রিভেঞ্জ অব দ্য পিঙ্ক প্যান্থার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
রিভেঞ্জ অব দ্য পিঙ্ক প্যান্থার
রিভেঞ্জ অব দ্য পিঙ্ক প্যান্থার চলচ্চিত্রের পোস্টার.jpg
প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির পোস্টার
Revenge of the Pink Panther
পরিচালকব্লেক এডওয়ার্ডস
প্রযোজকব্লেক এডওয়ার্ডস
রচয়িতাব্লেক এডওয়ার্ডস
চিত্রনাট্যকার
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারহেনরি মানচিনি
চিত্রগ্রাহকআর্নেস্ট ডে
সম্পাদকঅ্যালান জোন্স
প্রযোজনা
কোম্পানি
  • সেলার্স-এডওয়ার্ডস প্রোডাকশন্স
  • জুয়েল প্রোডাকশন্স
  • পিমলিকো ফিল্মস
পরিবেশকইউনাইটেড আর্টিস্ট্‌স
মুক্তি
  • ১৩ জুলাই ১৯৭৮ (1978-07-13) (লন্ডন প্রিমিয়ার)
  • ২০ জুলাই ১৯৭৮ (1978-07-20) (মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র)
দৈর্ঘ্য৯৮ মিনিট
দেশযুক্তরাজ্য
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
ভাষাইংরেজ
নির্মাণব্যয়$১২ মিলিয়ন
আয়$৪৯.৫ মিলিয়ন (মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র)[১]

রিভেঞ্জ অব দ্য পিঙ্ক প্যান্থার (ইংরেজি: Revenge of the Pink Panther, অনুবাদ 'পিঙ্ক প্যান্থারের প্রতিশোধ') ব্লেক এডওয়ার্ডস পরিচালিত ১৯৭৮ সালের ব্রিটিশ হাস্যরসাত্মক চলচ্চিত্র। এটি দ্য পিঙ্ক প্যান্থার চলচ্চিত্র ধারাবাহিকের পঞ্চম কিস্তি। এটি ইনস্পেক্টর জাক ক্লুজো চরিত্রে পিটার সেলার্সের অভিনীত শেষ চলচ্চিত্র, যিনি ১৯৮০ সালে মৃত্যুবরণ করেন। এটি ইউনাইটেড আর্টিস্ট্‌সের একক পরিবেশনায় এই ধারাবাহিকের শেষ কিস্তি।

অভিনয়শিল্পীদল[সম্পাদনা]

  • পিটার সেলার্স - ইনস্পেক্টর জাক ক্লুজো
  • ডায়ান ক্যানন - সিমন ল্যগ্রে
  • হের্বের্ত লোম - চিফ ইনস্পেক্টর চার্লস ড্রাইফাস
  • রবার্ট ওয়েবার - ফিলিপ দুভিয়ে
  • বার্ট কোউক - ক্যাটো ফং
  • টনি বেকলি - গাই আলগো
  • রোবের লোগিয়া - আল মার্শিওন
  • পল স্টুয়ার্ট - জুলিও স্কাল্লিনি
  • অঁদ্রে মারান - ফ্রঁসোয়া
  • গ্রাহাম স্টার্ক - প্রফেসর ওগ্যুস্ত বল
  • আলফি ব্যাস - ফের্নেট
  • সু লয়েড - ক্লোদ রুশো
  • ডগলাস উইলমার - পুলিশ কমিশনার
  • ফের্ডি মেইন - ডক্টর পল লাপ্রোন
  • ভ্যালেরি লিওন - তানিয়া
  • এড পার্কার - মিস্টার চং
  • অ্যাড্রিয়েন কোরি - তেরেজ দুভিয়ে
  • হেনরি ম্যাকগি - অফিসার বার্দো
  • অ্যান্ড্রু সাকস - হারকিউল পোয়ারো
  • জুলিয়ান অর্চার্ড - হাসপাতালের কেরানি
  • জন ব্লুথাল - সমাধির দ্বাররক্ষক
  • রিটা ওয়েব - জানালায় দাঁড়ানো নারী
  • রাগবীর স্রান - আরব শেখ

মুক্তি[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্রটির উদ্বোধনী প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয় ১৯৭৮ সালের ১৩ই জুলাই লন্ডনের ওডিয়ন লিস্টার স্কয়ারে এবং পরের দিন জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করা হয়।

