সুনীতা নারায়ণ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সুনীতা নারায়ণ
Sunita Narain CSE.jpg
সুনীতা নারায়ণ
জন্ম১৯৬১
জাতীয়তাভারতীয়
যেখানের শিক্ষার্থীদিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়, ক্রানফিল্ড বিশ্ববিদ্যালয়,কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়
পেশাপরিবেশবাদী
পুরস্কারপদ্মশ্রী, রাজা-লক্ষ্মী পুরস্কার, স্টকহোম পানি পুরস্কার,

সুনিতা নারায়ণ একজন ভারতীয় পরিবেশবিদ এবং রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে দীর্ঘস্থায়ী উন্নয়নের সবুজ ধারণার প্রস্তাবক। [১] সুনীতা নারায়ণ ভারত ভিত্তিক গবেষণা ইনস্টিটিউটের (সেন্টার ফর সায়েন্স এন্ড এনভায়রনমেন্ট), সোসাইটির ফর এনভায়রনমেন্টাল কমিউনিকেশনসএর পরিচালক এবং পাক্ষিক সাময়িকী ডাউন টু আর্থ এর সম্পাদক। ২০১৬ সালে তিনি টাইম ম্যাগাজিনের ১০০ প্রভাবশালী ব্যক্তির তালিকায় স্থান পেয়েছিলেন। [২]

কার্যক্রম[সম্পাদনা]

১৯৮২ সালে, দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা শেষ করার পাশাপাশি, সেন্টার ফর সায়েন্স অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টের প্রতিষ্ঠাতা, অনিল আগরওয়ালের সাথে, সুনীতা, পরিবেশবাদী আন্দোলনে অংশ নেন। ১৯৮৫ সালে, তিনি ভারতের পরিবেশ প্রতিবেদনের সহ-সম্পাদনা করেন এবং তারপর বন ব্যবস্থাপনা সম্পর্কিত বিষয়গুলি অধ্যয়ন করেন। এই প্রকল্পের জন্য সারা দেশ ভ্রমণ করেন তিনি। ১৯৮৯ সালে সুনীতা নারায়ণ ও অনিল আগরওয়াল গণতন্ত্র ও দীর্ঘস্থায়ী উন্নয়নের বিষয়ে 'টুওয়ার্ডস গ্রিন ভিলেজেস' শিরোনামে প্রবন্ধ লিখেছিলেন। এরপর তিনি পরিবেশউন্নয়নের মধ্যে সম্পর্ক অধ্যয়ন করেন এবং দীর্ঘস্থায়ী উন্নয়নের প্রয়োজন সম্পর্কে জনসাধারণের সচেতনতা তৈরির জন্য কাজ করেছেন। ২০১২ সালে তিনি ভারতের রাজ্যগুলোর পরিবেশের পরিস্থিতি সম্পর্কে প্রতিবেদন প্রকাশ করেন।

বহু বছর ধরে, তিনি সেন্টার ফর সায়েন্স অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টের ব্যবস্থাপনা ও সাংগঠনিক কাঠামো গড়ে তুলেছেন। সংগঠনটিতে এখন শতাধিক কর্মী আছে। নব্বই দশকের গোড়ার দিকে, তিনি বিশ্বব্যাপী পরিবেশগত বিষয়গুলিতে আকৃষ্ট হয়ে পড়েন এবং তা নিয়ে গবেষণা করে বলিষ্ঠ মতামত প্রকাশ করেন।[৩] তিনি বর্তমানে সেন্টার ফর সায়েন্স অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টের পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন এবং বেশ কয়েকটি গবেষণা প্রকল্প এবং জনসাধারণের কাছে প্রচারাভিযানে সক্রিয় ভূমিকা পালন করছেন। [৩]

তিনি বিভিন্ন সংস্থার ও সরকারি কমিটির বোর্ডে কাজ করেন এবং বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন ফোরামে বক্তব্য রাখেন। তার বক্তব্য দেশে বিদেশে ব্যাপকভাবে সমাদৃত হয়ে থাকে।

২০১৩ সালের ২০শে অক্টোবর, রোববার, সকালে অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্সেসের কাছে সাইকেল চালানোর সময় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হন তিনি। তার সাইকেলটিকে দ্রুতগতিতে ধাবমান একটি গাড়ি ধাক্কা মারে। এই ঘটনায় গুরুতর আহত হন তিনি।[৪] আরোগ্যলাভ করার পর তিনি পুনরায় পরিবেশ আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়েন।

২০১৬ সালে জনপ্রিয় সংস্কৃতিতে[সম্পাদনা]

বন্যার আগে তথ্যচিত্রে লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিওর সঙ্গে তিনি উপস্থিত ছিলেন এবং ভারতে মৌসুমি জলবায়ুর পরিবর্তনের প্রভাব সম্পর্কে এবং তা কীভাবে কৃষকদের প্রভাবিত করে সে সম্পর্কে কথা বলেছিলেন। [৫]

