মালয়ী বনরুই

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

মালয়ী বনরুই
Sunda pangolin
Pangolin borneo.jpg
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Animalia
পর্ব: কর্ডাটা
শ্রেণী: Mammalia
বর্গ: Pholidota
পরিবার: Manidae
গণ: Manis
প্রজাতি: M. javanica
দ্বিপদী নাম
Manis javanica
Desmarest, 1822
Sunda Pangolin area.png
Sunda pangolin range

মালয়ী বনরুই বা মালয়ী পিপড়াভুক[২] বা মালয়ান বনরুই[৩] (ইংরেজি: Sunda pangolin) (বৈজ্ঞানিক নাম:Manis javanica) হচ্ছে Manidae পরিবারের Manis গণের একটি স্তন্যপায়ী প্রাণী।[২]

বাংলাদেশের ২০১২ সালের বন্যপ্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইনের রক্ষিত বন্যপ্রাণীর তালিকার তফসিল-১ অনুযায়ী এ প্রজাতিটি সংরক্ষিত।[৩]

বর্ণনা[সম্পাদনা]

মালয়ী বনরুই-এর লোম আঁইশ থেকে উদ্ভুত। এদের মাথা ছোট চোঙাকার ও চোখ ছোট। চোখ মোটা চোখের পাতা দ্বারা রক্ষিত। প্রাপ্তবয়স্ক এই প্রজাতির বনরুইয়ের মাথাসহ দেহের দৈর্ঘ্য ৫০-৬০ সেমি এবং লেজ ৫০-৮০ সেমি। লেজসহকারে আঁইশ দৈর্ঘ্যে ৭৯-৮৮ সেমি। আদর্শগতভাবে পুরুষ বনরুই আকারে স্ত্রীর চেয়ে বড়।[২]

বিস্তৃতি[সম্পাদনা]

মালয়ী বনরুই বাংলাদেশ[২] ছাড়াও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া তথা থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া (জাভা, সুমাত্রা, বোর্নিও, এবং সুন্দা দ্বীপপুঞ্জ), ভিয়েতনাম, লাওস, কম্বোডিয়া, মালয়েশিয়া, এবং সিংগাপুরে পাওয়া যায়।।[১]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Challender, D., Nguyen Van, T., Shepherd, C., Krishnasamy, K., Wang, A., Lee, B., Panjang, E., Fletcher, L., Heng, S., Seah Han Ming, J., Olsson, A., Nguyen The Truong, A., Nguyen Van, Q. & Chung, Y. (২০১৪)। "Manis javanica"বিপদগ্রস্ত প্রজাতির আইইউসিএন লাল তালিকা। সংস্করণ 2014.2প্রকৃতি সংরক্ষণের জন্য আন্তর্জাতিক ইউনিয়ন। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৭-২৯ 
  2. জিয়া উদ্দিন আহমেদ (সম্পা.), বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ: স্তন্যপায়ী, খণ্ড: ২৭ (ঢাকা: বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি, ২০০৯), পৃ. ১০৭-১০৮।
  3. বাংলাদেশ গেজেট, অতিরিক্ত, জুলাই ১০, ২০১২, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার, পৃষ্ঠা-১১৮৪৯৫