মার্স ২০২০

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মার্স ২০২০
Perseverance Landing Skycrane.jpg
অবতরণের সময় উৎস থেকে পরিভ্রামক যান পার্সিভিয়ারেন্স-এর ছবি
পরিচালক
অভিযানের সময়কাল
  • ৪৬৬দি ৬ঘ ১৬মি, অতিবাহিত
  • ১ মঙ্গল বছর (৬৬৮ সূর্য, ৬৮৭ পৃথিবী দিন), পরিকল্পনা করা হয়েছে
মহাকাশযানের বৈশিষ্ট্য
মহাকাশযান
অভিযানের শুরু
উৎক্ষেপণ তারিখ৩০ জুলাই ২০২০ সাল, ১১:৫০ ইউটিসি
উৎক্ষেপণ রকেটঅ্যাটলাস ভি ৫৪১ (এভি-০৮৮))
উৎক্ষেপণ স্থানকেপ ক্যানাভেরাল, এসএলসি-১১
ঠিকাদারইউনাইটেড লঞ্চ অ্যালায়েন্স
Invalid value for parameter "type"
Invalid parameter১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১
"location" should not be set for flyby missionsজেজেরো গহ্বর
Mars 2020 NASA insignia.svg Mars 2020 JPL second insignia.svg
নাসা (বাম) এবং জেপিএল (ডান) স্বাক্ষরযুক্ত
মঙ্গল অন্বেষণ কার্যক্রম
← মঙ্গল বিজ্ঞান পরীক্ষাগার

মার্স ২০২০ নাসার মঙ্গল অন্বেষণ কার্যক্রমের একটি মঙ্গল রোভার অভিযান, যার মধ্যে রয়েছে পার্সিভিয়ারেন্স রোভার এবং ইনজেনুয়িটি হেলিকপ্টার ড্রোন। [১] এটি ৩০ জুলাই ২০২০ সালে, ১১:৫০ ইউটিসি-তে উৎক্ষেপিত হয়[২] এবং ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১ সালে মঙ্গল গ্রহে জিজেরো গহ্বরের ভূমিতে অবতরণ করবে।[৩][৪]

পার্সিভিয়ারেন্স মঙ্গল গ্রহের জ্যোতির্জীববিজ্ঞান সংক্রান্ত প্রাসঙ্গিক প্রাচীন পরিবেশটি তদন্ত করবে এবং এর অতীতের আবাসস্থলতা, অতীতে মঙ্গল গ্রহে জীবনের সম্ভাবনা ও প্রবেশযোগ্য ভূতাত্ত্বিক পদার্থের মধ্যে বায়োস্বাক্ষর সংরক্ষণের সম্ভাবনা সহ এর ভূ-পৃষ্ঠের ভূতাত্ত্বিক প্রক্রিয়া ও ইতিহাস অনুসন্ধান করবে।[৫][৬] এটি তার রুট বরাবর নমুনা পাত্রে নমুনা জমা করবে সম্ভাব্য ভবিষ্যতের মঙ্গল নমুনা-প্রত্যাবর্তন অভিযান দ্বারা নমুনা পুনরুদ্ধারের জন্য।[১][৬][৭][৮] ২০১২ সালের ৪ ডিসেম্বর সান ফ্রান্সিসকোয় মার্কিন জিওফিজিকাল ইউনিয়নের সভায় নাসা দ্বারা মার্স ২০২০ অভিযানের ঘোষণা করা হয়।[৯] পার্সিভিয়ারেন্স রোভারের নকশাটি কিউরিওসিটি রোভার থেকে উদ্ভূত এবং ইতিমধ্যে ফ্যাব্রিকেটেড এবং পরীক্ষিত প্রচুর উপাদান ব্যবহার করবে, নতুন বৈজ্ঞানিক যন্ত্র এবং একটি কোর ড্রিল[১০]

২০২০ সালের জুলাই মাসে মঙ্গল গ্রহে উৎক্ষেপণের সর্বানুকূল সময়কালে সংযুক্ত আরব আমিরাতের জাতীয় মহাকাশ সংস্থা প্রেরিত (হোপ অরবিটার) এবং চীনের প্রেরিত (থিয়েনওয়েন-১, একটি আবর্তক, অবতরক এবং পরিভ্রামক যানসহ) অভিযানগুলির সাথে তিনটি মহাকাশ অভিযানের মধ্যে তৃতীয়টি হল মার্স ২০২০।[১]

উদ্দেশ্য[সম্পাদনা]

নমুনা টিউবগুলি পার্সিভিয়ারেন্স পরিভ্রামক যানে বোঝাই করা হচ্ছে। ২০২০ সালের জুলাই মাসে পৃথিবী থেকে উৎক্ষেপিত হওয়া এই টিউবসমূহ মঙ্গল পৌঁছানোর পরে ফিরে আসা প্রথম সরঞ্জামে পরিণত হতে পারে, যদি সময়সূচী অনুযায়ী ২০৩১ সালে পৃথিবীতে টিউবসমূহ ফিরে আসে।

