লেনি ব্রুস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
লেনি ব্রুস
Lenny Bruce
Lenny Bruce 1961.jpg
১৯৬১ সালে ব্রুস
জন্ম
লিওনার্ড আলফ্রেড স্নাইডার

(১৯২৫-১০-১৩)১৩ অক্টোবর ১৯২৫
মৃত্যুআগস্ট ৩, ১৯৬৬(1966-08-03) (বয়স ৪০)
হলিউড হিলস, ক্যালিফোর্নিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
মৃত্যুর কারণমাত্রাতিরিক্ত ঔষধগ্রহণ
সমাধিইডেন মেমোরিয়াল পার্ক সেমেটারি
জাতীয়তামার্কিন
কর্মজীবন১৯৪৭-১৯৬৬
দাম্পত্য সঙ্গীহানি ব্রুস (বি. ১৯৫১; বিচ্ছেদ. ১৯৫৭)[১]
সন্তান

লিওনার্ড আলফ্রেড স্নাইডার (১৩ অক্টোবর ১৯২৫ - ৩ আগস্ট ১৯৬৬) একজন মার্কিন স্ট্যান্ড-আপ কৌতুকাভিনেতা, সামাজিক সমালোচক ও বিদ্রুপাত্মক রচয়িতা ছিলেন। তিনি কৌতুক অভিনয়ে তার মুক্ত ধর্ম ও সমালোচনামূলক ধারার জন্য বিখ্যাত ছিলেন, যাতে বিদ্রুপ, রাজনীতি, ধর্ম, যৌনতা, কুরুচিপূর্ণ ইঙ্গিত বিদ্যমান থাকত।[২] ১৯৬৪ সালে তাকে অশ্লীলতার দায়ে অভিযুক্ত করা হয়েছিল কিন্তু ২০০৩ সালে গভর্নর জর্জ প্যাটাকি তাকে মরণোত্তর ক্ষমা করে দিয়েছিলেন, যা নিউ ইয়র্ক রাজ্যের ইতিহাসে প্রথম।[৩]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

লেনি ব্রুস নিউ ইয়র্কের মিনেওলার এক ইহুদি পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার প্রকৃত নাম লিওনার্ড আলফ্রেড স্নাইডার। তিনি নিকটবর্তী বেলমোরে বেড়ে ওঠেন এবং ওয়েলিংটন সি. মেফাম হাই স্কুল পড়াশোনা করেন।[৪] তার দশ বছর হওয়ার পূর্বেই তার পিতা-মাতার বিবাহবিচ্ছেদ হয়। তিনি পরবর্তী দশকে তার বিভিন্ন আত্মীয়-স্বজনের সাথে বসবাস করেন। তার পিতা মাইরন (মিকি) স্নাইডার ব্রিটিশ ছিলেন। তার মাতা স্যালি মার স্নাইডার মঞ্চ অভিনেত্রী ছিলেন এবং লেনির জীবনে তার ব্যাপক প্রভাব ছিল।[৫]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

ব্রুসের কৌতুকাভিনয় জীবন শুরু হয় ১৯৫৩ সালে ড্যান্স হল র‍্যাকেট চলচ্চিত্রের চিত্রনাট্য রচনার মধ্য দিয়ে। এতে তিনি নিজে, তার স্ত্রী হানি হার্লো এবং মা স্যালি মার অভিনয় করেন। ১৯৫৪ সালে তিনি স্বল্পব্যয়ে নির্মতি বার্লেস্ক রম্প ড্রিম ফলিস এবং শিশুতোষ চলচ্চিত্র দ্য রকেট ম্যান-এ অভিনয় করেন। ১৯৫৬ সালে ফ্র্যাঙ্ক রে পেরিলি তার পরামর্শদাতা ও খণ্ডকালীন ব্যবস্থাপক হিসেবে কাজ করেন। পেরিলি তার সমকালীন নাইটক্লাব কৌতুকাভিনেতা যিনি ডজনখানেক চলচ্চিত্র ও মঞ্চনাটকের চিত্রনাট্যকার হিসেবে কাজ করেছেন।[৬] পেরিলির মাধ্যমে ব্রুস আলোকসাংবাদিক উইলিয়াম কার্ল টমাসের সাথে পরিচিত হন এবং তার সাথে যৌথভাবে লেদার জ্যাকেট, কিলার্স গ্রেভদ্য ডিজেনারেট-এর চিত্রনাট্য লিখেন। কিন্তু এই তিনটির একটি থেকেও চলচ্চিত্র নির্মিত হয় এবং তার প্রথম তিনটি কৌতুকাভিনয় অ্যালবামের হাস্যরসাত্মক উপাদান হিসেবে ব্যবহৃত হয়।[৭]

