রোহন বোপান্না

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
রোহন বোপান্না
20
২০১৩ সালে ফ্রেঞ্চ ওপেনে রোহন বোপান্না
দেশ ভারত
বাসস্থানবেঙ্গালুরু, ভারত
জন্ম (1980-03-04) ৪ মার্চ ১৯৮০ (বয়স ৪১)
উচ্চতা১.৯০ মি (৬ ফু ৩ ইঞ্চি)
পেশাদারিত্ব অর্জন২০০৩
পুরস্কারUS$৩২,৭৯০,৪৬[১]
একক
পরিসংখ্যান১৫–৩৩ (এটিপি ওয়ার্ল্ড ট্যুর এবং গ্র্যান্ড স্লামের প্রধান ড্র ম্যাচ এবং ডেভিস কাপ ৩১.২৫%)
শিরোপা0
সর্বোচ্চ র‌্যাঙ্কিং২১৩ নম্বর (২৩ জুলাই ২০০৭)
গ্র্যান্ড স্ল্যাম এককের ফলাফল
অস্ট্রেলিয়ান ওপেনQ2 (২০০৬, ২০০৭, ২০০৮)
ফ্রেঞ্চ ওপেনQ1 (২০০৬)
উইম্বলডনQ2 (২০০৬)
ইউএস ওপেনQ2 (২০০৭)
দ্বৈত
পরিসংখ্যান৩৩১–২৪২ (এটিপি ওয়ার্ল্ড ট্যুর এবং গ্র্যান্ড স্লামের প্রধান ড্র ম্যাচ এবং ডেভিস কাপ ৫৭.৭৭%)[১]
শিরোপা17
সর্বোচ্চ র‌্যাঙ্কিং৩ নম্বর (২২ জুলাই ২০১৩)
বর্তমান র‌্যাঙ্কিং১৯ নম্বর (১৬ এপ্রিল ২০১৮)
গ্র্যান্ড স্ল্যাম দ্বৈতের ফলাফল
অস্ট্রেলিয়ান ওপেন3R (২০০৮, ২০১১, ২০১২, ২০১৪, ২০১৬, ২০১৮)
ফ্রেঞ্চ ওপেনQF (২০১১, ২০১৬)
উইম্বলডনSF (২০১৩, ২০১৫)
ইউএস ওপেনF (২০১০)
অন্যান্য দ্বৈত প্রতিযোগিতা
ট্যুর ফাইনালF (২০১২, ২০১৫)
গ্র্যান্ড স্ল্যাম মিশ্র দ্বৈতের ফলাফল
অস্ট্রেলিয়ান ওপেনF (২০১৮)
ফ্রেঞ্চ ওপেনW (২০১৭)
উইম্বলডনQF (২০১৩, ২০১৭)
ইউএস ওপেনQF (২০১৪, ২০১৬)
সর্বশেষ হালনাগাদ: ১৬ এপ্রিল ২০১৮

রোহন বোপান্না (/bəˈpɑːnə/ bə-PAHN (ইংরেজি: Rohan Bopanna),[২][৩] (জন্মঃ ৪ মার্চ ১৯৮০) একজন ভারতীয় পেশাদার টেনিস খেলোয়াড়। ২০০৭ সালে তার একক ক্যারিয়ারের শীর্ষে র্যাঙ্কিং ছিল বিশ্বের ২১৩ নম্বর এবং ২২ জুলাই ২০১৩ সালে তার দ্বৈত ক্যারিয়ারের উচ্চতম র্যাঙ্কিং ছিল বিশ্বের ৩ নম্বর। সম্প্রতি, পেশাদার প্রতিযোগিতায় তিনি বেশিরভাগই দ্বৈত ম্যাচে খেলেছেন। ২০০২ সাল থেকে তিনি ভারতীয় ডেভিস কাপ দলের সদস্য।[৪] ২০১০ সালে ইউএস ওপেন-এ , তিনি ইসমাম-উল-হক কুরেশির সাথে পুরুষদের দ্বৈত ইভেন্টে দ্বিতীয় স্থান লাভ করেছিলেন।[৫] গ্র্যান্ড স্ল্যামের শিরোপা জেতার জন্য তিনি চতুর্থ ভারতীয় খেলোয়াড় হিসেবে ২০১৭ ফ্রেঞ্চ ওপেন - গ্যাব্রিয়েলা ড্যাব্রোস্কি সাথে মিশ্র দ্বৈতের শিরোপা জিতেছিলেন।

