বিষয়বস্তুতে চলুন

শাকম্ভরী পূর্ণিমা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
শাকম্ভরী পূর্ণিমা
শাকম্ভরী দেবীর মূর্তি, শাকম্ভরী দেবী মন্দির, শরনপুর
আনুষ্ঠানিক নামশাকম্ভরী পূর্ণিমা
পালনকারীহিন্দু
তারিখপৌষ পূর্ণিমা

শাকম্ভরী পূর্ণিমা ( সংস্কৃত: शाकम्भरी पुर्णिमा ) হল একটি হিন্দু উৎসব। এ দিন ভারতে শাকম্ভরী দেবীর পূজা করা হয়। এটি পৌষ মাস তথা সাধারণত জানুয়ারিতে পড়ে। [১] শাকম্বরী নবরাত্রির অষ্টম দিনের শেষ দিন শাকম্বরী পূর্ণিমা।

কিংবদন্তি[সম্পাদনা]

শাকম্ভরী হলেন হিন্দু পুষ্টির দেবী। [২] তিনি মহাদেবীর এক রূপ। মহাদেবী বিশ্বকে খরা থেকে বাঁচানোর জন্য পৃথিবীতে আবির্ভূত হয়েছিলেন ও দুর্গম নামক অসুরকে বধনান্তর বেদ পুনরুদ্ধার করে ব্রাহ্মণদের প্রদান করেছিলেন। দেবীভাগবত পুরাণ অনুসারে, দেবী পৃথিবীর সমস্ত প্রাণীর আহারের জন্য তার নিজস্ব রূপ থেকে উদ্ভিদজাত দ্রব্য তৈরি করে ব্রাহ্মণদের প্রার্থনায় সাড়া দেন। তিনি খাদ্য ও জলের অভাব যাতে না হয় তা নিশ্চিত করার জন্য প্রাণীদের পর্যবেক্ষণ করার পাশাপাশি পাপ ও মন্দকর্মীদের শাস্তি প্রদান করেন বলে বর্ণনা করা হয়েছে। [৩]

করণীয়[সম্পাদনা]

পর্বোপলক্ষে ভক্তগণ গৃহ ও মন্দিরে দেবীর পূজা করেন। তারা ভোরে ঘুম থেকে উঠে শুভ স্নান করে বিশেষ প্রার্থনা করে থাকে। দেবীর একটি মূর্তি আরতি অনুষ্ঠানের সাথে পূজা করা হয়, দিয়া জ্বালানো হয় এবং দেবীকে আনুষ্ঠানিকভাবে পুষ্প ও মিষ্টি নিবেদন করা হয়। দুর্গা চালিশা পাঠ করা যায়। [৪]

উত্তরপ্রদেশের সাহারানপুর জেলার শাকম্ভরী দেবী মন্দিরে পর্ব উপলক্ষে দেবীর পূজা করা হয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Kumar, Tumuluru Kamal (২০১৫-০৪-২১)। Hindu Prayers, Gods and Festivals (ইংরেজি ভাষায়)। Partridge Publishing। পৃষ্ঠা 203। আইএসবিএন 978-1-4828-4708-6 
  2. Knapp, Stephen (২০০৫)। The Heart of Hinduism: The Eastern Path to Freedom, Empowerment, and Illumination (ইংরেজি ভাষায়)। iUniverse। পৃষ্ঠা 124। আইএসবিএন 978-0-595-35075-9 
  3. Sinha, Atul K. (২০০৯)। Approaches to History, Culture, Art and Archaeology (ইংরেজি ভাষায়)। Anamika Publishers & Distributors। পৃষ্ঠা 505। আইএসবিএন 978-81-7975-248-7 
  4. "Shakambhari Purnima 2023: Know why Shakambhari Jayanti is celebrated??"The Times of India। ২০২৩-০১-০২। আইএসএসএন 0971-8257। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০৯-২১