শ্রীকালহস্তী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
শ্রীকালহস্তী
কালহস্তী
নগর
ওপর থেকে তোলা শ্রীকালহস্তীর দৃশ্য
ওপর থেকে তোলা শ্রীকালহস্তীর দৃশ্য
শ্রীকালহস্তী অন্ধ্রপ্রদেশ-এ অবস্থিত
শ্রীকালহস্তী
শ্রীকালহস্তী
ভারতের in অন্ধ্রপ্রদেশে অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ১৩°৪৬′ উত্তর ৭৯°৪২′ পূর্ব / ১৩.৭৬° উত্তর ৭৯.৭০° পূর্ব / 13.76; 79.70স্থানাঙ্ক: ১৩°৪৬′ উত্তর ৭৯°৪২′ পূর্ব / ১৩.৭৬° উত্তর ৭৯.৭০° পূর্ব / 13.76; 79.70
দেশভারত
রাজ্যঅন্ধ্রপ্রদেশ
জেলাচিত্তুর
মণ্ডলশ্রীকালহস্তী
আয়তন[১]
 • মোট২৪.৫০ বর্গকিমি (৯.৪৬ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)[২]
 • মোট৮০,০৫৬
 • জনঘনত্ব৩,৩০০/বর্গকিমি (৮,৫০০/বর্গমাইল)
ভাষাসমূহ
 • সরকারিতেলুগু
সময় অঞ্চলআইএসটি (ইউটিসি+০৫:৩০)
পিন৫১৭৬৪৪
ওয়েবসাইটsrikalahasthitemple.com

শ্রীকালহস্তী হল ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশ রাজ্যের চিত্তুর জেলার একটি পবিত্র শহর। এটি একটি পৌরসভা এবং তিরুপতি রাজস্ব বিভাগের শ্রীকালহস্তী মণ্ডলের মণ্ডল সদর দফতর।[৩][৪] শহরটি তিরুপতি নগর উন্নয়ন নিগমের একটি অংশ, এবং স্বর্ণমুখী নদীর তীরে অবস্থিত।[৫] এই শহরটি শ্রীকালহস্তিশ্বর মন্দিরের জন্য বিখ্যাত। এই মন্দিরটি পঞ্চ ভূত স্থলমের অন্যতম প্রতিনিধি শিবের প্রতি উৎসর্গীকৃত। এই শহরটি শ্রীকালহস্তি কলমকারি শিল্পের জন্যও পরিচিত, যার জন্য এটি ভৌগোলিক স্বীকৃতি (জিআই) পেয়েছে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

শ্রীকালহস্তী গোপুরম

এই শ্রীকালহস্তী শহরটির নামকরণ করা হয়েছে শ্রী (মাকড়সা), কাল (সাপ) এবং হস্তীর (হাতি) নামে, যারা এখানে একবার শিব লিঙ্গমকে পূজা করেছিল এবং মোক্ষ অর্জন করেছিল।[৬]

চোল শাসকেরা খ্রিস্টীয় একাদশ শতাব্দীতে মূল মন্দিরটি নির্মাণ করেছিলেন। চোল রাজা কুলুথুঙ্গাল গলিগোপুরামটি তৈরি করেছিলেন। দ্বাদশ শতাব্দীতে বীরনরসিংহ যাদবরায় প্রাঙ্গনের প্রাচীর বা প্রাকার ও চারটি গোপুরম নির্মাণ করেছিলেন।[৭]

ভূগোল[সম্পাদনা]

স্বর্ণমুখী নদী এবং শ্রীকালহস্তীতে সেতু

শ্রীকালহস্তী শহরটি স্বর্ণমুখী নদীর তীরে ১৩°৪৫′ উত্তর ৭৯°৪২′ পূর্ব / ১৩.৭৫০° উত্তর ৭৯.৭০০° পূর্ব / 13.750; 79.700 (Srikalahasti) অবস্থিত। এটি তিরুপতির কেন্দ্রস্থল থেকে ৩৮ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত।

