বিষয়বস্তুতে চলুন

ভালেরিপিয়েরিস বৃত্ত

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
উইঙ্কল ত্রি-অভিক্ষেপণে চিহ্নিত ভালেরিপিয়েরিস বৃত্ত, যেখানে ইংরেজিতে লিখা আছে, "এই বৃত্তের বাইরের চেয়ে এর ভিতরে বেশি লোক বাস করে।"

ভালেরিপিয়েরিস বৃত্ত[১][২][৩][ক] হলো বিশ্ব মানচিত্রে দক্ষিণ চীন সাগর-কেন্দ্রিক একটি বৃত্তাকার অঞ্চল যেটির ব্যাসার্ধ প্রায় ৪,০০০ কিলোমিটার (২,৫০০ মা) এবং এই অঞ্চলটিতে বিশ্বের অর্ধেকেরও বেশি লোক বাস করে।[১] এটির নামকরণ করা হয়েছে টেক্সাসের একজন দ্বিভাষী শিক্ষক কেন মায়ার্সের রেডিট ব্যবহারকারী নামানুসারে, যিনি ২০১৩ সালে প্রথম এই ঘটনাটির প্রতি মনোযোগ আকর্ষণ করেন।[৪] পরে মানচিত্রটি একটি মিমে পরিণত হয় এবং গণমাধ্যমে অসংখ্য রূপে দেখা যায়।[৫][৬][৭]

২০১৫ সালে বৃত্তটি ড্যানি কুয়াহ কর্তৃক পরীক্ষিত হয়, যিনি দাবিটি যাচাই করেন তবে তিনি জাপানের বেশিরভাগ অংশকে বাদ দিতে বৃত্তটিকে সামান্য সরান এবং আরও সুনির্দিষ্ট গণনা করেন ও মানচিত্র অভিক্ষেপের পরিবর্তে একটি বৈশ্বিক মডেল ব্যবহার করেন। তিনি হিসাব করেন যে, ২০১৫ সালের হিসাবে বিশ্বের জনসংখ্যার অর্ধেক মিয়ানমারের মং খেট শহরের ৩,৩০০-কিলোমিটার (২,০৫০ মা) ব্যাসার্ধের ভিতরে বসবাস করেন।[১]

বৃত্তের সবচেয়ে সাধারণ দৃশ্যে উইঙ্কেল ত্রি-অভিক্ষেপ ব্যবহার করা হয়েছে। যেটি মূলত মায়ার্স ব্যবহার করেছিলেন এবং io9[৮]টেক ইন এশিয়া-এ[৯] প্রকাশিত হয়।

  1. নামটির বাংলা প্রতিবর্ণীকরণের জন্য সাহায্য:আধ্বব/লাতিন-এর নিয়ম অনুসরণ করা হয়েছে

উদ্ধৃতি

[সম্পাদনা]