স্যামুয়েল গোল্ডউইন জুনিয়র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
স্যামুয়েল গোল্ডউইন জুনিয়র
জন্ম
স্যামুয়েল জন গোল্ডউইন জুনিয়র

(১৯২৬-০৯-০৭)৭ সেপ্টেম্বর ১৯২৬
মৃত্যু৯ জানুয়ারি ২০১৫(2015-01-09) (বয়স ৮৮)
সিডার্স-সিনাই মেডিক্যাল সেন্টার, লস অ্যাঞ্জেলস, ক্যালিফোর্নিয়া
মৃত্যুর কারণকনজেস্টিভ হার্ট ফেইলার
জাতীয়তামার্কিন
পেশাপ্রযোজক
কার্যকাল১৯৫৮–২০১৫
দাম্পত্য সঙ্গীজেনিফার হাওয়ার্ড
(বি. ১৯৫০; বিবাহবিচ্ছেদ ১৯৬৮)

পেগি এলিয়ট
(বি. ১৯৬৯; বিবাহবিচ্ছেদ ২০০৫)

প্যাট্রিশিয়া স্ট্রন
(বি. ২০১০)
সন্তানটনি গোল্ডউইন
জন গোল্ডউইন
পিতা-মাতাফ্রান্সেস হাওয়ার্ড (মাতা)
স্যামুয়েল গোল্ডউইন (পিতা)

স্যামুয়েল জন গোল্ডউইন জুনিয়র (ইংরেজি: Samuel John Goldwyn Jr.; ৭ই সেপ্টেম্বর, ১৯২৬ - ৯ই জানুয়ারি, ২০১৫) ছিলেন একজন মার্কিন চলচ্চিত্র প্রযোজক। তিনি চলচ্চিত্র প্রযোজক স্যামুয়েল গোল্ডউইন এবং অভিনেত্রী ফ্রান্সেস হাওয়ার্ডের পুত্র। অভিনেতা টনি গোল্ডউইন ও স্টুডিও নির্বাহী জন গোল্ডউইন তার পুত্র। তিনি চলচ্চিত্র প্রযোজনা কোম্পানি ফরমোজা প্রডাকশন্স, দি স্যামুয়েল গোল্ডউইন কোম্পানি এবং স্যামুয়েল গোল্ডউইন ফিল্মস প্রতিষ্ঠাতা।

জীবনী[সম্পাদনা]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

স্যামুয়েল জন গোল্ডউইন জুনিয়র ১৯২৬ সালের ৭ই সেপ্টেম্বর ক্যালিফোর্নিয়ার লস অ্যাঞ্জেলেসে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা স্যামুয়েল গোল্ডউইন (১৮৭৯-১৯৭৪) ছিলেন হলিউড চলচ্চিত্রের অগ্রদূত ও মিডিয়া মুঘল, এবং মাতা ফ্রান্সেস হাওয়ার্ড ছিলেন একজন অভিনেত্রী। তিনি কলোরাডোর ফাউন্টেন ভ্যালি স্কুলে পড়াশুনা করেন এবং পরবর্তীতে ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উচ্চতর শিক্ষা লাভ করেন।[১]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীতে কাজ করার পর তিনি লন্ডনে মঞ্চ প্রযোজক হিসেবে এবং নিউ ইয়র্কের এডওয়ার্ড আর. মুরোর অধীনে সিবিএসে কাজ করেন।[২] তিনি পরবর্তীতে তার পিতার পদাঙ্ক অনুসরণ করে চলচ্চিত্র প্রযোজনা কোম্পানি ফরমোজা প্রডাকশন্স, দি স্যামুয়েল গোল্ডউইন কোম্পানি এবং স্যামুয়েল গোল্ডউইন ফিল্মস প্রতিষ্ঠা করেন।[৩]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

১৯৫০ সালে গোল্ডউইন জেনিফার হাওয়ার্ডকে (১৯২৫-১৯৯৩) বিয়ে করেন। হাওয়ার্ড ছিলেন একজন অভিনেত্রী এবং প্রখ্যাত লেখক ও চিত্রনাট্যকার সিডনি হাওয়ার্ডের কন্যা। তাদের চার সন্তান জন্মগ্রহণ করে, তাদের মধ্যে রয়েছে স্টুডিও নির্বাহী জন, ফ্রান্সিস, অভিনেতা টনি ও ক্যাথরিন।[১] ১৯৬৮ সালে তাদের বিবাহবিচ্ছেদ হয়। গোল্ডউইন ১৯৬৯ সালে পেগি এলিয়টকে বিয়ে করেন। এই দম্পতির দুই সন্তান জন্মগ্রহণ করে, তারা হলেন পুত্র পিটার এবং কন্যা এলিজাবেথ। ২০০৫ সালে তাদের বিবাহবিচ্ছেদ হয়। ২০১০ সালে তিনি প্যাট্রিশিয়া স্ট্রনকে বিয়ে করেন।[২]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

গোল্ডউইন ২০১৫ সালের ৯ই জানুয়ারি কনজেস্টিভ হার্ট ফেইলারে আক্রান্ত হয়ে ক্যালিফোর্নিয়ার লস অ্যাঞ্জেলেসের সিডার্স-সিনাই মেডিক্যাল সেন্টারে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৮ বছর।[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Freedland, Michael (১২ জানুয়ারি ২০১৫)। "Samuel Goldwyn Jr obituary"দ্য গার্ডিয়ান। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  2. "Samuel Goldwyn Jr., Hollywood Scion, Dies at 88" (ইংরেজি ভাষায়)। দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস। ৯ জানুয়ারি ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  3. Dagan, Carmel (৯ জানুয়ারি ২০১৫)। "Samuel Goldwyn Jr. Dies at 88"ভ্যারাইটি (ইংরেজি ভাষায়)। Penske Media Corporation। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  4. "Samuel Goldwyn Jr Dead; Producer, Executive & Son Of Movie Mogul Was 88" (ইংরেজি ভাষায়)। ডেডলাইন। ৯ জানুয়ারি ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]