১৯৫৪–৫৫ লা লিগা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
প্রিমেরা দিভিসিওন
মৌসুম১৯৫৪–৫৫
চ্যাম্পিয়নরিয়াল মাদ্রিদ
(৪র্থ শিরোপা)
অবনমনরেসিং সান্তান্দের
মালাগা
ইউরোপিয়ান কাপরিয়াল মাদ্রিদ
মোট খেলা২৪০
মোট গোলসংখ্যা৮৯৯ (ম্যাচ প্রতি ৩.৭৫টি)
শীর্ষ গোলদাতাহুয়ান আরজা
(২৯ গোল)
সবচেয়ে বড় এওয়ে জয়রেসিং সান্তান্দের ০–৪ রিয়াল মাদ্রিদ
সর্বোচ্চ স্কোরিংঅ্যাথলেতিক বিলবাও ৯–২ লাস পালমাস
দীর্ঘতম টানা জয়৬ ম্যাচ
অ্যাথলেতিক বিলবাও
দীর্ঘতম টানা অপরাজিত১৩ ম্যাচ
রিয়াল মাদ্রিদ
দীর্ঘতম টানা জয়বিহীন৭ ম্যাচ
সেলতা
মালাগা
দীর্ঘতম টানা পরাজয়৫ ম্যাচ
মালাগা

১৯৫৪–৫৫ লা লিগা হচ্ছে লা লিগার ২৪তম মৌসুম। এই মৌসুমে রিয়াল মাদ্রিদ ৪র্থ বারের মতো লা লিগার শিরোপা জয়লাভ করে।

দল[সম্পাদনা]

স্টেডিয়াম এবং অবস্থান[সম্পাদনা]

ক্লাব শহর স্টেডিয়াম ধারণক্ষমতা
আলাভেস ভিতোরিয়া-গাস্তেইজ এস্তাদিও দে মেন্দিজরোজা ৭,৫০০
অ্যাথলেতিক বিলবাও বিলবাও এস্তাদিও দে সান মামেস ৪০,৪০০
আতলেতিকো মাদ্রিদ মাদ্রিদ এস্তাদিও মেত্রোপলিতানো দে মাদ্রিদ ৫৬,৭১৭
বার্সেলোনা বার্সেলোনা ক্যাম্প দে লেস কোর্তস ৪৬,০০০
সেলতা ভিগো এস্তাদিও দে বালাইদোস ১৫,৮৫০
দেপর্তিভো লা করুনা আ করুনা এস্তাদিও রিয়াজোর ২২,১৮২
এস্পানিওল বার্সেলোনা এস্তাদিও সারিয়া ৩০,০০০
এরকুলেস আলিসান্তে লা ভিনিয়া ১৪,০২৪
লাস পালমাস লাস পালমাস এস্তাদিও ইনসুলার ১২,০০০
মালাগা মালাগা এস্তাদিও লা রোসালেদা ৮,৭৩৪
রিয়াল মাদ্রিদ মাদ্রিদ নুয়েভো চামার্তিন ৯০,১২৩
রেসিং সান্তান্দের সান্তান্দের এস্তাদিও এল সার্দিনেরো ২১,৮০০
রিয়াল সোসিয়েদাদ সান সেবাস্তিয়ান আতোতজা স্টেডিয়াম ২১,৬৫০
সেভিয়া সেভিলে এস্তাদিও দে নের্ভিওন ৩০,০০০
ভ্যালেন্সিয়া ভ্যালেন্সিয়া মেস্তায়া স্টেডিয়াম ৩৩,৫৬৭
ভায়াদোলিদ ভায়াদোলিদ এস্তাদিও হোসে জোরিয়া ১৬,৫৫৫

লীগ টেবিল[সম্পাদনা]

