ভিয়া আপিয়া

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
রোমের ফোরো রোমানো থেকে ব্রিন্দিসি পর্যন্ত বিস্তৃত আপিয়া সড়ক

ভিয়া আপিয়া (ইতালীয় ভাষায়: Via Appia) প্রাচীন রোমান প্রজাতন্ত্রের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলোর একটি। সড়কটি মধ্য-ইতালির রোম শহরের সাথে অ্যাড্রিয়াটিক সাগরের তীরে অবস্থিত দক্ষিণ-পূর্ব ইতালির ব্রিন্দিসি শহরকে যুক্ত করেছিল। প্রথম শতকের রোমান কবি স্তাতিয়ুসের কবিতায় এই সড়ক সম্পর্কে বলা হয়েছে, "Appia teritur regina longarum viarum" বা "ভিয়া আপিয়া সুদীর্ঘ রাস্তাসমূহের রাণী"।[১]

রাস্তাটির নাম রাখা হয়েছিল রোমান প্রজাতন্ত্রে আদমশুমারি পরিচালনা ও গণ-নৈতিকতা দেখভালের দায়িত্বে নিয়োজিত কর্মকর্তা আপিয়ুস ক্লাউদিয়ুস কাইকুস (Appius Claudius Caecus)-এর নামানুসারে। তিনি ৩১২ খ্রিস্টপূর্বাব্দে সামনিয়ুম গোত্রের সাথে প্রজাতন্ত্রের যুদ্ধের সময় সামরিক প্রয়োজনে সড়কটির অনেকাংশ প্রথম নির্মাণ করেছিলেন। রোমান প্রজাতন্ত্র কাম্পানিয়া অঞ্চলের কাপুয়া শহরের অধিবাসীদের সাথে মিত্রতা স্থাপন করতে চাইলে সামনিয়ুম গোত্র বাঁধা দিয়েছিল। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সামনিয়ুম গোত্রের সাথে রোমানদের যুদ্ধ হয়। এ সময় দূরের সৈন্যদেরকে রোম থেকে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র সরবরাহ করার জন্যই প্রথমে রোম থেকে কাপুয়া পর্যন্ত একটি সড়ক নির্মাণ করা হয়েছিল। পরবর্তীতে এটি বর্ধিত করে ব্রিন্দিসি পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া হয়। ধারণা করা হয় সড়কটি রোমের ফোরো রোমানো থেকে শুরু হয়। ব্রিন্দিসিতে ভিয়া আপিয়ার শেষ প্রান্তে একটি স্তম্ভ নির্মাণ করা হয়েছিল যা এখনও অস্তিত্বশীল আছে।

সংঘটিত ঘটনাবলি[সম্পাদনা]

রোমান প্রজান্ত্রের বিরুদ্ধে দাসদের পক্ষ থেকে প্রথম বিদ্রোহ হয়েছিল স্পার্টাকাস-এর নেতৃত্বে। গ্ল্যাডিয়েটর ও দাসদের একটি বাহিনী নিয়ে স্পার্টাকাস রোমান সৈন্যদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে বেশ কয়েকটিতে বিজয়ীও হয়েছিলেন। অবশেষে আত্মরক্ষার জন্য দলবল নিয়ে রোম থেকে ব্রিন্দিসি পালিয়ে যাওয়ার সময় রোমান সৈন্যদের হাতে ধরা পড়ে যান। বিদ্রোহী সকল দাসদের রোমান সৈন্যবাহিনী ২০০ কিলোমিটার জুড়ে ভিয়া আপিয়ার দুই পাশে ক্রুশবিদ্ধ করে রেখেছিল।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় এই রাস্তায় জার্মান ও ইতালীয় অক্ষশক্তির সাথে মিত্রবাহিনীর যুদ্ধ হয়েছিল।

