সুষমা রেড্ডি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সুষমা রেড্ডি
Sushama Reddy.jpeg
জন্ম (1976-08-02) ২ আগস্ট ১৯৭৬ (বয়স ৪৪)
পেশামডেল, অভিনেত্রী, প্রযোজক
পিতা-মাতাচিন্তাপোলি রেড্ডি
নক্ষত্র রেড্ডি
আত্মীয়মেঘনা রেড্ডি (বোন)
সমীরা রেড্ডি (বোন)

সুষমা রেড্ডি (জন্ম: ২রা আগস্ট ১৯৭৬) হলেন একজন ভারতীয় মডেল, ভিডিও জকি, অভিনেত্রী এবং প্রযোজক[১]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

সুষমা রেড্ডি ১৯৭৬ সালের ২রা আগস্ট তারিখে ভারতের অন্ধ্র প্রদেশের (বর্তমানে তেলেঙ্গানা রাজ্যের) হায়দ্রাবাদে জন্মগ্রহণ করেছেন। তিনি মাহিমের বোম্বে স্কটিশ স্কুল হতে তাঁর স্কুল জীবনের পড়াশোনা সম্পন্ন করেছেন এবং মহারাষ্ট্রের মুম্বইয়ের মিঠিবাই কলেজ থেকে অর্থনীতি বিভাগে স্নাতক সম্পন্ন করেছেন।[২] তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক সিটির এনওয়াইএফএ থেকে চলচ্চিত্র নির্মাণের ওপর কোর্স সম্পন্ন করেছেন।[৩] তাঁর দুই বোন রয়েছে মেঘনা রেড্ডি (যিনি একজন প্রাক্তন মডেল) এবং সমিরা রেড্ডি, যিনি বলিউডের একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী।

পেশা[সম্পাদনা]

সুষমা রেড্ডিকে টেলিভিশন জগতে কাজ করার জন্য তাঁর বোন মেঘনা রাজি করিয়েছিলেন।[৪] তিনি ভারতবালা প্রোডাকশনসের সাথে কাজ করার মাধ্যমে সর্বপ্রথম টেলিভিশন জগতে প্রবেশ করেছিলেন।[২] তিনি তাঁর মডেলিং জীবনে এপর্যন্ত ১০০টির-ও বেশি টেলিভিশন বিজ্ঞাপনে একজন মডেল হিসেবে অভিনয় করেছিলেন। তাঁর অভিনীত টেলিভিশন বিজ্ঞাপনের মধ্যে লিমকা, ফেয়ার অ্যান্ড লাভলি, লিবার্টি, গোদরেজ, ব্লেন্ডার্স প্রাইড, ফোর্ড আইকন এবং বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা সালমান খানের সাথে থাম্বস আপ বিজ্ঞাপনটি উল্লেখযোগ্য। অতঃপর সুষমা দিবাকরের সঙ্গীত ভিডিওতে গায়ক সনু নিগমের সঙ্গে উপস্থিত হয়েছিলেন এবং পরবর্তীতে, ডিজে সুকেতুর তেরে জ্যায়সা পেয়ার এবং সোনা মহাপাত্র-এর সঙ্গীত সংকলন ইশক নাচায়া-তে কাজ করেছেন।

ভারতে চ্যানেল ভি চালু হওয়ার পরপরই, তিনি ২ বছরেরও বেশি সময় ধরে উক্ত চ্যানেলে ভিডিও জকি হিসেবে কাজ করেছিলেন। সুষমা লাইফস্টাইল ব্রডকাস্টার ডিসকভারি ট্র্যাভেল অ্যান্ড লিভিং-এ ড্রিম হোটেলস নামক একটি অনুষ্ঠানে উপস্থাপনার দায়িত্ব পালন করেছিলেন, যেখানে বিশ্বাসযোগ্য আকারে হোটেলগুলোর আনন্দদায়ক দৃশ্যাবলী, বিলাসবহুল জীবনযাপন, সজ্জা, শৈলী এবং ঔজ্বল্য প্রদর্শন করা হতো।[৫][৬]

২০০৫ সালে বিবেক অগ্নিহোত্রীর চকোলেট: ডিপ ডার্ক সিক্রেটস-এর মাধ্যমে তিনি হিন্দি চলচ্চিত্র জগতে অভিষেক করেছিলেন; যেখানে তিনি অনিল কাপুরের বিপরীতে অভিনয় করার সুযোগ পেয়েছিলেন। পরবর্তীতে ২০০৬ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ডন: দ্যা চেজ বিগিন্স এগেইন এবং চুপ চুপ কে (যেখানে শহীদ কাপুর এবং কারিনা কাপুরের সাথে অভিনয় করার সুযোগ পেয়েছিলেন) নামক দুটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন।

২০০৮ সালে সুষমা রজত কাপুরের সাথে তাঁর একটি প্রকল্প রেকট্যাঙ্গুলার লাভ স্টোরি-তে কাজ করেছিলেন।[৭] ২০০৯ সালে, তিনি এক বন্ধুর মাধ্যমে তাঁর বর্তমান প্রযোজনা অংশীদার সঞ্জয় ভট্টাচার্য্যের সাথে পরিচিত হয়েছিলেন। চলচ্চিত্র নির্মাণ ব্যবসা, বিতরণ এবং চলচ্চিত্র বিপণন সম্পর্কিত তাঁদের সাধারণ লক্ষ্য রয়েছে তা বুঝতে পেরে তাঁরা দিল্লির আর্যান ব্রাদার্সে দেখা করেন, যারা সেই সময় চলচ্চিত্র জগতে প্রবেশের চেষ্টা করছিল।।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "She's Reddy to write!"Times of India। ৭ জুলাই ২০০৩। সংগ্রহের তারিখ ১২ নভেম্বর ২০১২ 
  2. Mignonne, Dsouza (২৮ এপ্রিল ২০১২)। "Personal Agenda: Sushama Reddy"Hindustan Times। ১১ জুলাই ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ নভেম্বর ২০১২ 
  3. Srvasti, Datta (১৫ ডিসেম্বর ২০১১)। "Not Just a Pretty Face"The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ১২ নভেম্বর ২০১২ 
  4. "All in the family"The Telegraph (Calcutta)। ১০ ডিসেম্বর ২০০৫। সংগ্রহের তারিখ ১২ নভেম্বর ২০১২ 
  5. "Discovery Travel and Living to show 'Dream Hotels'"। Indiantelevision.com। সংগ্রহের তারিখ ১২ নভেম্বর ২০১২ 
  6. "Burn calories through belly dance"The Hindu। ১০ সেপ্টেম্বর ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ১২ নভেম্বর ২০১২ 
  7. "Interview : Sushma Reddy"। GlamSham.com। ১০ অক্টোবর ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ২১ মে ২০১১ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]