অব দল খে ড্র হা স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন বা অবনমন
রিয়াল মাদ্রিদ (C) ৩০ ২০ ৮০ ৩১ +৪৯ ৪৬ ১৯৫৫–৫৬ ইউরোপিয়ান কাপের জন্য উত্তীর্ণ
বার্সেলোনা ৩০ ১৭ ৭৫ ৩৯ +৩৬ ৪১
অ্যাথলেতিক বিলবাও ৩০ ১৫ ৭৮ ৩৯ +৩৯ ৩৯
সেভিয়া ৩০ ১৫ ১১ ৭৪ ৫৮ +১৬ ৩৪
ভ্যালেন্সিয়া ৩০ ১৫ ১২ ৭১ ৬০ +১১ ৩৩
এরকুলেস ৩০ ১১ ১০ ৪৬ ৫৭ −১১ ৩১
দেপর্তিভো লা করুনা ৩০ ১২ ১২ ৫২ ৫৯ −৭ ৩০
আতলেতিকো মাদ্রিদ ৩০ ১১ ১২ ৫৯ ৬৪ −৫ ২৯
ভায়াদোলিদ ৩০ ১১ ১৪ ৪৮ ৫৬ −৮ ২৭
১০ আলাভেস ৩০ ১১ ১৪ ৫১ ৬২ −১১ ২৭
১১ সেলতা ৩০ ১০ ১৩ ৫৫ ৬০ −৫ ২৭
১২ লাস পালমাস ৩০ ১০ ১৩ ৪৫ ৬৯ −২৪ ২৭
১৩ এস্পানিওল (O) ৩০ ১০ ১২ ৪২ ৪৬ −৪ ২৬ অবনমন গ্রুপের জন্য উত্তীর্ণ
১৪ রিয়াল সোসিয়েদাদ (O) ৩০ ১৫ ৪৮ ৫৩ −৫ ২৪
১৫ রেসিং সান্তান্দের (R) ৩০ ১৯ ৩৯ ৮১ −৪২ ২০ ১৯৫৫–৫৬ সেহুন্দা দিভিসিওনে অবনমন
১৬ মালাগা (R) ৩০ ১৭ ৩৬ ৬৫ −২৯ ১৯
উৎস: বিডিফুটবল
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: ১) পয়েন্ট; ২) হেড-টু-হেড গোল ফলাফল; ৩) গোল পার্থক্য; ৪) গোলের সংখ্যা।
(C) চ্যাম্পিয়ন; (O) প্লে-অফ বিজয়ী; (R) অবনমন।

ফলাফল[সম্পাদনা]

স্বাগতিক \ অতিথি ALA (ALA) ATB (ATB) ATM (ATM) BAR (BAR) CEL (CEL) DEP (DEP) ESP (ESP) HER (HER) LPA (LPA) MAL (MAL) RMA (RMA) RSA (RSA) RSO (RSO) SEV (SEV) VAL (VAL) VAD (VAD)
আলাভেস (ALA) ২–২ ২–০ ২–২ ২–০ ২–১ ২–২ ২–০ ৪–১ ৫–১ ২–৪ ২–১ ০–১ ২–১ ৭–০ ১–৪
অ্যাথলেতিক বিলবাও (ATB) ৪–০ ১–১ ১–১ ২–২ ৫–১ ১–২ ৩–০ ৯–২ ৬–১ ২–০ ৩–০ ১–০ ২–২ ৭–০ ১–০
আতলেতিকো মাদ্রিদ (ATM) ৪–১ ১–২ ২–২ ৪–০ ২–১ ২–১ ৩–০ ২–২ ২–২ ২–৪ ৩–১ ৪–০ ০–৩ ২–৩ ৫–৪
বার্সেলোনা (BAR) ৫–২ ২–৩ ৪–০ ৫–২ ৩–১ ১–০ ১–১ ১–০ ৫–০ ২–২ ৭–০ ৪–১ ৪–২ ৪–১ ৫–০
সেলতা (CEL) ২–০ ১–০ ৮–১ ১–১ ২–০ ১–১ ১–১ ৫–১ ৩–০ ১–১ ২–১ ৫–১ ৫–১ ২–১ ২–২
দেপর্তিভো লা করুনা (DEP) ৩–০ ১–১ ১–০ ২–২ ৪–২ ১–১ ২–১ ৪–১ ৩–২ ৩–৩ ৩–১ ২–১ ৪–২ ২–১ ২–১
এস্পানিওল (ESP) ৪–১ ১–৩ ২–০ ২–৪ ৪–০ ২–২ ৪–১ ০–০ ১–১ ১–৩ ১–০ ১–০ ২–০ ১–১ ১–১
এরকুলেস (HER) ২–২ ৩–২ ৪–০ ১–০ ২–১ ৪–২ ০–০ ৪–০ ১–০ ১–১ ২–০ ৪–১ ১–১ ৩–২ ২–১
লাস পালমাস (LPA) ২–২ ৩–৩ ৪–১ ২–০ ৩–১ ২–১ ২–১ ১–১ ২–১ ১–১ ৫–১ ২–২ ৪–০ ১–০ ২–০
মালাগা (MAL) ২–১ ১–৩ ০–৩ ১–২ ০–০ ০–১ ১–১ ৩–৩ ২–০ ৩–১ ৩–১ ২–১ ০–২ ১–১ ১–২
রিয়াল মাদ্রিদ (RMA) ৪–১ ৩–১ ১–০ ৩–০ ৫–১ ৫–১ ৫–১ ৩–০ ৭–০ ৪–১ ৩–০ ১–১ ৩–১ ১–২ ১–০
রেসিং সান্তান্দের (RSA) ০–২ ১–৪ ২–৪ ২–১ ৩–১ ২–১ ৩–১ ১–১ ২–১ ২–১ ০–৪ ৩–৩ ৩–১ ৩–২ ২–১
রিয়াল সোসিয়েদাদ (RSO) ২–০ ৩–৩ ০–২ ০–২ ৫–০ ৩–০ ১–০ ৪–০ ৪–০ ১–১ ১–৩ ৩–০ ১–২ ৩–০ ৩–৩
সেভিয়া (SEV) ১–২ ১–১ ৩–৩ ০–২ ৫–২ ৩–২ ৩–২ ৬–১ ৪–০ ৬–১ ১–০ ৫–২ ৫–২ ২–১ ৫–১
ভ্যালেন্সিয়া (VAL) ৬–১ ৩–২ ৪–৪ ৪–১ ২–১ ৪–০ ২–০ ৮–২ ৪–০ ০–২ ১–৩ ৮–১ ২–০ ৩–১ ২–১
ভায়াদোলিদ (VAD) ১–০ ১–০ ২–২ ১–২ ২–১ ১–১ ৪–২ ২–০ ২–১ ৩–২ ০–১ ৩–১ ১–০ ২–৫ ২–৩
উৎস: BDFútbol
রং: নীল = স্বাগতিক দল বিজয়ী; হলুদ = ড্র; লাল = সফরকারী দল বিজয়ী।

