মুন জে ইন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মুন জে ইন
문재인
Moon Jae-in (2017-10-01) cropped.jpg
দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রপতি
দায়িত্বপ্রাপ্ত
অধিকৃত অফিস
১০ মে ২০১৭
প্রধানমন্ত্রীহোয়াং কিয়ো আন
ইয়ু ইল হো (কর্তব্যরত)
ই নাক ইয়োন
পূর্বসূরীপার্ক গুন হে
হোয়াং কিয়ো আন (কর্মরত)
ডেমোক্রেটিক পার্টি কোরিয়ার নেতা
কাজের মেয়াদ
৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ – ২৭ জানুয়ারি ২০১৬
পূর্বসূরীআন চল সু
কিম হান গিল
উত্তরসূরীকিম চং ইন
সাসাং অঞ্চলের
দক্ষিণ কোরিয়ার জাতীয় পরিষদের সদস্য
কাজের মেয়াদ
৩০ মে ২০১২ – ২৯ মে ২০১৬
পূর্বসূরীচাং হে ইয়ন
উত্তরসূরীচাং জে ইন
রাষ্ট্রপতির প্রধান সেক্রেটারি
কাজের মেয়াদ
১২ মার্চ ২০০৭ – ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০০৮
রাষ্ট্রপতিরো মু হিয়ন
পূর্বসূরীলি বিয়ং ওয়ান
উত্তরসূরীইউ উ ইক
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1953-01-24) ২৪ জানুয়ারি ১৯৫৩ (বয়স ৬৬)
গিজে, দক্ষিণ কোরিয়া
রাজনৈতিক দলডেমোক্রেটিক পার্টি, কোরিয়া
দাম্পত্য সঙ্গীকিম জং সুক (বি. ১৯৮১)
সন্তান
বাসস্থানব্লু হাউজ
প্রাক্তন শিক্ষার্থীকিয়ং হি বিশ্ববিদ্যালয় (এলএলবি)
ধর্মরোমান ক্যাথলিক
স্বাক্ষর
ওয়েবসাইটঅফশিয়াল ওয়েবসাইট
সামরিক পরিষেবা
আনুগত্য দক্ষিণ কোরিয়া
সার্ভিস/শাখা কোরিয়া প্রজাতন্ত্রের সেনাবাহিনী
কার্যকাল১৯৭৫-১৯৭৭
পদROK Army Byeongjang.png দক্ষিণ কোরিয়া আর্মি র্যাংক#২, সারজেন্ট (টেমপ্লেট:বিয়ংজাং)
ইউনিটদক্ষিণ কোরিয়া আর্মি স্পেশাল ওয়ারফেয়ার কমান্ড
মুন জে ইন
হাঙ্গুল
হাঞ্জা
সংশোধিত রোমানীকরণMun Jaein
ম্যাক্কিউন-রাইশাওয়াMun Chaein
আইপিএmun.dʑɛ̝.in

মুন জে ইন (হাঙ্গুল: 문재인; হানজা: 文在寅; কোরীয় উচ্চারণ: [mun.dʑɛ̝.in]; জন্ম ২৪শে জানুয়ারি ১৯৫৩) দক্ষিণ কোরিয়ার বর্তমান রাষ্ট্রপতি হিসেবে নিয়োজিত আছেন।[১][২][৩][৪][৫] ২০১৭ সালে পূর্ববর্তী রাষ্ট্রপতি পার্ক গুন হে'র পতনের পর মুন জে ইন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে জয় লাভ করেন।

মুন জে ইন শিক্ষার্থী থাকাকালীন অবস্থা থেকেই রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। মানবাধিকার বিষয়ক এই আইনজ্ঞ এক সময়ের রাষ্ট্রপতি রো মুন হিয়নের জ্যেষ্ঠ্য কর্মকর্তা হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। [৬] কোরিয়ার মিনজু দলের নেতা হিসেবে (২০১৫-২০১৬) এবং ১৯তম জাতীয় পার্লামেন্টে (২০১২-২০১৬) দায়িত্ব পালন করেছেন। প্রাক্তন গণতান্ত্রিক একতা দলের হয়ে ২০১২ সালের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে তিনি প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি পার্ক গুন হে'র বিরুদ্ধে লড়ে হেরে যান।

প্রাথমিক জীবন, শিক্ষা ও সামরিক প্রশিক্ষণ[সম্পাদনা]

দক্ষিণ কোরিয়ার গজে শহরে কোরীয় যুদ্ধের শেষ বছরে মুন জে ইনের জন্ম। পিতা মুন ইয়ং হিউং এবং মাতা কাং হান ওকের ঘরে পাঁচ সন্তানের মধ্যে মুন জে ইন দ্বিতীয়। মুন জে ইনের পিতা মাতা উত্তর কোরিয়া থেকে পালিয়ে আসা শরণার্থী ছিলেন। 

মুন কিয়ংনাম উচ্চ বিদ্যালয়ের শীর্ষ সারির শিক্ষার্থী ছিলেন।[৭][৮] কিয়ংহি বিশ্ববিদ্যালয়ে পূর্ণবৃত্তি নিয়ে আইন বিষয়ে পড়ার সময় তার বর্তমান স্ত্রী কিম জং সুকের সাথে প্রথম সাক্ষাৎ হয়।[৯] ইউশিন সংবিধানের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন করার দায়ে তাকে গ্রেফতার ও বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা হয়।[১০][১১] পরবর্তীতে, সামরিক বাহিনীতে যোগদানের পর পানমুনজমে এক্স হত্যা ঘটনায় অপারেশন পল বুনইয়ানে তিনি অংশ নেন।[১২][১৩]