অভিযানটি প্রাচীন অতীতে মঙ্গল গ্রহে আবাসযোগ্য অবস্থার লক্ষণ সন্ধান করবে এবং অতীতের মাইক্রোবিয়াল (অনুজীবন) ও জলের প্রমাণ - বা জৈবিক স্বাক্ষরগুলিও অনুসন্ধান করবে। এটি ২০২০ সালের ৩০ জুলাই এ্যাটলাস ভি-৫৪১[৯] দ্বারা উৎক্ষেপিত হয় এবং জেট প্রোপালশন ল্যাবরেটরি অভিযানটি পরিচালনা করে। অভিযানটি নাসার মঙ্গল অন্বেষণ কর্মসূচীর একটি অংশ।[৭][১১][১২][১৩] বিজ্ঞান সংজ্ঞা দল প্রস্তাব করে যে রোভার রক কোর ও উপরিভাগের মাটির ৩১ টির মতো নমুনা সংগ্রহ এবং প্যাকেজ করবে, পরবর্তী অভিযানে নমুনাসমূহ নির্দিষ্ট বিশ্লেষণের জন্যের পৃথিবীতে প্রেরণ করা হবে।[১৪] তারা ধারণাটি ২০১৫ সালে প্রসারিত করে, আরও বেশি নমুনা সংগ্রহ করা ও মঙ্গল গ্রহের উপরিভাগ জুড়ে ছোট ছোট ঢিবি বা ক্যাশে নলসমূহ বিতরণ করার পরিকল্পনা করে।[১৫]

নাসা ২০১৩ সালের সেপ্টেম্বর মাস নমুনা সংগ্রহ ব্যবস্থা সহ প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতির প্রস্তাব ও উন্নয়নের জন্য গবেষকদের জন্য সুযোগের ঘোষণা ঘোষণা করে।[১৬][১৭] অভিযানের জন্য বৈজ্ঞানিক যন্ত্রসমূহ এক বছর আগে নির্ধারিত বৈজ্ঞানিক উদ্দেশ্যসমূহের ভিত্তিতে একটি উন্মুক্ত প্রতিযোগিতার পরে ২০১৪ সালের জুলাইয়ে নির্বাচন করা হয়।[১৮][১৯] পরিভ্রামক যানের যন্ত্রসমূহ দ্বারা বৈজ্ঞানিক পরিচালিত প্রত্যাবর্তিত নমুনার বিশদ বিশ্লেষণের জন্য প্রয়োজনীয় অনুষঙ্গ সরবরাহ করবে।[২০] বিজ্ঞান সংজ্ঞা দলের চেয়ারম্যান বলেন যে নাসার ধারণা করে না যে মঙ্গল গ্রহে জীবন কখনও ছিল না, তবে সাম্প্রতিক কিউরিওসিটি পরিভ্রামক যানের অনুসন্ধানে অতীতে মঙ্গল গ্রহের জীবনের অস্তিত্বের সম্ভাবনা লক্ষণ দেখা গিয়েছে বলে মনে হয়।[২০]

Picture of the Perseverance Rover at JPL
ক্যালিফোর্নিয়ার পাসাদেনার নিকট জেট প্রপালশন ল্যাবরেটরিতে পার্সিভিয়ারেন্সের

পার্সিভিয়ারেন্স পরিভ্রামক যান এমন কোনও স্থান অন্বেষণ করবে, যা অতীতে সম্ভবত বাসযোগ্য ছিল। এটি অতীত জীবনের লক্ষণসমূহ সন্ধান করবে, সর্বাধিক জোরালো শিলা মূল ও মাটির নমুনাসমূহ সহ একটি ফেরতযোগ্য ক্যাশে রাখবে এবং ভবিষ্যতে মঙ্গল গ্রহের মানব ও রোবোটিক অনুসন্ধানের জন্য প্রয়োজনীয় প্রযুক্তি প্রদর্শন করবে। মূল অভিযানটি নাসাকে তার দীর্ঘমেয়াদী মঙ্গল গ্রহের নমুনা-প্রত্যাবর্তন অভিযানমানব অভিযানের প্রচেষ্টার জন্য প্রস্তুত করতে সহায়তা করবে।[৬][৭][৮] পরিভ্রামক যান ভবিষ্যতের মানব অভিযানের নকশাকারীদের মঙ্গলের ধূলিকণা দ্বারা সৃষ্ট যে কোনও বিপদ বুঝতে সহায়তা করবে এবং মঙ্গলের বায়ুমণ্ডলীয় কার্বন ডাই অক্সাইড (সিও২) থেকে অল্প পরিমাণে খাঁটি অক্সিজেন (ও২) উৎপাদন করার জন্য প্রয়োজনীয় প্রযুক্তিটি পরীক্ষা করবে।[২১]