ব্রুস ১৯৫০-এর দশকে বাডি হ্যাকেটের রুমমেট ছিলেন। তারা দুজন প্যাট্রিস মুনসেল শো (১৯৫৭-১৯৫৮)-এ কাজ করতেন, তাদের কৌতুকাভিনয় জুটিকে "নট রেডি ফর প্রাইম টাইম প্লেয়ার্স" নামে ডাকা হত।[৮] ১৯৫৭ সালে উইলিয়াম কার্ল টমাস স্লেট ব্রাদার্স নাইটক্লাবের জন্য ব্রুসকে বুক করেন, সেখানে প্রথম রাতেই তিনি চাকরিচ্যুত হন। ভ্যারাইটির শিরোনাম অনুসারে তিনি নিষিদ্ধ উপাদান ("ব্লু ম্যাটেরিয়াল") নিয়ে এসেছিলেন। এই ঘটনা ব্রুসের প্রথম একক অ্যালবাম দ্য সিক হিউমার অব লেনি ব্রুস-এর বিষয়বস্তু হয়ে ওঠে। বার্কলি-ভিত্তিক ফ্যান্টাসি রেকর্ডস তার অ্যালবামের রেকর্ড করে,[৯] এবং টমাস অ্যালবামের প্রচ্ছদের জন্য ছবি তুলে দেন। টমাস অন্যান্য অ্যালবামের প্রচ্ছদেরও ছবি তুলে দেন, তাদের চিত্রনাট্যে কয়েকটি চলচ্চিত্রের ব্যর্থ প্রচেষ্টার চিত্রগ্রাহক হিসেবে কাজ করেন এবং ১৯৮৯ সালে তাদের ১০ বছরের একত্রে কাজের অভিজ্ঞতা নিয়ে লেনি ব্রুস: দ্য মেকিং অব আ প্রফেট শীর্ষক একটি স্মৃতিকথাও লিখেন।[১০] ২০১৬ সালে ফ্র্যাঙ্ক রে পেরিলির জীবনী দ্য ক্যান্ডি বুচার-এর একটি পরিচ্ছেদেও পেরিলি ও ব্রুসের ১০ বছর একত্রে কাজের বর্ণনা রয়েছে।[১১]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

১৯৫১ সালে ব্রুস আর্কানসাসের ম্যানিলার স্ট্রিপার হানি হার্লোর সাথে পরিচিত হন। একই বছর তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। ব্রুস চেয়েছিলেন হার্লো স্ট্রিপার হিসেবে তার কাজ ছেড়ে দিবেন।[১২] ১৯৫৩ সালে তার নিউ ইয়র্ক থেকে পশ্চিম উপকূলে পাড়ি জমান, সেখানে তারা লস অ্যাঞ্জেলেসের কাপ অ্যান্ড সসারে দ্বৈত কাজ পান। ব্রুস এরপর স্ট্রিপ সিটি ক্লাবে যোগ দেন। হার্লোও সে সময়ে লস অ্যাঞ্জেলেসের সেরা বার্লেস্ক ক্লাব কলোনি ক্লাবে কাজ পান।[১৩]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

