মুহাম্মাদ সালিহ আল মুনাজ্জিদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মুহাম্মাদ সালিহ আল-মুনাজ্জিদ
চিত্র:সালেহ আল-মুনাজ্জিদ.jpg
জন্ম (1960-06-07) ৭ জুন ১৯৬০ (বয়স ৬০)
যুগআধুনিক যুগ
সম্প্রদায়সুন্নি ইসলাম
মাজহাবসালাফি
লক্ষণীয় কাজইসলামকিউএ.ইনফো ফতোয়া ওয়েবসাইটের প্রতিষ্ঠাতা

মুহাম্মাদ সালিহ আল মুনাজ্জিদ (محمد صالح المنجد) (জন্ম : ৭ জুন, ১৯৬০) সৌদি আরবের একজন সালাফি পণ্ডিত, যিনি ইসলামকিউএ.ইনফো ওয়েবসাইট প্রতিষ্ঠার জন্য পরিচিত, যা সালাফি মানহাযের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ প্রশ্নের উত্তর প্রদান করে।[১] আল জাজিরা ইঙ্গিত দেয় যে, আল মুনাজ্জিদকে সালাফি আন্দোলনের একজন সম্মানিত পণ্ডিত বলে মনে করা হয়।[২] ইসলামকিউএ.ইনফো সালাফি দৃষ্টিভঙ্গি সমর্থনকারী সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি ওয়েবসাইট এবং (নভেম্বর ২০১৫ হিসাবে) অ্যালেক্সা.কম অনুযায়ী সাধারণত ইসলামের বিষয় সম্পর্কে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ওয়েবসাইট (ওয়েবসাইট ছাড়াও এটি একটি ইসলামি সংগ্রহশালা)।[৩][৪][৫] সেপ্টেম্বর ২০১৭ এর শেষের দিকে, বিশ্বে মুসলিম নির্যাতনের বিরুদ্ধে কথা বলার কারণে সৌদি সরকার অন্যান্য বিখ্যাত পণ্ডিতদের সাথে আল মুনাজ্জিদকেও গ্রেফতার করেছিল।[৬] ২৫ জানুয়ারি ২০১৯ পর্যন্ত তার মুক্তির সংবাদ পাওয়া যায় নি।[৭]

প্রাথমিক জীবন এবং শিক্ষা[সম্পাদনা]

আল-মুনাজ্জিদ ১৯৬০ সালে সিরিয়ার আলেপ্পোতে ফিলিস্তিনি শরণার্থী[৫] হিসেবে জন্মগ্রহণ করেন[৮] এবং সৌদি আরবে বেড়ে ওঠেন।[৯] তিনি সৌদি আরবের দ্বাহরানে বাদশাহ ফাহাদ বিশ্ববিদ্যালয়ে পেট্রোলিয়াম এবং খনিজ এর সাথে ইন্ডাস্ট্রিয়াল ম্যানেজমেন্টে স্নাতক ডিগ্রী অর্জন করেন।[৮] আল-মুনাজ্জিদ আবদুল আযীয ইবনে আবদুল্লাহ ইবনে বায,[৮][১০] মুহাম্মাদ ইবনে আল উসায়মীন, আবদুল্লাহ ইবনে জিবরীন, সালেহ আল-ফাওজান এবং আবদুর-রহমান আল-বাররাক [৮] প্রমুখ পণ্ডিতদের অধীনে ইসলামিক আইন (শরীয়া) অধ্যয়ন করেন। তিনি সৌদি আরবের আল-খোবার শহরে অবস্থিত উমার ইবনে আবদুল আযীয মসজিদের ইমাম এবং সৌদি আরবে ইসলামের প্রতিনিধিত্বকারী ওয়েবসাইট চালু করা প্রথম ব্যক্তি ছিলেন।[৮]

কার্যক্রম[সম্পাদনা]

শিক্ষকতা[সম্পাদনা]

তিনি অনেক বিষয়ে দারস (শিক্ষা) প্রদান করেন, যেমন:

তিনি প্রতি বুধবার ইসলামী চরিত্রের বক্তৃতা দেন এবং রিয়াদ ও জেদ্দায় মাসিক ক্লাসে পাঠদান করেন।[১১] তিনি আল-কুর'আন আল-কারীম বেতার কেন্দ্রের বায়না আন-নাবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) ওয়া আসহাবিহি নামক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন, যা শনিবার দুপুর ২ টা ৫ মিনিটে সম্প্রচার করা হয় এবং খুতুওয়াত 'আলা তারিক্ব আল-ইসলাহ নামক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন, যা বুধবার দুপুর ১ টায় সম্প্রচার করা হয়, আর পুনঃপ্রচারিত হয় সোমবার সন্ধ্যা ৬ টা ৪৫ মিনিটে।[১১] তিনি কিছু সংখ্যক টিভি অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছেন এবং ভিডিও উপস্থাপনার মাধ্যমে বিভিন্ন পাঠ প্রদান করেন। তিনি ২৩ বছরেরও বেশি সময়ে মোট ৪৫০০ এরও বেশি অডিও ঘণ্টা বক্তব্য প্রদান করেছেন।[১১]