মহাকাশযান[সম্পাদনা]

পার্সিভিয়ারেন্স পরিভ্রামক যান[সম্পাদনা]

মার্স ২০২০-এর মহাকাশযান
পার্সিভিয়ারেন্সের মঙ্গলের ভূমি-পৃষ্ঠ জুড়ে সাতটি বৈজ্ঞানিক যন্ত্র বহন করবে।
ইনজেনুইটি অন্য গ্রহের পাতলা বায়ুমণ্ডলীয় পরিবেশে প্রথম যান্ত্রিক শক্তিসম্পন্ন উড়ানটি পরীক্ষা করবে।
নিয়ন্ত্রিত গতি পর্যায় ও ইডিএলএস উভয়ই মহাকাশযানকে মঙ্গল গ্রহে নিয়ে গিয়েছিল।

পার্সিভিয়ারেন্সের নকশাটি তার পূর্বসূরী কিউরিওসিটি পরিভ্রামক যানের থেকে বিকশিত হয়। দুটি রোভার একই রকমের শারীরিক পরিকল্পনা, অবতরণ ব্যবস্থা, নিয়ন্ত্রিত গতিতে চলা (ক্রুজ) পর্যায় ও শক্তি ব্যবস্থা ভাগ করে নেয়, তবে পার্সিভিয়ারেন্সের জন্য নকশাটি বেশ কয়েকটি উপায়ে উন্নত করা হয়। প্রকৌশলীরা পরিভ্রামক যানের চাকাসমূহ কিউরিওসিটির চাকার চেয়ে আরও শক্তিশালী করার জন্য নকশা করেছিলেন, যা কিছুটা ক্ষতি সহ্য করেছিল।[২২] কিউরিওসিটির ৫০ সেন্টিমিটার (২০ ইঞ্চি) চাকার বিপরীতে পার্সিভিয়ারেন্সের ৫২.৫ সেন্টিমিটারের (২০.৭ ইঞ্চি) স্বল্প প্রস্থ ও বৃহত্তর ব্যাস সহ মোটা, আরও টেকসই অ্যালুমিনিয়াম চাকা রয়েছে।[২৩][২৪] অ্যালুমিনিয়াম চাকাসমূহের ট্র্যাকশনের জন্য ক্লিট ও স্প্রিংইয়ের সমর্থনের জন্য বাঁকানো টাইটানিয়াম স্পোক দিয়ে আচ্ছাদিত।[২৫]

মঙ্গল হেলিকপ্টার[সম্পাদনা]

