মমিনা মুস্তাহসান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মমিনা মুস্তাহসান
স্থানীয় নামمومنہ مستحسن
জন্ম নামমমিনা মুস্তাহসান
জন্ম (1992-09-05) ৫ সেপ্টেম্বর ১৯৯২ (বয়স ২৮)[১]
লাহোর, পাকিস্তান
উদ্ভবনিউ ইয়র্ক সিটি, নিউ ইয়র্ক, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
কার্যকাল২০১০–বর্তমান

মমিনা মুস্তাহসান (জন্ম: ৫ সেপ্টেম্বর, ১৯৯২)[২] হচ্ছেন একজন পাকিস্তানি গায়ক-গীতিকার। তিনি ফারহান সাঈদের একক "পি জুন"[৩]-এ কাজ করার পর একজন সহ-গায়ক এবং লেখক হিসেবে নিজেকে শীর্ষস্থানে উন্নীত করেন। পরবর্তীতে তিনি জুনুনের অ্যালবাম জুনুন ২০-এর জন্য তার প্রথম স্টুডিও গান "সাজনা" রেকর্ড করেন।[৪]

মমিনা মুস্তাহসান ২০১৬ সালে কোক স্টুডিওর পাকিস্তানের সংস্করণের ৯ম আসরে একজন বৈশিষ্ট্যযুক্ত শিল্পী হিসাবে তার অভিষেক করেন।[৫] তিনি সেখানে নুসরাত ফাতেহ আলী খানের "আফরিন আফরিন" গানটি রাহাত ফাতেহ আলী খানের সাথে গেয়েছেন।[৬][৭] তার আত্মপ্রকাশের পর, তিনি পাকিস্তানে সবচেয়ে বেশি অন্বেষিত মিডিয়া ব্যক্তিত্বের মধ্যে একজন হয়ে যান[৩][৮] এবং উক্ত গানটি কোক স্টুডিওর ইতিহাসে সর্বাধিক দেখা গানগুলোর মধ্যে অন্যতম হয়ে ওঠে।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

মমিনা মুস্তাহসানের মা হুমা মুস্তাহসান হচ্ছেন একজন ডাক্তার, এবং তার বাবা কাজিম মুস্তাহসান হচ্ছেন একজন অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার এবং পাকিস্তান সেনাবাহিনী থেকে সিতারা-ই-ইমতিয়াজ প্রাপ্ত একজন ব্যক্তি। তারা নিউ ইয়র্কের নাসাউ কাউন্টিতে বসবাস করেন।[৫]

মমিনা মুস্তাহসান লাহোর গ্রামার স্কুল ১-এ/১ থেকে তার এ লেভেল সম্পন্ন করেন, এবং পরে উচ্চতর গবেষণার জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাজ্যে স্থানান্তরিত হন এবং ২০১৬ সালে নিউ ইয়র্ক স্টোনি ব্রুক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বায়োমেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ফলিত গণিত বিভাগে ডাবল মেজর ডিগ্রী সঙ্গে স্নাতক সম্পন্ন করেন।[১] তার স্নাতকের সময়, তার নাম ডিনের তালিকায় উল্লেখ ছিল।

তিনি প্রথমবার কোনো আনুষ্ঠানিক সঙ্গীত প্রশিক্ষণ ব্যতীত, তার স্কুলের একটি গায়কদল মধ্যে প্রথমবারের জন্য ভায়োলিন বাজাতে শিখেছিলেন।[১] মমিনা মুস্তাহসান বলেছিলেন যে, তার শিক্ষক তাকে জিজ্ঞাসা করেছিল যে যদি তোমাকে এখন কিছু করে দেখাতে হয় তবে তুমি কি করবে, তিনি তখন বলেছিলেন, "আমি মনে করি আমি ভাল গান গাইতে পারি"। তিনি আরও বলেছিলেন যে তিনি যখন প্রথমবারের জন্য গান গেয়েছিলেন তখন তিনি সঙ্গীতের প্রতি আগ্রহ অনুভব করেছিলেন।[৫]

২০০৪ সালে গানের সাথে তার প্রথম সাক্ষাৎকার ঘটে, যখন তিনি আইরিশ গায়ক ড্যামিয়েন রাইসের "দ্য ব্লোয়ার্স ডটার" গানটির প্রথম কভারটি রেকর্ড করেন। সঙ্গীত প্রশিক্ষণের কোন ব্যাকগ্রাউন্ড না থাকার সত্ত্বেও তিনি সেই সময় অনেক প্রশংসা কুড়িয়েছিলেন।[১]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে, মমিনা মুস্তাহসান টুইটারে এক টুইট বার্তায় আলি নাকভি, ক্যালিফোর্নিয়া ভিত্তিক একজন মার্কিন ব্যাংকারের সাথে বাগদানের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।[৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Nida Raza (১৯ জুলাই ২০১৬)। "Momina Mustehsan"The News। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুলাই ২০১৬ 
  2. Iman Zia (৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭)। "So Basically, Momina Mustehsan Just Celebrated Her 10th Birthday"। MangoBaaz। সংগ্রহের তারিখ ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  3. Talha Ahmed (২৩ আগস্ট ২০১৬)। "Momina Mustehsan might completely transform the idea of stardom in Pakistan"The Nation। সংগ্রহের তারিখ ৩০ আগস্ট ২০১৬ 
  4. "Junoon completion of band's 20 years"The Express Tribune। ২১ আগস্ট ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুলাই ২০১৬ 
  5. Feras Ismail (১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬)। "New Yorker Momina Mustehsan takes South Asia by storm with 'Afreen'"। The American Bazaar। সংগ্রহের তারিখ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  6. "Coke Studio 9 artists list revealed"। The News Teller। ১৭ জুন ২০১৬। ১৮ জুন ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুন ২০১৬ 
  7. Maliha Rehman (৪ জুলাই ২০১৬)। "Here's what to expect from Coke Studio 9"DAWN Images। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুলাই ২০১৬ 
  8. Arka Sengupta (১৭ জুন ২০১৬)। "'Coke Studio Pakistan' undergoes major revamp in Season 9; artiste line-up revealed"International Business Times। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুন ২০১৬ 
  9. "Momina Mustehsan gets engaged to US based banker"। ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬Dunya News-এর মাধ্যমে। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]