ২০০৫)। "Seismology: Earthquake risk on the Sunda trench" (PDF)Nature435 (7043): 756–757। doi:10.1038/nature435756a। ১৯ মে ২০০৯ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মে ২০০৯