শুভলং ঝর্ণা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
শুভলং ঝর্ণা বা জলপ্রপাত
Shuvolong3.jpg
অবস্থানবরকল, রাঙামাটি, বাংলাদেশ
ধরনপাহাড়ি ঝর্ণা
মোট উচ্চতা৩০০ ফুট
জলপ্রবাহকাপ্তাই হ্রদ

শুভলং ঝর্ণা বাংলাদেশের একটি প্রাকৃতিক সৌন্দর্যমন্ডিত উঁচু পাহাড়ি ঝর্ণা । এটি বৃহত্তর রাঙ্গামাটি জেলার বরকল উপজেলাধীন ১নং শুভলং ইউনিয়নের চিলারডাক নামক স্থানে কাপ্তাই হ্রদের কোল ঘেঁষে কর্ণফুলী নদীর অববাহিকায় অবস্থিত সুবিশাল জলরাশির ঝর্ণা । নৌ-পথে শুভলং বাজার যাওয়ার আগে এই অপরূপ ঝর্ণাটির দেখা মিলে । এখানে প্রতিবছর বর্ষা মৌসুমে হাজারো পর্যটকের সমাগম ঘটে ।

বর্ণনা[সম্পাদনা]

রাঙ্গামাটি সদর হতে শুভলং ঝর্ণার দুরত্ব মাত্র ২৫ কিলোমিটার দূরে । শুকনো মৌসুমে শুভলং ঝর্ণায় খুব সামান্য পরিমাণে পানি থাকে । তবে তীব্র খরা মৌসুমে ঝর্ণার পানি একেবারেই শুকিয়ে যায় । বর্ষা মৌসুমে শুভলং ঝর্ণার জলধারা প্রায় ৩০০ ফুট উঁচু থেকে নিচে আঁছড়ে পড়ে কাপ্তাই হ্রদের জলে গিয়ে মিশে যায় । শুভলং ঝর্ণায় যাওয়ার জন্য রাঙ্গামাটি সদরের রিজার্ভ বাজার ও বনরুপার সমতাঘাট থেকে বিভিন্ন ইঞ্জিনচালিত ট্রলার, স্টিমার, ছোট - বড় লঞ্চ ও স্পিডবোট ভাড়া পাওয়া যায় । এজন্য আপনাকে অবশ্যই বুঝেশুনে দরদাম করে নিতে হবে । প্রয়োজনে এখানকার স্থানীয় সহজসরল মানুষের সাহায্য নিতে পারেন । [১] শুভলং ঝর্ণায় বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনের কিছু স্থাপনা ও খাবারদাবারের রেস্টুরেন্ট রয়েছে । তবে রাত্রী যাপনের জন্য নেই কোনো রিসোর্ট । ঝর্ণায় প্রবেশ করতে দর্শনার্থীদের টিকেট কাউন্টার থেকে প্রতি ২০ টাকায় টিকেট সংগ্রহ করতে হয় ।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "শুভলং ঝর্ণা"বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন। ১০ জুলাই ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ আগস্ট ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]