মিথুন শর্মা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মিথুন
Mithoon at the 4th Gionnee Star Global Indian Music Academy Awards.jpg
প্রাথমিক তথ্য
জন্ম নামমিথুন শর্মা
আরো যে নামে
পরিচিত
মিথুন
জন্ম (১৯৮৫-০১-১১) ১১ জানুয়ারি ১৯৮৫ (বয়স ৩৩)
মুম্বাই, মহারাষ্ট্র, ভারত
ধরনচলচ্চিত্র
পেশাসুরকার, সংগীত পরিচালক, সংগীত শিল্পী, গীতিকার
বাদ্যযন্ত্রসমূহপিয়ানো এবং কিবোর্ড
কার্যকাল২০০৫-বর্তমান
ওয়েবসাইটmithoon.me

মিথুন শর্মা (জন্ম ১১ জানুয়ারী ১৯৮৫) মিথুন নামেও পরিচিত। তিনি একজন ভারতীয় সুরকার, গায়ক এবং গীতিকার।[১]

মিঠুন ২০১৩ সালের বলিউডের প্রেম ভিত্তিক চলচ্চিত্র আশিকি ২ এর বিখ্যাত হিন্দি গান তুম হি হো সুরস্রষ্টা হিসেবে সর্বাধিক সুপরিচিত। গানটি সমালোচকদের পাশাপাশি শ্রোতাদের দ্বারা প্রশংসিত হয়েছিল এবং কয়েক সপ্তাহ ধরে বিভিন্ন ভারতীয় সংগীত নিয়ে আলোচনাভিত্তিক তালিকার শীর্ষে ছিল। মিঠুন শ্রেষ্ঠ সঙ্গীত পরিচালনার জন্য ফিল্মফেয়ার পুরস্কার পেয়েছেন, এবং ২০১৪ সালে ৫৯ তম ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডস-এর সেরা গীতিকারের জন্য মনোনয়ন পান। তিনি ইউটিউবে সর্বাধিক স্ট্রিমড হিন্দি গান "সানাম রে" লিখেছেন এবং সুর করেছেন। ২০১৬ সালে গ্লোবাল ইন্ডিয়ান মিউজিক অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডস এ "২০১৬ এর সর্বাধিক স্ট্রিমড গানের" স্রষ্টা হিসেবে তিনি পুরস্কার পান।[২]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

মিঠুন সঙ্গীতশিল্পী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।[৩] তাঁর পিতামহ, পণ্ডিত রাম প্রসাদ শর্মা, হাজার হাজার শিক্ষার্থীকে সঙ্গীত জ্ঞান প্রদান করেছেন, যাদের মধ্যে অনেকেই পরবর্তীতে বিখ্যাত সংগীতশিল্পী হন।[৪] তাঁর পিতা, নরেশ শর্মা, বাদ্যযন্ত্র ব্যবস্থার একজন পেশাদার বিশেষজ্ঞ ছিলেন,[৫] প্রায় দুই শতাধিক চলচ্চিত্রের শীর্ষস্থানীয় সুরকারদের সঙ্গে তিনি কাজ করেছেন।[৬]

মিঠুন এগারো বছর বয়সে সঙ্গীত শিখতে শুরু করেন। যেহেতু তার পিতা ব্যস্ত থাকতেন, তাই তিনি তার সন্তানকে প্রশিক্ষিত জ্ঞানী লোকদের কাছে পাঠিয়েছিলেন। তার পিতা তাকে ঘনিষ্ঠভাবে তার গানের চর্চা পর্যবেক্ষণ করতেন এবং প্রায়ই তিনি মিথুনের সৃষ্টি করা সুর শুনতেন।[৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. India today international। Living Media International Ltd.। ২০০৭-০৪-০১। পৃষ্ঠা 47। 
  2. "Gima Awards 2016:'Bajirao Mastani' bags maximum awards; Yo Yo Honey Singh, Sonakshi Sinha, Arijit Singh perform live [PHOTO]"। International Business Times, India Edition। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুন ২০১৭ 
  3. "My music is dedicated to the heart: Mithoon"Indian Express। ১৮ মে ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৬ 
  4. Rao, Varsha (২৮ জুন ২০১৫)। "A Songs of his soul"Deccan Herald। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৬ 
  5. Dedhia, Sonil (২৫ ডিসেম্বর ২০১৫)। "Mithoon: I have always been a musician on my own terms"The Times of India। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৬ 
  6. Gupta, Boski (৯ এপ্রিল ২০১৪)। "The Reluctant Romantic"। Daily News & Analysis। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৬