হান্না এলহেবশি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
হান্না এলহেবশি
Secretary Clinton and First Lady Obama With 2012 IWOC Award Winner Hana El Hebshi of Libya.png
২০১২ সালে আন্তর্জাতিক সাহসী নারী পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে মিশেল ওবামাহিলারি ক্লিনটনের সাথে হান্না এলহেবশি
জন্মআনুমানিক ১৯৮৩
জাতীয়তালিবীয়
পেশানারী অধিকার কর্মী, স্থপতি

হান্না এলহেবশি (জন্ম: আনুমানিক ১৯৮৫)[১] হলেন একজন লিবীয় নারী অধিকার কর্মী ও স্থপতি।[২]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

হান্না এলহেবশি লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলিতে স্থপতি হিসেবে কর্মরত ছিলেন।[৩] তার বাবা সামরিক বাহিনীর কমান্ডার ছিলেন।[৪]

তিনি রাজনৈতিকভাবে সক্রিয় না থাকলেও আরব বসন্তের সময় লিবিয়ায় সক্রিয় হয়ে ওঠেন।[৩] তিনি একজন সাইবারঅ্যাক্টিভিস্টে পরিণত হন।[৫] তিনি তুলে ধরেন মুয়াম্মার গাদ্দাফির সময়ে ২০১১ সালে লিবীয় গৃহযুদ্ধের সময় মানুষ নিহত হবার কাহিনি।[৬] তিনি বছরের পর বছর ধরে লিবিয়ায় চলে আসা দুঃখ-দুর্দশার কথা দুনিয়াবাসীকে জানিয়েছেন।[৪] তিনি 'নুমিদিয়া' ছদ্মনামে কর্মকাণ্ড চালাতেন, যেটি তার বার্বা‌র জাতির প্রতিনিধিত্ব করা ছাড়াও তার পরিচত লুকিয়ে রাখত।[২][৭] তিনি বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে লিবিয়ার বছরের পর বছর ধরে চলে আসা দুঃখ-দুর্দশার খবর সরবরাহ করতেন।[৪] তিনি লিবিয়ায় নারী অধিকার নিয়েও কাজ করেছেন।[৮]

তার কর্মকাণ্ডের স্বীকৃতিস্বরূপ তিনি ২০১২ সালে আন্তর্জাতিক সাহসী নারী পুরস্কার লাভ করেন।[২] তিনিসহ আরো দশজন মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর থেকে এই পুরস্কার লাভ করেছিলেন। পুরস্কারবিজয়ীরা তিন সপ্তাহ যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করেছিলেন এবং তারা যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন শহরে তাদের অভিজ্ঞতার কাহিনি বর্ণনা করেছিলেন।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Libyan Activist Gets International Women of Courage Award"www.tripolipost.com। ৯ মার্চ ২০১২। ২০১৬-১২-০১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১১-০৬ 
  2. "2012 International Women of Courage Award Winners"। state.gov। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৯-০৬ 
  3. Luna, Taryn (৬ মার্চ ২০১২)। "Pittsburgh first U.S. city to spend time with courageous women"Pittsburgh Post-Gazette। সংগ্রহের তারিখ ৬ নভেম্বর ২০১৬ 
  4. "هناء الحبشي.. دور المرأة في الثورة الليبية"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১১-০৬ 
  5. "Revolutionaries Unveiled - Cyberactivism & Women's Role in the Arab Uprisings - Page 2 of 7"Muftah (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১২-১২-১০। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১১-০৬ 
  6. Taryn Luna (৬ মার্চ ২০১২)। "Pittsburgh first U.S. city to spend time with courageous women"। Pittsburgh Post-Gazette। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুন ২০১৫ 
  7. "Women honored by U.S. for their courage - SFGate"। sfgate.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৯-০৬ 
  8. "Congressional Record, Volume 158 Issue 61 (Thursday, April 26, 2012)"। gpo.gov। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৯-০৬