ইসলামকিউএ.ইনফো[সম্পাদনা]

আল-মুনাজ্জিদ ১৯৯৬ সালে প্রশ্ন এবং উত্তরের ইসলামি ওয়েবসাইট ইসলামকিউএ.ইনফো চালু করেন। উক্ত ওয়েবসাইট বিবৃতিতে বলেছে যে, "এই সাইটের তত্ত্বাবধায়ক শায়খ মুহাম্মাদ সালিহ আল-মুনাজ্জিদ কর্তৃক এই সাইটের সকল প্রশ্ন এবং উত্তর প্রস্তুত, অনুমোদন, পর্যালোচনা, সম্পাদনা, সংশোধিত বা সঠিক করা হয়েছে।"[১২] স্বাধীনভাবে ফতোয়া প্রদানের কারণে ইসলামকিউএ.ইনফো সৌদি আরবে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। কেননা সৌদি আরবে ফতোয়া প্রদানের ক্ষমতা একমাত্র দায়িত্বপ্রাপ্ত জ্যেষ্ঠ পণ্ডিতদের নিয়ে গঠিত পরিষদ কর্তৃপক্ষের।[১৩][১৪] ২০১০ সালের আগস্টে রাজকীয় ফরমান জারীর মাধ্যমে ফতোয়া প্রদানের একমাত্র কর্তৃপক্ষ হিসেবে উক্ত পরিষদ নির্বাচিত হয়েছিল। এই পদক্ষেপটি ক্রিস্টোফার বুকেক কর্তৃক বর্ণনা করা হয়েছিল "দেশের উপর ধর্মীয় প্রতিষ্ঠায় কিভাবে রাষ্ট্র প্রাধান্য বিস্তার করতে কাজ করছে তার সর্বশেষ উদাহরণ।"[১৫] মে ২০১৫ পর্যন্ত, টুইটারে তার ৮,২০,০০০ ফলোয়ার ছিল।[১৬] ২০১৮ সালে অ্যালেক্সার তালিকায় ইসলামকিউএ.ইনফো ইসলাম বিষয়ে সর্বাধিক জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ছিল।[১৭]

দর্শন[সম্পাদনা]

সমকামিতা[সম্পাদনা]

আল-মুনাজ্জিদ মনে করেন যে, "সমকামিতা অন্যতম একটি ভয়াবহ অপরাধ, সবচেয়ে খারাপ পাপ ও সবচেয়ে ঘৃণ্যকাজ, এবং যারা এই কাজ করেছে আল্লাহ তাদের এমন শাস্তি দিয়েছেন যা অন্যকোন জাতির বেলায় দেননি।"[১৮][১৯] সমকামীদের হত্যার পদ্ধতি, তাদের ওপর দেয়াল ধসিয়ে হত্যা, মৃত্যু হওয়া পর্যন্ত "সবচেয়ে নোংরা স্থানে" বন্দী রাখা, পাথর নিক্ষেপ, উচুঁ কোন স্থাপনা থেকে নিক্ষেপ করা। যাদের সমকামিতায় জোর করা হয়েছে অথবা যারা অপ্রাপ্তবয়স্ক বয়স্ক তারা এসব শাস্তির আওতার বাইরে থাকবে।[২০]

নারী[সম্পাদনা]

আল-মুনাজ্জিদের বক্তব্য হলো মুসলিম নারীদের উচিৎ তাদের মুখমন্ডলসহ সম্পূর্ণ দেহ (শুধুমাত্র চোখ অনাবৃত রেখে) এবং হাত আবৃত রাখা।[২১] এই বিধান অঞ্চলভেদে সকলের জন্য বাধ্যতামূলক। নারীদের উচিৎ তাদের ঘরে থাকা উচিৎ যদিনা তাদের সঙ্গে একজন মাহরাম থাকেন এবং তাদের জন্য গাড়ী চালানো নিষিদ্ধ, কারণ এটি একা একজন অ-মাহরামের সাথে থাকা, বেপর্দা হওয়া, বেপরওয়াভাবে পুরুষদের সাথে মেলামেশা, এবং হারাম কর্মকান্ডে লিপ্ত হওয়ার মত "ভয়ানক পরিণতির" দিকে নিয়ে যায়, যেজন্য এগুলো নিষিদ্ধ।[২২][২৩]

ভাস্কর্য এবং ছবি[সম্পাদনা]