সামরিক বাহিনীতে দায়িত্ব পালনের পর বাবার মৃত্যু তাকে বার পরীক্ষার জন্য উদ্বুদ্ধ করে। তিনি দেহুংসাতে বৌদ্ধ মন্দিরে পড়ালেখা করে পরীক্ষা দেন এবং প্রথম দুই রাউন্ডে উত্তীর্ণ হন। এরপর তিনি নিজের বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখা শেষ করতে ফিরে যান। তিনি নিজের ক্লাসে দ্বিতীয় হয়ে স্নাতক উত্তীর্ণ হলেও শিক্ষার্থী থাকা কালীন অবস্থায় তৎকালীন  রাষ্ট্রপতি পার্ক চুন হির বিরুদ্ধে আন্দোলন করায় বিচারক কিংবা সরকারী পদে কোন চাকরি লাভ করতে পারেন নি। [১৪] মুন তখন বেসরকারীভাবে আইনজ্ঞ হিসেবে কাজ শুরু করেন। 

২০১৭ রাষ্ট্রপতি নির্বাচন[সম্পাদনা]

২০১৭ সালের ১৯তম কোরীয় রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে মুন জে ইন শুরু থেকেই এগিয়ে ছিলেন। তিনি নিজের দল ডেমোক্রেটিক পার্টিতে ৫৭% ভোটে মনোনয়ন পান। 

২০১৭ সালের ১০ই মে মুন জে ইনের অভিষেক

২০১৭ সালের ১০ই মে মুন ৪১.১ শতাংশ ভোট পেয়ে জয়যুক্ত হন। [১৫] যেহেতু পূর্ববর্তী রাষ্ট্রপতি অপসারণের পর বিশেষ নির্বাচনে মুন জে ইন নির্বাচিত হয়েছিলেন, তাই তিনি ৬০ দিনের বিশেষ সময় পার না করেই পরের দিনই তিনি রাষ্ট্রপতি হিসেবে অভিসিক্ত হন। 

ধর্ম[সম্পাদনা]

মুন রোমান ক্যাথলিক ধর্মে বিশ্বাসী। [১৬][১৭]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "South Korea's Moon Jae-in sworn in vowing to address North"BBC News (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৫-১০। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৫-১৩ উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ইংরেজি প্যারামিটার ব্যবহার করেছে (link)
  2. CNN, K. J. Kwon, Pamela Boykoff and James Griffiths। "South Korea election: Moon Jae-in declared winner"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৫-১৩ উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ইংরেজি প্যারামিটার ব্যবহার করেছে (link)
  3. "Moon Jae-in: South Korean liberal claims presidency"BBC News (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৫-০৯। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৫-১৩ উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ইংরেজি প্যারামিটার ব্যবহার করেছে (link)
  4. "Moon Jae-in Elected as 19th President...Promises to Undertake Reform and National Reconciliation" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৫-১৩ উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ইংরেজি প্যারামিটার ব্যবহার করেছে (link)
  5. "Moon Jae-in Sworn in as 19th S. Korean President"KBS World Radio উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ইংরেজি প্যারামিটার ব্যবহার করেছে (link)
  6. "Moon Jae-in: Who is South Korea's new president?"BBC News (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৫-০৯। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৫-১৩ উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ইংরেজি প্যারামিটার ব্যবহার করেছে (link)
  7. Jung Min-ho (৯ মে ২০১৭)। "Moon Jae-in: Son of war refugees rises to power [PHOTOS]"Korea Times। সংগ্রহের তারিখ ১০ মে ২০১৭ উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ইংরেজি প্যারামিটার ব্যবহার করেছে (link)
  8. Ahn Hong-wuk (১০ জানুয়ারি ২০১৭)। "[2017 Presidential Dreams] ⑤ Moon Jae-in, Former Leader of the Minjoo Party of Korea, "Aren't There Too Many Moon Supporters to Speak of a Pro-Moon Hegemony?"। The Kyunghyang Shinmun। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০১৭ উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ইংরেজি প্যারামিটার ব্যবহার করেছে (link)
  9. "문재인 : 네이버 통합검색"search.naver.com (কোরীয় ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৪-২৮ 
  10. Jung Min-ho (৯ মে ২০১৭)। "Moon Jae-in: Son of war refugees rises to power"। The Korea Times। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০১৭ উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ইংরেজি প্যারামিটার ব্যবহার করেছে (link)
  11. Park Hong-du (১৭ সেপ্টেম্বর ২০১২)। "Moon Jae-in, the Presidential Candidate of the Democratic United Party"। The Kyunghyang Shinmun। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০১৭ উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ইংরেজি প্যারামিটার ব্যবহার করেছে (link)
  12. The Negotiator: Moon Jae-in, মে ১৫, ২০১৭ উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ইংরেজি প্যারামিটার ব্যবহার করেছে (link)
  13. McCurry, Justin (২০১৭-০৫-০৯)। "Who is Moon Jae-in, South Korea's new president?"The Guardian (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0261-3077। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৭-০৪ উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ইংরেজি প্যারামিটার ব্যবহার করেছে (link)
  14. "대선주자 인물탐구 민주통합당 문재인"। 경남신문। ২০১২-০৮-১৩। উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ইংরেজি প্যারামিটার ব্যবহার করেছে (link)
  15. Kwon, K. J. (২০১৭-০৫-১০)। "South Korea election: Moon Jae-in declared winner"CNN। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৫-১০ উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ইংরেজি প্যারামিটার ব্যবহার করেছে (link)
  16. "South Koreans vote for a new president"Mail Online। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৫-০৯ উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ইংরেজি প্যারামিটার ব্যবহার করেছে (link)
  17. "문재인 - 나무위키"namu.wiki উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ইংরেজি প্যারামিটার ব্যবহার করেছে (link)