অজয়-অতুল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
অজয়-অতুল
Ajay-Atul 1.jpg
অজয়-অতুল
প্রাথমিক তথ্য
আরো যে নামে
পরিচিত
অজয় অতুল
জন্মঅজয়: (1976-08-21) ২১ আগস্ট ১৯৭৬ (বয়স ৪৩)
অতুল: (1974-09-11) ১১ সেপ্টেম্বর ১৯৭৪ (বয়স ৪৫)
পুনে, মহারাষ্ট্র, ভারত
ধরনভারতীয় লোকসঙ্গীত, চলচ্চিত্রের সঙ্গীত, শাস্ত্রীয়, অর্ধ-শাস্ত্রীয়
পেশাসঙ্গীত পরিচালক, সুরকার, নেপথ্য সঙ্গীতশিল্পী
কার্যকাল২০০০-বর্তমান
সহযোগী শিল্পীঅজয় অতুল প্রডাকশন্স
ওয়েবসাইটajayatul.com

অজয়-অতুল হলেন ভারতীয় সঙ্গীত পরিচালক যুগল। তারা দুইভাই অজয় গোগাভালে (জন্ম ২১ আগস্ট ১৯৭৬) ও অতুল গোগাভালে (১১ সেপ্টেম্বর ১৯৭৪)।[১] ২০০৮ সালে অজয়-অতুল মারাঠি চলচ্চিত্র জোগওয়া-এর সঙ্গীতের জন্য শ্রেষ্ঠ সঙ্গীত পরিচালনা বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার (ভারত) অর্জন করেন।[২] ২০১৫ সালে ফোর্বস ইন্ডিয়ার তারকা ১০০ তালিকায় তাদের অবস্থান ছিল ৮২।[৩][৪] তারা প্রথম ভারতীয় সঙ্গীত পরিচালক যারা সৈরাট চলচ্চিত্রের জন্য হলিউডের সনি স্কোরিং স্টুডিওজে তাদের সঙ্গীতের রেকর্ড করেন।

তারা একাধিক উল্লেখযোগ্য হিন্দি চলচ্চিত্রের গানের সুর করেছেন, তন্মধ্যে রয়েছে সিংঘাম (২০১১), অগ্নিপথ (২০১২), পিকে (২০১৪) ও ব্রাদার্স (২০১৫)। এছাড়া তাদের সুরারোপিত উল্লেখযোগ্য মারাঠি চলচ্চিত্র হল নটরং (২০১০), ফান্ড্রি (২০১৩), লাই ভারি, ও সৈরাট (২০১৬)। তারা রণবীর কাপুর অভিনীত শমশেরা, অমিতাভ বচ্চন অভিনীত ঝুন্দসুজিত সরকার পরিচালিত সরদার উদম সিং এবং নাগরাজ মঞ্জুলের বহুল প্রত্যাশিত ছত্রপতি শিবাজি মহারাজ মহাগাথা ত্রয়ীতে কাজ করছেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

অতুল গোগাভালে ১৯৭৪ সালের ১১ই সেপ্টেম্বর এবং অজয় গোগাভালে ১৯৭৬ সালের ২১শে আগস্ট জন্মগ্রহণ করেন। তাদের পিতা অশোক গোগাভালে পুনের আলন্দির কর বিভাগের কর্মকর্তা। তারা দুজনেই মহারাষ্ট্র রাজ্যের পুনে শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তাদের পিতার বদলির চাকরির কারণে পুনেসহ মহারাষ্ট্রের কয়েকটি ছোট গ্রামে তথা জুন্নর ও শিরুরে তাদের শৈশব কাটে।

শৈশবে পড়াশোনাতে তাদের বিশেষ মনযোগ ছিল না। কিন্তু বিদ্যালয়ে থাকা অবস্থাতেই সঙ্গীতের প্রতি তাদের আগ্রহ জন্মে। এই সময়ে তারা সঙ্গীত নিয়ে বিভিন্ন নিরীক্ষা শুরু করেন। এক এনসিসি প্রতিযোগিতায় অজয় একটি বিদ্যমান সুর ভিন্নভাবে পরিবেশন করেন এবং তারা তাদের নিরীক্ষার জন্য পুরস্কৃত হন। এই সাফল্য তাদের সঙ্গীত জগতে আরও সম্ভাবনার দ্বার উন্মুক্ত করে দেয়।[৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Dancing to Award winning tunes"দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া। ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০২০ 
  2. "56वें राष्ट्रीय फिल्म पुरस्कार घोषित" (হিন্দি ভাষায়)। হিন্দি নিউজ। ২৪ জানুয়ারি ২০১০। ৩১ জানুয়ারি ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০২০ 
  3. "Ajay-Atul"। ১৫ ডিসেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০২০ 
  4. "अजय-अतुलला मानाचं पान; 'फोर्ब्स'च्या यादीत स्थान"মহারাষ্ট্র টাইমস (মারাঠি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০২০ 
  5. মালভাদে, সম্পদ। "Maayboli" (মারাঠি ভাষায়)। মায়বলি। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০২০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]