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

বোপান্না ১১ বছর বয়সে টেনিস খেলতে শুরু করেন কারণ তার পিতা চেয়েছিলেন সে কোন একটা পৃথক খেলা যেন শেখে। বোপান্না হকি এবং ফুটবল খেলতে ভালো বাসতেন, কিন্তু ১৯ বছর বয়সে, টেনিস তার প্রিয় খেলা হয়ে ওঠে। তার পিতা এম. জি. বোপান্না একজন কফি প্লানটার এবং তার মা, মালিকা বোপান্না, একজন গৃহিনী ছিলেন। তারা কূর্গে বাস করতেন। তার বড় বোন মুম্বাইয়ে থাকতেন। বোপান্না স্টিফান এডবার্গের দ্বারা ব্যাপকভাবে প্রভাবিত ছিলেন। ২০০২ সালের সেপ্টেম্বর মাসে বোপান্না ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়ারের ডেভিস কাপ ম্যাচে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন।[৬] তিনি বেঙ্গালুরুর, শ্রী ভগবান মহাবীর জৈন কলেজ থেকে তার শিক্ষা সম্পন্ন করেন।[৭] Bengaluru.

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

২০০৭[সম্পাদনা]

২০০৭ সালে, হপমান কাপে, বোপান্না ভারতের প্রথম সেরা দ্বৈত খেলোয়াড় হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন। গ্রুপ-বি তে দ্বিতীয় স্থানে ভারত শেষ করে।

২০০৮[সম্পাদনা]

২০০৮ সালে, লন্ডনে কান্ট্রিওয়িড ক্লাসিক্যালে টুর্নামেন্টে, বোপান্না ও এরিকট বুটোরাকের জুটি পুরুষদের দ্বৈত শিরোপা জিতেছেন।[৮] এটি তার প্রথম এটিপি দ্বৈত শিরোনাম।

২০০৯[সম্পাদনা]

২০০৯ সালে, বোপান্না চেন্নাই ওপেনের জন্য যোগ্যতা অর্জন করলেও প্রথম রাউন্ডে তিনি হেরে যান। ফেব্রুয়ারিতে, তিনি সান জোসে স্যাপ ওপেনের জার্ককো নাইমিইনের সাথে জুটি বেঁধে অংশ নেন।

২০১০[সম্পাদনা]

২০১০ সালে, ইউএস ওপেন, বোপান্না ও কুরেশির জুটি ফাইনালে ৬-৭, ৬-৭ ব্যবধানে পরাজিত হয় বিশ্বের ১ নম্বর এবং শীর্ষ বাছাই ব্রায়ান ভাইদের কাছে। বোপান্না ২০১০ সাল শেষে তার দ্বৈত র্যাঙ্কিং ছিল বিশ্বের ৮ নম্বর।

২০১১[সম্পাদনা]

২০১১ সালে, ফরাসি ওপেনে, বোপান্না ও কুরেশির জুটি কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছায়।[৯] তাদের জুটি গ্যারি ওয়েবার ওপেন জয়ী হয় [১০] এবং ২০১১ সালের ইউএস ওপেনের সেমিফাইনালে ওঠেন।

২০১২[সম্পাদনা]

২০ আগস্ট ২০১২ সালে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে, এপিপি ওয়ার্ল্ড ট্যুর মাস্টার্সের ১০০০ সিনসিনাটির, ফাইনালে রবার্ট লিন্ডস্টেট ও হরিয়া টেকুকে ৪-৬, ৪-৬ ব্যবধানে পরাজিত করে বোপান্না ও মহেশ ভূপতির জুটিকে।[১১] ৪ নভেম্বর ২০১২ সালে, বোপান্না ও মহেশ ভূপতির জুটি প্যারিস মাস্টার কাপ জিতেছিলেন।[১২]

