মধুমতি (২০১১-এর চলচ্চিত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মধুমতি
মধুমতি ছবির ডিভিডি প্রচ্ছদ.jpg
চলচ্চিত্রের ডিভিডি কভার
পরিচালকশাহজাহান চৌধুরী
প্রযোজকফরিদুর রেজা সাগর
ইবনে হাসান খান (ইমপ্রেস টেলিফিল্ম)
রচয়িতারাবেয়া খাতুন (উপন্যাস)
শ্রেষ্ঠাংশেরিয়াজ
চৈতী
ইলোরা গহর
শহিদুল আলম সাচ্চু
সাবেরী আলম
সুরকারশেখ সাদী খান
চিত্রগ্রাহকহাসান আহমেদ
পরিবেশকইমপ্রেস টেলিফিল্ম
মুক্তি১৪ এপ্রিল, ২০১১
দেশ বাংলাদেশ
ভাষাবাংলা ভাষা

মধুমতি ২০১১ সালের ১৪ এপ্রিল মুক্তিপ্রাপ্ত একটি বাংলাদেশী চলচ্চিত্র। ছবিটি পরিচালনা করেছেন খ্যাতিমান পরিচালক শাহজাহান চৌধুরীরাবেয়া খাতুন এর জনপ্রিয় (উপন্যাস) 'মধুমতি' অবলম্বনে ছবিটি নির্মিত। ইমপ্রেস টেলিফিল্ম এর ছবি 'মধুমতি'তে শেখ সাদী খানের সুর ও সংগীত পরিচালনায় রয়েছে শ্রুতিমধুর কয়েকটি গান।[১] ছবির গল্পের মূল চরিত্র হলো আবু এই আবু চরিত্রে অভিনয় করেছেন রিয়াজ[২]। এছাড়াও ছবিতে গ্রামের একজন নারীর চরিত্রে অভিনয় করছেন ইলোরা গহর, 'লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার' চৈতী, শহিদুল আলম সাচ্চু, সাবেরী আলম সহ আরও অনেকে।[৩]

কাহিনী সংক্ষেপ[সম্পাদনা]

শহরের কলেজপড়ুয়া তরুণ 'আনু' (রিয়াজ) এক সময় গ্রামে গিয়ে তাঁত শিল্পের উন্নয়নে নিজেকে আত্মনিয়োগ করে। গত শতকের ষাটের দশকে বাংলাদেশের তাঁতশিল্পে ক্রান্তিকাল চলছিল। যন্ত্রচালিত বস্ত্র কারখানার কাছে আস্তে আস্তে হারিয়ে যেতে বসেছিল হস্তচালিত তাঁত। এ সময় তাঁতি সম্প্রদায়ের বিশ্ববিদ্যালয়-পড়ুয়া দুই যুবক-যুবতী আনোয়ার ও মিনারা (চৈতী) গ্রামে ফিরে তাঁতিদের সহযোগিতায় মনোযোগ দেয়। মিনারা তাদের সচেতন করার চেষ্টা করে। অন্যদিকে আনোয়ার প্রতিষ্ঠা করে সমবায় সমিতি। আর তাঁতিরা স্বপ্ন দেখে নতুন করে বাঁচার। স্বপ্নের পথে বাধা হয়ে দাঁড়ায় অসাধু লোকজন। তাঁতিদের স্বপ্ন পূরণের গল্প নিয়েই নির্মিত হয়েছে 'মধুমতি' চলচ্চিত্রটি। ---করুণ পরিণতির মধ্য দিয়ে আনু'র যবনিকাপাত ঘটে...।

শ্রেষ্ঠাংশে[সম্পাদনা]

  • রিয়াজ - আনু (আনোয়ার)
  • চৈতী - মিনারা
  • ইলোরা গহর -
  • শহিদুল আলম সাচ্চু -
  • সাবেরী আলম -
  • মাসুদ আখন্দ -
  • জিনিয়া -
  • নাজমুল খান -
  • সিবি জামান -

সংগীত[সম্পাদনা]

মধুমতি ছবির সংগীত পরিচালনা করেছেন প্রখ্যাত সংগীত পরিচালক শেখ সাদী খান। সুর ও সংগীত পরিচালনায় একটি গানের প্লে-ব্যাক ২০০৮-এর চ্যানেল আই সেরা কণ্ঠ প্রতিযোগিতার রানারআপ ইমরান, গানটির শিরোনাম 'এই যে নদী শুয়ে আছে'। এতে ৫টি গান রয়েছে ৩টি লিখেছেন নির্মাতা শাহজাহান চৌধুরী, ১টি কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ ও ১টি কবির বকুল। কণ্ঠ দিয়েছেন হাবিব , এসআই টুটুল, ইমরান, ঝিলিক।

গানের তালিকা[সম্পাদনা]

ট্র্যাক গান কণ্ঠশিল্পী গানের কথা
তোরা কে কে যাবি ভাই, বাইচ খেলিতে বড় বাড়ির নায় রাবেয়া খাতুন
এই যে নদী শুয়ে আছে জেগে আছে পানি ইমরান শাজাহান চৌধুরী।
এক যে ছিল অপরূপা শাজাহান চৌধুরী।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. 'ধনধান্য পুষ্পে ভরা' আমার প্রাণের তানপুরা তথ্যসুত্রঃ ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১০ দৈনিক কালের কণ্ঠ, তথ্যসংগ্রহঃ ৮ মার্চ ২০১১
  2. 'মধুমতি'র আবু চরিত্রে রিয়াজ[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ] তথ্যসুত্রঃ ৫ অক্টোবর ২০১০ দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন, তথ্যসংগ্রহঃ ৮ মার্চ ২০১১
  3. বড় পর্দায় ইলোরা গহরের ফেরা ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৫ মার্চ ২০১৬ তারিখে তথ্যসুত্রঃ দৈনিক সমকাল, তথ্যসংগ্রহঃ ৮ মার্চ ২০১১

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]