১৯৭৮ সালের ১৯শে জুলাই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৩৮৭টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির দেওয়ার পূর্বে নিউ ইয়র্ক সিটির জিগফেল্ড থিয়েটার এবং লস অ্যাঞ্জেলেসের সিনেরামা ডোমে প্রদর্শিত হয়।[২]

মূল্যায়ন[সম্পাদনা]

বক্স অফিস[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্রটি ওডিয়ন লিস্টার স্কয়ারের প্রথম তিন দিনে $৬২,৮১০ আয় করে।[৩] মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মুক্তির পর এটি প্রথম পাঁচ দিনে ৩৮৭টি প্রেক্ষাগৃহ থেকে $৫,২৭৮,৭৮৪ আয় করে এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় ৪৬১ প্রেক্ষাগৃহ থেকে প্রথম ১২ দিনে $১১,০০৪,১২৪ আয় করে।[৪]

সমালোচনামূলক প্রতিক্রিয়া[সম্পাদনা]

ভ্যারাইটি লিখে, "রিভেঞ্জ অব দ্য পিঙ্ক প্যান্থার চলমান এই চলচ্চিত্র ধারাবাহিকের সেরা নয়, কিন্তু ব্লেক এডওয়ার্ডস ও পিটার সেলার্স তাদের দুর্বল দিনেও অধিকাংশ হাস্যরসাত্মক চলচ্চিত্র নির্মাতাদের থেকে এগিয়ে।"[৫] দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস-এর ভিনসেন্ট ক্যানবি লিখেন, "যদি আপনার ক্লুজোর মত অভ্যাস থাকে, আমার মত, তবে মি. এডওয়ার্ডস ও মি. সেলার্স এমন কিছু করতে পারবে না যা চলচ্চিত্রটিকে হতাশ করবে।"[৬] একটি ডিভিডি ও ভিডিও গাইড চলচ্চিত্রটি পাঁচের মধ্যে সাড়ে চার তারকা দেয় এবং চলচ্চিত্রটিকে "তর্কাতীতভাবে সেরা স্ল্যাপস্টিক ধারাবাহিক" বলে উল্লেখ করে।[৭]

পুরস্কার ও মনোনয়ন[সম্পাদনা]

পুরস্কার বিভাগ মনোনীত ফলাফল
ইভনিং স্ট্যান্ডার্ড ব্রিটিশ চলচ্চিত্র পুরস্কার শ্রেষ্ঠ হাস্যরসাত্মক চলচ্চিত্র ব্লেক এডওয়ার্ডস বিজয়ী
গ্র্যামি পুরস্কার চলচ্চিত্র বা টিভি অনুষ্ঠানের জন্য রচিত শ্রেষ্ঠ মৌলিক সুরের অ্যালবাম হেনরি মানচিনি (সুরকার)
লেসলি ব্রিকাস (গীতিকার)
মনোনীত

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Revenge of the Pink Panther, Box Office Information"বক্স অফিস মোজো। সংগ্রহের তারিখ ৩ আগস্ট ২০২১ 
  2. "'Panther' In 387: Already $5,278,784"। ভ্যারাইটি। ২৬ জুলাই ১৯৭৮। পৃষ্ঠা ৫। 
  3. "Revenge Is Sweet (advertisement)"। ভ্যারাইটি। ১৯ জুলাই ১৯৭৮। পৃষ্ঠা ২১। 
  4. "Latest On Panther"। ভ্যারাইটি। ২ আগস্ট ১৯৭৮। পৃষ্ঠা ৬। 
  5. "Revenge of the Pink Panther"ভ্যারাইটি (ইংরেজি ভাষায়)। ১ জানুয়ারি ১৯৭৮। সংগ্রহের তারিখ ৩ আগস্ট ২০২১ 
  6. ক্যানবি, ভিনসেন্ট (১৯ জুলাই ১৯৭৮)। "Pink Panther Tries Revenge in 5th Film:For the Pun of It"দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩ আগস্ট ২০২১ 
  7. মার্টিন, মিক, ও পোর্টার, মার্শা (২০০৬)। DVD & Video Guide 2007। ব্যালান্টাইন বুকস। পৃষ্ঠা ৫৪২।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]