২০১৩[সম্পাদনা]

২২ জুলাই ২০১৩ সালে, বোপান্না তার ক্যারিয়ার সেরা দ্বৈত র্যাংকিং বিশ্বের ৩ নম্বরে পৌঁছান। প্রথমবারের মতো র্যাঙ্কিং টেবিলে সর্বোচ্চ ভারতীয় হিসেবে শীর্ষস্থান লাভ করেন।

২০১৭[সম্পাদনা]

২০১৭ সালে ফরাসি ওপেনে, কানাডিয়ান গ্যাব্রিয়েলা ডাবরোস্কির সাথে বোপান্না মিশ্র দ্বৈতের জুটি শিরোপা জিতে নেন। এটি ছিল বোপান্নার প্রথম গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা, তিনি চতুর্থ ভারতীয় খেলোয়াড় যিনি গ্র্যান্ড স্ল্যামের শিরোপা জয় করএছিলেন।[১৩]

২০১৮[সম্পাদনা]

২০১৮ সালে, অস্ট্রেলিয়ান ওপেন হাঙ্গেরির টিমায় বাবুসের সাথে বোপান্না দ্বিতীয় স্থান অর্জুন করেন। এটা বোপান্নার দ্বিতীয় গ্র্যান্ড স্ল্যাম মিশ্র দ্বৈত ফাইনাল।[১৪]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

২০০৫ সালে কর্ণাটক সরকার তাকে একলব্য পুরস্কার প্রদান করে।[১৫] ২০১৫ সালে রোহন আর কৌরেশী বিখ্যাত আর্থার আসের মানবতার ঐতিহাসিক পুরস্কার [১৬] পান এবং তাদের অনুরাগীদের দ্বারা ভোটে উভয়ই শান্তি ও ক্রীড়া প্রতিযোগিতার ছবির পুরষ্কারও পান।[১৭]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Rohan Bopanna"। ATP World Tour। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-০২ 
  2. Wimbledon (২০১৩-০৭-০৪)। "2013 Day 10 Highlights: Bryan/Bryan v Bopanna/Roger-Vasselin"YouTube। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০১-২৪ 
  3. ATPWorldTour (২০১৬-০৫-০৯)। "Stars Discuss Doubles Hot Topics"YouTube। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০১-২৪ 
  4. "Scorecards - 2010"। Davis Cup। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১১-১২ 
  5. "Year by Year"। US Open। ১৩ নভেম্বর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ নভেম্বর ২০১১ 
  6. "Rohan Bopanna - Overview - ATP World Tour - Tennis" 
  7. University, Jain। "Top and Best University in Bangalore, India - Jain University" 
  8. "Bopanna wins LA Classic doubles"। সংগ্রহের তারিখ ১১ আগস্ট ২০০৮ 
  9. "Bopanna-Qureshi enter French Open quarterfinals"। ৫ নভেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০১১ 
  10. "Bopanna-Qureshi win Gerry Weber Open"। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জুন ২০১১ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  11. "Bhupathi-Bopanna lose in Cincinnati final"। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-২০ 
  12. "Mahesh Bhupathi-Rohan Bopanna win Paris Masters"। ১০ জুলাই ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ নভেম্বর ২০১২ 
  13. "Rohan Bopanna wins French Open mixed doubles title to clinch maiden Grand Slam"। Hindustan Times। ৮ জুন ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  14. "Rohan Bopanna-Timea Babos go down in Australian Open mixed doubles final"। IndianExpress। ২৮ জানুয়ারি ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  15. "Monisha Vinayak enters last eight"The Hindu। Chennai, India। 
  16. "Photos - ATP World Tour - Tennis" 
  17. Rohan Bopanna and Aisam Qureshi Win Peace and Sport Award ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১৩ মার্চ ২০১২ তারিখে, 14 October 2010

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]