আল-মুনাজ্জিদ দাবী করেন যেসব ভাস্কর্য ও প্রতিমা লোকজনকে প্ররোচিত বা বিভ্রান্ত করতে পারে, যদিও সেগুলো দালান, মানুষ, পশুপাখী অথবা কোন জড় পদার্থের ভাস্কর্য হয় তাহলে এগুলো ধ্বংস করা বাধ্যতামূলক।[২৪][২৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Richard Gauvain, Salafi Ritual Purity: In the Presence of God, p 355. আইএসবিএন ৯৭৮০৭১০৩১৩৫৬০
  2. Al Jazeera Studies: "Arab World Journalism in a Post-Beheading Era" by Thembisa Fakude ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৩ মার্চ ২০১৯ তারিখে 2013 |"Al-Munajjid is considered one of the respected scholars of the Salafist movement, an Islamic school of thought whose teachings are said to inspire radical movements in the Arab world, including al-Qaeda and a group called al-Dawla al-Islamiya fil Iraq wal Sham (also known as the Islamic State, IS or Daesh)."
  3. http://www.alexa.com/topsites/category/Top/Society/Religion_and_Spirituality/Islam
  4. Gauvain, Richard (নভেম্বর ২০১২)। Salafi Ritual Purity: In the Presence of God। Routledge। পৃষ্ঠা ৩৩৫। আইএসবিএন 978-0710313560...participants generally refer to the established Saudi scholars. In this case, the most common source of reference was Muhammad Salih al-Munajid's well-known website: Islam Question and Answer which provides normative Saudi Arabian Salafi responses. 
  5. Deutsche Welle: "Women in Islam: Behind the veil and in front of it" retrieved September 2, 2016
  6. "Founder of world's most popular Islamic website Sh Munajjid detained in new Saudi arrest spree - Islam21c"Islam21c (ইংরেজি ভাষায়)। ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ৭ মে ২০১৮ 
  7. "Prominent Saudi scholar Sh Muhammad al-Mohaisany released"। Islam21C। ২৫ জানুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২৯ এপ্রিল ২০১৯ 
  8. Islamopedia Scholar Profiles: "Muhammad Saalih al-Munajjid" ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে retrieved January 12, 2015
  9. "Women in Islam: Behind the veil and in front of it" Deutsche Welle. 10.01.2016
  10. Brems, Eva। The Experiences of Face Veil Wearers in Europe and the Law। Cambridge University Press। পৃষ্ঠা ১৪৪। 
  11. Biography of the site's General Supervisor islamqa.info About our site
  12. IslamQA.info website: "Introduction" ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে retrieved September 17, 2016
  13. "Saudi Arabia blocks 'Islam Question and Answer'," Al Arabiya (in Arabic), September 2, 2010
  14. Xinhua: "Saudi blocks scholar website after fatwa control decree: report" September 3, 2010
  15. Christopher Boucek, "Saudi Fatwa Restrictions and the State-Clerical Relationship," Carnegie Endowment for International Peace, October 27, 2010 (accessed November 18, 2013).
  16. Al Bawaba: "Saudi snowman fatwa scholar thaws his stance" January 14, 2015
  17. Alexa website: "Top Sites in: All Categories > Society > Religion and Spirituality > Islam" retrieved July 31, 2015
  18. McCarthy, Andrew C. (আগস্ট ১৪, ২০১৩)। "Obama's Gay-Rights Hypocrisy"National Review 
  19. Nomani, Asra Q.। "Islam must repeal its scarlet-letter sex laws"Washington Post 
  20. IslamQA Fatwa 38622: The punishment for homosexuality retrieved October 17, 2015 | "It was narrated from Abu Bakr al-Siddeeq that he is to be burned and from others that he is to be executed. It was narrated from some of them that a wall is to be knocked down on top of him until he dies beneath it. And it is said that both should be detained in the foulest of places until they die. It was narrated from some of them that he should be taken up to the highest place in the town and thrown down from it, to be followed with stones, as Allaah did to the people of Loot. This was narrated from Ibn 'Abbaas. According to the other report, he is to be stoned. This was the view of the majority of the salaf."'
  21. IslamQA Fatwa 21134 "Do women have to wear niqaab?" retrieved August 1, 2015 | "It is OK to cover the face with the niqaab or burqa' which has two openings for the eyes only, because this was known at the time of the Prophet (peace and blessings of Allaah be upon him), and because of necessity. If nothing but the eyes show, this is fine, especially if this is customarily worn by women in her society."
  22. IslamQA Fatwa 45880 Does the ruling on driving a car vary from one country to another? ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৬ জুন ২০১৫ তারিখে retrieved August 1, 2015 | "Allaah commanded the wives of the Prophet and the believing women to stay in their houses, to observe hijab and to avoid showing their adornments to non-mahrams because of the permissiveness that all these things lead to, which spells doom for society."
  23. Tampa Bay Times Pundifact: "Saudi Arabia is "the only Muslim country out of 47 Muslim-majority countries" where women cannot get licenses to drive" by Jon Greenberg October 7, 2014
  24. Fatwa 20894: Obligation to destroy idols retrieved May 26, 2015 | "This hadeeth indicates that it is prescribed to remove things that may tempt or confuse the people, whether they are buildings, people, animals or inanimate objects"..."They were unanimously agreed that whatever casts a shadow is not allowed and must be changed. Images that cast a shadow are three-dimensional images like these statues"
  25. Financial Times: "Isis are Modern Vandals Smashing Centuries of History" by Gerald Russell March 7, 2015