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

ভারতের জনপরিসংখ্যান ২০১১ অনুযায়ী, এই শহরের জনসংখ্যা হল ৮০,০৫৬ জন। মোট জনসংখ্যার ৩৮,৯৯৫ জন পুরুষ এবং ৪১,০৬১ জন মহিলা — যৌন অনুপাত হিসেবে এক হাজার পুরুষের জন্য ১০৫৩ মহিলা, জাতীয় গড়, প্রতি ১০০০ পুরুষে ৯৪০ জন নারীর চেয়ে বেশি।[২][৮] ৮,২২৪ জন শিশু ০-৬ বছর বয়সীদের মধ্যে পড়েছে, যার মধ্যে ৪,২২৭ জন ছেলে এবং ৩,৯৯৭ জন মেয়ে - ১০০০ এর সাপেক্ষে ৯৪৬ জন। এখানে গড় সাক্ষরতার হার ৭৮.৬৬% (এর মধ্যে পুরুষ ৮৫.১৫%; মহিলা ৭২.৫৭%) সাক্ষর ৫৬,৫০১ জন, জাতীয় গড়ের তুলনায় অনেকটাই বেশি, ৭৩.০০%।[২][৯]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

রাজ্যর স্কুল শিক্ষা বিভাগের অধীনে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয় শিক্ষার ব্যবস্থা সরকারী সহায়তাপ্রাপ্ত এবং বেসরকারী বিদ্যালয়ে করা হয়।[১০][১১] বিভিন্ন বিদ্যালয়ের অনুসৃত শিক্ষার মাধ্যম হল ইংরেজি এবং তেলুগু।

শ্রীকালহস্তীশ্বর ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির প্রবেশপথ

শ্রীকালহস্তী শহরে প্রাথমিক স্কুল থেকে শুরু করে প্রকৌশল এবং ডিগ্রি কলেজ পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে। শ্রীকালহস্তীশ্বর ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি হল শ্রীকালহস্তীশ্বর ট্রাস্ট বোর্ডের অধীনে একটি প্রকৌশলী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

যানবাহন[সম্পাদনা]

শ্রীকালহস্তী রেলওয়ে স্টেশন দক্ষিণ মধ্য রেলওয়ের (এসসিআর) গুন্টাকাল (জিটিএল) বিভাগের গুডুর-কাটপাডি শাখা লাইন বিভাগে অবস্থিত। অন্ধ্রপ্রদেশ রাজ্যের মালিকানাধীন বাস পরিষেবা এপিএসআরটিসি তিরুপতি, চিত্তুর এবং নেলোর থেকে বাস চালাচ্ছে। তিরুপতি বিমানবন্দরটি ২৫ কিলোমিটারের মধ্যে অবস্থিত।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Srikalahasthi Municipality"Commissioner & Director of Municipal Administration। Municipal Administration and Urban Development Department, Govt. of Andhra Pradesh। ২৭ জুলাই ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০১৪ 
  2. "Census 2011"। The Registrar General & Census Commissioner, India। সংগ্রহের তারিখ ১ সেপ্টেম্বর ২০১৪ 
  3. "Chittoor District Mandals" (PDF)। Census of India। পৃষ্ঠা 454, 510–11। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জুন ২০১৫ 
  4. "District Census Handbook - Chittoor" (PDF)Census of India। পৃষ্ঠা 22–23। সংগ্রহের তারিখ ২০ জানুয়ারি ২০১৬ 
  5. "Right to Information Act – 2005"। Tirupati Urban Development Authority। ৪ ডিসেম্বর ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ সেপ্টেম্বর ২০১৪ 
  6. "Srikalahasti place history"The Hindu। ২০১০-০৬-০৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৬-২৮ 
  7. "Srikalahasti Temple"। সংগ্রহের তারিখ ১৬ নভেম্বর ২০১৯ 
  8. "Sex Ratio"। The Registrar General & Census Commissioner, India। সংগ্রহের তারিখ ১ সেপ্টেম্বর ২০১৪ 
  9. "Chapter–3 (Literates and Literacy rate)" (PDF)। Registrar General and Census Commissioner of India। সংগ্রহের তারিখ ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৫ 
  10. "School Education Department" (PDF)। School Education Department, Government of Andhra Pradesh। ২৭ ডিসেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৬ 
  11. "The Department of School Education - Official AP State Government Portal | AP State Portal"www.ap.gov.in। ৭ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৬ 

টেমপ্লেট:Chittoor district