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

পশ্চিম রোমান সম্রাজ্যের পতনের পর রাস্তাটির ব্যবহার ফুরিয়ে যায়। পোপ পিয়ুস ৭ (১৭১৭ - ১৭৯৯) রাস্তাটির সংস্কার করেন। ১৭৮৪ সালে পুরাতন ভিয়া আপিয়ার সমান্তরালে আলবান পর্বত পর্যন্ত একটি নতুন ভিয়া আপিয়া নির্মাণ করা হয়। বর্তমানে ইতালিতে নতুন সড়কটির নাম ভিয়া আপিয়া নুয়োভা এবং পুরনোটির নাম ভিয়া আপিয়া আন্তিকা। রোমের কাছে পুরাতন আপিয়া সড়কের যে অংশটুকু আছে তা এখন সবার জন্য উন্মুক্ত একটি দর্শনীয় স্থান। রোমের সহস্রাব্দ উদযাপনের সময় এর অনেক সংস্কার সাধন করা হয়েছে। সড়কটির প্রথম ৩ মাইলে নিয়মিত গাড়ি চলে বলে তা দর্শনার্থীদের জন্য খুব একটা উপযুক্ত নয়। কিন্তু ৩ মাইলের পর ট্রাফিক খুব একটা নেই, এবং পায়ে হেঁটে এই অংশটি যে কেউ দেখতে পারেন। দ্বিতীয় মাইলেই দোমিনে, কুয়ো ভাদিস-এর গীর্জা।

১৯৫১ সালে রোমের চারপাশে গ্রান্দে রাক্কোর্দো আনুলারে নামক একটি বৃত্তাকার সড়ক নির্মাণের সময় ভিয়া আপিয়াকে দুই ভাগে ভাগ করে ফেলতে হয়েছিল। পরবর্তীতে অবশ্য এই সড়কের বর্ধনের সময় আপিয়ার নিচ দিয়ে সুড়ঙ্গ খনন করা হয়েছে বা উপর দিয়ে সেতু নির্মাণ করা হয়েছে। এ কারণে বর্তমানে কারাকাল্লার স্নানঘর থেকে শুরু করে ভিয়া আপিয়ার প্রায় ১০ মাইল পর্যন্ত পায়ে হেঁটে পর্যবেক্ষণ করা যায়। এখনও ভিয়া আপিয়াতে ইউরোপের সবচেয়ে দীর্ঘ সরল পথ রয়েছে।[২]

ভিয়া আপিয়ার প্রথম থেকে চতুর্থ মাইলের মধ্যে দর্শনীয় স্থানগুলো হচ্ছে:

  • পোর্তা সান সেবাস্তিয়ানো: প্রাচীন রোমের মুরা আউরেলিয়ানে (আউরেলীয় দেয়াল)-র একটি ফটক।
  • দোমিনে কুয়ো ভাদিস-এর গীর্জা: খ্রিস্টান ধর্মবিশ্বাস অনুসারে যিশু খ্রিস্টের শিষ্য সেন্ট পিটার মৃত্যুর ভয়ে রোম থেকে ভিয়া আপিয়া হয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় এই স্থানে যিশু তাকে দেখা দেন। সেন্ট পিটার জিজ্ঞাস করেন, "দোমিনে, কুয়ো ভাদিস?" অর্থাৎ "প্রভু, তুমি কোথায় চলেছ?"। উত্তরে যিশু বলেন, আমি রোমে যাচ্ছি পুনরায় ক্রুশবিদ্ধ হতে। এ কারণে সেন্ট পিটার আর রোম ত্যাগ করেন না এবং সম্ভবত রোমান সম্রাটের নির্দেশে তাকে রোম শহরেই ক্রুশবিদ্ধ করে মারা হয়। যিশুর সাথে সাক্ষাতের পৌরাণিক কাহিনী অনুসরণ করেই ভিয়া আপিয়ার পাশে এই গীর্জাটি নির্মাণ করা হয়েছিল।
  • পোপ কালিস্তো ১ কর্তৃক নির্মীত ভূগর্ভস্থ সমাধি।
  • সান সেবাস্তিয়ানো ফুয়োরি লে মুরা: একটি গীর্জা বা বাসিলিকা
  • চির্কো দি মাসেনজিয়ো: ৩০৬ থেকে ৩১২ খ্রিস্টপূর্বাব্দে রোমান সম্রাট মাসেনজিয়ো কর্তৃক ভিয়া আপিকার পাশে নির্মীত প্রাসাদ
  • রোমান অভিজাত ব্যক্তি কুইন্তো চেচিলিও মেতেল্লো ক্রেতিকো-র কন্যার সমাধি
  • কাপো দি বোভে: রোমান যুগের স্নানঘর

আলোকচিত্র সংগ্রহ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ELISABETTA POVOLEDO, "Past Catches Up With the Queen of Roads", The New York Times, ৫ই এপ্রিল, ২০০৮
  2. Giulio Magli, Possible astronomical references in the planning of the Great Hopewell Road