অবনমন গ্রুপ[সম্পাদনা]

টেবিল[সম্পাদনা]

অব দল খে ড্র হা স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
এস্পানিওল (O, P) ১০ ১৭ +৯ ১৫ ১৯৫৫–৫৬ লা লিগায় উত্তীর্ণ
রিয়াল সোসিয়েদাদ (O, P) ১০ ২০ ১৪ +৬ ১৩
ওভিয়েদো ১০ ২২ ২০ +২ ১১ ১৯৫৫–৫৬ সেহুন্দা দিভিসিওনে উত্তির্ণ
আতলেতিকো তেতুয়ান ১০ ১৭ ১৫ +২ ১০
জারাগোজা ১০ ১৩ ১৭ −৪
গ্রানাদা ১০ ১৩ ২৮ −১৫
উৎস: বিডিফুটবল
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: ১) পয়েন্ট; ২) হেড-টু-হেড ফলাফল; ৩) গোল পার্থক্য; ৪) গোলের সংখ্যা।
(O) প্লে-অফ বিজয়ী; (P) উন্নীত।

ফলাফল[সম্পাদনা]

স্বাগতিক \ অতিথি TET ESP GRA OVI RSO ZAR
আতলেতিকো তেতুয়ান ১–২ ৪–০ ২–৩ ২–২ ২–০
এস্পানিওল ৪–১ ০–০ ১–০ ১–২ ১–০
গ্রানাদা ৩–১ ১–৩ ২–৩ ১–২ ৩–১
ওভিয়েদো ০–০ ১–৩ ৬–২ ১–০ ৬–০
রিয়াল সোসিয়েদাদ ১–২ ২–১ ৬–১ ৩–২ ০–২
জারাগোজা ০–২ ০–১ ২–০ ৭–০ ১–২
উৎস: বিডিফুটবল
রং: নীল = স্বাগতিক দল বিজয়ী; হলুদ = ড্র; লাল = সফরকারী দল বিজয়ী।

সর্বোচ্চ গোলদাতা[সম্পাদনা]

অবস্থান খেলোয়াড় ক্লাব গোল
স্পেন হুয়ান আরজা সেভিয়া ২৯
স্পেন আলফ্রেদো দি স্তিফানো রিয়াল মাদ্রিদ ২৫
স্পেন মানুয়েল বাদেনেস ভ্যালেন্সিয়া ২২
স্পেন এনেকো আরিয়েতা অ্যাথলেতিক বিলবাও ১৯
স্পেন এক্তর রেয়াল রিয়াল মাদ্রিদ ১৮
স্পেন পাহিনিয়ো দেপর্তিভো লা করুনা
স্পেন উইলসন আলফ্রেদো হোনেস আলাভেস ১৭
স্পেন হোশে আরেতেতজে অ্যাথলেতিক বিলবাও ১৬
স্পেন হুয়ান আরাওজো সেভিয়া
১০ স্পেন পাবলো ওলমেদো হারমেন্দিয়া সেলতা ১৫
স্পেন হোয়াকিন মুরিয়ো ভায়াদোলিদ

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]