প্রকাশনা[সম্পাদনা]

  • ১৯৮৯ সালে সুনীতা নারায়ণ যৌথভাবে 'টুওয়ার্ডস গ্রিন ভিলেজেস' শীর্ষক এক প্রকাশনা প্রকাশ করেন।
  • ১৯৯১ সালে তিনি গ্লোবাল ওয়ার্মিং বিষয়ক এক গবেষণা প্রকাশ করেন।[৬]
  • ১৯৯২ সালে তিনি টুওয়ার্ডস আ গ্রিন ওয়ার্ল্ড: শ্যুড ইনভারনমেন্টাল ম্যানেজমেন্ট বি বিল্ট অন লিগাল কনভেনশনস অর হিউম্যান রাইটস শিরোনামে যৌথভাবে এক গবেষণাপত্র প্রকাশ করেন।
  • ১৯৯৭ সালে কিয়োটো প্রোটোকল স্বাক্ষর হবার পর, তিনি বহু পরিবেশ পরিবর্তন বিষয়ক প্রবন্ধ লিখেছেন।
  • ২০০০ সালে, তিনি গ্রিন পলিটিক্স : গ্লোবাল এনভায়রনমেন্টাল নেগোটিয়েশনস প্রকাশনার সহ সম্পাদনা করেছিলেন।[৭]
  • ১৯৯৭ সালে ডাইং উইজডম: রাইজ, ফল অ্যান্ড পোটেনশিয়াল অফ ইন্ডিয়া'স ওয়াটার হার্ভেস্টিং সিস্টেম শিরোনামের একটি প্রকাশনী সম্পাদনা করেছিলেন। [৮]
  • তিনি ভারতের গ্রামীণ পরিবেশ ও দারিদ্র্য নিরসন সম্পর্কিত অনেকগুলি নিবন্ধে কাজ করেছেন।
  • ১৯৯৯ সালে, তিনি ভারত সরকারের পরিবেশ বিষয়ক প্রতিবেদন সম্পাদনা করেছিলেন।
  • ২০০১ সালে মেকিং ওয়াটার এভ্রিবডি'স বিজনেস:দ্য প্র‍্যাক্টিস অ্যান্ড পলিসি অব ওয়াটার হারভেস্টিং শিরোনামে একটি প্রকাশনী প্রকাশ করেছিলেন।[৯]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Narain, Sunita (মার্চ ২৮, ২০১৭)। "'Why I don't advocate vegetarianism': Indian environmentalist Sunita Narain explains her position"Scroll.in 
  2. [১] , টাইম ম্যাগাজিন , এপ্রিল ২০১৬
  3. "Sunitaji's Bio Data"। ৭ জানুয়ারি ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ মার্চ ২০১৯ 
  4. Reporter, Staff (২১ অক্টোবর ২০১৩)। "Environmentalist Sunita Narain injured in a road accident"। সংগ্রহের তারিখ ২৪ ডিসেম্বর ২০১৮ – www.thehindu.com-এর মাধ্যমে। 
  5. Thekkethil, Dileep (১ নভেম্বর ২০১৬)। "Sunita Narain features in documentary 'Before the Flood' co-produced by Leonardo DiCaprio"The American Bazaar। সংগ্রহের তারিখ ২৪ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  6. Anil Agarwal, Sunita Narain (ডিসেম্বর ৩১, ১৯৯০)। "Global Warming in an Unequal World: A case of environmental colonialism"India Environment Portal। Centre for Science and Environment। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ২৫, ২০১৮ 
  7. সবুজ রাজনীতি: বিশ্বব্যাপী পরিবেশগত আলোচনা , অনিল; সুনিতা নারাইন, আঞ্জু শর্মা, বিজ্ঞান ও পরিবেশ কেন্দ্র (১৯৯৯)
  8. উইজডম ডাইনিং: ভারতের প্রথাগত জল ফসল কাটার সিস্টেমগুলির উত্থান, পতন এবং সম্ভাব্যতা , (ভারতের রাজ্য পরিবেশ, আয়তন 4), অনিল আগরওয়াল, সুনিতা নারাইন, বিজ্ঞান ও পরিবেশ কেন্দ্র (১৯৯৭)
  9. নন-ননসেন্স গুইডো ইন্টারন্যাশনাল ডেভলপমেন্টে উদ্ধৃত, ম্যাগি ব্ল্যাক, নিউ ইন্টারন্যাশনালস্ট (১ অক্টোবর ২০০৭)
  10. "Honoris Cause"। ৮ আগস্ট ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ মার্চ ২০১৯ 
  11. http://time.com/4299642/sunita-narain-2016-time-100/