লিলি কলিন্স

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
লিলি কলিন্স
Lily Collins by Gage Skidmore.jpg
কমিক কনে কলিন্স, ২০১৩
স্থানীয় নাম
Lily Collins
জন্ম
লিলি জেন কলিন্স

(1989-03-18) ১৮ মার্চ ১৯৮৯ (বয়স ৩০)
নাগরিকত্বযুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র
যেখানের শিক্ষার্থীসাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়
পেশাঅভিনেত্রী, মডেল, লেখিকা
কার্যকাল১৯৯২–বর্তমান
পিতা-মাতাফিল কলিন্স
জিল টেভেলম্যান
আত্মীয়সিমন কলিন্স (সৎ ভাই)
জোয়েলি কলিন্স (সৎ বোন)

লিলি জেন কলিন্স (ইংরেজি: Lily Jane Collins; জন্ম: ১৮ই মার্চ ১৯৮৯) হলেন একজন ব্রিটিশ-মার্কিন অভিনেত্রী, মডেল ও লেখিকা।[১] তিনি ইংরেজ সঙ্গীতজ্ঞ ফিল কলিন্সের কন্যা। সুরিতে জন্ম নেওয়া কলিন্স শৈশবে লস অ্যাঞ্জেলেসে চলে যান। মাত্র দুই বছর বয়সে বিবিসির গ্রোয়িং পেইন্‌স ধারাবাহিকে তাকে দেখা যায়। কিশোরী বয়সে তিনি সেভেনটিন ম্যাগাজিন, টিন ভোগ, এবং লস অ্যাঞ্জেলেস টাইমসে লেখালেখি করতেন। তিনি সাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে সম্প্রচার সাংবাদিকতা বিষয়ে পড়াশুনা করেন। ২০০৭ সালে হোটেল দি ক্রিলনে চ্যানেল টিভি কর্তৃক নিবাচিত হয়ে গাউন পড়ার পর স্পেনের গ্ল্যামার ম্যাগাজিন তাকে বর্ষসেরা আন্তর্জাতিক মডেল বলে ঘোষণা দেয়। ২০০৮ সালে তাকে নবাগত রেড কার্পেট করেসপন্ডেন্ট এবং একই বছর ওয়ান টু ওয়াচ খ্যাতি লাভ করেন।

কলিন্স ২০০৯ সালে কিশোর নাট্য টেলিভিশন ধারাবাহিক ৯০২১০-এ অতিথি চরিত্রে অভিনয় করেন এবং পরে অর্ধ-জীবনীমূলক ক্রীড়াভিত্তিক চলচ্চিত্র দ্য ব্লাইন্ড সাইড দিয়ে তার চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়। তিনি বিজ্ঞান কল্পকাহিনীমূলক মারপিঠধর্মী-ভীতিপ্রদ চলচ্চিত্র প্রিস্ট (২০১১), মনস্তাত্ত্বিক মারপিঠধর্মী-থিলার চলচ্চিত্র অ্যাবডাকশন, এবং কাল্পনিক চলচ্চিত্র মিরর মিরর-এ অভিনয় করেন। মিরর মিরর ছবিতে স্নো হোয়াইট ভূমিকায় তার কাজের জন্য তিনি বিজ্ঞান কল্পকাহিনী/কাল্পনিক চলচ্চিত্র অভিনেত্রী বিভাগে টিন চয়েজ পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। তিনি ক্যাসান্ড্রা ক্লের রচিত দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমসের সর্বাধিক বিক্রিত উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত দ্য মর্টাল ইনস্ট্রুমেন্ট্‌স: সিটি অব বোন্‌স-এ ক্ল্যারি ফ্রে চরিত্রে অভিনয় করে আরও পরিচিতি লাভ করেন এবং মারপিঠধর্মী চলচ্চিত্র অভিনেত্রী বিভাগে টিন চয়েজ পুরস্কার ও এমটিভি মুভি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।

কলিন্স স্বাধীন চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য প্রসিদ্ধ, তার অভিনীত স্বাধীন চলচ্চিত্রসমূহ হল প্রণয়ধর্মী হাস্যরসাত্মক নাট্য স্টাক ইন লাভ (২০১২), প্রণয়ধর্মী হাস্যরসাত্মক দ্য ইংলিশ টিচার (২০১৩) এবং প্রণয়ধর্মী হাস্যরসাত্মক নাট্য লাভ, রোজি (২০১৪)। তিনি রুল্‌স ডোন্ট অ্যাপ্লাই (২০১৬) চলচ্চিত্রে মার্লা মাব্রি চরিত্রে অভিনয়ের জন্য নিউ হলিউড ফিল্ম পুরস্কার লাভ করেন এবং শ্রেষ্ঠ সঙ্গীতধর্মী বা হাস্যরসাত্মক অভিনেত্রী বিভাগে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। ২০১৭ সালে তার প্রথম বই আনফিল্টারড: নো শেম, নো রিগ্রেট্‌স, জাস্ট মি প্রকাশিত হয় এবং প্রশংসা অর্জন করে। ২০১৭ সালের মে মাসে কলিন্স ও মার্টি নক্সনকে তাদের টু দ্য বোন চলচ্চিত্রের জন্য প্রজেক্ট হিল প্রদান করা হয়।[২]

চলচ্চিত্র তালিকা[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

বছর শিরোনাম ভূমিকা টীকা
২০০৯ দ্য ব্লাইন্ড সাইড কলিন্স তুহি
২০১১ প্রিস্ট লুসি পেস
অ্যাবডাকশন কারেন মার্ফি
২০১২ মিরর মিরর স্নো হোয়াইট
স্টাক ইন লাভ সামান্থা বোর্জেন্স
২০১৩ দ্য ইংলিশ টিচার হ্যালি অ্যান্ডারসন
দ্য মর্টাল ইনস্ট্রুমেন্ট্‌স: সিটি অব বোন্‌স ক্ল্যারি ফ্রে
২০১৪ লাভ, রোজি রোজি ডান
২০১৬ রুল্‌স ডোন্ট অ্যাপ্লাই মার্লা ম্যাব্রি
২০১৭ টু দ্য বোন এলেন "ইলি"
ওকজা রেড
দ্য ডিগ জো স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র
২০১৮ হিয়্যার কাম্‌স দ্য গ্রাম্প[৩] প্রিন্সেস ডন (কণ্ঠ) সমাপ্ত
হালো অব স্টারস মিস্টি ডন নির্মাণ-উত্তর
টলকিন এডিথ টলকিন নির্মাণ-উত্তর
এক্সট্রিমলি উইক্‌ড, শকিংলি ইভল এবং ভাইল এলিজাবেথ ক্লুফার নির্মাণ-উত্তর

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Willis, Jackie। "10 Things You Didn't Know About Lilly Collins" (ইংরেজি ভাষায়)। সেলিবাজ। ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মার্চ ২০১৮ 
  2. "Lily Collins Attends The Project Heal Gala"বিউটিফুল ব্যালাড (ইংরেজি ভাষায়)। ১৭ মে ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মার্চ ২০১৮ 
  3. Grater, Tom (৫ অক্টোবর ২০১৭)। "Lily Collins, Ian McShane, Toby Kebbell to voice 'Here Comes The Grump' (exclusive)"স্ক্রিন ডেইলি। Media Business Insight Limited। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মার্চ ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]