ইনজেনুইটি একটি রোবোটিক হেলিকপ্টার, যা মঙ্গল গ্রহের অত্যন্ত পাতলা বায়ুমণ্ডলে রটারক্রাফট উড়ানের জন্য প্রয়োজনীয় প্রযুক্তিটি প্রদর্শন করবে।[২৬] উড়োজাহাজটি পরিভ্রামক যানের ডেক থেকে মোতায়েন করা হবে এবং মিশনের প্রথম দিকে ৩০ দিনের পরীক্ষামূলক অভিযানের সময় পাঁচবার উড়বে বলে আশা করা হচ্ছে।[২৭] প্রতিটি উড়ানে মাটি থেকে ৩ থেকে ৫ মিটার (১০ থেকে ১৬ ফুট) পর্যন্ত উচ্চতাতে ৯০ সেকেন্ডের বেশি সময় উড্ডয়ন করবে, তবে এটি প্রতিটি উড়ানে প্রায় ৫০ মিটার (১৬০ ফুট) দৈর্ঘ্যের সর্বোচ্চ দূরত্ব অতিক্রম করতে পারবে।[২৬] এটি স্বায়ত্তশাসিত নিয়ন্ত্রণ ব্যবহার করবে এবং প্রতিটি অবতরণের পরে সরাসরি পার্সিভিয়ারেন্সের সাথে যোগাযোগ করবে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "লালগ্রহে উড়বে কপ্টার, মাটিতে ছ'চাকার যান, পাড়ি দিল পার্সিভিয়ারেন্স"। আনন্দবাজার পত্রিকা। ৩১ জুলাই ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জুলাই ২০২০ 
  2. "SciGuySpace/status/1278067392703336448"। ArsTechnica। ৩০ জুন ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুন ২০২০ 
  3. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; NYT-20181119 নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  4. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; SPC-20181119 নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  5. Chang, Alicia (৯ জুলাই ২০১৩)। "Panel: Next Mars rover should gather rocks, soil"Associated Press। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৩ 
  6. Schulte, Mitch (২০ ডিসেম্বর ২০১২)। "Call for Letters of Application for Membership on the Science Definition Team for the 2020 Mars Science Rover" (PDF)। NASA। NNH13ZDA003L।  এই উৎস থেকে এই নিবন্ধে লেখা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, যা পাবলিক ডোমেইনে রয়েছে।
  7. "Summary of the Final Report" (PDF)। NASA / Mars Program Planning Group। ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১২।  এই উৎস থেকে এই নিবন্ধে লেখা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, যা পাবলিক ডোমেইনে রয়েছে।
  8. Moskowitz, Clara (৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৩)। "Scientists Offer Wary Support for NASA's New Mars Rover"। SPACE.com। সংগ্রহের তারিখ ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  9. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; CNET Harwood first নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  10. Amos, Jonathan (৪ ডিসেম্বর ২০১২)। "Nasa to send new rover to Mars in 2020"BBC News। সংগ্রহের তারিখ ৫ ডিসেম্বর ২০১২ 
  11. Mann, Adam (৪ ডিসেম্বর ২০১২)। "NASA Announces New Twin Rover for Curiosity Launching to Mars in 2020"Wired। সংগ্রহের তারিখ ৫ ডিসেম্বর ২০১২ 
  12. "Program And Missions – 2020 Mission Plans"। NASA। ২০১৫।  এই উৎস থেকে এই নিবন্ধে লেখা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, যা পাবলিক ডোমেইনে রয়েছে।
  13. Leone, Dan (৩ অক্টোবর ২০১২)। "Mars Planning Group Endorses Sample Return"। SpaceNews। 
  14. Greicius, Tony (২০১৫-০৩-০২)। "Science Team Outlines Goals for NASA's 2020 Mars Rover"। NASA। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০২-১৯  এই উৎস থেকে এই নিবন্ধে লেখা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, যা পাবলিক ডোমেইনে রয়েছে।
  15. Davis, Jason (২৮ আগস্ট ২০১৭)। "NASA considers kicking Mars sample return into high gear"। The Planetary Society। 
  16. "Announcement of Opportunity: Mars 2020 Investigations" (PDF)। NASA। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মে ২০১৪  এই উৎস থেকে এই নিবন্ধে লেখা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, যা পাবলিক ডোমেইনে রয়েছে।
  17. "Mars 2020 Mission: Instruments"। NASA। ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মে ২০১৪  এই উৎস থেকে এই নিবন্ধে লেখা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, যা পাবলিক ডোমেইনে রয়েছে।
  18. Brown, Dwayne (৩১ জুলাই ২০১৪)। "RELEASE 14-208 – NASA Announces Mars 2020 Rover Payload to Explore the Red Planet as Never Before"। NASA। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জুলাই ২০১৪  এই উৎস থেকে এই নিবন্ধে লেখা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, যা পাবলিক ডোমেইনে রয়েছে।
  19. "Objectives – 2020 Mission Plans"mars.nasa.gov। সংগ্রহের তারিখ ৪ ডিসেম্বর ২০১৫  এই উৎস থেকে এই নিবন্ধে লেখা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, যা পাবলিক ডোমেইনে রয়েছে।
  20. "Science Team Outlines Goals for NASA's 2020 Mars Rover"Jet Propulsion Laboratory। NASA। ৯ জুলাই ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুলাই ২০১৩  এই উৎস থেকে এই নিবন্ধে লেখা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, যা পাবলিক ডোমেইনে রয়েছে।
  21. Klotz, Irene (২১ নভেম্বর ২০১৩)। "Mars 2020 Rover To Include Test Device To Tap Planet's Atmosphere for Oxygen"। SpaceNews। সংগ্রহের তারিখ ২৯ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  22. Lakdawalla, Emily (১৯ আগস্ট ২০১৪)। "Curiosity wheel damage: The problem and solutions"planetary.org। The Planetary Society। সংগ্রহের তারিখ ২২ আগস্ট ২০১৪ 
  23. Wehner, Mike। "NASA's Perseverance rover got some sweet new wheels"BGR। সংগ্রহের তারিখ ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  24. "Mars 2020 – Body: New Wheels for Mars 2020"। NASA/JPL। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুলাই ২০১৮  এই উৎস থেকে এই নিবন্ধে লেখা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, যা পাবলিক ডোমেইনে রয়েছে।
  25. "Mars 2020 Rover – Wheels"। NASA। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৮  এই উৎস থেকে এই নিবন্ধে লেখা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, যা পাবলিক ডোমেইনে রয়েছে।
  26. "Ingenuity Mars Helicopter Landing Press Kit" (PDF)। NASA। জানুয়ারি ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১  এই উৎস থেকে এই নিবন্ধে লেখা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, যা পাবলিক ডোমেইনে রয়েছে।
  27. Decision expected soon on adding helicopter to Mars 2020, Jeff Fout, SpaceNews, 4 May 2018

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]