১৯৬৬ সালের ৩রা আগস্ট হলিউড হিলসের ৮৮২৫ ডব্লিউ. হলিউড বুলেভারের বাড়ির গোসলখানা থেকে ব্রুসের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।[১৪] ঘটনাস্থল থেকে তোলা ছবিতে দেখা যায় ব্রুস নগ্ন অবস্থায় মেঝেতে পড়ে আছেন, তার পাশে সিরিঞ্জ ও বার্নেট বটল ক্যাপ এবং বিভিন্ন মাদকদ্রব্য পড়ে আছে। ব্রুসের বন্ধু ফিল স্পেক্টর ছবিগুলোর নেগেটিভ গণমাধ্যমের জন্য নিয়ে আসেন। তার মৃত্যুর কারণ হিসেবে অতিরিক্ত মাদকগ্রহণের ফলে তীব্র মরফিনের বিষক্রিয়ার কথা উল্লেখ করা হয়।[১৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. অগাস্ট, মেলিসা (সেপ্টেম্বর ৫, ২০০৫)। "Died."টাইম। এপ্রিল ৮, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ অক্টোবর ২০২০ 
  2. "Let There Be Laughter – Jewish Humor Around the World"Beit Hatutsot। সংগ্রহের তারিখ ২১ অক্টোবর ২০২০ 
  3. কিফনার, জন (২০০৩-১২-২৪)। "No Joke! 37 Years After Death Lenny Bruce Receives Pardon"দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0362-4331। সংগ্রহের তারিখ ২১ অক্টোবর ২০২০ 
  4. গোল্ডম্যান, আলবার্ট; শিলার, লরেন্স (১৯৯১)। Ladies and Gentlemen: Lenny Bruce!!। পেঙ্গুইন বুকস। পৃষ্ঠা ১০৭। আইএসবিএন 978-0140133622। সংগ্রহের তারিখ ২১ অক্টোবর ২০২০ 
  5. টমাস, উইলিয়াম কার্ল (ডিসেম্বর ১, ১৯৮৯)। Lenny Bruce: the making of a prophet। আর্চন বুকস। পৃষ্ঠা ৪৭। আইএসবিএন 978-0208022370। সংগ্রহের তারিখ ২১ অক্টোবর ২০২০ 
  6. টমাস ২০১৬, পৃ. ১৫২।
  7. টমাস ১৯৮৯, পৃ. ৫৪-৬৩।
  8. "Episode 966: Sandy Hackett"ডব্লিউটিএফ উইথ মার্ক ম্যারন। সংগ্রহের তারিখ ৮ ডিসেম্বর ২০২০ 
  9. টমাস ১৯৮৯, পৃ. ২২৯, ২৭৬।
  10. টমাস ১৯৮৯
  11. টমাস ২০১৬
  12. কটলার, জেফ্রি এ. (২০০৬)। Divine Madness: Ten Stories of Creative Struggle। সান ফ্রান্সিস্কো: জোসি-ব্যাস। পৃষ্ঠা ২২১। 
  13. গোল্ডম্যান, পৃ. ১২৪।
  14. "Obituary"দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস। আগস্ট ৪, ১৯৬৬। অক্টোবর ১৫, ২০০১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ ডিসেম্বর ২০২০ 
  15. কলিন্স, রোনাল্ড; স্কোভার, ডেভিড (২০০২)। The Trials of Lenny Bruce: The Fall and Rise of an American Icon। সোর্সবুক মিডিয়াফিউশন। পৃষ্ঠা ৩৪০আইএসবিএন 978-1-57071-986-8 

উৎস[সম্পাদনা]

  • গোল্ডম্যান, অ্যালবার্ট; শিলার, লরেন্স (১৯৭৪)। Ladies and Gentlemen--Lenny Bruce!! (ইংরেজি ভাষায়)। পেঙ্গুইন বুকস। আইএসবিএন 978-0-14-013362-2। সংগ্রহের তারিখ ৭ ডিসেম্বর ২০২০ 
  • টমাস, উইলিয়াম কার্ল (১৯৭৯)। Lenny Bruce : the making of a prophet (ইংরেজি ভাষায়)। হ্যামডেন, কানেটিকাট: আর্চন বুকস। আইএসবিএন 978-0-208-02237-0। সংগ্রহের তারিখ ৭ ডিসেম্বর ২০২০ 
  • টমাস, উইলিয়াম কার্ল (২০১৬)। The Candy Butcher (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৭ ডিসেম্বর ২০২০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]